বিদেশ

লেবার পার্টির ঐতিহাসিক জয়, ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী স্টারমার

রূপাঞ্জনা দত্ত, লন্ডন: দীর্ঘ ১৪ বছর পর ক্ষমতার পালাবদলের সাক্ষী থাকল ব্রিটেন। সদ্য সমাপ্ত সাধারণ নির্বাচনে চারশোর বেশি আসনে জয় পেল লেবার পার্টি। সহজেই নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে বর্তমান বিরোধী দল। নতুন প্রধানমন্ত্রী হলেন বর্তমান বিরোধী দলনেতা কিয়ার স্টারমার। অন্যদিকে, দেড়শোর গণ্ডিও পার করতে পারল না কনজারভেটিভ পার্টি। গদি হারালেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। এদিন ফলাফল ঘোষণা হতেই রাজা তৃতীয় চার্লসের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি। নতুন সরকার গড়তে স্টারমারকে আহ্বান জানান রাজা। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি দপ্তর বণ্টন করেছেন প্রধানমন্ত্রী স্টারমার। ব্রিটেনের ইতিহাসে প্রথমবার মহিলা হিসেবে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পেলেন রেচল রিভস। এদিকে লেবার মন্ত্রিসভায় প্রথম এশীয় বংশোদ্ভূত এমপি হিসেবে জায়গা করে নিলেন শাবানা মাহমুদ। সংস্কৃতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বঙ্গ তনয়া লিসা নন্দীকে।
হাউস অব কমনসের মোট আসন সংখ্যা ৬৫০। এবার সেখানে এশীয় বংশোদ্ভূতদের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন ২৮ জন ভারতীয় বংশোদ্ভূত সহ ৫০ জন জয়ী প্রার্থী। পূর্বতন সরকারের আমলে এই সংখ্যা ছিল ৩৫। 
দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিকাঠামোর উপর আস্থা হারিয়েছেন ব্রিটেনবাসী। ভোটের আগেই এই ইঙ্গিত মিলেছিল। নির্বাচন শেষে ভোটদানের হার তা স্পষ্ট করেছিল। এবার ৬০ শতাংশের কম মানুষ ভোট দিয়েছেন। কিছু কেন্দ্রে তো সেই পরিসংখ্যান ৫০ এবং ৪০ শতাংশে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। 
রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, ভোটারদের কনজারভেটিভ-বিরোধী অবস্থানের জেরে লাভবান হয়েছে লেবার পার্টি। নির্বাচনে ৩৩.৯ শতাংশ ভোট পেয়েছে স্টারমারের দল। ২০১৯ সালের তুলনায় যা ১.৭ শতাংশ বেশি। অন্যদিকে, সুনাকের দলের ভোট ২০ শতাংশ কমে ২৩.৭ শতাংশে এসে দাঁড়িয়েছে। 
ইতিমধ্যে নতুন প্রধানমন্ত্রী স্টারমারকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এক্স হ্যান্ডলে তিনি লেখেন, ‘ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে অভাবনীয় জয়ের জন্য কিয়ার স্টারমারকে শুভেচ্ছা জানাই। আশা করি, ভবিষ্যতে সব ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে।’ স্টারমারের পাশাপাশি বিদায়ী প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করেন মোদি। স্টারমারের সামনে এখন চ্যালেঞ্জ ভারত-ব্রিটেন মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি কার্যকর করা। কাশ্মীর প্রশ্নে তাঁর অবস্থানের দিকেও নজর নয়াদিল্লির।
নিজের কেন্দ্রে জয়ী হলেও দলের জয় নিশ্চিত করতে পারেননি সুনাক। তা সত্ত্বেও দলের হারের দায়িত্ব নিয়েছেন তিনি। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী এবং কনজারভেটিভ পার্টির দলনেতার পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন সুনাক।
এদিন ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের বাইরে দাঁড়িয়ে শেষবারের মতো ভাষণ দেন বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী। পরিবারকে শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘স্ত্রী অক্ষতা এবং দুই কন্যার কাছে আমি কৃতজ্ঞ। আমার পথ মসৃণ করতে ওঁরা অনেককিছু ত্যাগ করেছে। ডাউনিং স্ট্রিটের সিঁড়িতে দুই কন্যাকে দীপাবলি উদযাপন করতে দেখেছি। এটাই ব্রিটেনের সংস্কৃতি।’ 
সুনাকের পর সরকারি বাসভবনে গিয়ে প্রথমবার জাতির উদ্দেশে বার্তা দেন স্টারমার। বিদায়ী প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ব্রিটেনের প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সুনাকের ভূমিকা সত্যিই প্রশংসনীয়।’ শুরু থেকেই দলের আগে দেশবাসীকে গুরুত্ব দিয়েছেন লেবার নেতা। এদিনও সেই বার্তাই দিলেন তিনি। বললেন, ‘পরিবর্তনের কাজ শুরু হল।’
১৯৯৭ সালে লেবার পার্টিকে বিপুল ভোটে জয়ী করেছিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী টোনি ব্লেয়ার। এবারও সুনাককে হারিয়ে সেটাই করলেন স্টারমার।
15d ago
কলকাতা
রাজ্য
দেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

বিকল্প উপার্জনের নতুন পথের সন্ধান লাভ। কর্মে উন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। মনে অস্থিরতা।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
21st     July,   2024
দিন পঞ্জিকা