বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

করোনা কেড়ে নিয়েছে প্রিয়জনকে। কান্নায় ভেঙে পড়েছেন পরিবারের সদস্যরা। বুধবার পাটনা মেডিক্যাল কলেজে তোলা পিটিআইয়ের ছবি।

উত্তরপ্রদেশের পঞ্চায়েত ভোটে শোচনীয়
ফল বিজেপির, ধস মোদির বারাণসীতেও

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: বছর ঘুরলে বিধানসভা ভোট। আর তার আগেই অশনি সঙ্কেত। বাংলা, কেরল, তামিলনাড়ুর পর এবার কি আগামী বছর উত্তরপ্রদেশেও ধাক্কা খাবে বিজেপি? এই প্রশ্ন উত্থাপিত হওয়ার কারণ, সদ্য সমাপ্ত পঞ্চায়েত নির্বাচনে জেলায় জেলায় মুখ থুবড়ে পড়ছে বিজেপি। বিশেষ করে জেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যাচ্ছে, বিজেপিকে আসন সংখ্যার নিরিখে হারিয়ে দিয়েছে অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টি। অন্য বিরোধীদের টক্করও জোরদার। বহু জেলায় বিজেপিকে হারিয়ে জেলা পরিষদ দখল করে নিচ্ছে বিরোধীরাই। জেলা পরিষদে এককভাবে বিজেপির প্রায় সমান আসন পাচ্ছে সমাজবাদী পার্টি। তারা কিছুটা এগিয়ে। কিন্তু সম্মিলিতভাবে বিরোধী দলগুলির আসন বহু পিছনে ফেলে দিয়েছে বিজেপির প্রাপ্ত আসনকে। বিজেপির কাছে সবথেকে বড় উদ্বেগ হল, মথুরা, অযোধ্যা এবং নরেন্দ্র মোদির বারাণসীতে দলের শোচনীয় ফলাফল। এই তিন জেলায় জেলা পরিষদ থেকে গ্রাম পঞ্চায়েত আসন বিজেপির তুলনায় অনেক বেশি পেয়েছে বিরোধীরা। দুঃসংবাদ এসেছে পশ্চিম উত্তরপ্রদেশ থেকেও। এটাহ থেকে বাগপত। সর্বত্র হয় সমাজবাদী পার্টি, না হলে অজিত সিংয়ের রাষ্ট্রীয় লোকদল অনেক বেশি আসন পাচ্ছে এবার। একইসঙ্গে  মায়াবতীর বহুজন সমাজ পার্টিও পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের একাধিক জেলায় পুরনো ম্যাজিক দেখাচ্ছে। 
পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের ফলাফলের প্রবণতা বিজেপির কাছে সুখকর নয়। কারণ, এই এলাকাই কৃষক আন্দোলনের এপিসেন্টার। কৃষক আন্দোলনের নেতা রাকেশ টিকায়েতের সংগঠনের শক্তিও সবথেকে বেশি এই পশ্চিম উত্তরপ্রদেশেই। সামগ্রিকভাবে জেলা পরিষদ নির্বাচনে মোট ৩০৫০ আসনের মধ্যে বিজেপি মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত পেয়েছে ৬৬৬। সমাজবাদী পার্টি ও আরএলডির জোট পেয়েছে ৮২৮টি আসন। বহুজন সমাজ পার্টির দখলে গিয়েছে ৩২২টি। কংগ্রেস পেয়েছে ৭৭টি আসন। সবথেকে চমকপ্রদ ফল করেছে নির্দল ও অন্যান্য ক্ষুদ্র দল। তাদের প্রাপ্ত আসন হাজার ছাপিয়ে গিয়েছে। আম আদমি পার্টি এবার উত্তরপ্রদেশ পঞ্চায়েত ভোটে ৬৪টি আসন পেয়েছে। চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশিত হবে আজ, বুধবার। ভোটের ময়দানে বিজেপির জন্য দুঃসংবাদ চলছেই। উত্তরে যেমন উত্তরপ্রদেশ, দক্ষিণে তেমন তেলেঙ্গানা। এখানে একঝাঁক পুরসভা ও কর্পোরেশন ভোটে বিজেপি কোনও ছাপই ফেলতে পারেনি। সব পুরসভা তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির দখলে গিয়েছে। বিজেপি দ্বিতীয় স্থানেও নেই। প্রসঙ্গত হায়দরাবাদ কর্পোরেশন নির্বাচনে বিজেপি যথেষ্ট ইতিবাচক ফলাফল করে চমকে দিয়েছিল। কিন্তু সেই প্রবণতা তেলেঙ্গানার অন্য শহরে দেখা যাচ্ছে না। 
যদি উত্তরপ্রদেশের এই প্রবণতা আগামী বছর বিধানসভা ভোটেও দেখা যায়, তা হবে চরম ধাক্কা। আগামী বছর ছয় রাজ্যে বিধানসভা ভোট। উত্তরপ্রদেশ, গুজরাত, হিমাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, গোয়া এবং পাঞ্জাব। দেখা যাচ্ছে, ওই ভোট আসার আগে পুরসভা ও পঞ্চায়েত ভোটে রাজ্যে রাজ্যে বিজেপি পরাস্ত হচ্ছে। পাঞ্জাব, হিমাচলের পুরভোটে বিজেপি জোরদার ধাক্কা খেয়েছে। উত্তরাখণ্ডে মুখ্যমন্ত্রীকে সরিয়ে দিতে হয়েছে দলের কোন্দল থামাতে। উত্তরপ্রদেশে পঞ্চায়েত নির্বাচনেও দেখা গেল ফলাফল শোচনীয়। এখন বিজেপির অন্দরে একটা‌ই আশঙ্কা—বাংলা থেকেই দলের বিপর্যয় নেমে আসা শুরু হল না তো!
 জোরকদমে চলছে ভোটগণনা। 

5th     May,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
12th     May,   2021