Bartaman Patrika
রাজ্য
 

কেন্দ্রীয় সরকারের উচ্চশিক্ষা নীতি
বাণিজ্যমুখী এবং বেসরকারিকরণের
সহায়ক, ইস্তাহারে প্রচার অ্যাবুটার

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেন্দ্রীয় সরকার শিক্ষার বাণিজ্যিককরণের দিকে প্রতিদিন এগিয়ে যাচ্ছে। এই জন্যই গবেষণালব্ধ জ্ঞানকে বাণিজ্যিক সংস্থার কাজে ব্যবহারে বেশি উৎসাহ দিচ্ছে। শিক্ষক সংগঠন অ্যাবুটা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ইস্তাহার, কেন্দ্রীয় সরকারের নীতি পর্যালোচনা করে এই আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক গৌতম মাইতি তাঁদের ইস্তাহারে যে দিকগুলি তুলে ধরেছেন, সেগুলি বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। এগুলিকে তাঁরা প্রচারের হাতিয়ারও করছেন।
আন্তর্জাতিক বা দেশীয় সংস্থাগুলির রেটিং মূলত বাণিজ্যিকরণের দিকেই ইঙ্গিত করছে। স্কিল ডেভেলপমেন্ট, অন্ত্রেপ্রেনরশিপ ডেভেলপমেন্ট, বাণিজ্যিক কাজে লাগতে পারে এমন গবেষণালব্ধ পণ্য ও পরিষেবা স্টার্ট আপ সংস্থা তৈরির উপর রেটিং সংস্থাগুলি জোর দিচ্ছে। যার ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের যে মৌলিক গবেষণা বা জ্ঞান বিতরণের চরিত্র, সেটা থেকে সরে আসতে হচ্ছে। যে বিশ্ববিদ্যালয় যত বেশি বাণিজ্যমুখী, তারা রেটিংয়ে বা র্যা ঙ্কিংয়ে তত বেশি এগিয়ে রয়েছে। উৎকর্ষ বৃদ্ধির সঙ্গে সমানুপাতিক সম্পর্ক হিসেবে দেখানো হচ্ছে বেসরকারিকরণ এবং বাণিজ্যিককরণকে। আনা হয়েছে গ্রেডেড অটোনমির মতো বিষয়। যেটা আপাতভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধিকার রক্ষার একটি প্রক্রিয়া মনে হলেও আদতে সেটা একটি প্রতিষ্ঠানকে বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ার কৌশল। এর মাধ্যমে একটি বিশ্ববিদ্যালয় বাণিজ্যের স্বাধীনতা পেয়ে যাবে। সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে অনুদান প্রদানকারী সংস্থা ইউজিসি তুলে দিয়ে হায়ার এডুকেশন কমিশন অব ইন্ডিয়া চালু করা হচ্ছে। যার মূল নীতি হল, বিশ্ববিদ্যালয়কে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করে তোলার দিকে জোর দেওয়া। কেন্দ্রীয় সরকার আসলে ভারতকে শিক্ষার লোভনীয় বাজার হিসেবে বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে চাইছে। তাই বিভিন্ন বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রতিষ্ঠান এদেশে আসছে একেবারেই বাণিজ্যের উদ্দেশ্য নিয়ে। এদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যে সমস্ত মউ স্বাক্ষরিত হচ্ছে, সেগুলির অধিকাংশ বিষয়বস্তুই বাণিজ্যিক। আগে এ ধরনের মউ হতো গবেষণা পরিকাঠামো বিনিময়, শিক্ষক এবং ছাত্রছাত্রী বিনিময়ের উদ্দেশ্যে। কিন্তু এখন বেশিরভাগ চুক্তিই মূলত অর্থনৈতিক।
সব দলই ইস্তাহারে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে, শিক্ষার পরিকাঠামো বৃদ্ধি হবে, আরও বেশি তহবিল, ছাত্রদের বৃত্তি, কম খরচে সবার জন্য উচ্চশিক্ষা, অনগ্রসর অংশের জন্য শিক্ষা, উচ্চমানের এবং উদ্ভাবনীমূলক শিক্ষার ব্যবস্থা করা হবে। প্রায় সবাই জিডিপি’র ছয় শতাংশ শিক্ষা খাতে ব্যয় করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। কিন্তু এখন বাস্তব পরিস্থিতি হল, শিক্ষাক্ষেত্রে গড়ে জিডিপির ২.৬ শতাংশ থেকে ৩ শতাংশ অর্থ বরাদ্দ করা হচ্ছে। আর উচ্চশিক্ষা ক্ষেত্রে এই বরাদ্দের পরিমাণ মাত্র ১ শতাংশের কাছাকাছি।
কেন্দ্রীয় সরকারের কড়া সমালোচনা করে গৌতমবাবুর দাবি, মনে রাখতে হবে, এই সরকারই শিক্ষা ক্ষেত্রে একের পর এক জনবিরোধী বিল এনেছে। যা দিয়ে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আসন সংখ্যা কমিয়ে দেওয়া হয়েছে, পিএইচডির আসন সঙ্কোচন করা হয়েছে, সিবিসিএস চালু করেছে, ছাত্রদের ফি, সেল্ফ ফিনান্সিং কোর্সের সংখ্যা প্রভৃতি বাড়িয়েছে। অথচ, ছাত্রসংখ্যার উত্তরোত্তর চাপবৃদ্ধি সামাল দিতে পরিকাঠামো বাড়ানো বা স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ, কোনওটাই করেনি সরকার। মাঝখান দিয়ে প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) নিয়ে আসছে, বিদেশি শিক্ষক নিয়োগ করছে এবং বিদেশি ছাত্রদের জন্য আসন সংরক্ষণ করছে। এই কেন্দ্রীয় সরকারকে শিক্ষাক্ষেত্র, বিশেষ করে উচ্চশিক্ষা ক্ষেত্রের পক্ষে সবচেয়ে বেশি বিপজ্জনক বলে মনে করছে অ্যাবুটা। ভোটের মুখে তারা এই ইস্যুগুলি তুলে প্রচারও করছে।

