Bartaman Patrika
রাজ্য
 

৪২টা আসন দিন, দিল্লি কীভাবে
কাঁপাতে হয় দেখিয়ে দেব: মমতা

দেবাঞ্জন দাস, বহরমপুর: এবারের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আপ্তবাক্য- ৪২’এ ৪২। নির্বাচনী প্রচারে নেমে উত্তরবঙ্গ থেকে শুরু করে দক্ষিণবঙ্গ পর্যন্ত প্রতিটি সভাতে ৪২’এ ৪২-এর স্লোগান তুলেছেন তিনি। কিন্তু কেন এই স্লোগান, তার ব্যাখ্যা শুক্রবার বহরমপুর স্টেডিয়ামে দলীয় প্রার্থী অপূর্ব (ডেভিড) সরকারের সমর্থনে আয়োজিত সভায় স্পষ্ট করেছেন মমতা। আত্মবিশ্বাসী তৃণমূল সুপ্রিমো বারবার বলেছেন, এবার বিজেপি’র বিদায়ের পালা। ১০০টা আসনও পাবে না ওরা। বিভিন্ন আঞ্চলিক দল মিলে গঠন করবে কেন্দ্রের পরবর্তী সরকার। আর সেই সরকারের নিয়ন্ত্রক হিসেবে তৃণমূল যে বড়সড় ভূমিকা নিতে চলেছে, সে কথাও জনতার সামনে বলে চলেছেন মমতা। এদিন বহরমপুরে ভরা সভায় জনতাকে সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, ৪২’এ ৪২টা আসন দিন। দিল্লি কীভাবে কাঁপাতে হয়, দেখিয়ে দেব। কীভাবে দখল হবে দিল্লি, সেটাও জানা আছে। জোড়াফুল শিবিরের প্রধানের এই আহ্বানে কংগ্রেসের গড় বহরমপুর সাড়া দিয়েছে ঢাক-ঢোল বাজিয়ে।
দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট আর গঙ্গরামপুরে সভা সেরে এদিন মমতার নির্বাচনী প্রচারপর্ব শেষ করার রুটিনে ছিল বহরমপুর। বেলা ১২টা থেকে যে জমায়েত শুরু হয়েছিল, তা নিয়ে প্রথম দিকে বেশ অস্বস্তিতে ছিল জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। বেলা আড়াইটে নাগাদ জেলার পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী আসার পর মাঠ ভরতে শুরু করে। পৌনে চারটে নাগাদ মমতার চপার যখন বহরমপুরের আকাশে, পিলপিল করে মানুষ এসে উপচে দিল সভাস্থল। আজ, শনিবার দক্ষিণ দিনাজপুরের বুনিয়াদপুরে সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার কয়েক ঘণ্টার ম঩ধ্যেই মমতার সভা নদীয়ার পাগলাচণ্ডীতে। ভোট যুদ্ধে বিপরীত শিবিরের এই দুই নেতা-নেত্রীর দ্বৈরথ শনিবার কী আকার নেয়, এখন তার জন্যই মুখিয়ে রয়েছে রাজনৈতিক মহল।
বহরমপুরের বিদায়ী সাংসদ কংগ্রেসের অধীর চৌধুরীই এদিন ছিলেন মমতার টার্গেট। এখানে কংগ্রেসকে ভোট দেওয়া আর পদ্মফুল শিবিরকে আরও শক্তিশালী করা সমার্থক কেন, তার ব্যাখ্যা দেন তিনি। অধীরের নাম না করে বলেন, কেন বলছি কংগ্রেসকে ভোট না দেওয়ার কথা? কারণ, বিজেপির সমর্থনে ওরা ভোটে জিততে চায়। তাঁর প্রশ্ন, কেন তুমি সকালে বিজেপি, দুপুরে কংগ্রেস আর রাতে সিপিএম? জনতার কাছে তাঁর আর্জি, এই সব সুবিধাবাদী নেতা কী করছেন জানেন? একটু সিপিএম, একটু বিজেপি’র সঙ্গে ফিসফাস আর কানাঘুষো। সাহায্যের আবেদন। কেন এসব! কংগ্রেসের হয়ে জিতে আসুন না দেখি। সুর চড়িয়ে মমতার আস্ফালন— টিম টিম করে জ্বলছে। এবার স্রেফ নিভে যাবে।
তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, এখানে কংগ্রেস, সিপিএম, বিজেপি, মোদিবাবু-অমিত শাহ আর এজেন্সিগুলো পিছনে লেগেছে। ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে লড়াই চালাচ্ছি, তাই আমাদের বিরুদ্ধে লেগেছে। আরে যতই যা কর, ভোট তো দেবে সাধারণ মানুষ। প্রত্যয়ী মমতার দাবি, এখনও পর্যন্ত পাঁচটা আসনে ভোট হয়েছে। পাঁচটাতেই জিতব। আগামীতে যা হবে, তাতেও জিতব। কংগ্রেসকে ভোট দিয়ে এখানে লাভ কী? রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, পাঞ্জাব- যেখানে ওরা শক্তিশালী সেখানে লড়ুক। এখানে তৃণমূল স্ট্রং। আমরাই লড়াই করি বিজেপি’র বিরুদ্ধে। তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, আমাদের ওয়ান পয়েন্ট প্রোগ্রাম, মোদি হটাও, দেশ বাঁচাও। আর এই সঙ্কল্পকে সাফল্যের মুখ দেখাতে হলে কংগ্রেস, সিপিএম, বিজেপি এবং আরএসপি- কাউকে ভোট দিলে হবে না।
গেরুয়া শিবিরের পোস্টার বয় নরেন্দ্র মোদি আর তাঁর সেনাপতি অমিত শাহের নাম না করে মমতার কটাক্ষ, দিল্লির গদি তো টলমল করছে। আগে দিল্লি সামলা, পরে ভাবিস বাংলা। উঁকি-ঝুঁকি মারছে, এখান থেকে সিট চাই। ছেলের হাতের মোয়া যেন। তৃণমূল সুপ্রিমোর প্রশ্ন, ওরা (বিজেপি) সরকার গড়বে কোথা থেকে? কোথায় পাবে আসন? সরকার গঠনে এবার আঞ্চলিক দলগুলিই বড় ভূমিকা পালন করবে। ওরা সেটা জানে, তাই হিন্দু-মুসলমানে ভাগাভাগি করছে। গদা-তরোয়াল নিয়ে ঘুরছে। এটা হিন্দু ধর্ম নয়। হিন্দু ধর্ম মানে মানবিকতা, মানুষে মানুষে লড়িয়ে রক্ত ঝরানো নয়। করতালি আর জনতার উচ্ছ্বাস তখন গোটা সভাস্থলে।

