Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

টপাটপ অ্যান্টাসিড খাওয়ার বিপদ

নিমন্ত্রণবাড়ির ভূরিভোজ তো অনেক দূরের ব্যাপার, অনেকেই আছেন যাঁরা আলু সিদ্ধ-ভাত খাওয়ার পরেও অ্যান্টাসিড খান! এমনকী দুপুর ও রাতের খাবারের পরেও গ্যাস-অম্বলের ওষুধ খাওয়া অনেকের অভ্যেস। এভাবে কি সত্যিই মুড়িমুড়কির মতো অ্যান্টাসিড খাওয়া যায়? নাকি চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া নিত্যদিন অ্যান্টাসিড সেবনের তীব্র কুপ্রভাব রয়েছে? জানাচ্ছেন বিশিষ্ট গ্যাস্ট্রোএনটেরোলজিস্ট ডাঃ সত্যপ্রিয় দে সরকার।

তেলে-ঝালে বাঙালি। তার ওপর বারো মাসে তেরো পার্বণ। সেইসঙ্গে বিয়ে, উপনয়ন ও নানারকম অনুষ্ঠান সারা বছর ধরে লেগেই থাকে। ফলে মাসের মধ্যে বেশ কয়েকদিন ভালোরকম ভূরিভোজ হয়েই যায়। তাই আমরা বাঙালিরা অ্যান্টাসিডকে বড়ই আপন করে নিয়েছি। এটি ছাড়া আমাদের এক মুহূর্ত চলে না।
অতিরিক্ত তেল-ঝাল-মশলা যুক্ত খাবার খাওয়ার ফলে ঢেকুর, বুক জ্বালা, গলায় টক জল উঠে আসা কিংবা পেটের ওপরের অংশ প্রধানত ফুলে ওঠে। আর তখনই আমরা চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই টপাটপ অ্যান্টাসিড খেয়ে নিই। শুধু বড়রা নয়, অনেক বাচ্চাকেই তাদের মায়েরা চামচে বা ওষুধের ছিপিতে করে মুখে তরল অ্যান্টাসিড ঢেলে দিয়ে থাকেন। ডাক্তারি মতে ছয় বছরের নীচের বাচ্চাদের অ্যান্টাসিড না দেওয়াই ভালো। 
এবার অ্যান্টাসিড নিয়ে একটু আলোচনায় আসা যাক। এতে মূলত চার ধরনের উপাদান যুক্ত থাকে। ১) সোডিয়াম, ২) অ্যালুমিনাম, ৩) ম্যাগনেশিয়াম, ৪) ক্যালশিয়াম। 
যেসব অ্যান্টাসিডে সোডিয়াম থাকে সেগুলি মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার করলে নানারকম সমস্যা শুরু হতে পারে। প্রেশারের রোগী, কিডনি ও লিভার ফেলিওরের সমস্যায় যাঁরা ভুগছেন তাঁদের অ্যান্টাসিড থেকে শত হস্ত দূরে থাকা উচিত। 
নিয়ম না মেনে ইচ্ছামতো অ্যান্টাসিড খাওয়া শুরু ও বন্ধ করলে যে সমস্যাটি দেখা দেয় তার নাম রিবাউন্ড হাইপার অ্যাসিডিটি, অর্থাৎ অ্যাসিড ক্ষরণের পরিমাণ তাঁদের বহুগুণ বেড়ে যায়।
যে সব অ্যান্টাসিডে অ্যালুমিনাম থাকে তা বহুদিন ব্যবহারের ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য ছাড়াও ক্যালশিয়াম সরে গিয়ে হাড় নরম হয়ে যায়। শরীরে ফসফেটের পরিমাণ কমে যেতে পারে। কিডনির সমস্যায় যাঁরা ভুগছেন তাঁদের শরীরে সোডিয়াম, পটাশিয়ামের মাত্রা কমে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। যদি এরকম হয় তাহলে তা প্রাণসংশয়ের কারণ পর্যন্ত হতে পারে।
ম্যাগনেশিয়াম যুক্ত অ্যান্টাসিড বেশি খেলে ডায়ারিয়া হওয়ার আশঙ্কা থাকে। এছাড়া যাঁরা কিডনির সমস্যায় ভুগছেন তাঁদের রক্তে ম্যাগনেশিয়ামের পরিমাণ বেড়ে যায়। কারণ অসুস্থ কিডনি রক্তে জমে থাকা ম্যাগনেশিয়াম শোষণ করে বের করতে পারে না।
ক্যালশিয়াম সমৃদ্ধ অ্যান্টাসিড বেশি খেলে বমি বমি ভাব বা বমি পর্যন্ত হতে পারে। এছাড়া মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি পায় ও কিডনিতে ক্যালশিয়ামের স্টোন হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। 
ক্যালশিয়াম যুক্ত অ্যান্টাসিডের কারণে মিল্ক অ্যালকালি সিনড্রোমও দেখা দিতে পারে। শরীরে ক্যালশিয়াম বৃদ্ধির ফলে রক্তে ক্ষারের পরিমাণ বেড়ে যায়। এর ফলে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। 
অ্যান্টাসিড অ্যাসিডিক ওষুধ যেমন ডিগক্সিন (হার্ট ফেলিওরের জন্য ব্যবহৃত হয়), আইএনএইচ (টিবির ‌জন্য), এপটয়েন (এপিলেপসির) প্রভৃতির কার্যক্ষমতা কমিয়ে এইসব ওষুধকে রক্তে মিশতে বাধা দেয়।
দীর্ঘদিন অ্যান্টাসিড খাওয়ার ফলে ঘন ঘন ডায়ারিয়া, সামান্য আঘাতে শরীরের যে কোনও জায়গার হাড় ভেঙে যেতে পারে। কখনও কখনও অ্যান্টাসিড সেবনের পর শরীরে অ্যালার্জিও বের হতে পারে। যেমন গায়ে লাল র‌্যাশ, নিশ্বাসের কষ্ট ও প্রেশার কমে যায়।  শ্বাসের কষ্ট ও প্রেশার কমে যাওয়ার ঘটনা অবশ্য খুব কমই ঘটে। তবে যদি ঘটে তাহলে তা থেকে প্রাণহানি পর্যন্ত হতে পারে। 
যাঁরা অ্যান্টি প্লেটলেট ড্রাগ বা রক্ত তরল করার ওষুধ খান তাঁদের কখনও অ্যান্টাসিড খাওয়া উচিত নয়। এতে রক্তপাতের আশঙ্কা বেড়ে যায়। সবশেষে একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা আপনাদের জানাতে চাই— আলসার সারাবার ক্ষমতা অ্যান্টাসিডের প্রায় নেই বললেই চলে, এটি খাবার পর রোগী সাময়িকভাবে কিছুক্ষণের জন্য আরাম পান। অ্যাসিডিটি ও কষ্ট কমাবার ক্ষমতা পূর্ণমাত্রায় রয়েছে পিপিআই বা এইচটুব্লকার জাতীয় ওষুধে। এই ধরনের ওষুধকে আমরা অ্যান্টাসিড বলি না। এগুলি অ্যাসিডের সঙ্গে কোনওরকম বিক্রিয়া করে না, এরা পাকস্থলী থেকে অ্যাসিডের ক্ষরণকে কমিয়ে দেয়। 
তবে একটা কথা সবসময় মাথায় রাখবেন চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কখনওই কোনও ওষুধ  খাবেন না। এর ফল কিন্তু বহুক্ষেত্রেই খুব খারাপ হয়ে থাকে।
অনুলিখন: অপূর্ব চট্টোপাধ্যায় 
26th  November, 2020
ঘন ঘন সারফেস স্প্রে, ত্বকের
ক্ষতি আটকাবেন কী করে?

