বিশেষ নিবন্ধ
 

বার্ধক্যের অধিকার

বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায়: মহাভারতের যুদ্ধে পাণ্ডবরা কৌরবদের পরাজিত করে হস্তিনাপুরসহ বিস্তৃত সাম্রাজ্যের অধিকারী হন। এই বিস্তৃত সাম্রাজ্যে পঞ্চপাণ্ডবের মা কুন্তীর স্থান হয়নি। তাঁকে বাণপ্রস্থে যেতে হয়। অর্থাৎ বার্ধক্যকালে সুখ শান্তি, আরাম-বিশ্রাম তাঁর জন্য নয়, নিঃসঙ্গ অসহায় অবস্থায় তাঁকে বাণপ্রস্থে যেতে হবে। এই ট্রাডিশন সর্বত্র বিরাজমান। দেশে-বিদেশে সর্বত্র আজ বার্ধক্যে উপনীত মানুষ চরম অসহায়। গর্ভধারিণী মা সন্তানকে মানুষ করেন, স্বামী সেবা করেন আর জীবনের শেষে তাঁদের অনেককে চলে যেতে হয় মথুরা, বৃন্দাবন বা কাশীতে, যেখানে ভিক্ষাবৃত্তি একমাত্র সম্বল। যাঁদের অল্পবিস্তর অর্থ আছে, তাঁদের অনেকে আবার জীবনের শেষ অংশ বৃদ্ধাশ্রমে অতিবাহিত করেন, চোখে জল নিয়ে মৃত্যুর প্রতীক্ষা করেন।
 স্কুলের শিক্ষিকা ক্যানসারে আক্রান্ত, স্বামীর বুকে পেসমেকার তবুও আত্মীয়-স্বজনের মধ্যে থাকার অধিকার নেই, শেষপর্যন্ত গঙ্গার তীরবর্তী একটি বৃদ্ধাশ্রমে ঠাঁই মিলল। সেখানেও যন্ত্রণার শেষ নেই, বৃদ্ধাশ্রম ছেড়ে চলে যাওয়ার কথা বললেই বৃদ্ধাশ্রমের মালিক ক্ষিপ্ত, টাকা ফেরত দেবে না বলে হুমকি। শেষ পর্যন্ত কিছু প্রবীণ নাগরিকের সহায়তায় ও প্রশাসনের উদ্যোগে দম্পতি অর্থ ফেরত পেলেন।
 বাবার অনেক সম্পত্তি ছিল, কিন্তু যে কোনও কারণেই হোক মেয়ের বিয়ে দিতে পারেননি। বাবা মারা গিয়েছেন, অবিবাহিত মহিলা আজ ষাটোর্ধ্ব। সম্পত্তি থেকে আত্মীয়রা বঞ্চিত করেছেন। রুগ্‌ণ অসুস্থ শরীর নিয়ে মানকুণ্ডু স্টেশনে এক গ্লানিময় জীবনযাপনে বাধ্য হচ্ছেন। তাঁর হয়ে ‘প্রবীণ নাগরিক অধিকার রক্ষামঞ্চ’ মহকুমা শাসকের কাছে বিচার চেয়ে দরখাস্ত জমা করেছে কিন্তু প্রশাসন বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন, আর মহিলা মানকুণ্ডু স্টেশনে মৃত্যুর জন্য প্রতীক্ষারত।
 পেশায় শিক্ষিকা, ছোটবেলায় স্বামী মারা গিয়েছেন। ছেলেকে মানুষ করেছেন। অর্থের অভাব নেই কিন্তু অভাব আছে পরিচর্যা আর সহানুভূতির। ছেলে দেখাশোনা করে না, শিক্ষিকার সমস্ত গায়ে ঘা হয়ে গিয়েছে, দেখার কেউ নেই। স্কুলের সহকর্মী, ছাত্রছাত্রীরা এগিয়ে এসে সাহায্য করতে গিয়ে শিক্ষিকার আত্মীয়দের রোষের মুখে পড়লেন। স্থানীয় মানুষরা থানায় অভিযোগ করল। পুলিশ নির্বিকার। কারণ অজ্ঞাত। মহকুমা শাসকের কাছে দরবার করা হল, প্রশাসন কিছুটা উদ্যোগ নিল কিন্তু বেশিদিন আর উদ্যোগ নিতে হল না, কারণ সম্মানিত শিক্ষিকা চরম লাঞ্ছনার থেকে নিষ্কৃতি পেলেন মৃত্যুর হাত ধরে। বার্ধক্যকালীন সমস্যা আজ পৃথিবীজুড়ে। ১৯৪৮ সালে রাষ্ট্রসংঘে আন্তর্জাতিকভাবে বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের জীবনের দুরবস্থাকে দূর করার জন্য আলোচনা আরম্ভ হয় এবং বারবার আলোচনার পর শেষ পর্যন্ত ১৯৯১ সালে ১৬ ডিসেম্বর রাষ্ট্রসংঘ ১ অক্টোবর বয়স্ক মানুষদের অধিকার সংক্রান্ত ১৮ দফা সনদ ঘোষণা করে এবং প্রত্যেক দেশকে এই সনদ অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন জানানো হয়। রাষ্ট্রসংঘ ‘বিশ্ব বয়স্ক দিবস’ ঘোষণা করেছে এবং ১৯৯৯ বছরটি আন্তর্জাতিক বয়স্ক নাগরিক বৎসর হিসাবে পালিত হয়।
ভারতের সংবিধানে বয়স্ক নাগরিকদের জীবনযাপন নিশ্চিন্ত করার জন্য ও ন্যূনতম সুযোগ-সুবিধা পাওয়ার অধিকার নিয়ে নানা কথা বলা হয়েছে। ভারতের মৌলিক অধিকার বিষয়টি নিয়ে আলোচনার সময় মহামান্য সুপ্রিম কোর্ট ঘোষণা করেছে যে বেঁচে থাকার অধিকার মানে কেবলমাত্র পশুর জীবন অতিবাহিত করা নয়, বেঁচে থাকার অধিকার মানে সম্পূর্ণ মর্যাদাপূর্ণ জীবনযাপনের অধিকার। এই মুহূর্তে ভারতের জনসংখ্যার ৮.৬ শতাংশ নাগরিক ৬০ বছরের অধিক বয়স্ক, তার মধ্যে মহিলাদের সংখ্যাই অপেক্ষাকৃত বেশি। রাষ্ট্রসংঘের বার্তার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেও ভারতের সংবিধানে ঘোষিত নির্দেশাত্মক নীতির পরিপ্রেক্ষিতে ২০০৭ সালে ভারতে বয়স্ক নাগরিক ও পিতামাতাদের দেখার জন্য একটি আইন প্রণীত হয়েছে The Maintenance and Welfare of Parents and Senior Citizens Act, 2007.
ওই আইনে সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছে যে ভারতে প্রত্যেকটি বয়স্ক নাগরিকের মর্যাদাসহ বেঁচে থাকার অধিকার রয়েছে এবং এই অধিকার লঙ্ঘিত হলে প্রশাসন উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। কেন্দ্রের ‘সামাজিক ন্যায় ও ক্ষমতায়ন’ (Ministry of Social Justice and Empowerment) দপ্তর এই আইনটি কার্যকরী করার জন্য দায়িত্বশীল এবং প্রত্যেক রাজ্যে সামাজিক সুরক্ষা কার্যকরী করার জন্য যে সমস্ত দপ্তর রয়েছে, ওই দপ্তর ২০০৭ সালের আইনটিকে রাজ্যস্তরে কার্যকরী করবে। এই আইনে কয়েকটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ অংশ যথাক্রমে...
