Bartaman Patrika
বিশেষ নিবন্ধ
 

চল্লিশ বছর: একটি সত্যি রূপকথা
সমৃদ্ধ দত্ত

কৃষ্ণনগর থেকে বাসে  কয়েক ঘণ্টার জার্নির পর করিমপুর। তারপর সেখান থেকে শিকারপুর। এবার যেতে হবে ভ্যানে চরমেঘনা। ভারতীয় গ্রামের অনেক জমি বাংলাদেশের এলাকা দিয়ে ঘেরা অংশে পড়ে গিয়েছে। যে ভূমিকে বলা হয় ছিটমহল। ফেন্সিং শুরু হয়েছে। আর যেখানে সীমান্তে সেই ফেন্সিং হয়ে গিয়েছে, সেখানে দিনের দুটি নির্দিষ্ট সময়ে ওই জমিতে যাওয়া এবং সেখান থেকে ফেরার সুযোগ মিলবে। অর্থাৎ ওই দুবার মাত্র ফেন্সিং এর গেট খুলবে। এ এক মহাসমস্যা। 
সকালে সারাদিনের মতো খাবারদাবার চাষের সরঞ্জাম নিয়ে এই ভারতীয় এলাকার কৃষকদের চলে যেতে হয় নিজের জমিতে ওই ঩গেট পেরিয়ে বাংলাদেশের দিকে নিজেদের জমিতে  চাষ করতে। আবার বিকেলে চারটের সময় গেট খুলবে। তার মধ্যে চাষ সেরে ফিরতে হয়। অর্থাৎ নিজের জমিতে যখন তখন যে যাওয়া যাবে এমন নয়। বিএসএফ হেনস্তা করে। আবার বি ডি আরের পক্ষ থেকে হুমকি। এই সংবাদ সংগ্রহের জন্য যেতে হয়েছিল ওই চরমেঘনা অঞ্চলে। ১৯৯৪।  
গেট পেরিয়ে চাষ করতে যাওয়ার আগে এক 
যুবক কৃষক বলেছিলেন, আমার বাবার সঙ্গে ডোমকলে একবার দেখা হয়েছিল বরুণবাবুর। মুক্তিযুদ্ধের টাইমে। দু একটা কথা নাকি জেনেছিলেন এসব এলাকার সম্পর্কে। সেই থেকে বাবা ওনার ভক্ত। খবরের কাগজ তো নিয়মিত কেনা হয় না। তবে 
বাবার আজও একটা অভ্যাস হল তেহট্টে গিয়ে একটা পুরনো কাগজ নেওয়ার দোকানে  বেছে বেছে ওনার লেখা যেদিন  থাকে, সেগুলো সস্তায় কিনে আনা। সেই থেকে পড়া হয়।
করিমপুরেরই একটি গ্রামের মানুষ বলেছিলেন, তাঁদের গ্রামের বেশিরভাগ ছেলেপিলের নাম ‘বনমালী’, ‘জঙ্গোলি’, ‘পথিক’ ইত্যাদি। কেন? কারণ নিকটবর্তী প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র কিছুটা দূর গ্রাম থেকে। আর প্রসবযন্ত্রণা না উঠলেও আগে থেকেই হাসপাতালে গিয়ে ভর্তি হয়ে থাকা এবং সময়মতো সন্তান হওয়া, এরকম শহুরে ব্যবস্থার সঙ্গে প্রত্যন্ত গ্রামবাসী তেমন পরিচিত নয়। তাই প্রসবযন্ত্রণার আভাস পেলে তখনই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া দস্তুর। কিন্তু সমস্যা হল, রাস্তা খারাপ। 
