শরীর ও স্বাস্থ্য

মন ভালো করে বৃষ্টির জল

আচমকা আকাশ ভেঙে এমন বৃষ্টি পড়লে একা বা প্রিয় কারও সঙ্গে ভেজার মজাই আলাদা। আবার সেই সঙ্গে বৃষ্টিতে ভিজলে মিলবে পাঁচটি উপকারও। এ বছর বর্ষা ঋতু যেন নিজেকে জানান দিতে বেশ দেরি করে ফেলল। এমন গরমে স্বস্তির আরেক নাম মুষলধারে ঝরে পড়া বৃষ্টিতে ভেজা। বন্ধুরা মিলে হইচই করে মাঠে বা রাস্তায় ভেজার মজা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। রিকশায় বসে প্রিয় মানুষটির হাত ধরে বৃষ্টিতে ভিজতে কার না ভালো লাগে! তখন মনও ভিজে যায় ভালোবাসার অঝোর ধারায়। আবার একা একা বৃষ্টিতে ভিজতে গিয়েও আনমনে ভর করে একরাশ ভালো লাগা। কিন্তু ভালো লাগার পাশাপাশি বৃষ্টিতে ভিজলে অনেক উপকারও পাওয়া যায়।

স্বাস্থ্যকর চুল
বৃষ্টির জল প্রাকৃতিকভাবে চুলের ক্লিনজার হিসেবে কাজ করে। বৃষ্টির জলেতে প্রাকৃতিক অ্যালকালাইন থাকে, যা চুলের গোড়া থেকে ময়লা ও খুশকি পরিষ্কার করে। নিয়মিত বৃষ্টির জলেতে স্নান রুক্ষ চুলকে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল করে, যার ফলে চুল চকচকে দেখায়। তবে বৃষ্টিতে ভেজার পর আবার ভালোমতো শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।

ভিটামিন বি১২
বৃষ্টির জলের খরতা নেই বললেই চলে। আর এই জল অ্যালকালাইন পিএইচসমৃদ্ধ, যা আপনার মেজাজ ফুরফুরে করে তুলতে সক্ষম। বৃষ্টির জলেতে নানা অণুজীব থাকে, যেগুলো বিপাক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ভিটামিন বি১২ তৈরি করে। তাই আপনার যদি এই ভিটামিনের ঘাটতি থাকে, তবে বৃষ্টি হলে নিয়ম করে ১০ থেকে ১৫ মিনিট ভিজতে পারেন। তবে ভেজার পর তাৎক্ষণিকভাবে অবশ্যই সাবান দিয়ে ভালো করে স্নান করে নিতে হবে।

হরমোনের ভারসাম্য
অনেকেই হরমোনের ভারসাম্যহীনতায় ভোগেন। এ সমস্যারও সমাধান রয়েছে বৃষ্টির জলে। গবেষণায় দেখা গেছে, বৃষ্টির জল হরমোনের ভারসাম্যহীনতা দূর করতে পারে। বৃষ্টির জল কানের সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পেতেও বেশ কার্যকর ভূমিকা রাখে। কানে ব্যথা বা ইনফেকশন দূর করার ক্ষেত্রে বৃষ্টির জল বেশ উপকারী। তবে মাত্রাতিরিক্ত সময়, অর্থাৎ ১০ থেকে ১৫ মিনিটের বেশি বৃষ্টিতে ভেজা উচিত নয়, এতে ঠান্ডা লেগে যেতে পারে। 

চর্মরোগের সমাধান
বৃষ্টিতে ভিজলে বা নিয়মিত স্নান করলে চুলকানি ও ত্বকের খসখসে ভাব চলে যায়। বৃষ্টিতে ভিজলে বা নিয়মিত স্নান করলে চুলকানি ও ত্বকের খসখসে ভাব চলে যায়। বর্ষাকালের গুমোট গরমে অনেকেই চর্মরোগে ভুগে থাকেন। ত্বকের বিভিন্ন ফুসকুড়ি ও চুলকানির সমাধান আছে বৃষ্টির শীতল জলেতে। বৃষ্টিতে ভিজলে বা নিয়মিত স্নান করলে চুলকানি ও ত্বকের খসখসে ভাব চলে যায়। এটা প্রমাণিত যে বৃষ্টির জল আপনার ত্বকের তাপমাত্রার ভারসাম্য বজায় রাখে এবং গ্রীষ্মের ফুসকুড়ি থেকে মুক্তি দেয়।
মন ভালো হয়: বৃষ্টিতে ভিজলে শরীর থেকে হ্যাপিনেস হরমোন, অর্থাৎ এন্ডোরফিন ও সেরাটোনিন নিঃসৃত হয়। এ জন্য বৃষ্টিতে ভিজলে দুশ্চিন্তা ও মানসিক চাপ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।
লিখেছেন: সুরজিৎ মুখোপাধ্যায়
17d ago
কলকাতা
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

বিকল্প উপার্জনের নতুন পথের সন্ধান লাভ। কর্মে উন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। মনে অস্থিরতা।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা