Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

হুকা বার কতটা
বিপদের?

একটা প্রচলিত ধারণা আছে, হুকা থেকে যে ধোঁয়া নির্গত হয় তাতে নিকোটিন এবং অন্যান্য দূষিত পদার্থগুলি থাকে না! এই ধরনের চিন্তা সম্পূর্ণরূপে ভ্রান্ত। হুকার ধোঁয়া বরং কয়েকগুণ বেশি ক্ষতিকারক! পরামর্শে নেতাজি সুভাষ ক্যান্সার হাসপাতালের মেডিক্যাল ডিরেক্টর ডাঃ আশিস মুখোপাধ্যায়।

দক্ষিণ কলকাতার একটি নামী স্কুলের অনতি দূরেই রমরমিয়ে চলছে একটি হুকা বার। তবে স্কুলের ইউনিফর্মে সেখানে প্রবেশ নিষেধ! তাতে কী! ইউনিফর্ম পালটে ফেললেই নিশ্চিত!
কলকাতার আরও বেশ কিছু জায়গায় বেশ ভালোই ব্যবসা করে খাচ্ছে হুকা বারগুলি। সাধারণত অভিজাত স্কুল-কলেজের পড়ুয়ারা ভিড় জমায় এই হুকা বারগুলিতে। আপাত নিরীহ এই হুকা বারগুলি সম্বন্ধে কিশোর-কিশোরী বা তরুণ-তরুণীদের ধারণা— এগুলি স্বাস্থ্যসম্মত এবং সিগারেট-এর একটি স্বাস্থ্যকর বিকল্প! কারণ এতে নাকি তামাক ব্যবহার করা হয় না। তাই তামাকের ক্ষতির হাত থেকে নিষ্কৃতি পাওয়া যায়। উপরন্তু হুকার সুগন্ধযুক্ত ধূমপানে বেশ আবেশ আসে শরীরে ও মনে। কতটা যুক্তিসম্মত এই ধারণা? সত্যিই কি হুকা বার সিগারেটের স্বাস্থ্যকর বিকল্প না কি সিগারেটের মতোই সমান ক্ষতি সাধিত হয় এখানে?
হুকা কী?
প্রথমে আসা যাক হুকাপানের কথায়। হুকা হল একটা জলভর্তি পাইপ বা নল যেটি মিষ্টি সুগন্ধযুক্ত এবং বিভিন্ন ফ্লেভারের তামাক সেবনের কাজে ব্যবহার করা হয়। এই পাইপ সাধারণত বেশ লম্বা হয় এবং তলায় থাকে একটি জল ও একটি তামাকের চেম্বার। এটি একাধিক ফ্লেক্সিবেল টিউব-এর সঙ্গে যুক্ত থাকে, যাতে একই হুকা থেকে একসঙ্গে একাধিকজন ধূমপান করতে পারে। এই তামাকের চেম্বার বা প্রকোষ্ঠটিতে একটি বাটিতে জ্বলন্ত চারকোল রাখা হয় এবং চারকোলগুলি তামাকের উপর স্থাপন করা হয়। তামাক এবং চারকোলের মাঝখানে একটি ছিদ্রযুক্ত অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল রাখা থাকে। চারকোল যখন তামাককে গরম করে তোলে, তখন তামাকে থেকে ধোঁয়া বের হয় এবং এই ধোঁয়া জলের মধ্য দিয়ে অতিক্রম করে বলে, তাপমাত্রা হারিয়ে ঠান্ডা হয়ে যায়। তাই সিগারেটের গরম ধোঁয়ার বদলে হুকা থেকে ঠান্ডা ধোঁয়া নির্গত হয়।
হুকার তামাক
হুকাতে যে তামাক ব্যবহার করা হয় তাকে মিষ্টি স্বাদের এবং সুগন্ধযুক্ত করার জন্য নানারকম ফলের শাঁস এবং মধু মেশানো হয়। পছন্দ অনুযায়ী নারকেল, পুদিনা বা কফির ফ্লেভারও মেশানো হয়ে থাকে। এই মিষ্টি স্বাদ ও নানারকম পছন্দের গন্ধ অল্পবয়সীদের কাছে হুকাকে আকর্ষণীয় করে তোলে।
হুকাপানের প্রচলন
হুকাপানের প্রচলন করেন হাকিম আব্দুল ফতে নামক একজন ভারতীয় ডাক্তার ১৬০০ শতকের প্রথম দিকে। তাঁর ভ্রান্ত ধারণা ছিল যে হুকার ধোঁয়া জলের মধ্য দিয়ে অতিক্রান্ত হয় তাই এর দ্বারা ফুসফুসে কোন ক্ষতি হয় না।
ক্ষতি হয় কতটা?
