রাজ্য

জনপ্রিয়তা হারালে পদ ছাড়ুন, মন্ত্রী-বিধায়কদের তোপ অভিষেকের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ‘পারফরম্যান্স হল প্রথম এবং সর্বশেষ মাপকাঠি।‌ দল আপনাকে যে পদে বসিয়েছে, তার পালন দায়িত্বের সঙ্গে করতে হবে। পদে থাকবেন কিন্তু নিজের এলাকায় জনপ্রিয়তা হারাবেন, এটা কাজের কথা নয়। পারফর্ম করুন, নয়তো পদ ছাড়ুন।’ দলীয় নেতা-মন্ত্রী-বিধায়কদের উদ্দেশে এই দ্ব্যর্থহীন বার্তা তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কমান্ড স্পষ্ট বুঝিয়ে দিয়েছেন, ‘জনপ্রতিনিধিদের মূল কাজই হল নাগরিক পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া। সেই কাজ করতে পারছেন না বলেই এলাকার মানুষ আপনার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। তাহলে পদ আঁকড়ে থাকার যোগ্যতাই আপনার নেই।’ 
লোকসভা ভোটের ফল নিয়ে কাঁটাছেঁড়া শুরু হয়েছে তৃণমূলের অন্দরে। এবার তৃণমূল ২৯টি আসন জিতলেও সন্তুষ্ট নয় শীর্ষ নেতৃত্ব। তাঁরা মনে করছেন, সাংগঠনিক দুর্বলতা মেরামত করা গেলে আরও কয়েকটি আসনে জয় সম্ভব ছিল। এই বিশ্লেষণেই জানা যাচ্ছে, ভোটের ফলের নিরিখে রাজ্যের একাধিক মন্ত্রী, বিধায়ক, পুরসভার চেয়ারম্যান থেকে পঞ্চায়েত স্তরের জনপ্রতিনিধিরা নিজেদের এলাকাতেই বিজেপির তুলনায় পিছিয়ে পড়েছেন। বিশেষত শহরাঞ্চলে। দু’বছরের মধ্যেই বিধানসভা নির্বাচন। এই পরিস্থিতিতে জনপ্রতিনিধিদের কাজকর্মে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ‘ঢিলেমি’ মেনে নিতে পারছে না তৃণমূল নেতৃত্ব। তাই অভিষেকের সুস্পষ্ট মত, ‘ওড়িশার দিকে তাকান। বিজু জনতা দলের যা অবস্থা হয়েছে, তার থেকে শিক্ষা নিতে হবে। কাজ করুন। না পারলে পদ থেকে সরে যান। নিজেদের এলাকায় পিছিয়ে পড়ার অর্থ, আপনাকে যাঁরা এক সময় ভোট দিয়েছিলেন, তাঁরাই এখন আর আপনার উপর সন্তুষ্ট নন।’ তৃণমূলে নবজোয়ার কর্মসূচিতে ৫১ দিন কোচবিহার থেকে কাকদ্বীপ পর্যন্ত সাধারণ মানুষের দুয়ারে পৌঁছেছিলেন অভিষেক। শুনেছিলেন সমস্যা, অভাব-অভিযোগের কথা। প্রশাসনের সহায়তায় সমাধানও করেছিলেন। এই প্রেক্ষাপট তুলে ধরেছেন তিনি। ঘনিষ্ঠ মহলে অভিষেক জানিয়েছেন, দল কাউকে মন্ত্রী করলে সেই পদের মর্যাদা রাখতে হবে। পদ পেয়েছেন বলেই তা শুধুই আঁকড়ে ধরে থাকলে চলবে না। মানুষের জন্য সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যেতে হবে। পরিষেবার উপর কিছু হয় না। আম জনতাকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি যে কোনও মূল্যে রক্ষা করতে হবে। এটা প্রত্যেক জনপ্রতিনিধির কর্তব্য।
শারীরিক অসুস্থতার কারণে দলীয় কর্মকাণ্ড থেকে সাময়িক ‘বিরতি’ নিতে চলেছেন অভিষেক। চিকিৎসার জন্য প্রথমে কলকাতায়, আর তারপর দেশের বাইরে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কথা রয়েছে তাঁর। ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, প্রায় মাস দুয়েক ‘বিরতি’ নেবেন তিনি। তবে এই সময়ে অভিষেক নিজস্ব সোর্স মারফত দল এবং সাধারণ মানুষের সমস্যার খোঁজখবর রাখবেন। তার আগে আজ, শুক্রবার ডায়মন্ডহারবার লোকসভা কেন্দ্রে গিয়ে সাধারণ মানুষকে ধন্যবাদ জানাতে চান অভিষেক। আমতলায় তাঁর একটি কর্মসূচি রয়েছেন। কর্মীদের সঙ্গেও মিলিত হবেন তিনি।
1Month ago
কলকাতা
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

গুরুজনের থেকে অর্থকড়ি লাভ হতে পারে। স্বার্থান্বেষী আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে দূরত্ব রেখে চলুন। মনে চাঞ্চল্য।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮২.৮১ টাকা৮৪.৫৫ টাকা
পাউন্ড১০৬.৫৫ টাকা১১০.০৬ টাকা
ইউরো৮৯.৫৫ টাকা৯২.৭১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা