রাজ্য

সভাপতির সঙ্গে বঙ্গ বিজেপি’র শীর্ষ সাংগঠনিক পদেও বদলের সম্ভাবনা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বঙ্গ বিজেপির নয়া রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বনে যাওয়ায় খুব বেশিদিন আর রাজ্য সভাপতির পদে থাকতে পারবেন না সুকান্ত মজুমদার। বিজেপিতে এখন জোর গুঞ্জন, বঙ্গ ইউনিটের দ্বিতীয় শীর্ষ সাংগঠনিক পদে কে বসতে চলেছেন? অর্থাৎ বঙ্গ বিজেপির পরবর্তী সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) পদে কার শিকে ছিঁড়বে। প্রসঙ্গত, সর্বভারতীয় কিংবা রাজ্যগুলিতে এই একটি মাত্র পদ রয়েছে যেটিতে কোনও ভোটাভুটি ছাড়াই সরাসরি মনোনীত করা হয়। রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের  (আরএসএস) বাছাই করা ব্যক্তিরাই এই পদে বসেন। গত বিধানসভার আগে থেকে এখনও পর্যন্ত বঙ্গ বিজেপির এই গুরুদায়িত্বে রয়েছেন অমিতাভ চক্রবর্তী। এই পর্বের মাঝেই পঞ্চায়েত ও পুরসভা ভোটেও বিজেপি মুখ থুবড়ে পড়েছিল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর সহ একাঝাঁক বিজেপি নেতা-মন্ত্রীরা প্রকাশ্যে ও দলের অন্দরে অমিতাভবাবুর অপসারণে সরব হয়েছিলেন। খোদ কলকাতায় দলের সংগঠন সম্পাদকের বিরোধিতায় বহুবার আন্দোলন-বিক্ষোভ হয়েছিল। এখন লোকসভা ভোটের ময়নাতদন্তে অমিতাভবাবুর ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। খোদ রাজ্য সভাপতি ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন, সংগঠনের দায়িত্ব থাকা নেতারা হাওয়া খেয়ে ঘুরে বেড়াবে, আর বিপর্যয়ের যাবতীয় দায় তাঁকে বইতে হবে। এমনটা তিনি মেনে নেবেন না।
আরএসএস সূত্রের খবর, অমিতাভবাবুর ভূমিকা নিয়ে ক্ষুব্ধ খোদ সঙ্ঘ। ‘বিচার পরিবারের’ এক সক্রিয় সদস্য হিসেবে বিজেপিতে কাজ করতে গিয়ে নানা ধরনের ‘কালি’ লেগেছে এবিভিপি’র এই প্রাক্তনীর। নিজের ‘কাছের লোক’দের নিয়ে রাজ্য তথা জেলা কমিটি তৈরি করে গত চারবছর বিজেপিতে কার্যত ‘মোচ্ছব’ চালানোর অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। এমনকী দলবদলু এক শীর্ষ নেতার কাছে পুরোপুরি আত্মসমর্পণ করে বিজেপির গোটা সংগঠনের মেরুদণ্ড ভেঙে দেওয়ার অভিযোগও সামনে আসছে। এ প্রসঙ্গে আরএসএস’র এক অধিকারী বলেন, কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) বিএল সন্তোষকে ‘ম্যানেজ’ করে বর্তমান রাজ্য কমিটির কয়েকজন পদাধিকারী টিকে রয়েছেন। জগতপ্রকাশ নাড্ডার সাথে সন্তোষের বিদায়ও আসন্ন। বিষয়টি জানার পর থেকেই কেশব ভবনে ঘনঘন আসা যাওয়া করছেন বিজেপির বহু পদাধিকারী। কিন্তু আমরা বিকল্প লোক বিজেপিতে পাঠানোর জন্য কিছু নাম নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রাথমিক আলোচনা সেরেছি। স্বচ্ছ ভাবমুর্তি ও রাজনৈতিক পোক্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া ক্ষমতা রয়েছে, এমন কাউকেই সঙ্ঘ থেকে বিজেপিতে পাঠানো হবে। যিনি সবাইকে নিয়ে চলতে পারবেন। পার্টিতে গোষ্ঠীবাজি বন্ধ করতে উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে সক্ষম। এখন দেখার, কবে বঙ্গ বিজেপির শীর্ষ এই সাংগঠনিক পদে রদবদল হয়।      
1Month ago
কলকাতা
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

গুরুজনের থেকে অর্থকড়ি লাভ হতে পারে। স্বার্থান্বেষী আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে দূরত্ব রেখে চলুন। মনে চাঞ্চল্য।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮২.৮১ টাকা৮৪.৫৫ টাকা
পাউন্ড১০৬.৫৫ টাকা১১০.০৬ টাকা
ইউরো৮৯.৫৫ টাকা৯২.৭১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা