Bartaman Patrika
রাজ্য
 

স্বাস্থ্যসাথীর রোগী ফেরালে বেসরকারি
হাসপাতালের লাইসেন্স বাতিল: মমতা
তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে চরম হুঁশিয়ারি মুখ্যমন্ত্রীর

দেবাঞ্জন দাস, দুর্গাপুর: স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের কার্ড থাকা সত্ত্বেও তালিকাভুক্ত যে সমস্ত বেসরকারি নার্সিংহোম এবং হাসপাতাল রোগী ফেরাবে, তাদের লাইসেন্স বাতিল করার মতো সিদ্ধান্ত নিতে রাজ্য সরকার পিছপা হবে না। বৃহস্পতিবার দুর্গাপুরে পশ্চিম বর্ধমান জেলার প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠকের মঞ্চ থেকে এভাবেই স্পষ্ট বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষের স্বাস্থ্য পরিষেবা সুনিশ্চিত করতেই স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প চালু করা হয়েছে। রাজ্যের সাড়ে সাত কোটি মানুষকে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড দেওয়া হয়েছে। মঞ্চ থেকে মমতার হুঁশিয়ারি, সেই কার্ডধারী কাউকে যদি কোনও তালিকাভুক্ত বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিংহোম প্রত্যাখ্যান করে, তার লাইসেন্স বাতিল করা হবে। করা হবে না রিনিউ। শুধু তাই নয়, প্রত্যাখ্যাত ব্যক্তিকে মমতার নিদান, ভর্তি করতে না চাইলে, সোজা থানায় চলে যান। সেখানে অভিযোগ জানান। অভিযোগ জানান বিডিও অফিসে। সেখান থেকে তা পৌঁছে যাবে স্বাস্থ্যদপ্তরে। যে সমস্ত বেসরকারি হাসপাতাল এবং নার্সিংহোম রোগী প্রত্যাখ্যান করবে, তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দপ্তরের প্রধান সচিব বিবেক কুমারকে নির্দেশও দেন মুখ্যমন্ত্রী।
স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের কার্ড থাকা সত্ত্বেও ফেরানো হচ্ছে রোগী, প্রশাসনিক বৈঠকে এই বিষয়টি উত্থাপিত হওয়া মাত্রই দৃশ্যত ক্ষুব্ধ মমতা বলেন, গরিব মানুষকে স্বাস্থ্য পরিষেবা থেকে কোনওভাবেই বঞ্চিত করা যাবে না। তাছাড়া ওরা (বেসরকারি হাসপাতাল) কোনও দয়াদাক্ষিণ্য করছে না। বিনা পয়সায় চিকিৎসা দিচ্ছে, এমনটাও নয়। চড়া স্বরে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত করতে বেসরকারি হাসপাতালগুলির সঙ্গে চুক্তি করে ১২০০ কোটি টাকা স্বাস্থ্যবিমা বাবদ খরচ করেছে রাজ্য সরকার। এত টাকা খরচ করার পর যদি কেউ রোগী ফেরায়, তাহলে কড়া ব্যবস্থা তো নিতেই হবে। ক্ষোভ উগরে মমতা বলেন, কোটা নির্দিষ্ট করে গরিব মানুষকে চিকিৎসা দেওয়ার কথা ছিল বেসরকারি হাসপাতালের। সেটা ওরা করে না। তাঁর স্পষ্ট বার্তা, এবার রোগী ফেরানোর মতো ঔদ্ধত্য যেন কেউ না দেখায়। প্রসঙ্গত, গত ২০১৭ সালের পয়লা ফেব্রুয়ারি মুখ্যমন্ত্রী সাধারণ মানুষের জন্য চালু করেছিলেন স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প। রাজ্যের সমস্ত সরকারি হাসপাতালের সঙ্গে ১৫০০ বেসরকারি স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। কিন্তু নানা অজুহাত দেখিয়ে বেসরকারি হাসপাতালগুলি রোগী ফেরাচ্ছে বলে বিস্তর অভিযোগ আসছে। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, চালু হওয়ার দিন থেকে আজ পর্যন্ত স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের ওয়েবসাইটে, কল সেন্টার এবং পোর্টাল মারফত বেসরকারি হাসপাতাল থেকে প্রত্যাখ্যাত হয়েছেন, এমন চার হাজার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। স্বাস্থ্যদপ্তরের হস্তক্ষেপে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে রোগী ভর্তি করতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বাধ্য হয়েছে। কয়েকদিন আগে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুরের একটি নার্সিংহোম স্বাস্থ্যসাথীর কার্ডধারী এক ব্যক্তিকে ভর্তি না করে ফিরিয়ে দেয়। নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের যুক্তি ছিল, বকেয়া সরকারি বিল তারা পায়নি। নবান্নের ওই সূত্রটি জানিয়েছে, এরপর স্বাস্থ্যদপ্তর ওই নার্সিংহোমের বকেয়া বিলের বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখে, ইতিমধ্যেই তা মেটানো হয়েছে। বিষয়টি জানানো হয় নার্সিংহোমকে। তারাও খোঁজ নিয়ে সঠিক বিষয়টি জানতে পেরে স্বাস্থ্যদপ্তরের কাছে ক্ষমা চেয়ে সংশ্লিষ্ট কার্ডধারী ব্যক্তিকে ভর্তি করে নেয়। স্বাস্থ্যদপ্তরের প্রধান সচিব বলেন, রোগী প্রত্যাখ্যান করার কারণে এখনও পর্যন্ত কোনও বেসরকারি হাসপাতালের লাইসেন্স বাতিল হয়নি। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর এই কড়া অবস্থানের পর এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।
প্রশাসনিক বৈঠকে এদিন পুলিসের কাজকর্ম নিয়েও সরব হন মুখ্যমন্ত্রী। শান্তিরক্ষকদের তাঁর নির্দেশ, সবার সব অভিযোগ থানায় নিতে হবে। অভিযোগ সত্যি কি না, তা যাচাই করেই ব্যবস্থা নিন। কিন্তু এটা উত্তরপ্রদেশ নয়। ধর্ষণের অভিযোগ করায় নির্যাতিতার পরিবারের কাউকে মরতে হয় না এখানে। সাধারণ মানুষের অভিযোগ নিতেই হবে। মমতার নিদান, কেস ডায়েরিটা (সিডি) ঠিকঠাক করে লিখবেন। বহু সময় দেখা যাচ্ছে, সিডি ঠিকঠাক না হওয়ায়, অপরাধী জামিন পেয়ে যাচ্ছে। এটা যেন না হয়। পুলিসের পাশাপাশি সরকারি আইনজীবীদের মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শ, এরটাও নিলাম, ওরটাও নিলাম, এমন করবেন না। একটা পক্ষ হয়ে থাকতে হবে। সরকার আপনাদের পয়সা দেয়। সরকারের মামলাগুলো ভালো করে দেখুন, ঝুলিয়ে রাখবেন না। নিষ্পত্তি করার ব্যবস্থা করুন।