এটা একটা প্রচলিত ধারণা যে হুকা থেকে যে ধোঁয়া নির্গত হয় তাতে নিকোটিন এবং অন্যান্য দূষিত পদার্থগুলি থাকে না। এটি সম্পূর্ণরূপে ভ্রান্ত। যদিও হুকা থেকে নির্গত ধোঁয়া নরম প্রকৃতির হয় এবং তাপমাত্রা কম থাকায় ফুসফুসের নরম কলাকোষগুলিকে আঘাত কম করে। কিন্তু তাতে হুকার ধোঁয়ায় উপস্থিত দূষিত পদার্থগুলির পরিমাণ তথা ক্যান্সার তৈরি করার জন্য তামাকে উপস্থিত ক্ষতিকর রাসায়নিকগুলির পরিমাণ কম হয় না।
হুকায় কী কী থাকে?
হুকাতে উপস্থিত কয়েকটি ক্ষতিকর রাসায়নিক হল—
 কার্বন মনোক্সাইড
 টার
 আরসেনিক
 ক্রোমিয়াম
 কোবাল্ট
 ক্যাডমিয়াম
 নিকেল
 ফর্মালডিহাইড
 অ্যাসিট্যালডিহাইড
 অ্যাক্রোলিন
 লেড
 পোলোনিয়াম নামক তেজষ্ক্রিয় পদার্থ।
এছাড়াও হুকাতে ব্যবহৃত চারকোল জ্বালালে, তা থেকে কার্বন মনোক্সাইড নানারকম ধাতব পদার্থ এবং ক্যান্সার সৃষ্টিকারী পলি অ্যারোমাটিক হাইড্রোকার্বন উৎপন্ন হয়, যা আরও নানারকম শারীরিক ক্ষতি সাধন করে।
সিগারেট বনাম হুকা
একটি সিগারেটে সাধারণত ৭-২২ মিলিগ্রাম নিকোটিন থাকে যার মধ্যে ১ মিলিগ্রাম শোষিত হয় শরীরে। হুকাতে কিন্তু ৭টি সিগারেটের সমান মাপের নিকোটিন জমা রাখা হয়।
 ধূমপায়ীরা একটি সিগারেটে ২০ বার টান দিলে ৫০০-৬০০ মিলিলিটার ধোঁয়া সেবন করেন। সেখানে ৪৫ মিনিট টানা হুকা পান করলে ২০০ বার টান দিতে হয় এবং প্রায় ৯০০০ মিলিলিটার ধোঁয়া যার শরীরের ভিতরে।
 সিগারেটের তুলনায় হুকাপানে প্রায় ৬ গুণ বেশি কার্বন মনোক্সাইড এবং ৪৬ গুণ বেশি টাব শরীরে প্রবেশ করে যার ক্ষতির মাত্রা মারাত্মক।
 দেখা গিয়েছে, দিনে একবার হুকা পান করলে যে ক্ষতি সাধিত হয়, তা দিনে ২-১০টা সিগারেট পানের সমান।
সুতরাং হুকাপানে শরীরের ক্ষতি কম তো হয়ই না উপরন্তু সিগারেটের থেকেও বেশি ক্ষতি সাধিত হয় শরীরে।
 হুকাপানের সঙ্গে রোগের ঝুঁকি
হুকাপান করলে যে রোগগুলির ঝুঁকি বেড়ে যায় সেগুলি হল
 মুখের ক্যান্সার
 ফুসফুসের ক্যান্সার
 পাকস্থলীর ক্যান্সার
 ইসোফেগাসের ক্যান্সার
 হৃৎপিণ্ডের রোগ ও ফুসফুসের অন্যান্য সমস্যা।
 নানারকম সংক্রমণ জনিত রোগ
আজকাল কিছু কিছু কিছু হুকা বার দাবি করে, তারা হুকাতে নানারকম ফ্লেভার ব্যবহার করে। তামাক কোনওভাবেই ব্যবহার করে না।
তাই তামাকজনিত ক্ষতি এখানে সাধিত হয় না। তর্কের খাতিরে সে কথা যদি মেনেও নেওয়া যায়, তবুও চারকোলের ধোঁয়াতে প্রচুর পরিমাণে উপস্থিত কার্বন মনোক্সাইড এবং টারের দূষিত পদার্থজনিত ক্ষতিকে এড়ানো সম্ভব কি? তাই অন্যান্য তামাকজনিত বদঅভ্যাসের মতো হুকাপানও একটি বদভ্যাস।
ভারতের মেট্রো শহরগুলির পাশাপাশি সমগ্র পৃথিবীর ছোট-বড় শহরগুলিতেও হুকাপান দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে। অবিলম্বে সতর্ক না হলে তামাকজনিত শারীরিক ক্ষতির পরিমাণ বেড়েই চলবে এবং মারণ রোগগুলির পরিসংখ্যানও বেড়ে চলবে।
29th  August, 2019
সিকে বিড়লা হাসপাতালের ৩০ বছর পূর্তি 