১) কোনও বয়স্ক নাগরিক আক্রান্ত হলে মহকুমা শাসকের কাছে তাঁর দুর্দশার কথা জানাতে
পারবেন, এমনকী সেই বয়স্ক নাগরিক নিজে না পারলেও যে কোনও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা বা ব্যক্তি বয়স্ক নাগরিকদের হয়ে মহকুমা শাসকের কাছে দরখাস্ত করতে পারেন।
২) প্রত্যেক বয়স্ক নাগরিককে দেখাশোনার জন্য ও তাঁর পরিচর্যার জন্য তাঁর সন্তান আত্মীয়রা বাধ্য, অন্যথায় প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবে, যাতে বয়স্ক নাগরিক সুস্থ ও মর্যাদাসম্পন্ন জীবনযাপন করতে পারেন।
৩) রাজ্য সরকারকে প্রত্যেক জেলায় কমপক্ষে ১৫০টি শয্যা বিশিষ্ট একটি বৃদ্ধাশ্রম স্থাপন করতে হবে যে বৃদ্ধাশ্রমে প্রান্তিক ঘরের মানুষরা শেষ জীবন অতিবাহিত করতে পারেন।
৪) রাজ্য সরকার বৃদ্ধাশ্রম কীভাবে চলবে সেই ব্যাপারে একটি রূপরেখা তৈরি করবে যে রূপরেখায় বয়স্ক নাগরিকদের মর্যাদাপূর্ণভাবে বেঁচে থাকার সমস্ত রসদ উল্লিখিত থাকবে। কেবলমাত্র রূপরেখা তৈরি নয়, রাজ্য সরকারকে রূপরেখা কার্যকরী করার জন্য সক্রিয় ভূমিকা নিতে হবে।
প্রসঙ্গত উল্লেখ করা যেতে পারে, সাম্প্রতিককালে তথ্য জানার অধিকারের ভিত্তিতে রাজ্য সরকার লিখিতভাবে জানিয়ে দিয়েছে যে এই মুহূর্তে বৃদ্ধাশ্রমগুলির পরিচালন সংক্রান্ত কোনও রূপরেখা রাজ্য সরকার তৈরি করেনি। সাম্প্রতিককালে বেসরকারি নার্সিংহোমের কাজকর্ম নিয়ে অনেক কথাবার্তা শোনা যাচ্ছে, এমনকী আইন তৈরি হয়েছে ও কমিশন নজরদারি আরম্ভ করেছে। তাহলে বৃদ্ধাশ্রমগুলি সরকারি নজরদারির বাইরে থাকবে কেন? এই প্রশ্ন আজ পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত বয়স্ক নাগরিকের অন্যতম জিজ্ঞাসা। পশ্চিমবঙ্গের বুকে যত্রতত্র বৃদ্ধাশ্রম গড়ে উঠেছে কিন্তু সেই বৃদ্ধাশ্রমে বয়স্ক নাগরিকরা কীভাবে বেঁচে আছেন কেউ জানেন না। তাঁরা এই নিঃসঙ্গ গ্লানিময় জীবন অতিবাহিত করছেন আর প্রতীক্ষায় আছেন কবে মৃত্যু তাঁদের নিষ্কৃতি দেবে। কিন্তু এই অবস্থা কখনওই শেষ কথা হতে পারে না, প্রবীণ নাগরিকও সচেতন হচ্ছেন তাঁদের মর্যাদাপূর্ণ বেঁচে থাকার অধিকারকে কার্যকরী করার জন্য সংগঠিত হচ্ছেন বা কেউ কেউ বিচার বিভাগের দ্বারস্থ হচ্ছেন বার্ধক্যের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে।