জামার পরে নাক ঠেকিয়ে দেদার গন্ধ নেওয়ার কথা সুকুমার রায় অনেক আগেই বলে গিয়েছেন। কিন্তু জামা-কাপড়ে নাক ঠেকালে সুগন্ধের বদলে কড়া অ্যালকোহলের গন্ধ নেওয়ার দিনক্ষণ তিনি কি আর জানতেন! এই যেমন এখন।  করোনা-আতঙ্কে সারফেস কাম ক্লথ ক্লিনিং দিয়েই দিনের মধ্যে বার কয়েক জামাকাপড় স্প্রে করা চলছে। বিশদ

26th  November, 2020
কাপড়ের মাস্ক পরলে
কী করবেন, কী করবেন না?

করোনায় আক্রান্ত প্রায় ৪০ শতাংশ রোগীই উপসর্গহীন। এঁদের শরীরে ভাইরাস বাসা বাঁধলেও রোগ লক্ষণ ফুটে ওঠে না। মুশকিল হল, এঁরা কিন্তু অন্যের মধ্যে রোগ ছড়িয়ে দিতে পারে। রোগ লক্ষণ থাকে না বলে এঁদের চিহ্নিত করাও কঠিন। আপনি বুঝতেও পারবেন না, সামনের মানুষটি উপসর্গহীন কি না! বিশদ

26th  November, 2020
স্ত্রীর হাসিতে লুকিয়ে
আছে স্বামীর দীর্ঘায়ু!

স্বামীর স্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ুর বিষয়টি নির্ভর করে স্ত্রী’র ওপর। একজন স্ত্রী যদি সবসময় প্রফুল্ল থাকেন তবে তাঁর স্বামী মানসিকভাবে সুখী হন। আর দুশ্চিন্তা না থাকলেও রোগব্যাধিও শরীরে বাসা বাঁধতে পারে না। এতে করে স্বামীর স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটে, তিনি দীর্ঘায়ু পান। সাইকোলজিক্যাল সায়েন্স জার্নালে সম্প্রতি প্রকাশিত সমীক্ষার জন্য গবেষকরা প্রায় সাড়ে চার হাজার মার্কিন দম্পতিকে পর্যবেক্ষণ করেন।
বিশদ

26th  November, 2020
বিভিন্ন দাবিতে পথে মেডিক্যাল
রিপ্রেজেন্টেটিভসদের সংগঠন

সর্বভারতীয় সাধারণ ধর্মঘটের সমর্থনে বিভিন্ন দাবি নিয়ে পথে নেমেছিল এ রাজ্যের ‘অল ওয়েস্ট বেঙ্গল সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভস ইউনিয়ন’-এর সদস্যরা। সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, কোচবিহার থেকে ক্যানিং পর্যন্ত এই রাজ্যের ৫০-এর বেশি শহরে সংগঠনের সদস্যরা মানববন্ধন কর্মসূচির মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকারের জনস্বার্থ বিরোধী নীতিগুলির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সাধারণ ধর্মঘট সফল করার আহ্বান জানায়। বিশদ

26th  November, 2020
তামাকমুক্ত ভারতের লক্ষ্যে

নরোত্তম সেখসারিয়া ফাউন্ডেশনের (এনএসএফ) পক্ষ থেকে দশম ‘টোবাকো ফ্রি ইন্ডিয়া গ্র্যান্টস অ্যান্ড অ্যাওয়ার্ডস’ উপলক্ষে আয়োজিত হয়েছিল ওয়েবিনার। বিশদ

19th  November, 2020
এবার বন্ধ্যাত্বের চিকিৎসায় প্রাপ্তি

সুখী দম্পতির জীবনেও কালো মেঘ আসে। দু’টি পূর্ণবয়স্ক মানুষের স্বপ্নই হয় একটি ছোট্ট প্রাণকে পৃথিবীতে নিয়ে আসা। তাকে বড় করে তোলা। বিশদ

19th  November, 2020
স্মরণে সৌমিত্র
শেষ ৪৮ ঘণ্টা সব ওলটপালট করে দিল

করোনা সব শেষ করে দিল।  আমরা আশায় আশায় লড়ে যাচ্ছিলাম।  শেষ ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে যা হওয়ার হয়ে গেল। ওঁর মস্তিষ্কের ইইজি পরীক্ষার রিপোর্ট এল।  চমকে গেলাম। রিপোর্টে কার্যত আর কোনও ঢেউ নেই। দাগ সরলরেখা হয়ে গিয়েছে। বুঝলাম ব্রেন ডেথ হওয়া সময়ের অপেক্ষা। প্রার্থনা করা ছাড়া আর কিছুই করতে পারব না আমরা। রবিবার সকালে হার্টও বন্ধ হয়ে গেল। ইতি পড়ল  ৪০ দিনের যুদ্ধের। ইতি পড়ল এক অধ্যায়ের। বিশদ

19th  November, 2020
বৈদ্যুতিন যন্ত্রের বিকিরণ
কীভাবে ক্ষতি করে ঘুমের?

কম্পিউটার, মোবাইল, ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ইত্যাদি থেকে সর্বক্ষণ যে বিদ্যুৎ-চৌম্বকীয় বিকিরণ হয় তা নিঃশব্দে ক্ষতি করে দিচ্ছে ঘুমের চক্রের। কীভাবে? লিখেছেন বিশিষ্ট মনোবিদ ডঃ অমিত চক্রবর্তী। বিশদ

19th  November, 2020
ভালো ঘুমের জন্য কী করবেন?

জানাচ্ছেন সল্টলেক মাইন্ডসেট-এর কর্ণধার এবং বিশিষ্ট মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ দেবাঞ্জন পান। বিশদ

19th  November, 2020
করোনা ছাড়া অন্যান্য জ্বর 
সতর্ক থাকবেন কীভাবে?