ভোট লুটের টাকা আসছে
দিল্লি থেকে: মমতা
বেলঘরিয়ায় রোড শো

হরিহর ঘোষাল ও অলকাভ নিয়োগী: কামারহাটি ও অশোকনগর: দুষ্কৃতীদের দিয়ে ভোট দখল করার জন্য দিল্লি থেকে বিজেপি টাকার বাক্স নিয়ে বাংলায় আসছে— শুক্রবার অশোকনগরের জনসভায় গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে প্রায় এই ভাষাতেই আক্রমণ করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর অভিযোগ, সেই টাকার বাক্স হাওলার মাধ্যমে এবং জেড প্লাস ক্যাটিগরির নিরাপত্তার সুযোগ নিয়ে বিজেপির নেতা-মন্ত্রীদের গাড়িতে যাচ্ছে। অশোকনগরের সভার পর এদিনই বিকেলে কামারহাটি থেকে নিমতা থানা পর্যন্ত মমতার রোড শো জনসুনামিতে ভেসে গেল। অসহ্য গরম উপেক্ষা করে পদযাত্রার দু’ঘণ্টা আগে থেকে ঠায় রোদে দাঁড়িয়েছিলেন হাজার হাজার মানুষ।
বিশদ

ঝাড়গ্রামে পরতে হবে বুলেট প্রুফ জ্যাকেট
ষষ্ঠ দফায় সব বুথেই থাকবে কেন্দ্রীয়
বাহিনী, জানালেন বিশেষ পর্যবেক্ষক

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পঞ্চম দফার মতো ষষ্ঠ দফাতেও ১০০ শতাংশ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে। শুক্রবার সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়ে দিলেন বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় নায়েক। শুধু বুথ নয়, এলাকায় গোলমাল ঠেকাতে ক্যুইক রেসপন্স টিম ও ক্যুইক অ্যাকশন টিমেও থাকবে কেন্দ্রীয় বাহিনী।
বিশদ

গ্রেপ্তারের দাবিতে অবরোধ, মিছিল
টাকা উদ্ধার, ভারতীর বিরুদ্ধে মামলা রুজু পুলিসের

বিএনএ, মেদিনীপুর: বৃহস্পতিবার রাতে পিংলায় ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা উদ্ধারের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। এই ঘটনা ঘিরে রাত প্রায় ২টো পর্যন্ত চরম টানাপোড়েন চলে। পুলিসের দাবি, ভারতী ঘোষের কাছে থাকা কালো রঙের একটি ব্যাগ থেকে ১ লক্ষ ১৩ হাজার ৮৯৫ টাকা পাওয়া যায়।
বিশদ

পশ্চিমাঞ্চলে তাপমাত্রা ৪০ ছাড়াল,
বাঁকুড়ায় পারদ ৪৩ ছুঁই ছুঁই
ভোগান্তি আজও

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কাল, রবিবার পর্যন্ত গরমের থেকে রেহাই পাওয়ার আশা বিশেষ নেই বলে মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা। রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলি ও মুর্শিদাবাদে তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা থাকছে। সেখানে গরম হাওয়া (লু) বইছে। কলকাতা ও দক্ষিণবঙ্গের সংলগ্ন জেলাগুলিতেও ভ্যাপসা অস্বস্তিকর গরম থাকছে।
বিশদ

ফণীর দাপটে ওড়িশা লণ্ডভণ্ড
মাছের জোগানে আকাল, বিয়ের মরশুমে গরমের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে দাম

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ফণী ওড়িশা উপকূলে তাণ্ডব চালালেও গতিপথ পাল্টানোয় শেষ মুহূর্তে বড়সড় ক্ষতির হাত থেকে রেহাই পেয়েছিল এ রাজ্য। তবে ফণীর প্রভাব থেকে বাঙালির হেঁসেল মুক্ত হতে পারল না। ফণী আছড়ে পড়ার পরে ওড়িশা থেকে এ রাজ্যে আসা সামুদ্রিক মাছের জোগান অনেক কমে গিয়েছে। যার ফলে দাম বেড়েছে মাছের।
বিশদ

হতাশ বাংলার বাম শিবির
দিন কয়েক পর ‘হদিশ’ মিলল কানহাইয়ার,
অসুস্থতার কারণে রাজ্যে প্রচার কর্মসূচি নয়

 জীবানন্দ বসু, কলকাতা: তাদের টিমে নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহ বা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো সেই মাপের কোনও হেভিওয়েট তারকা প্রচারক নেই। লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে তাদের ভরসা করতে হয়েছে রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় স্তরের সেই পরিচিত পলিতকেশ বাম নেতানেত্রীদের উপরই। তবু তার মধ্যে যাঁকে ঘিরে বাংলার বাম শিবিরের আম সমর্থকদের মধ্যে প্রবল উৎসাহ তৈরি হয়েছিল, সেই সর্বভারতীয় তরুণ-তুর্কি মার্কসবাদী নেতা কানহাইয়া কুমার এবার আর রাজ্যে ভোটের প্রচারে আসছেন না।
বিশদ

বামের ভোট কি পদ্মমুখী,
ঘুম ছুটেছে নেতাদের,
অপপ্রচার, বলছে সিপিএম

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বামেরা কি তলায় তলায় পদ্মমুখী হচ্ছে? ভোট যত এগিয়ে আসছে, ততই কলকাতার দুই কেন্দ্রে বাম মহলের এই ফিসফিসানি ক্রমশ বাড়ছে। ভোটের মুখে শিবির বদলের সম্ভাবনা দেখা দেওয়ায় ঘুম ছুটেছে সিপিএমের। সজাগ থাকতে হচ্ছে তৃণমূলের স্থানীয় নেতৃত্বকেও।
বিশদ

সন্দেহভাজনদের সম্পর্কে তথ্য পেতে
বাংলাদেশ পুলিসের দ্বারস্থ জিআরপি

শুভ্র চট্টোপাধ্যায়, কলকাতা: সন্দেহভাজন বেশ কিছু বাংলাদেশির গতিবিধি নিয়ে সীমান্তের ওপারের পুলিসের কাছে তথ্য চাইল রেল পুলিস (জিআরপি)। এরা সকলেই অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ করেছে বলে সন্দেহ। এদেশে একাধিক অপরাধের সঙ্গে তারা যুক্ত রয়েছে বলেও খবর।
বিশদ

রাজ্যে ক্ষমতায় এলে কমবে
বিদ্যুতের দাম, দাবি বিজেপির

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি ক্ষমতায় এলে বিদ্যুতের মাশুল কমানো হবে। দেশের অন্যান্য রাজ্যের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই মাশুল নির্ধারণ করা হবে। শুক্রবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার এবং শিশির বাজোরিয়া এই দাবি করেছেন।
বিশদ

পুলিসের সাহায্যেই ঘরে ফিরলেন পথহারা বৃদ্ধা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বৃহস্পতিবার রাতে পর্ণশ্রীর পাড়ুই পাকা রোডে উদভ্রান্তের মতো ঘুরছিলেন এক বৃদ্ধা। ঢুকে পড়ছিলেন এবাড়ি-সেবাড়ি। যা দেখতে পেয়ে এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়ায়। সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা গিয়ে ওই বৃদ্ধাকে ধরেন।
বিশদ

 রাঁচি থেকে ব্রহ্মাস্ত্র কর্পস স্থানান্তরের পর পানাগড় সেনাছাউনি পরিদর্শনে সেনাপ্রধান