লেখক রাজ্য পরিবেশ দপ্তরের প্রাক্তন মুখ্য আইন আধিকারিক
21st  April, 2017
শিবাজি রাও গায়কোয়াড়ের দোলাচল
সৌম্য বন্দ্যোপাধ্যায়

 সাতষট্টি বছরের একজন মানুষ শেষ পর্যন্ত কী সিদ্ধান্ত নেবেন অথবা নেওয়া উচিত তা নিয়ে আমি বেশ ধন্দে পড়েছি। তবে আমার এই দোলাচল মোটেই আহামরি কিছু নয়, বড় যা তা হল একটা গোটা রাজ্যের মানুষের তাঁর দিকে ড্যাব ড্যাব করে চেয়ে থাকা। বিপুল দোলাচলে রাজ্যের সবার মনে। বিশদ

25th  June, 2017
রথযাত্রায় শ্রীচৈতন্য ও শ্রীরামকৃষ্ণ
চৈতন্যময় নন্দ

 নীলাচলে দারুব্রহ্ম জগদীশ জগন্নাথদেবের সবচেয়ে বড় বিজয়োৎসব রথযাত্রা। আদিকাল থেকে এই সমারোহ চলে এসেছে এবং একে কেন্দ্র করে বহু ইতিবৃত্তের সৃষ্টি হয়েছে। আষাঢ় মাসের শুক্লা দ্বিতীয়া তিথিতে পুরীতে শ্রীমন্‌ জগন্নাথ রথে আরোহণ করেন।
বিশদ

24th  June, 2017
অনুপ্রবেশকারীদের মন্দিরে আশ্রয় প্রসঙ্গে
আলোলিকা মুখোপাধ্যায়

 নিউইয়র্ক শহরের কুইনস এলাকায় সমুদ্রের ধার ঘেঁষে রক অ্যাওয়ে বিচ। একদিন দেখা গেল মহাসাগরের ঢেউয়ের মাথায় নাচতে নাচতে ভাঙা নারকোল ভেসে আসছে। নারকোলের পিছু পিছু ইতস্তত বিক্ষিপ্ত গাঁদাফুলের মালা। সাহেব মেমরা সাঁতার কাটতে নেমে নারকোলের আধভাঙা মালা, পচা গাঁদার মালা দেখে জলপুলিশকে নালিশ করল। বিশদ

24th  June, 2017
সাঁওতাল বিদ্রোহ এবং সমাজের পরিবর্তন
বিষ্ণুপদ হেমরম

 ভারতের আদিবাসী জনগোষ্ঠীগুলির মধ্যে সাঁওতালরাই সংখ্যাগরিষ্ঠ। ব্রিটিশ ভারতে জল-জঙ্গল-জমিনের উপর অধিকার অক্ষুণ্ণ রাখতে এবং শোষণ ও নিপীড়নের প্রতিবাদে তারা সরকারের বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছিল। সেটা আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছিল ১৮৫৫ সালের ৩০ জুন, বর্তমান সাঁওতাল পরগনার ভাগ্‌না঩ডিহির মাঠে। বিশদ

23rd  June, 2017
পাহাড় ও বাঙালি
সমৃদ্ধ দত্ত

 বিজেপি রাজ্য শাখা তথা তাদের কর্মী সমর্থকরা এখনও স্পষ্ট করে বলছেন না সামান্য একটা সিদ্ধান্ত। সেটি হল তাঁরা কি গোর্খাল্যান্ড সমর্থন করেন, নাকি করেন না? সহজ প্রশ্ন। সহজ উত্তর। অথচ সোজা উত্তর পাওয়া যাচ্ছে না। ভাসা ভাসা কথা। কারণ বিজেপি রাজ্য শাখা ও কর্মী সমর্থকরা অপেক্ষা করছেন তাঁদের হাইকমান্ড কী ঠিক করবেন তার উপর। একবার চিন্তা করে দেখুন, আমরা বাঙালি, আমাদের রাজ্য থেকে আমাদের প্রিয় দার্জিলিংকে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে কি না তা ঠিক করতেও বিজেপির বাংলা শাখা দুজন গুজরাতের নেতার দিকে তাকিয়ে আছে। বিশদ

23rd  June, 2017
দুর্নীতির পরিবেশ, পরিবেশে দুর্নীতি
বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায়