এত খারাপ যে ভ্যানে করে যেতে  প্রচুর দেরি হয়। আর জঙ্গল কিংবা পথেই সন্তানের জন্ম হয়। তাই ওরকম নাম।  ব্লক মেডিকেল অফিসার অফ হেলথ দুঃখিত মুখে বলেছিলেন, একটা কাজ করতে পারেন? বরুণবাবুকে বলুন এই সমস্যাটা নিয়ে কিছু কড়া করে লিখতে। তাহলেই কাজ হবে। মানুষ জানবে। সরকারও গুরুত্ব দেবে। 
হাওড়ার গাদিয়াড়া বিখ্যাত ভ্রমণস্থল। কিন্তু নয়ের দশকে বেড়ে গিয়েছিল নদীভাঙনের সমস্যা। সেই নদীভাঙনের ফলে কীভাবে গ্রাম, জমি নদীগর্ভে চলে যাচ্ছে  দেখে রিপোর্ট নিয়ে ফেরার সময় বাসে চেপে শ্যামপুর যাওয়ার রাস্তার সংযোগস্থলে একটি পথচলতি হোটেলে দুপুরের খাওয়ার জন্য বাসযাত্রীরা ঢুকছিলেন। শ্যামপুরের এক মাস্টারমশাই বলেছিলেন, বাগনান স্টেশনে হকারদের মধ্যে প্রতি সপ্তাহের একটি বিশেষ দিনে মারামারি, ঢিল ছোঁড়াছুঁড়ি হতো জানেন তো? কারণ, ওইদিন বরুণ সেনগুপ্তের সাপ্তাহিক কলাম থাকত। কারা বেশি কাগজ নেবে সেই লড়াই। সেদিন প্রচণ্ড চাহিদা থাকত কাগজের। মনে পড়ে একই কথা বলেছিলেন এক বাগনান নিবাসী পরিচিত বন্ধু তাঁর বাবার স্মৃতিচারণ শুনিয়ে। বলেছিলেন, আমি শুনেছি পুলিসও দিতে হতো মাঝেমধ্যে যাতে ভোরবেলা ওই বিশেষ দিনে স্টেশনে ওরকম ঠেকাতে। একজন  সাংবাদিক কতটা জনপ্রিয় হলে এই ঘটনা ঘটতে পারে?  
বিশ্বের সবথেকে বড় এবং ঝাঁ চকচকে মন্দির তৈরি হচ্ছে মায়াপুর ইসকনে। সেই মন্দিরের উদ্বোধন পর্বে হাজির হবেন  ইসকনের ভক্ত বিশ্ববিখ্যাত ফোর্ড কোম্পানির মালিক হেনরি ফোর্ডের নাতি আলফ্রেড ফোর্ড।  তাঁর স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে সাক্ষাৎকার নিতে হবে। মায়াপুরে সেদিন হাজার হাজার মানুষ। অসংখ্য সাংবাদিক। সেখানে আলফ্রেড ফোর্ডের স্ত্রীর কাছে সবেমাত্র চাকরি পাওয়া ট্রেনি সাংবাদিকের পক্ষে যাওয়া অসম্ভব। কেন তাঁর সাক্ষাৎকার চাই? কারণ কিংবদন্তি ফোর্ড কোম্পানির মালিক আলফ্রেডের স্ত্রী বাঙালি ভট্টাচার্য পরিবারের কন্যা। শর্মিলা ভট্টাচার্য ফোর্ড। সেই সাক্ষাৎকার অনায়াসে সম্ভব হয়েছিল। কারণ, আগে থেকেই তাঁর কাছে কে সাক্ষাৎকার নেবে সেই নাম পৌঁছে দিয়েছিলেন বরুণবাবু। ঠাসা প্রোগ্রামের মধ্যেই ব্রেকফাস্ট টেবিলে শর্মিলা ফোর্ড সময় দিয়েছিলেন। 