করোনা নিয়ে উদ্বেগের মধ্যেই চুপিচুপি বহু ঘরে অন্যান্য জ্বরজারি ঢুকে পড়ছে। কোভিড প্যানডেমিক-এর বর্তমান সময়ে অন্যান্য জ্বর থেকে সতর্ক থাকবেন কীভাবে? চিকিৎসাই বা কী কী? আলোচনা করলেন রুবি হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ আশিস মিত্র।    বিশদ

12th  November, 2020
জ্বরজারিতে হোমিওপ্যাথি

জাঁকিয়ে শীত পড়ার আগের এই দিনগুলিকে এক অর্থে ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়াঘটিত অসুখবিসুখের দাপাদাপির দিন বললেও অত্যুক্তি হবে না। করোনার উৎপাতের মধ্যে অন্যান্য নানা জ্বরজারির দাপট কিন্তু মোটেই কমেনি। রোগবিশেষে বেশ কয়েকটি হোমিওপ্যাথিক ওষুধ এখন ভালো কাজ দিতে পারে।  বিশদ

12th  November, 2020
শহরের মহিলাদের মধ্যে
বাড়ছে ব্রেস্ট ক্যান্সার

দেশের শহরে বসবাসকারী মহিলাদের মধ্যে ব্রেস্ট ক্যান্সার বাড়ছে। মূলত দৈনন্দিন জীবনযাত্রায় পার্থক্য থাকার জন্যই গ্রামের তুলনায় শহরের মহিলারা এই সমস্যায় বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন। এছাড়া বংশগত কারণ, স্থূলত্ব, বেশি বয়সে গর্ভধারণ, ধূমপান, মদ্যপান ইত্যাদি কারণগুলি সার্বিকভাবে ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়াচ্ছে। বিশদ

12th  November, 2020
কলম্বিয়া এশিয়া অধিগ্রহণ মণিপাল গোষ্ঠীর

মণিপাল হাসপাতাল গোষ্ঠী অধিগ্রহণ করছে কলম্বিয়া এশিয়া হাসপাতাল গোষ্ঠীর ভারতের হাসপাতালগুলিকে। এই মর্মে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। মণিপাল এডুকেশন অ্যান্ড মেডিক্যাল গ্রুপের চেয়ারম্যান ডাঃ রঞ্জন পাই বলেন, কলম্বিয়া এশিয়া হাসপাতালকে মণিপাল পরিবারে স্বাগত জানাতে পেরে আমরা আনন্দিত। বিশদ

12th  November, 2020
ইনস্টিটিউট অব চাইল্ড হেল্‌থের নার্সিং কলেজ

পার্কসার্কাসের নামকরা শিশু চিকিৎসা কেন্দ্র ইনস্টিটিউট অব চাইল্ড হেল্‌থ-এ এবার চালু হল নার্সিং কলেজ। নির্মলা ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় চালু হওয়া এই নার্সিং কলেজটির নাম ‘আইসিএইচ ফ্যাকাল্টি অব নার্সিং’। বুধবার এর উদ্বোধন করেন কলকাতার মেয়র এবং পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। বিশদ

12th  November, 2020
একনজরে
পরিবার পরিকল্পনার অধিকাংশ সূচকে দেশে এক নম্বরে বাংলা। কেন্দ্রীয় সরকারের অক্টোবর মাসের তথ্য থেকে একথা জানা গিয়েছে। এই সূচকগুলির মধ্যে গর্ভনিরোধক ওষুধ বা পিল থেকে শুরু করে বন্ধ্যাত্বকরণ, মেয়েদের আইইউসিডি থেকে শুরু করে ছেলেদের নিরোধ ব্যবহার— অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেশে শীর্ষে ...

সাখির (বাহরিন): গত সাতদিনে তিনবার কোভিড টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ এল ফর্মুলা-ওয়ান তারকা লুইস হ্যামিলটনের। যার জেরে আসন্ন সাখির গ্রাঁ প্রি’তে অংশ নিতে পারবেন না সাতবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন রেসারটি। মঙ্গলবারই মার্সিডিজ-এএমজি পেট্রোনাস এফওয়ান দলের পক্ষ থেকে হ্যামিলটনের করোনায় আক্রান্তের খবর প্রকাশ্যে আনা ...

কৃষক বিক্ষোভের আঁচ ছড়াল দেশান্তরেও। কেন্দ্রীয় কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। বিক্ষোভরত ‘রোদে পোড়া, তামাটে’ মানুষগুলোর পরিবার ও বন্ধুদের জন্য চিন্তিত বলে জানিয়েছেন তিনি। ...