20th  April, 2019
কলকাতায় রেমডেসিভিরের
কালোবাজারি, গ্রেপ্তার ৩

করোনার জেরে দেশজুড়ে তৈরী হয়েছে ভয়াবহ পরিস্থিতি। করোনা ভ্যাকসিন থেকে শুরু করে  করোনা চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধ ও সরঞ্জাম নিয়েও শুরু হয়ে গিয়েছে  কালোবাজারি। এই অতিমারী পরিস্থিতিতে দিশেহারা রাজ্যবাসীর কাছে বর্তমানে অমূল্য সম্পদ রেনডেসিভির। বিশদ

মুখ্যমন্ত্রীর ৪টি চিঠি নিয়ে মুখে কুলুপ
মমতাকে এড়িয়ে ডিএমদের সঙ্গে
কোভিড-বৈঠক ‘উদ্বিগ্ন’ মোদির

রাজ্যে রাজ্যে বাড়ছে সংক্রমণ এবং মৃত্যু। টিকা, অক্সিজেন, হাসপাতালে বেডের আকাল দেশজুড়ে। এই সঙ্কটকালে সার্বিক টিকাকরণ এবং অক্সিজেনের দাবিতে বারবার প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছেন একাধিক অবিজেপি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। এদিনও ১২ জন বিরোধী নেতা মিলিতভাবে চিঠি দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদিকে। যদিও পত্রাঘাত পর্বে অন্যতম অবশ্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বিগত কয়েকদিনে নরেন্দ্র মোদিকে চারটি চিঠি পাঠিয়েছেন। অথচ প্রধানমন্ত্রী উত্তর দেওয়ার প্রয়োজন অনুভব করেননি।
বিশদ

মেয়াদ বৃদ্ধি হতে চলেছে ভোট-বাজেটের
কোভিড ও সামাজিক
সুরক্ষাকেই প্রাধান্য মমতার

সংক্রমণের জেরে সঙ্কটজনক পরিস্থিতি গোটা রাজ্যে। এমন এক পরিস্থিতিতে তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মারণ সংক্রমণকে বধ করাই এখন তাঁর প্রথম এবং প্রধান লক্ষ্য। তাই মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণের পরেই একটি বড় সিদ্ধান্ত নিল নয়া সরকার। বিশদ