সারের দাম কত করে যাচ্ছে? ডিপ শ্যালো টিউবওয়েলের বিদ্যুৎ খরচ কত? এবছর জ্যোতি আলুর ফলন কেমন? কোন কোন স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে  পর্যাপ্ত যাত্রী শেড নেই? ফ্যামিলি কোর্টে ঠিক কী ধরনের পারিবারিক সমস্যাগুলি আসছে? কনজিউমার কোর্টে কি আদৌ মানুষ যথাসময়ে ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে? কত পেন্ডিং কেস? যখন তখন টানা লোডশেডিং-এর ফলে কোল্ড স্টোরেজগুলোর আর্থিক ক্ষতি কতটা? ব্যান্ডেলে রেললাইনের আন্ডারপাসে জল জমা সমস্যা দূর হল কি না। শ্যাওড়াফুলি  ফেরিঘাটে নেমে স্টেশনে আসতে সেই বাজারের মধ্যে দিয়েই আসতে হবে? কুপার্স ক্যাম্পের কতটা উন্নতি হল? নদীয়া সিপিএমের জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠকে গত বুধবার দুজন সদস্য আসেননি কেন? 
এরকম প্রতিটি খুঁটিনাটি তিনি জেনে নিতেন ফোন করে জেলায় থাকা তাঁর সাংবাদিকদের কাছে। শুধু‌ই সংবাদ নিতেন? মোটেই নয়। কলকাতার কেন্দ্রস্থলে বসে তিনি ঠিক খবর পেতেন বিস্ফোরক তথ্য সংবলিত। এবং ভোরবেলা জানাতেন, চুঁচুড়া-চন্দননগরের কাছে একটি বিখ্যাত আমবাগান কেটে ফেলে শুনলাম প্রমোটিং হবে। খোঁ‌জ নাও তো! 
বরুণ সেনগুপ্ত সাংবাদিকতার একটি সিলেবাস তৈরি করে গিয়েছেন। বাংলাকে না জানলে, বাংলার জেলা, ব্লক, গ্রামকে না চিনলে, মফস্‌সলের মানুষের পালস না বুঝলে অর্ধেক সাংবাদিক হওয়া যায়। তাই তিনি সর্বাধিক জোর দিতেন জেলা সাংবাদিকতায়।
তিনিই পথিকৃৎ জেলার সংবাদ বেশি বেশি করে প্রকাশের। তিনি বলতেন সিভিক প্রবলেম অর্থাৎ সাধারণ মানুষ যেসব সংবাদের সঙ্গে নিজেকে একাত্ম করতে পারে, সেই সমস্যাগুলি বেশি করে জানতে হবে। চলতে ফিরতে দেখতে হবে কোন পড়ে সমস্যায় মানুষ বেশি বিরক্ত হচ্ছে। আলোচনা করছে।  
জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ, স্থায়ী সমিতি, জেলা পরিকল্পনা বোর্ড, গ্রামসভার বৈঠক, জমির পাট্টা প্রদান কর্মসূচি এ সমস্ত কিছু জানতে হবে।  জেলা ও পঞ্চায়েত প্রশাসন জানলে তবেই শেখা যাবে যে, দিল্লিতে পেশ হওয়া বাজেট বরাদ্দ কিংবা প্রকল্পগুলি একেবারে নিচুতলায় ঠিক কীভাবে গিয়ে পৌঁছয়। পদ্ধতিটি কী? এটা জানা দরকার সাংবাদিকের। 
চাকদহে এক বালিকা দাবি করছে সে নাকি দেবযানী বণিক ছিল পূর্বজন্মে। দেবযানী বণিক মৃত্যুরহস্য একটা সময় ছিল বাংলায় অত্যন্ত চর্চিত একটি ইস্যু। সেই দেবযানী বণিক পুনর্জন্ম নিয়েছে? চাকদহের ওই পাড়ায় শোরগোল। ১৯৯৪ সাল। বরুণবাবুর কানে ওই সংবাদ গিয়েছে। তিনি বলেছিলেন, ওদের বাড়িতে গিয়ে সকলের সঙ্গে কথা বলবে। পাড়ায় কথা বলবে। নিছক জল্পনা? নাকি সত্যি জাতিস্মরের মতো ঘটনা বাস্তবে রয়েছে। খুব ভারসাম্য রাখতে হবে। বিজ্ঞান ও বিশ্বাসের মধ্যে। কোনও পক্ষপাত যেন না থাকে। আর এমনভাবে লিখবে না যে, ওই পরিবারটির কোনও ক্ষতি হয়। এরকম ছিল তাঁর শিক্ষাপদ্ধতি। 
শিল্প বাণিজ্য মন্ত্রী ছিলেন কমল নাথ। ইউপিএ সরকারের আমলে। মিডিয়াম অ্যান্ড স্মল স্কেল ইন্ডাস্ট্রির কোনও সিদ্ধান্ত সরকারি স্তরে হলে কিংবা বরাদ্দ বৃদ্ধি বা নতুন প্রকল্প হওয়ার পর একবার কমল নাথ বলেছিলেন, এটা বরুণকে জানাবে। এই স্মল স্কেল নিয়ে ওঁর আগ্রহ আছে। 
এই বিচ্ছিন্ন কথাগুলির অর্থ হল, একজন সাংবাদিকের কী আশ্চর্য সংযোগসূত্র এবং অনুসন্ধিৎসা থাকলে এরকম কিংবদন্তি হওয়া যায়, তার নিখুঁত এক উদারহণ এই ক্ষুদ্র ঘটনাপঞ্জি। সম্পাদক হয়েছেন, মালিক হয়েছেন, কিন্তু আজীবন তিনি ছিলেন অন্তর থেকে নিখুঁত সাংবাদিক। তাঁর শেষ শিক্ষা বাঙালিকে— কীভাবে এক সাধারণ মানুষের পক্ষে একটি মহীরুহ সমান প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা সম্ভব স্রেফ একনিষ্ঠ উদ্যোগে। নিখাদ বাঙালির মেধা, সমাজচেতনা ও বাণিজ্যের এক আশ্চর্য উদাহরণ। সেই প্রতিষ্ঠানের ৪০ বছর বর্ষপূর্তি হল। স্বাধীন ভারতের বাঙালি ইতিহাসে এটি যেন আর একটি সত্যি রূপকথা!
08th  December, 2023
৩৭০ আসনের মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ!
মৃণালকান্তি দাস

লোকসভা ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশের আগেই এনডিএ জোট কত আসন পাবে, কত আসনে বিজেপি জয়ী হবে, তা সংসদে দাঁড়িয়ে ঘোষণা করে দিয়েছেন প্রধামন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর ভবিষ্যদ্বাণী, ‘আমি দেশের মেজাজ দেখে বলছি, এনডিএ ৪০০ পার করবে। আর ভারতীয় জনতা পার্টিকে ৩৭০ সিট অবশ্যই দেবে জনগণ।’
বিশদ

বিজেপি আর দুর্গ নয়, নিছকই কাচের ঘর
হারাধন চৌধুরী

বিখ্যাত রাষ্ট্রবিজ্ঞানী, হিউম্যারিস্ট স্টিফেন লিকক বলেছিলেন, প্রবাদগুলো নতুন করে লেখা উচিত। কারণ এগুলো প্রাসঙ্গিকতা হারিয়েছে। এমনকী, কিছু প্রবাদ সাম্প্রতিক বাস্তবের বিপরীত ব্যাখ্যাই বহন করছে। প্রবাদ: কাচের ঘরের বাসিন্দাদের কখনওই অন্যের দিকে ঢিল ছোড়া উচিত নয়। বিশদ

28th  February, 2024
বাংলা চুলোয় যাক, কাঁকড়ানীতি জিন্দাবাদ
শান্তনু দত্তগুপ্ত

বাংলায় বসে যাঁরা রাজ্য সরকারের বিরোধিতা করেন, তাঁদের অবস্থা মনিবের প্যান্টে মুখ ঘষা মার্জারের মতো। যদি মনিব মাথাটা একটু থাবড়ে দেন, তাতেই স্বর্গপ্রাপ্তি। চুলোয় যাক বাংলা। উচ্ছন্নে যাক বাঙালি। তাতে তাদের কিছুই আসে যায় না। তাঁরা বিশ্বের দরবারে বাংলাকে জুতো মারতে বেশি আগ্রহী। কেন? কারণ একটাই—তাঁদের 
পার্টি এই রাজ্যে সরকার চালায় না। সন্দেশখালি নামে একটি দ্বীপে তিনটি ব্যক্তিকে ঘিরে বিক্ষোভের আঁচে তাঁরা গোটা বাংলাকে সেদ্ধ করতে মরিয়া। একটি দ্বীপ, দু’টি ব্লক, ১৬টা গ্রাম পঞ্চায়েত, মেরেকেটে সাড়ে চার লক্ষ মানুষ। সমগ্র বাংলার বিচার এর নিরিখে হতে পারে? নাকি হওয়া উচিত?
বিশদ

27th  February, 2024
নির্বাচনী বন্ড নিয়ে ভীত দাতা, গ্রহীতা দু’পক্ষই
হুমায়ুন কবীর

‘না খাউঙ্গা না খানে দুঙ্গা’—বহুল চর্চিত জুমলাটি রাজনীতির অঙ্গন ছাড়িয়ে সমস্ত নাগরিকের মস্তিষ্কে বাসা বেঁধেছে। আমেদাবাদ থেকে আদানির চার্টার্ড ফ্লাইটে তাঁর দিল্লি উড়ে আসা আমরা ভুলিনি। ভুলিনি দূষিত দিল্লির আকাশ-বাতাসে প্রচারের ঢক্কানিনাদ, সঙ্গে প্রতিশ্রুতির বন্যা।
বিশদ

26th  February, 2024
প্রধানমন্ত্রীর নীরবতা কৌশলী, ভাঙা জরুরি
পি চিদম্বরম

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিজেকে বোঝাতে ‘আমি’ বা ‘আমার’ শব্দ দুটি এড়িয়ে চলেন এবং সেই জায়গায় বরাবর ব্যবহার করেন উত্তম পুরুষ।
বিশদ

26th  February, 2024
সন্দেশখালি দিয়ে গোটা বাংলার বিচার!
হিমাংশু সিংহ

গেল গেল রব উঠেছে চারদিকে। একজনেরও প্রাণ যায়নি। এক রাউন্ডও গুলি চলেনি। আদালত কোনও রায় দেয়নি। ঠিক একুশ সালের বিধানসভা ভোটের আগের রিপ্লে যেন।
বিশদ

25th  February, 2024
আধার বন্ধ কি ঝড়ের পূর্বাভাস?
তন্ময় মল্লিক

বিপুল সরকার থাকেন পূর্ব বর্ধমান জেলার জামালপুরের জুহিহাটি গ্রামে। নিজের কোনও ঘরবাড়ি নেই। থাকেন আত্মীয়ের ঘরে। সংসারে অভাব লেপ্টে থাকে ছায়ার মতো। সর্বক্ষণ। ভরসা বলতে খেতমজুরি আর বিনাপয়সার রেশন। অভাব থাকলেও স্বপ্নটাকে বাঁচিয়ে রেখেছেন। বিশদ

24th  February, 2024
দ্বিতীয় মণ্ডল: কংগ্রেসকে বদলে দিচ্ছেন রাহুল?
সমৃদ্ধ দত্ত

রাহুল গান্ধী শুধু নিজের রাজনৈতিক কেরিয়ারে নয়, স্বাধীনতার পর কংগ্রেসের ইতিহাসেও সম্ভবত সবথেকে বড় এক সিদ্ধান্ত এবং ঝুঁকিপূর্ণ বাজি নিয়েছেন ঠিক লোকসভা ভোটের আগে। নিজের দলের ইতিহাসের ঘোষিত অথবা অঘোষিত অবস্থানের ঠিক বিপরীত অবস্থানে গিয়ে রাহুল গান্ধী সরাসরি জাতিগত রাজনীতিতে প্রবেশ করছেন। বিশদ