৩০ বছর পূর্ণ করল কলকাতার সিকে বিড়লা হসপিটাল-বিএমবি। সেই উপলক্ষ্যে সংস্থার পক্ষ থেকে একটি সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিল।  বিশদ

20th  February, 2020
মহিলারা এইবার অন্তত নিজের দিকে তাকান! 

পরামর্শে স্পর্শ ইনফার্টিলিটি ক্লিনিকের বিশিষ্ট গাইনিকোলজিস্ট এবং ইনফার্টিলিটি বিশেষজ্ঞ ডাঃ দেবলীনা ব্রহ্ম।  বিশদ

20th  February, 2020
হার্ট অ্যাটাক-স্ট্রোক এড়ান 

পরামর্শে মুকুন্দপুরের আর এন টেগোর হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ অরিন্দম বিশ্বাস।  বিশদ

20th  February, 2020
৪০ পেরলে কী কী সতর্কতা নেবেন? 

পরামর্শে বিশিষ্ট মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাঃ আশিস মিত্র  বিশদ

20th  February, 2020
দুঃস্বপ্ন মস্তিষ্ককে শক্তিশালী করে 

বেঁচে থাকতে মানুষের খাওয়া এবং ঘুম অপরিহার্য। দিনের শেষে একটু ঘুমিয়ে নেওয়া মানে টোটাল রিফ্রেশ। কিন্তু সেই ঘুমের ভেতরে অনেকেই অনেক সময় ভয়ানক কোনও স্বপ্ন দেখে চিৎকার করে জেগে ওঠেন। স্বপ্ন যেমন সুখের হয়, তেমনি দুঃখেরও হয়। হয় ভয়েরও। তবে মজার বিষয় হল, গবেষকরা সম্প্রতি জানিয়েছেন, ঘুমের ভেতর দুঃস্বপ্ন দেখলে মস্তিষ্কের কার্যকারিতা অধিকাংশ ক্ষেত্রে অনেকগুণ বেড়ে যায়।
বিশদ

13th  February, 2020
কন্যাসন্তান হলে পিতার আয়ু বাড়ে 

পুত্রসন্তান তাদের পিতার আয়ুর ওপর কোনও প্রভাব ফেলে না। তবে কন্যাসন্তানের সংখ্যার সঙ্গে পিতার লম্বা আয়ুর সমানুপাতিক সম্পর্ক রয়েছে। পোল্যান্ডের জাগিলোনিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্প্রতি পরিচালিত এক গবেষণা শেষে এমন তথ্য পাওয়া গিয়েছে। 
বিশদ

13th  February, 2020
ক্রমাগত অনলাইন শপিং কি অবসাদের প্রকাশ? 

