বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

ক্ষমতা থাকলে বিজেপি লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধ করে দেখাক: মমতা, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ারে  তোপ অভিষেকেরও

নিজস্ব প্রতিনিধি, কোচবিহার, সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ার ও নিজস্ব প্রতিনিধি, শিলিগুড়ি: বিজেপি ক্ষমতায় এলে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধ করে দেওয়া হবে। দিনহাটায় পদ্ম শিবিরের  একটি সভা থেকে এই হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। এই ইস্যুতে এবার বিজেপিকে পাল্টা চ্যালেঞ্জ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মঙ্গলবার শিলিগুড়ির সভা থেকে তৃণমূল নেত্রীর তোপ,  ‘বর্তমান কাগজে খবর দেখেছি। লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছে। ক্ষমতা থাকলে বিজেপি বন্ধ করে দেখাক।’ বাংলার মা বোনেদের প্রতি মমতার বার্তা, প্রাণ থাকতে তিনি লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধ করতে দেবেন না।  
এদিন পৃথক কর্মসূচিতে উত্তরবঙ্গ থেকেই লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও। কোচবিহারের সভা থেকে তাঁর প্রশ্ন, ১০ বছরের ট্রেলারের পর বিজেপির সিনেমা আর দেখবেন? জবাবে সমবেত জনতার কণ্ঠ থেকে ভেসে এল ‘না’। সভামঞ্চ থেকেই অভিষেক আশ্বস্ত করলেন, লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধ হবে না। বাংলার টাকা আটকে রেখে দিল্লিতে সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রজেক্ট বানানো নিয়েও তীব্র আক্রমণ করেন তিনি। এদিন বিকেলেই তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের রোড শো ঘিরে জনপ্লাবনের সাক্ষী থাকল আলিপুরদুয়ার। 
তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কমান্ড কোচবিহারের সভায় বলেন, জেলার ৪ লক্ষ ৯৭ হাজার ৩০২ জন জবকার্ড হোল্ডারকে ১০০ দিনের বকেয়া টাকা দেওয়া হয়েছে। ৭ লক্ষ ৬৭ হাজার মহিলাকে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার দেওয়া হচ্ছে। উনিশের জবাব আগামী ১৯ এপ্রিল দিতে হবে আপনাদের। কেন্দ্রের কাছে বাংলার বকেয়া ১ লক্ষ ৭ হাজার কোটি টাকা। লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধ করার হুমকি দিয়ে বিজেপি নেত্রীর সেই মন্তব্যের অডিও শোনান অভিষেক। কোচবিহার আসনের দলীয় প্রার্থী জগদীশচন্দ্র বর্মা বসুনিয়ার সমর্থনে এই সভায় মহিলাদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। অভিষেক বলেন, ওই দলের এক নেত্রী হুঙ্কার দিচ্ছেন, বিজেপি যদি কোচবিহারে জেতে এবং বাংলায় ৩৫টি আসন পায় তাহলে তিনমাসের মধ্যে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নাকি বন্ধ হয়ে যাবে। এজন্য মা বোনেদের বিজেপিকে উচিত শিক্ষা দিতে হবে। বিজেপির কোচবিহার জেলা সাধারণ সম্পাদক বিরাজ বসু পাল্টা বলেন, মমতা ও অভিষেক কোচবিহার চষে বেড়াচ্ছেন। তাঁরা ভাবছেন মানুষের মন জয় করতে পারবেন। তৃণমূল যতই ড্যামেজ কন্ট্রোল করার চেষ্টা করুক কোনও কাজ হবে না। 
এদিন আলিপুরদুয়ার শহরের প্যারেড গ্রাউন্ডে বিকেলে হেলিকপ্টার থেকে নামেন অভিষেক। কলেজ হল্ট থেকে বক্সা রোড ধরে হুডখোলা গাড়িতে রোড শো শুরু হয়। চৌপথিতে গিয়ে রোড শো শেষ হয়। সেখানে পথসভায় বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করে অভিষেক বলেন, আলিপুরদুয়ার ডাবল ইঞ্জিন জেলা। এখানে এমপি বিজেপির, বিধায়কদের প্রায় সবাই বিজেপির। কিন্তু ওই দল কী দিয়েছে? শুধু প্রতারিত হয়েছেন। তাই বিজেপিকে যে কোনওমূল্যে হটাতেই হবে।

17th     April,   2024
 
 
অক্ষয় তৃতীয়া ১৪৩১
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