23rd  February, 2024
হিন্দুত্ববাদী পপস্টারদের এজেন্ডা
মৃণালকান্তি দাস

হিন্দুত্ববাদীদের জন্য এই ‘ভক্তিমূলক’ গান রচেছেন প্রেম কৃষ্ণবংশী। যার বাংলা তর্জমা: ‘তুমি মানুষ নও, তুমি কসাই; যথেষ্ঠ হয়েছে হিন্দু-মুসলিম ভাই ভাই।’ বিদ্বেষমূলক রাজনীতির টানে কৃষ্ণবংশীর এই গান এখন গোবলয়ে নতুন গণসংস্কৃতির অংশ। বিশদ

22nd  February, 2024
বারবার আক্রান্ত হয়েছে বাংলা ভাষা
সন্দীপন বিশ্বাস

বাংলা ভাষার যে প্রাচীনতম নিদর্শন পাওয়া গিয়েছে, তা কম করে হাজার বছরের। মোটামুটি ‘চর্যাপদ’ই হল বাংলা ভাষার প্রথম প্রামাণ্য গ্রন্থ। এই হাজার বছর ধরে বাংলা ভাষাকে বার বার লড়াই করতে হয়েছে অন্য ভাষার সঙ্গে। তার উপর চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হয়েছে অন্য ভাষাকে। বিশদ

21st  February, 2024
‘ফ্রিজ’ হয়েছে কংগ্রেসের রাজনৈতিক লক্ষ্যটাই
শান্তনু দত্তগুপ্ত

প্রথমে অ্যাকাউন্ট ‘ফ্রিজ’। তারপর শর্তসাপেক্ষে ব্যবহারের অনুমতি। কী সেই শর্ত? প্রথমত, টাকা জমা দেওয়া যাবে না। আর দ্বিতীয়ত, টাকা তোলা যাবে, কিন্তু কী কারণে তোলা হচ্ছে এবং কোন খাতে খরচ, সেটা জানাতে হবে আয়কর দপ্তরকে। বিশদ

20th  February, 2024
সব কালো অথবা সাদা
পি চিদম্বরম

পাগলামির ভিতরেও মাঝেমধ্যে একটা পদ্ধতি থাকে। একটা সরকার তার শেষ বাজেট পেশ করল সাধারণ নির্বাচনের মুখে। তার বদলে পরবর্তী অর্থবর্ষের এপ্রিল থেকে জুলাই মাসের জন্য ‘ভোট অন অ্যাকাউন্ট’ সংবলিত একটা অন্তর্বর্তী বাজেট পেশ করতে পারত তারা। বিশদ

19th  February, 2024
একনজরে
মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষক পদপ্রার্থীদের শর্তসাপেক্ষে নিয়োগ দেওয়া যায় কি না, খতিয়ে দেখবে শিক্ষাদপ্তর ও স্কুল সার্ভিস কমিশন। বিকাশ ভবনে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু, শিক্ষাসচিব এবং ...

‘মোরা একই বৃন্তে দুটি কুসুম, হিন্দু-মুসলমান...।’ বিদ্রোহী কবির এই সম্প্রীতির বাণীকে ছড়িয়ে দিতে আজ, বৃহস্পতিবার থেকে কাঁথি-১ ব্লকের মাজনার তাজপুর সুপারস্টার ক্লাবের পরিচালনায় শুরু হচ্ছে ...

আগামী অর্থবর্ষে যাত্রীবাহী গাড়ির বাজার বাড়াতে সাহায্য করবে ‘স্পোর্ট ইউটিলিটি ভেহিকল’ বা এসইউভি। দেশের অন্যতম ক্রেডিট রেটিং সংস্থা ক্রিসিলের দাবি, আগামী অর্থবর্ষে যাত্রীবাহী গাড়ির সার্বিক বাজার এবারের তুলনায় অন্তত পাঁচ থেকে সাত শতাংশ বাড়বে। ...

বুধবার সন্ধ্যায় যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনের তাৎপর্যই আলাদা। দু’নম্বর প্রাকটিস গ্রাউন্ডের সামনেই রক ক্লাইম্বিংয়ের কৃত্রিম দেওয়াল। এদিন সেখানে আয়োজিত হল জাতীয় স্তরের প্রতিযোগিতা।  বিভিন্ন রাজ্যের প্রতিযোগীদের মধ্যে জোর লড়াই চলল। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

জীবাণুঘটিত রোগ বৃদ্ধিতে দেহ কষ্ট। সন্তানের সাফল্যে আনন্দ। কর্মোন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৫০৪ - ক্রিস্টোফার কলম্বাস তার জ্যোতির্বিজ্ঞানের জ্ঞান কাজে লাগিয়ে একটি চন্দ্রগ্রহণের ভবিষ্যদ্বাণী করেন
 ১৪৬৮ - পোপ দ্বিতীয় পলের জন্ম
১৭১২ - সুইডেনে ২৯ ফেব্রুয়ারির পর ৩০ ফেব্রুয়ারি পালনের সিদ্বান্ত হয়। এর কারণ তারা আগের নিয়মে ফিরতে চেয়েছিল।
১৮৯৬ - ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মোরারজি দেসাইয়ের জন্ম



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৮২.৪৩ টাকা ৮৩.৫২ টাকা
পাউন্ড ১০৩.৮১ টাকা ১০৬.৪৪ টাকা
ইউরো ৮৮.৬৮ টাকা ৯১.১১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৬২,৬৫০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৬২,৯৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫৯,৮৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৯,৮৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৯,৯৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৬ ফাল্গুন, ১৪৩০, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪। পঞ্চমী অহোরাত্র। চিত্রা নক্ষত্র ১০/৪৯ দিবা ১০/২২। সূর্যোদয় ৬/২/৩৭, সূর্যাস্ত ৫/৩৫/৫৭। অমৃতযোগ রাত্রি ১/৩ গতে ২/৩৩ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৭/৩৫ মধ্যে পুনঃ ১০/৪০ গতে ১২/৫৮ মধ্যে। বারবেলা ২/৪২ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/৪৯ গতে ১/২৩ মধ্যে। 
১৬ ফাল্গুন, ১৪৩০, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪। পঞ্চমী রাত্রি ২/৩৪। চিত্রা নক্ষত্র দিবা ৭/৪৪। সূর্যোদয় ৬/৫, সূর্যাস্ত ৫/৩৫। অমৃতযোগ রাত্রি ১২/৫৫ গতে ৩/১৯ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৭/২৯ মধ্যে ও ১০/৩১ গতে ১২/৫৬ মধ্যে। কালবেলা ২/৪৩ গতে ৫/৩৫ মধ্যে। কালরাত্রি ১১/৫০ গতে ১/২৪ মধ্যে। 
১৮ শাবান।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
শেখ শাহজাহানকে ৬ বছরের জন্য সাসপেন্ড করল তৃণমূল, সরানো হল দলীয় সমস্ত পদ থেকেও

03:22:38 PM

৫৩ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স

02:54:45 PM

অশীতিপর যাত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় এয়ার ইন্ডিয়া বিমান সংস্থাকে ৩০ লক্ষ টাকার জরিমানা

02:42:24 PM

কোচবিহারে একাধিক জায়গায় তল্লাশি অভিযান পুলিসের
কোচবিহারে একই সঙ্গে একাধিক জায়গায় তল্লাশি অভিযান পুলিসের। ওই বাড়িগুলির ...বিশদ

02:19:42 PM

দুর্গাপুরের একটি কারখানায় দুর্ঘটনা, গুরুতর জখম ৪ জন

02:13:30 PM

১৫৯ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স

01:27:29 PM