উম-পুন পরবর্তী ক্ষতিপূরণে দুর্নীতির যাবতীয় অভিযোগের তদন্ত করবে কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (ক্যাগ)। কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি থোট্টাথিল বি রাধাকৃষ্ণাণ ও অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ মঙ্গলবার তিন মাসের মধ্যে তদন্তসাপেক্ষে ক্যাগকে রিপোর্ট দাখিল করতে বলেছে। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সম্পত্তিজনিত মামলা-মোকদ্দমায় সাফল্য প্রাপ্তি। কর্মে দায়িত্ব বৃদ্ধিতে মানসিক চাপবৃদ্ধি। খেলাধূলায়  সাফল্যের স্বীকৃতি। শত্রুর মোকাবিলায় সতর্কতার ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৭৬: কিউবার প্রেসিডেন্ট হলেন ফিদেল কাস্ত্রো
১৯৮৪: ভোপাল গ্যাস দুর্ঘটনায় কমপক্ষে আড়াই হাজার মানুষের মৃত্যু
১৯৮৮: পাকিস্তানের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী হলেন বেনজির ভুট্টো
১৯৮৯: ভারতের সপ্তম প্রধানমন্ত্রী হলেন ভিপিসিং 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.১৭ টাকা ৭৪.৮৮ টাকা
পাউন্ড ৯৭.২১ টাকা ১০০.৬৪ টাকা
ইউরো ৮৬.৯৬ টাকা ৯০.১২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৮,৯৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৬,৪৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭,১৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬০,৯০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬১,০০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, বুধবার, ২ ডিসেম্বর ২০২০, দ্বিতীয়া ৩০/৪৪ সন্ধ্যা ৬/২৩। মৃগশিরা নক্ষত্র ১১/২২ দিবা ১০/৩৮। সূর্যোদয় ৬/৪/৪৩, সূর্যাস্ত ৪/৪৭/২৫। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৬ মধ্যে পুনঃ ৭/২৯ গতে ৮/১২ মধ্যে পুনঃ ১০/২১ গতে ১২/৩০ মধ্যে। রাত্রি ৫/৪০ গতে ৬/৩৩ মধ্যে পুনঃ ৮/২০ গতে ৩/২৫ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/৪৬ গতে ৭/২৯ মধ্যে পুনঃ ১/১৩ গতে ৩/২২ মধ্যে। বারবেলা ৮/৪৫ গতে ১০/৫ মধ্যে পুনঃ ১১/২৬ গতে ১২/৪৭ মধ্যে। কালরাত্রি ২/৪৫ গতে ৪/২৫ মধ্যে। 
 ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, বুধবার, ২ ডিসেম্বর ২০২০, দ্বিতীয়া সন্ধ্যা ৫/৪। মৃগশিরা নক্ষত্র দিবা ১০/২৪। সূর্যোদয় ৬/৬, সূর্যাস্ত ৪/৪৮। অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৬ মধ্যে ও ৭/৩৮ গতে ৮/২০ মধ্যে ও ১০/২৮ গতে ১২/৩৫ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৩ গতে ৬/৩৬ মধ্যে ও ৮/২৫ গতে ৩/৩২ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/৫৬ গতে ৭/৩৮ মধ্যে ও ১/১৭ গতে ৩/২৪ মধ্যে। কালবেলা ৮/৪৬ গতে ১০/৭ মধ্যে ও ১১/২৭ গতে ১২/৪৭ মধ্যে। কালরাত্রি ২/৪৬ গতে ৪/২৬ মধ্যে। 
১৬ রবিয়ল সানি।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আপনার আজকের দিনটি
মেষ: সম্পত্তিজনিত মামলা-মোকদ্দমায় সাফল্য প্রাপ্তি। বৃষ: নানা উপায়ে অর্থপ্রাপ্তির সুযোগ। ...বিশদ

04:29:40 PM

ইতিহাসে আজকের দিনে
  ১৯৭৬: কিউবার প্রেসিডেন্ট হলেন ফিদেল কাস্ত্রো ১৯৮৪: ভোপাল গ্যাস ...বিশদ

04:28:18 PM

আইএসএল: হায়দরাবাদ ও জামশেদপুরের ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র

09:33:58 PM

জিএসটি ফাঁকি: কলকাতা সহ রাজ্যের ১০৪টি ময়দা মিলে হানা আধিকারিকদের

06:29:00 PM

তৃতীয় একদিনের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ১৩ রানে জয়ী ভারত

05:15:15 PM

কোভ্যাক্সিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ: টিকা নিতে নাইসেডে ফিরহাদ হাকিম

04:15:35 PM