সরকার চাইলে যথাসময়েই উচ্চ মাধ্যমিক
নিতে প্রস্তুত সংসদ, জানালেন সভাপতি

সরকার নির্দেশ দিলে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা যথাসময়ে নিতে প্রস্তুত তাঁরা। বুধবার সংবাদমাধ্যমে একথা জানান উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি মহুয়া দাস। তিনি বলেন, কোভিড পরিস্থিতিতে পরীক্ষা নেওয়া হবে কি না, তা সরকারের ব্যাপার। বিশদ

বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা
জগন্নাথের, ক্ষুব্ধ শান্তিপুর

অবশেষে বুধবার বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিলেন শান্তিপুরের নব-নির্বাচিত বিজেপি প্রার্থী জগন্নাথ সরকার। শান্তিপুরের ভোটাররা তাঁকে জেতালেও মানুষের রায়কে তিনি গুরুত্ব দিলেন না। রানাঘাট লোকসভার এমপি পদই বজায় রাখলেন জগন্নাথবাবু। বিশদ

‘মা ক্যান্টিন’ চালু হবে রাজ্যজুড়ে 
ভোট মিটতেই সিদ্ধান্ত

কোনও মানুষ যাতে অনাহারে না থাকেন, তার জন্য ভোটের আগে ‘মা ক্যান্টিন’ চালু করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মূলত কলকাতা শহরের বিভিন্ন জায়গায় সেই ক্যান্টিন চালু হয়। যেখান থেকে পাঁচ টাকায় ডিম-ভাত পাওয়া যায়। রোজই দেখা যায়, লাইন দিয়ে মানুষ ডিম-ভাত নিচ্ছেন। বিশদ

নিন্দার ঝড়
বিজেপির হারের সাফাই
বক্তৃতা বাতিল বিশ্বভারতীতে

প্রবল সমালোচনার মুখে পড়ে অবশেষে ১৮মের রাজনৈতিক বক্তৃতা বাতিল করল বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার নিজস্ব ওয়েবসাইটে লেকচার সিরিজের ৩৫তম বক্তৃতার বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সেখানে আলোচনার বিষয় ছিল, ‘বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির ভরাডুবির কারণ’। বিশদ

কেন্দ্র দ্বিতীয় ডোজ না পাঠালে
এ মাসের শেষে ১০ লক্ষ রাজ্যবাসীর
টিকাকরণ অসম্পূর্ণ থাকবে
আশঙ্কা স্বাস্থ্যকর্তাদের

কেন্দ্রীয় সরকার দ্রুত টিকা না পাঠালে অন্তত ১০ লক্ষ রাজ্যবাসী সময়ে দ্বিতীয় ডোজ পাবেন না। কোটি কোটি টাকা খরচ করে যে প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে, সেই উদ্যোগই মাঠে মারা যাবে। অসম্পূর্ণ থেকে যাবে করোনা টিকাকরণ। এমনই আশঙ্কা দেখা দিয়েছে রাজ্যে। বিশদ

টিকা, ওষুধ ও অক্সিজেন থেকে জিএসটি
বাবদ ৬ হাজার কোটি টাকা আয় কেন্দ্রের
 নিন্দায় সরব প্রশান্ত কিশোর, অমিত মিত্র

১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সিদের টিকা কর্মসূচির নামে ৩ হাজার কোটি টাকারও বেশি জিএসটির লাভ ঘরে তুলছে কেন্দ্র। বুধবার এই মর্মে সরব হল কংগ্রেস। ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থার থেকে রাজ্য সরকার এবং প্রাইভেট হাসপাতালগুলি যে সরাসরি ডোজ কিনছে, সেখান থেকেই কেন্দ্র এই লাভের গুড় খাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে সোনিয়া গান্ধীর দল। বিশদ

করোনা পরিস্থিতিতে সুষ্ঠুভাবে রেশনে
খাদ্যসামগ্রী দিতে জোর নয়া খাদ্যমন্ত্রীর

করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও সুষ্ঠুভাবে রেশনে খাদ্যসামগ্রী দেওয়ার উপর বিশেষ জোর দিচ্ছেন রাজ্যের নতুন খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষ। মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেশন গ্রাহকদের বাড়ি বাড়ি খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার যে কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন, তাও দ্রুত কার্যকর করতে চান মন্ত্রী। বিশদ

কৃষি নিয়ে আরও গভীরে যেতে
বই সঙ্গী শোভনদেবের

কৃষি জমি কমবে। কিন্তু খাদ্যের উৎপাদন বাড়াতে হবে। আগামী ২০ বছর রাজ্যে আরও জনসংখ্যা বাড়বে। সেই নিরিখে কৃষিনীতি তৈরি করার জন্য দপ্তরের অফিসারদের নির্দেশ দিলেন নতুন কৃষিমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। বিশদ