 ১৯৭০ দশকের বিশিষ্ট সমাজবিজ্ঞানী ও অর্থনীতিবিদ Gunnar Mydral-এর ‘এশিয়ান ড্রামা’ বইটির মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল, এশিয়ার বুকে বিভিন্ন দেশে পরিকল্পনাগুলি ব্যর্থ হবার একটি অন্যতম কারণ দুর্নীতি। বিশদ

21st  June, 2017
এ যুগের নীলকণ্ঠদের মুক্তির উপায় কী?
স্বপন মণ্ডল

 পুরাণ মতে সমুদ্র মন্থনের মতো কষ্টসাধ্য কাজে সুরাসুর উভয়েই হাত লাগিয়েছিল। সমুদ্র মন্থনে অমৃতের সন্ধান যেমন পাওয়া গেল গরলও উঠে এল। অমৃতের ভাগীদার অনেকে কিন্তু গরলের ভাগীদার কেউ হতে চাইল না। কিন্তু এ গরল এমন গরল যে ধরিত্রীর যেখানে পড়বে সেখানেই বিষাক্ত হয়ে যাবে। বিশদ

21st  June, 2017
যোগদিবস: ভারতের লক্ষ্মীলাভের মস্ত সুযোগ
হরলাল চক্রবর্তী

 ২০১৫ সাল থেকে বিশ্বজুড়ে ২১ জুন মহা ধুমধামে ‘বিশ্ব-যোগদিবস’ পালিত হচ্ছে। সারা বিশ্বের প্রায় ২০০টি দেশ যোগদিবসের স্বীকৃতি দিয়েছে, ১৮০টি দেশ যোগে অংশগ্রহণ করেছে, এর মধ্যে কিছু ইসলামিক দেশও আছে। আশা করা যায়, এ বছর তা আরও বেশি সাফল্য পাবে।
বিশদ

20th  June, 2017



একনজরে
সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: উচ্চ মাধ্যমিকের খাতা মূল্যায়নে পরীক্ষকদের ফাঁকি ধরতে কড়া পদক্ষেপ করছে সংসদ। এ জন্য পরীক্ষার খাতা পুনর্মূল্যায়নে (পিপিএস এবং পিপিআর) নয়া নির্দেশিকা জারি করল উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। যদি দেখা যায়, কোনও খাতায় ৯ নম্বরের বেশি বাড়ছে বা ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: অমাবস্যার কোটালে সাগর অশান্ত হয়ে যাওয়াতে অধিকাংশ ইলিশ মাছ ধরার ট্রলার ফিরে এসেছে। ফলে গত তিনদিন ধরে বাজারে ইলিশের জোগান কমে গিয়েছে। মৎস্য বিভাগ সূত্রে জানা গিয়েছে, ইলিশ মাছ ধরার অনুকূল আবহাওয়া এখন সাগরে। পুবালি ...

সংবাদদাতা, কাঁথি: কাঁথির কাঁচলাগেড়িয়া গ্রামের অপহৃতা এক নাবালিকাকে উদ্ধার করেছে কাঁথি মহিলা থানার পুলিশ। উদ্ধার হওয়া নাবালিকাকে রবিবার কাঁথি মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক তার গোপন জবানবন্দি রেকর্ড করেন। ...

বিএনএ, বারাকপুর: রবিবার সকালে চাকদহ থানার পালপাড়ায় একটি কারখানায় আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। জানা গিয়েছে, শ্যামল দাস নামে এক ব্যক্তি বাড়ি ভাড়া নিয়ে চুড়িদার, নাইটি তৈরির কারখানা করেন। সেই কারখানায় এদিন সকালে আগুন ধরে যায়। খবর দেওয়া হয় দমকল দপ্তরে।  ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের মানসিক স্থিরতা রাখা দরকার। প্রেম-প্রণয়ে বাধাবিঘ্ন থাকবে। তবে নতুন বন্ধু লাভ হবে। সাবধানে পদক্ষেপ ... বিশদ