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ডোকা লা ইস্যুর পরে উত্তর-পূর্ব ভারত নিয়ে নয়া ভাবনাচিন্তা শুরুর কথা আগেই জানিয়েছে কেন্দ্র। সেব্যাপারে ইতিমধ্যে কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে। যদিও চীনও সীমান্তের ওপারে নিজস্ব পরিকাঠামোকে মজবুত করছে বলে সেনাবাহিনীর নিজস্ব গোয়েন্দা সূত্রে খবর।
বিশদ

10th  May, 2019
গরমে জ্বলছে বাংলা,
তাপপ্রবাহের সতর্কতা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বায়ুপ্রবাহের প্রকৃতি আলাদা হওয়ার জন্য দক্ষিণবঙ্গের দুই প্রান্ত এখন দুই ধরনের গরমে জ্বলছে। জনজীবন প্রচণ্ড গরমে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। কলকাতা সহ উপকূল সংলগ্ন ও কাছাকাছি এলাকায় ভ্যাপসা অস্বস্তিকর গরমে হাঁসফাঁস করতে হচ্ছে। অন্যদিকে, পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে চলছে শুকনো গরমের দাপাদাপি। শুষ্ক হাওয়া বা ‘লু’ বইছে সেখানে। পশ্চিমাঞ্চলের বেশিরভাগ জায়গায় তাপমাত্রা ইতিমধ্যে ৪০ ডিগ্রি ছাড়িয়েছে। দিনদুয়েক এই অবস্থা চলবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।
বিশদ

10th  May, 2019
দিল্লিকে পূর্ণরাজ্যের মর্যাদা দিলে
প্রধানমন্ত্রী পদে মমতাকে সমর্থন
জানিয়ে দিলেন কেজরিওয়াল

নয়াদিল্লি, ৯ মে (পিটিআই): দিল্লিকে পূর্ণরাজ্যের মর্যাদা দিলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী পদে সমর্থন করবেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। গতকালই তৃণমূলের নির্বাচনী প্রচারে এসে ‘দেশের বাঘিনী’ হিসেবে মমতাকে তুলে ধরেছিলেন তেলুগু দেশম পার্টি (টিডিপি)-এর সুপ্রিমো চন্দ্রবাবু নাইডু । বৃহস্পতিবার দিল্লিতে একটি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে আপ সুপ্রিমো তথা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালও জানিয়ে দিলেন, প্রধানমন্ত্রী পদে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর নাম প্রস্তাব হলে তাতে তিনি সমর্থন করবেন।
বিশদ

10th  May, 2019
ফুয়াদ হালিমের সমর্থনে নাসিরুদ্দিনের
ভিডিও-বার্তা, জোর প্রচার সিপিএমের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এবার রাজ্যে টানটান উত্তেজনার মধ্যে দিয়ে লোকসভা ভোট চলছে। এই ভোটে সেলুলয়েড তারকাদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ অংশগ্রহণও লক্ষ্য করছে রাজ্যবাসী। টলিউডের নায়ক দেব এবং দুই নায়িকা মিমি চক্রবর্তী ও নুসরত জাহান সরাসরি প্রার্থী হয়েছেন শাসকদলের।
বিশদ

10th  May, 2019

Pages: 12345

একনজরে
  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নতুন কোচ হিসাবে স্প্যানিশ কোচ হোসে আন্তেনিও কিবু ভিচুনাকে বেছে নিল মোহন বাগান। ভারতে কাজ করার কোনও অভিজ্ঞতা না থাকলেও উয়েফা প্রো-লাইসেন্স আছে তাঁর। ছ’বছর পর সবুজ-মেরুনের দায়িত্বে আবার বিদেশি কোচ। ...

 ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল। ...

সৌম্যজিৎ সাহা, জামশেদপুর, ১০ মে: জামশেদজি টাটার নামকরণেই শহর। কিন্তু এই শহরের কারিগর কে জানেন? একজন বাঙালি। পি এন বোস। ছিলেন একজন ভূতত্ত্ববিদ। তাঁর অবদানকে সম্মান জানিয়ে এই শহরে একটি মূর্তিও বসানো আছে। জন্মলগ্নের পর থেকেই এ শহর ধীরে ধীরে ...