তারাপীঠে পর্যটক, হোটেল-লজ ব্যবসায়ীদের
উপর  জারি টিআরডিএ-র কোভিড নিষেধাজ্ঞা

পর্যটক সহ হোটেল ও লজ ব্যবসায়ীদের উপর এবার কোভিড নিষেধাজ্ঞা জারি করল তারাপীঠ-রামপুরহাট উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। হোটেলে থাকতে হলে দাখিল করতে হবে কোভিড নেগেটিভ সার্টিফিকেট। পর্যটকদের আনাগোনায় সংক্রমণ যাতে না ছড়ায় সেজন্যই এই নির্দেশ বলে জানিয়েছেন টিআরডিএ-র সিইও তথা রামপুরহাটের মহকুমাশাসক জগন্নাথ ভড়।  বিশদ

‘বলেছিলাম, বৃষ্টি না থামলে ট্যাক্সিতে
ফিরিস, হেঁটে আসার দরকার নেই’
ঋষভের 
অকালমৃত্যুতে শোকে পাথর বাবা-মা

বাবা, বৃষ্টি না থামলে ট্যাক্সি করে বাড়ি ফিরিস। হেঁটে আসার দরকার নেই। এখন সময় ভালো নয়। ঘরে ঢুকে ফোন করিস। তখন ভালোভাবে কথা না হওয়ায় ছেলের ফোনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন ফরাক্কার এনটিপিসি মোড়ের বিপাশা মণ্ডল। কিন্তু মায়ের মোবাইলে আর ডায়াল করার সুযোগ পাননি ঋষভ। বিশদ

সরকারি হাসপাতালে ৩৫টি অক্সিজেন
প্লান্ট বসানোই লক্ষ্য মন্ত্রী পুলক রায়ের

দেশজুড়ে কোভিড মহামারীতে আক্রান্ত মানুষের কাছে এখন অক্সিজেন মহার্ঘ হয়ে উঠেছে। অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুর ঘটনা বাড়ছে। বাংলায় সেই পরিস্থিতি এখনও তৈরি না-হলেও অক্সিজেনের অভাব লক্ষণীয়। বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
শিলিগুড়িতে ফের ভাঙন ধরল বামফ্রন্টে। বিধানসভা ভোটে অশোক ভট্টাচার্যের ভরাডুবির দু’সপ্তাহের মধ্যে বুধবার বামফ্রন্ট ত্যাগ করলেন দুই নেতা। তাঁরা হলেন আরএসপির রামভজন মাহাত ও সিপিএমের ...

করোনার সংক্রমণ এড়িয়ে সুরক্ষিতভাবে বাড়িতে বসেই গয়না কেনার সুযোগ করে দিচ্ছে সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস। অক্ষয় তৃতীয়া ও ঈদ উপলক্ষে থাকছে হরেক অফারও। ...

দলের নির্দেশে নন্দীগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান পদ থেকে ইস্তফা দিলেন বনশ্রী খাঁড়া। তিনি সম্পর্কে রাজ্যের মন্ত্রী শিউলি সাহার মা। বিধানসভা ভোটে বনশ্রীদেবী তৃণমূলের হয়ে সেভাবে প্রচারে নামেননি বলে দলীয় নেতৃত্বের অভিযোগ। সেজন্য তাঁকে অবিলম্বে ইস্তফা দিতে নির্দেশ দিয়েছিল দল। ...

শেষ পর্যন্ত বিস্তর টানাপোড়েনের পর আলোচনায় বসতে চেয়ে শ্রী সিমেন্ট কর্তারা বুধবার চিঠি দিল ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবকে। ওই চিঠিতে এসসি ইস্ট বেঙ্গলের সিইও শিবাজি সমাদ্দার বলেছেন, ‘অবিলম্বে আলোচ্য বিষয়গুলি জানান।’ ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