অফিসে কাজের ফাঁকে কিংবা অবসরে মোবাইলে প্রতিদিনই অনায়াসে চোখ ঘোরাফেরা করছে নানা সাইটে। ল্যাপটপে একগুচ্ছ উইন্ডো খোলা কিংবা মোবাইলে অনলাইন শপিং সাইট খুলে রাখা— এটা রোজকার অভ্যেসে পরিণত হয়েছে। জামা, জুতো, শ্যাম্পু কিংবা লাইফ স্টাইলের নানা পণ্যও শপিং সাইটগুলো থেকে হুট করে কিনে ফেলেন অনেকে।  
বিশদ

13th  February, 2020
এক ঝলকে 

মেডিকায় লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট
জটিল লিভারের সমস্যায় ভুগছিলেন বছর চল্লিশের যুবক মুকেশকুমার শ। এরপর তিনি মেডিকা হাসপাতালের ইনস্টিটিউট অব গ্যাস্ট্রোইন্টেসটিনাল ডিজিজ বিভাগে চিকিৎসার জন্য আসেন।  
বিশদ

13th  February, 2020
ক্যান্সার চিকিৎসায় কতটা এগল আয়ুর্বেদ? 

জানাচ্ছেন কলকাতার ডি.এস রিসার্চ সেন্টারের আয়ুর্বেদাচার্য কনসালটেন্ট ডাঃ অনির্বাণ ভট্টাচার্য।
এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, বিশ্বে প্রতি বছর এক কোটি কুড়ি লক্ষ মানুষ ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হয়। সেই হিসাবে প্রতি বছর ক্যান্সারের চিকিৎসায় সারা বিশ্বে ব্যয় হয় ২৮ হাজার ৬০০ কোটি ডলার।  
বিশদ

13th  February, 2020
কীভাবে ‘ওম’ উচ্চারণ করলে শান্তি পাওয়া যায়? 

শারীরিক অসুখের সঙ্গে মানসিক অস্থিরতা ও দুশ্চিন্তার সম্পর্ক নিবিড়। তাই প্রতিদিন ‘ওম’ ধ্বনি সহযোগে ধ্যান করলে মন শান্ত হয়। প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব হয়। তবে ধ্যান করার কিছু নিয়ম রয়েছে। জানাচ্ছেন যোগ বিশারদ প্রেমসুন্দর দাস। 
বিশদ

13th  February, 2020
শিশুদেরও সাবধানে রাখুন 

চীনের গণ্ডি পেরিয়ে ভারতের মাটিতে এসে উপস্থিত হয়েছে নোভেল করোনা ভাইরাস। সবমিলিয়ে পরিস্থিতি বেশ জটিল দিকে মোড় নিচ্ছে। উদ্বিগ্ন দেশের স্বাস্থ্য মহল। এমন খবরে গৃহস্থ বাড়িতে শিশুর অভিভাবকদের কপালেও চিন্তার ভাঁজ পড়েছে। বিশদ

06th  February, 2020
অহেতুক আতঙ্কে ভুগবেন না, বলছেন নামী রেস্তরাঁ ব্যবসায়ীরা 

করোনা আতঙ্কে ব্যবসা কতটা পড়ল, নাকি আদৌ পড়েনি? কী বলছেন শহরের নামী চাইনিজ ও মাল্টিক্যুইজিন রেঁস্তরা ব্যবসায়ীরা? মেইনল্যান্ড চায়না’র কর্ণধার অঞ্জন চট্টোপাধ্যায় বলেন, আমি সত্যিই বুঝতে পারছি না, আমাদের রেঁস্তরাগুলির সঙ্গে চীনের সর্ম্পক কী?  
বিশদ

06th  February, 2020
করোনার সঙ্গে চাইনিজ খাবারের কি সম্পর্ক রয়েছে?  

