বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

পুজোর মুখে বিক্রি বেড়েছে সরকারি
ও বেসরকারি তাঁতের হাটগুলিতে

সংবাদদাতা, কালনা: উৎসবের প্রাক্কালে বৃহস্পতিবার সমুদ্রগড় বেসরকারি তাঁতের হাটে উপচে পড়ল ক্রেতা-বিক্রেতাদের ভিড়। ব্যবসা ভালো হওয়ায় খুশি হাটের বিক্রেতারা। অন্যদিকে, কালনা ধাত্রীগ্রামের সরকারি তাঁতের হাটে একদিনে বিক্রি তিন লক্ষ টাকা ছাড়িয়েছে। কালনা মহকুমার কালনার ধাত্রীগ্রাম, পূর্বস্থলী-১ ব্লক, পূর্বস্থলী-২ ব্লক ও মন্তেশ্বর এলাকায় রয়েছেন লক্ষাধিক তাঁতশিল্পী। করোনা পরিস্থিতি এই শিল্পে বড় প্রভাব ফেলেছে। হাতে বোনা তাঁতের শাড়ির বিক্রি তলানিতে ঠেকেছে। এবার করোনা পরিস্থিতি একটু ভালো হওয়ায় পুজোর মুখে বেসরকারি ও সরকারি তাঁতের হাটগুলিতে বিক্রিবাট্টা বাড়তে শুরু করেছে। কালনা ধাত্রীগ্রাম সরকারি তাঁতের হাট সপ্তাহে বুধবার ও শনিবার বসে। ২২ সেপ্টেম্বর বুধবার একদিনে হাটের বিক্রি ছিল ৩ লক্ষ ২৮ হাজার ৪৪০ টাকা। পূর্বস্থলী-১ ব্লকে শ্রীরামপুরের সরকারি হাটেও বিক্রি বেড়েছে। অন্যদিকে, কালনা মহকুমার বৃহত্তর বেসরকারি সমুদ্রগড়ের কর্মকার তাঁতের হাটে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের ভিড় উপচে পড়ে। স্থানীয় ক্রেতা ও বিক্রেতাদের তুলনায় পাশ্ববর্তী জেলা থেকে আসা পাইকারি ও খুচরো ক্রেতাদের ভিড় বেশি চোখে পড়ে। এটা আংশিক ট্রেন চলাচলের সুফল বলে মনে করছে ব্যবসায়ীরা। তবে, এবার হাতে তৈরি শাড়ির থেকে মেশিনে তৈরি শাড়ির চাহিদা রয়েছে। হাজার-বারোশো দামের মধ্যে থাকা শাড়ির দিকে ক্রেতাদের নজর বেশি। ফলে মেশিনে তৈরি শাড়ির সঙ্গে পাল্লা দিতে এবার হাতে তৈরি শাড়ির দাম অনেকটাই কমে গিয়েছে। ক্রেতাদের ভিড়ে বিক্রিবাট্টা বাড়ায় খুশি তাঁতি ও ব্যবসায়ীরা। 
সমুদ্রগড় হাটের মালিক অনন্ত কর্মকার বলেন, গত বছর করোনার জেরে পুজোর বাজার একদমই  মন্দা কেটেছে। এমন দিন গিয়েছে বিক্রেতারা বউনি না করে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন। এবার পরিস্থিতি কিছুটা হলেও মন্দের ভালো। প্রতি হাটে বিক্রি বাড়ছে। হাটে প্রবেশে সকলের জন্য মাস্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বিনামুল্যে মাস্ক দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি। মাইকিং করেও সচেতনতা প্রচার করা হচ্ছে।
নদীয়া শন্তিপুর বেলেডাঙার বাসিন্দা পেশায় তাঁতি গণেশ ঘোষ এদিন ১০০ পিস শাড়ি নিয়ে এসেছিলেন হাটে। ৪০ পিস শাড়ি বিক্রি হয়েছে। তিনি বলেন, এক সপ্তাহ ধরে বিক্রি বেড়েছে। হাতে তৈরি শাড়ির থেকে মেশিনে তৈরি শাড়ির চাহিদা বেশি। মেশিনে তৈরি শাড়ির দাম কম থাকায় ক্রেতারা সেই দিকে ঝুঁকছে। সমুদ্রগড় স্টেশন বাজারের বাসিন্দা রঞ্জিত বসাকও এদিন ১১০ পিস শাড়ি নিয়ে হাটে এসেছিলেন। বিক্রি হয়েছে ৬০ পিস।  তাঁতিদের কাছ থকে যাতে এবারও তন্তুজ সরাসরি শাড়ি কেনে তার জন্য ইতিমধ্যে জেলাশাসকের কাছ প্রস্তাব দিয়েছেন এলাকার বিধায়ক তথা মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

28th     September,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021