আত্মীয়স্বজন, বন্ধু-বান্ধব সমাগমে আনন্দ বৃদ্ধি। চারুকলা শিল্পে উপার্জনের শুভ সূচনা। উচ্চশিক্ষায় সুযোগ। কর্মক্ষেত্রে অযথা হয়রানি। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৬৩৮ - সম্রাট শাহজাহানের তত্ত্বাবধায়নে দিল্লির লাল কেল্লার নির্মাণ কাজ শুরু
১৮৩৬ - ভারততত্ত্ববিদ স্যার চার্লস উইলকিন্সের মৃত্যু
১৮৮৭ - বাঙালি কবি, সাহিত্যিক, সাংবাদিক এবং প্রবন্ধকার রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যু
১৮৫৭: ম্যালেরিয়ার জীবাণু আবিষ্কারক রোনাল্ড রসের জন্ম
১৯১৮: নৃত্যশিল্পী বালাসরস্বতীর জন্ম
১৯৪৭: কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের মৃত্যু
১৯৫৬: আর্ট অফ লিভিং ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা তথা আধ্যাত্মিক নেতা শ্রীশ্রী রবিশঙ্করের জন্ম
১৯৬২: ভারতের দ্বিতীয় রাষ্ট্রপতি হিসাবে শপথ নিলেন সর্বপল্লি রাধাকৃষ্ণাণ
১৯৬৭: ভারতের তৃতীয় রাষ্ট্রপতি হিসাবে শপথ নিলেন জাকির হোসেন
১৯৯৫ - প্রথম নারী হিসেবে ব্রিটিশ বংশদ্ভূত এলিসনের অক্সিজেন ও শেরপা ছাড়াই এভারেস্ট জয়
২০০০ - ভারতের লারা দত্তের বিশ্বসুন্দরী শিরোপা লাভ
২০০৫ - বিশিষ্ট সঙ্গীতিশিল্পী উৎপলা সেনের মৃত্যু
২০১১: পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল জয় তৃণমূল কংগ্রেসের



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৬৭ টাকা ৭৪.৬৮ টাকা
পাউন্ড ১০১.৯৯ টাকা ১০৫.৫১ টাকা
ইউরো ৮৭.৪৯ টাকা ৯০.৭১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৮,৪৫০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৫,৯৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৬,৬৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৭১,৬০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৭১,৭০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৯ বৈশাখ ১৪২৮, বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১। দ্বিতীয়া অহোরাত্র। রোহিণী নক্ষত্র অহোরাত্র। সূর্যোদয় ৫/১/১৪, সূর্যাস্ত ৬/৪/৩৬। অমৃতযোগ রাত্রি ১২/৪০ গতে ২/৫১ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/৪৬ মধ্যে পুনঃ ১০/১৫ গতে ১২/৫২ মধ্যে। বারবেলা ২/৪৯ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/৩৩ গতে ১২/৫৫ মধ্যে। 
২৯ বৈশাখ ১৪২৮, বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১। দ্বিতীয়া রাত্রি ৩/৩৬। রোহিণী নক্ষত্র শেষরাত্রি ৪/৮। সূর্যোদয় ৫/১, সূর্যাস্ত ৬/৬। অমৃতযোগ রাত্রি ১২/৪০ গতে ২/৫০ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/৪৬ মধ্যে ও ১০/১৫ গতে ১২/৫১ মধ্যে। কালবেলা ২/৫০ গতে ৬/৬ মধ্যে। কালরাত্রি ১১/৩৪ গতে ১২/৫৬ মধ্যে। 
৩০ রমজান।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
শিবপুরে জমা জলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে বালকের মৃত্যু
কলকাতার পর এবার হাওড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটল আজ ...বিশদ

07:43:56 PM

দুর্গাপুরে  দিদিকে গুলি, অভিযুক্ত ভাই
দুর্গাপুরে  দিদিকে গুলি করে খুনের চেষ্টার অভিযোগ ভাইয়ের বিরুদ্ধে। আজ, ...বিশদ

05:17:18 PM

ধনেখালিতে ট্রেন থেকে পড়ে মৃত্যু বিহারের দম্পতির
স্ত্রী জ্যোতিকে নিয়ে কলকাতায় শ্বশুরবাড়ি আসছিলেন বিহারের দ্বারভাঙ্গার বাসিন্দা সৌরভ ...বিশদ

04:07:09 PM

স্টাফ স্পেশাল ট্রেনে এবার উঠতে পারবেন স্বাস্থ্যকর্মীরাও
রেলকর্মীদের জন্য ‘স্টাফ স্পেশাল’ ট্রেনে এবার থেকে উঠতে পারবেন স্বাস্থ্যকর্মীরাও। ...বিশদ

03:35:34 PM

গঙ্গায় মৃতদেহ ভেসে আসতে পারে, শুরু নজরদারি
উত্তরপ্রদেশ এবং বিহারের গঙ্গায় ভাসতে দেখা গিয়েছে অসংখ্য মৃতদেহ। আশঙ্কা, ...বিশদ

03:29:57 PM

পিছিয়ে গেল পরীক্ষা
করোনার জেরে পিছিয়ে গেল ইউপিএসসি-র প্রিলিমিনারি পরীক্ষা। ইউপিএসসি-র প্রিলিমিনারি হওয়ার ...বিশদ

03:17:14 PM