যাঁরা নিয়মিত ফাস্ট ফুড ও চাইনিজ ফুড খান, তাঁদের অনেকেই ইতিমধ্যে চাইনিজ খাবারের সঙ্গে চিকেন খাওয়াও ছেড়ে দিয়েছেন! একটা বিরাট সংখ্যক মানুষের ধারণা, চাইনিজ ফুডের বিভিন্ন ধরনের স্যস, চাউমিন থেকে না করোনা সংক্রমণ হয়! আবার বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে, মাংস থেকেই এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছিল। বিশদ

06th  February, 2020
করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচবেন কীভাবে? 

বিশ্ব জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক। কী করবেন? জানাচ্ছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নেগলেক্টেড ট্রপিক্যাল ডিজিজ-এর পশ্চিমবঙ্গ শাখার প্রধান ডাঃ প্রীতম রায়।  বিশদ

06th  February, 2020
একনজরে
বিএনএ, রায়গঞ্জ: শনিবার থেকে রায়গঞ্জের আব্দুলঘাটা ফরেস্টে হিমালয়ান মাউন্টেনিয়ারিং অ্যান্ড ট্রেকার্স অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে শিশুদের নিয়ে দু’দিনের প্রকৃতি পাঠ শিবির শুরু হয়েছে। রায়গঞ্জ, ইটাহার, কালিয়াগঞ্জ, হেমতাবাদ সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে চার থেকে ১৪ বছর বয়সের ছেলেমেয়েদের নিয়ে এই শিবির শুরু হয়েছে। ...

সংবাদদাতা, নবদ্বীপ: শনিবার নবদ্বীপ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে বসে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিল নবদ্বীপ এপিসি ব্লাইন্ড স্কুলের ছাত্রী স্মৃতি নন্দী। ব্লাইন্ড স্কুলের হোস্টেল সুপার সুরেন্দ্রকুমার চক্রবর্তী বলেন, বুধবার রাতে স্মৃতি অসুস্থ হয়ে নবদ্বীপ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়। ...

 অভিমন্যু মাহাত, বারাকপুর, বিএনএ: ‘আমি অনুতপ্ত। ওভারটেক করতে গিয়েই দুর্ঘটনা। আমি এই দুর্ঘটনা ভুলে যেতে চাই। আচ্ছা, ঋষভ এখন কেমন আছে?’ কল্যাণী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্য সরকারি কর্মীদের জেনারেল প্রভিডেন্ট ফান্ড (জিপিএফ)-এর টাকা নিয়ে অনিয়ম আটকাতে পুরো ব্যবস্থাটিকে অনলাইনে এইচআরএমএস পোর্টালে নিয়ে আসা হচ্ছে। অতীতে জিপিএফ নিয়ে সরকারি অফিসে একাধিক অনিয়মের ঘটনা ধরা পড়েছে। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের মানসিক স্থিরতা রাখা দরকার। প্রেম-প্রণয়ে বাধাবিঘ্ন থাকবে। তবে নতুন বন্ধু লাভ হবে। সাবধানে পদক্ষেপ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