 রূপাঞ্জনা দত্ত, লন্ডন, ১০ মে: অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীর হামলায় মৃত্যু হল এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত যুবকের। ঘটনাটি ঘটেছে লন্ডনের কাছে বার্কশায়ারের স্লাও এলাকায়। নিহত ওই যুবকের নাম ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সঠিক বন্ধু নির্বাচন আবশ্যক। কর্মরতদের ক্ষেত্রে শুভ। কর্মক্ষেত্রে বদলির কোনও সম্ভাবনা এই মুহূর্তে নেই। শেয়ার ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৫৭: ব্রিটিশদের থেকে দিল্লি দখল করল সিপাহী বিদ্রোহের সেনারা
১৯০৪: ১৯০৪ - স্পেনীয় চিত্রকর সালভাদর দালির জন্ম
১৯১৫: স্বাধীনতা সংগ্রামী বসন্তকুমার বিশ্বাসের জন্ম।
১৯১৬: আপেক্ষিকতাবাদের উপস্থাপনা আইনস্টাইনের
১৯৮৪: স্পেনের ফুটবলার আন্দ্রে ইনিয়েস্তার জন্ম
১৯৯৮: পোখরানে পরমাণু অস্ত্রের পরীক্ষা করল ভারত
২০১৬: বাগদাদে আইএসের হামলায় হত শতাধিক



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.১৯ টাকা ৭০.৮৮ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৫৭ টাকা ৯২.৮২ টাকা
ইউরো ৭৭.১৮ টাকা ৮০.১৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৩২০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০,৬৬৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,১২৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৭,৩০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৭,৪০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
10th  May, 2019

দিন পঞ্জিকা

২৭ বৈশাখ ১৪২৬, ১১ মে ২০১৯, শনিবার, সপ্তমী ৩৬/৪৫ রাত্রি ৭/৪৫। পুষ্যা ২০/২৭ দিবা ১/১৩। সূ উ ৫/২/৩২, অ ৬/৩/৩০, অমৃতযোগ দিবা ৯/২২ গতে ১২/৫২ মধ্যে। রাত্রি ৮/১৬ গতে ১০/২৭ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৬ গতে ১/২৩ মধ্যে পুনঃ ২/৭ গতে ৩/৩৫ মধ্যে, বারবেলা ৬/৪১ মধ্যে পুনঃ ১/১১ গতে ২/৪৮ মধ্যে পুনঃ ৪/২৫ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ৭/২৫ মধ্যে পুনঃ ৩/৪০ গতে উদয়াবধি। 
২৭ বৈশাখ ১৪২৬, ১১ মে ২০১৯, শনিবার, সপ্তমী ৩৪/৪৭/৪১ রাত্রি ৬/৫৮/৭। পুষ্যানক্ষত্র ১৯/২৭/১৬ দিবা ১২/৪৯/৫৭, সূ উ ৫/৩/৩, অ ৬/৪/৩৯, অমৃতযোগ দিবা ৯/২২ গতে ১২/৫১ মধ্যে এবং রাত্রি ৮/১৬ গতে ১০/২৭ মধ্যে ও ১১/৫৬ গতে ১/৫২ মধ্যে ও ২/৩ গতে ৩/৩৩ মধ্যে, বারবেলা ১/১১/৩৩ গতে ২/৪৯/১৫ মধ্যে, কালবেলা ৬/৪০/৪৫ মধ্যে ও ৪/২৬/৫৭ গতে ৬/৪/৩৯ মধ্যে, কালরাত্রি ৭/২৬/৫৭ মধ্যে ও ৩/৪০/৪৫ গতে ৫/২/৩০ মধ্যে। 
৫ রমজান 
এই মুহূর্তে
আজকের রাশিফল
মেষ: শেয়ার বা ফাটকাতে লাভ হবে। বৃষ: বিদ্যার্থীদের পঠন-পাঠনে আগ্রহ থাকবে। ...বিশদ

07:11:04 PM

ইতিহাসে আজকের দিনে 
১৮৫৭: ব্রিটিশদের থেকে দিল্লি দখল করল সিপাহী বিদ্রোহের সেনারা১৯০৪: ১৯০৪ ...বিশদ

07:03:20 PM

পাকিস্তানের একটি পাঁচতারা হোটেলে ৩ বন্দুকবাজের হামলা, চলছে গোলাগুলি

07:18:04 PM

অন্ধ্রপ্রদেশের কুরনুলে দুর্ঘটনার কবলে যাত্রীবাহী বাস, মৃত ১৩, জখম বেশ কয়েকজন 

06:18:00 PM

বাইক বাহিনী ও বহিরাগতদের দাপাদাপি রোখার দাবিতে বাঁকুড়ার বিজেপি প্রার্থী সুভাষ সরকারের অবস্থান বিক্ষোভ 

05:05:00 PM

উত্তরাখণ্ডে ব্যাপক তুষারপাত

04:55:00 PM