বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

মিনিটে ৩০ লিটার অক্সিজেন সরবরাহের 
যন্ত্র বানিয়েছে দুর্গাপুরের প্রতিষ্ঠান
করোনা চিকিৎসায় আশার আলো

দিব্যেন্দু বিশ্বাস, নয়াদিল্লি: প্রতি মিনিটে সর্বোচ্চ ৩০ লিটার পর্যন্ত অক্সিজেন সরবরাহ করতে পারবে এই যন্ত্র। এমনকী এটি কার্যকর হবে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৪ হাজার ফুট উচ্চতাতেও। বর্তমান কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এহেন নতুন ‘অক্সিজেন এনরিচমেন্ট ইউনিট’ তৈরি করল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রকের আওতাধীন দুর্গাপুরের প্রতিষ্ঠান। ফলে হাসপাতাল কিংবা অন্যান্য স্বাস্থ্যকেন্দ্রে করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় অক্সিজেন সিলিন্ডারের ঘাটতি তৈরি হওয়ার আশঙ্কা অনেকটাই কমবে। এমনটাই জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারও। দুর্গাপুরের ওই প্রতিষ্ঠান সিএসআইআর-সিএমইআরআইয়ের (সেন্ট্রাল মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট) পক্ষ থেকেও জানানো হয়েছে, প্রয়োজনীয় ‘মডিফিকেশন’-এর মাধ্যমে এই যন্ত্রের সাহায্যে একইসঙ্গে একাধিক রোগীকে অক্সিজেন সরবরাহ করা সম্ভব হবে।
দুর্গাপুরের সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, বর্তমানে যেসব অক্সিজেন এনরিচমেন্ট ইউনিট রয়েছে, সেগুলির অধিকাংশই সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে সর্বোচ্চ আট হাজার উচ্চতা পর্যন্ত কাজ করতে সক্ষম। কিন্তু এই ‘রেঞ্জ’ অনেকটাই বেশি হওয়ার কারণে সংশ্লিষ্ট অক্সিজেন এনরিচমেন্ট যন্ত্রের সাহায্যে প্রয়োজনে অনেক বেশি উচ্চতায় কর্মরত ভারতীয় সেনাবাহিনীর জওয়ানদের চিকিৎসা করানো সম্ভব হবে। 
সিএসআইআর-সিএমইআরআইয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বাজার চলতি অন্য যে অক্সিজেন এনরিচমেন্ট ইউনিটগুলি রয়েছে, তার অধিকাংশই প্রতি মিনিটে সর্বোচ্চ ৩০ লিটার পর্যন্ত বিশুদ্ধ অক্সিজেন সরবরাহ করতে সক্ষম নয়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই চিকিৎসা ব্যবস্থায় এটি অনেক বেশি ফলপ্রসূ হবে। এমনটাই মনে করছে কেন্দ্রীয় সরকার। খুব দ্রুত এর বাণিজ্যিক ব্যবহারও শুরু করা হচ্ছে। একেকটি ইউনিটের জন্য খরচ হতে পারে প্রায় ৩৫ হাজার টাকা।
দেশজুড়ে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল কেন্দ্র। স্বাভাবিকভাবেই ভিড় বৃদ্ধি পাচ্ছে হাসপাতাল, চিকিৎসা কেন্দ্রগুলিতে। আগের তুলনায় অনেক বেশি পরিমাণে প্রয়োজন হচ্ছে অক্সিজেন সিলিন্ডার, ভেন্টিলেটরেরও। অনেক সময়ই চাহিদার তুলনায় জোগান কমে যাওয়ার আশঙ্কাও তৈরি হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে দুর্গাপুরের ওই প্রতিষ্ঠানের এহেন উদ্ভাবন যাবতীয় দুর্ভাবনা অনেকটাই কমিয়ে দিতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের অধিকর্তা হরিশ হিরানি বলেন, ‘অধিক উচ্চতায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর শুধু জওয়ানরাই যে কর্মরত, তাও তো নয়। এমন অবস্থানে প্রচুর গ্রাম, জনপদও রয়েছে। আচমকা রোগাক্রান্ত হলে সেই বাসিন্দাদের বিপদ অনেকটাই কমানো সম্ভব হবে। করোনা চিকিৎসায় অক্সিজেন থেরাপি যথেষ্ট কার্যকর।’

10th     April,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021