আন্তর্জাতিক ভাষা দিবস
১৮৪৮: কার্ল মার্ক্স প্রকাশ করেন কমিউনিস্ট ম্যানিফেস্টো
১৮৭৮ - মিরা আলফাসা ভারতের পণ্ডিচেরি অরবিন্দ আশ্রমের শ্রীমার জন্ম
১৮৯৪: ডাঃ শান্তিস্বরূপ ভাটনগরের জন্ম
১৯৩৭: অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৫২: পূর্ব পাকিস্তানে (বর্তমান বাংলাদেশ) ভাষা আন্দোলনে প্রাণ দিলেন চারজন
১৯৬১: নোবেলজয়ী ভারতীয় বংশোদ্ভূত আমেরিকান বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৭০ - অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার মাইকেল স্লেটারের জন্ম
১৯৯১: অভিনেত্রী নূতনের মৃত্যু
১৯৯৩ - বিশিষ্ট শিশু সাহিত্যিক ও কবি অখিল নিয়োগীর (যিনি স্বপনবুড়ো ছদ্মনামে পরিচিত) মৃত্যু
২০১৩: হায়দরাবাদে জোড়া বোমা বিস্ফোরণে ১৭জনের মৃত্যু

১৭৩২: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম রাষ্ট্রপতি জর্জ ওয়াশিংটনের জন্ম
১৯০৬: অভিনেতা পাহাড়ি সান্যালের জন্ম
১৯৪৪: মহাত্মা গান্ধীর স্ত্রী কস্তুরবা গান্ধীর মৃত্যু
১৯৫৮: স্বাধীনতা সংগ্রামী আবুল কালাম আজাদের মৃত্যু
২০১৫: বাংলাদেশে নৌকাডুবি, মৃত ৭০

21st  February, 2020




ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৯৪ টাকা ৭২.৬৫ টাকা
পাউন্ড ৯০.৯৮ টাকা ৯৪.৩০ টাকা
ইউরো ৭৬.০৫ টাকা ৭৯.০১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
21st  February, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৩,১৬০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪০,৯৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪১,৫৬০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৮,৫০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৮,৬০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১০ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, রবিবার, (মাঘ কৃষ্ণপক্ষ) অমাবস্যা ৩৭/১৭ রাত্রি ৯/২। ধনিষ্ঠা ১৮/৫৮ দিবা ১/৪৩। সূ উ ৬/৭/২৩, অ ৫/৩৩/৫, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৩ গতে ৯/৫৬ মধ্যে। রাত্রি ৭/১৩ গতে ৮/৫৪ মধ্যে। বারবেলা ১০/২৫ গতে ১/১৫ মধ্যে। কালরাত্রি ১/২৫ গতে ২/৫৮ মধ্যে। 
১০ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, রবিবার, অমাবস্যা ৩৪/৪২/৪০ রাত্রি ৮/৩/৩৭। ধনিষ্ঠা ১৭/৩৭/৪৩ দিবা ১/১৩/৩৮। সূ উ ৬/১০/৩৩, অ ৫/৩১/৫৮। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪০ গতে ৯/৪৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/১৭ গতে ৮/৫৪ মধ্যে। কালবেলা ১১/৫১/১৬ গতে ১/১৬/২৬ মধ্যে। কালরাত্রি ১/২৬/৫ গতে ৩/০/৫৪ মধ্যে। 
২৮ জমাদিয়স সানি

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ময়নাগুড়ির বালাসন এলাকায় চিতা বাঘের আতঙ্ক, ঘটনাস্থলে বনদপ্তরের কর্মীরা 

22-02-2020 - 02:10:59 PM

কোচবিহারে পথ দুর্ঘটনায় জখম ১০ 
কোচবিহারের বানেশ্বর শিব মন্দিরে শিবের মাথায় জল ঢেলে বাড়ি ফেরার ...বিশদ

22-02-2020 - 01:48:00 PM

জয়নগরে স্কুলের গেটে ট্রাকের ধাক্কায় জখম প্রহরী 

22-02-2020 - 01:02:00 PM

বারুইপুরে আত্মঘাতী কিশোরী 
বারুইপুরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী কিশোরী। গতকাল সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটে ...বিশদ

22-02-2020 - 01:01:00 PM

কৃষ্ণা বসুর মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের 

22-02-2020 - 12:57:00 PM

উলুবেড়িয়ায় ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে উল্টাল গ্যাস ট্যাঙ্কার, ব্যাহত যান চলাচল 

22-02-2020 - 12:39:00 PM