ইতিহাসে আজকের দিন

 ১৯০৩- ইংরেজ সাহিত্যিক জর্জ অরওয়েলের জন্ম
১৯৬০- কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্তের মৃত্যু
১৯৭৪- অভিনেত্রী করিশ্মা কাপুরের জন্ম
১৯৭৫- প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী দেশে জরুরি অবস্থা জারি করলেন
২০০৯- মার্কিন পপ সংগীত শিল্পী মাইকেল জ্যাকসনের মৃত্যু

25th  June, 2017



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.৭৫ টাকা ৬৫.৪৩ টাকা
পাউন্ড ৮০.৬৪ টাকা ৮৩.৪২ টাকা
ইউরো ৭০.৭৬ টাকা ৭৩.২৮ টাকা
24th  June, 2017
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,২২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৭,৭২৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,১৪০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,২০০ টাকা
25th  June, 2017

দিন পঞ্জিকা

১১ আষাঢ়, ২৬ জুন, সোমবার, তৃতীয়া রাত্রি ১০/১২, পুষ্যানক্ষত্র রাত্রি ৯/২৩, সূ উ ৪/৫৭/৫২, অ ৬/২০/৪২, অমৃতযোগ দিবা ৮/৩১-১০/১৮ রাত্রি ৯/১০-১২/০ পুনঃ ১/২৫-২/৫০, বারবেলা ৬/৩৮-৮/১৯ পুনঃ ৩/০-৪/৪০, কালরাত্রি ১০/২০-১১/৪০। ইদুল ফিতর
১১ আষাঢ়, ২৬ জুন, সোমবার, তৃতীয়া রাত্রি ২/০/৩১, পুষ্যানক্ষত্র রাত্রি ১/৩৯/৪, সূ উ ৪/৫৫/২৪, অ ৬/২২/১৭, অমৃতযোগ দিবা ৮/৩০/৩৪-১০/১৮/৯ রাত্রি ৯/১১/৬-১১/৫৯/৫৬, ১/২৪/২১-২/৪৮/৪৬, বারবেলা ৩/১/৩৪-৪/৪১/২৬, কালবেলা ৬/৩৬/১৬-৮/১৭/৭, কালরাত্রি ১০/১৯/৪২-১১/৩৮/৫০। ইদুল ফিতর
১ শওয়াল

ছবি সংবাদ


এই মুহূর্তে
শিলিগুড়িতে গৃহবধূ খুন, স্বামীসহ আটক ৩
শিলিগুড়ির সূর্য সেন কলোনিতে গৃহবধূকে খুনের অভিযোগে স্বামীসহ তিনজনকে আটক করা হল। রবিবার রাতে শৌচাগার থেকে শিখা চক্রবর্তী নামে মহিলার রক্তমাখা দেহ উদ্ধার হয়। মহিলার ভাই মৃদুলকান্তি দাস জানান, এদিন রাতে জামাইবাবু শান্তনু চক্রবর্তী তাঁকে ফোন করে বাড়িতে ডাকেন। তিনি বাড়িতে গিয়ে তাঁর দিদির দেহ উদ্ধার করেন। কীভাবে তাঁর দিদির মৃত্যু হল তাঁর সদুত্তর দিতে পারেনি অভিযুক্ত। তাঁর আরও অভিযোগ, শান্তনু চক্রবর্তীর আগেও একবার বিয়ে হয়েছিল। প্রথম পক্ষের স্ত্রীকেও হত্যা করেছিল সে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। আটক করা হয়েছে মৃতার স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়িকে।

12:20:00 AM

ভারত ৩১০/৫ (৪৩ ওভার)  

25-06-2017 - 11:47:24 PM

ভারত ১৯২/১ (৩০ ওভার) 

25-06-2017 - 10:34:21 PM

ভারত ৯৫/০ (১৫ ওভার) 

25-06-2017 - 09:38:36 PM

ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ফের বৃষ্টির জেরে ওভার সংখ্যা ৪৫ থেকে কমে দাঁড়াল ৪৩

25-06-2017 - 08:27:40 PM

নেদারল্যান্ডস সফর সেরে কলকাতায় ফিরলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 

25-06-2017 - 08:21:00 PM