14th  February, 2020
সঙ্কটেও জনমুখী মমতা
জানুয়ারিতে ডিএ বাড়ছে ৩ শতাংশ

কোভিড পরিস্থিতি। তীব্র আর্থিক সঙ্কট। কিন্তু তার জন্য নিয়মিত কোনও কিছুকেই আটকে রাখতে রাজি নন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই নিয়ম মেনে নতুন বছর পড়ার আগেই নিলেন জনমুখী সিদ্ধান্ত। রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য ঘোষণা করলেন তিন শতাংশ মহার্ঘভাতার (ডিএ) সুখবর। দেওয়া হবে আগামী জানুয়ারি মাস থেকে। বৃহস্পতিবার নবান্নে তৃণমূল সমর্থিত রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠকে ডিএ বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। ফলে আগামী বছর থেকে রাজ্য সরকারের ২ হাজার ২০০ কোটি খরচ বাড়বে বলেই জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্র সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদি। বিশদ

উচ্চ মাধ্যমিকের সাড়ে
ন’লক্ষ পড়ুয়াকে ট্যাব

সাইকেলের পর এবার ট্যাব। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দেবে রাজ্য সরকার। তবে শুধু উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য। করোনার জেরে দ্বাদশ শ্রেণীর পঠনপাঠন চলছে অনলাইনে। কিন্তু আর্থিক কারণে অনেকের কাছেই নেই স্মার্টফোন। এই পরিস্থিতিতে ফের পরীক্ষার্থীদের মুখে হাসি ফোটালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অনলাইনে পড়াশোনার সুবিধার জন্য রাজ্যের প্রত্যেক দ্বাদশ শ্রেণীর পড়ুয়াকে সরকার থেকে দেওয়া হবে ট্যাবলেট পিসি বা ট্যাব। বিশদ

৪ জানুয়ারি খুলুক আইসিএসই স্কুলগুলি,
সব মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আর্জি জানাল বোর্ড

আইসিএসই স্কুলগুলি ৪ জানুয়ারি থেকে আংশিকভাবে খোলার জন্য দেশের সব মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছে সর্বভারতীয় নিয়ামক সংস্থা। কাউন্সিল ফর দি ইন্ডিয়ান স্কুল সার্টিফিকেট এগজামিনেশনস বা সিআইএসসিই দেশের সমস্ত আইসিএসই স্কুলের অনুমোদন, পঠন-পাঠন এবং পরীক্ষাগ্রহণের কাজগুলি করে। সেই সংস্থার মুখ্য কার্যনির্বাহী কর্তা এবং সচিব জেরি আরাথুন বৃহস্পতিবার একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এই আর্জির কথা জানিয়েছেন। বিশদ

অবসরের আগে হাওয়া বদলের সুযোগ
হাতছাড়া কয়েক হাজার সরকারি কর্মীর

চাকরি জীবনের শেষ ইচ্ছাপূরণেও বাধা সেই করোনা। সদ্য অবসরপ্রাপ্ত কিংবা কর্মজীবনের শেষ পর্যায়ে থাকা কয়েক হাজার রাজ্য সরকারি কর্মীর অন্তত এমনই অভিমত। কারণ, পরিবর্তনের সরকার দেশ-বিদেশ ঘোরার যে সু্যোগ দিয়েছিল, করোনার জেরে তা সদ্ব্যবহার করা যাচ্ছে না। গত ন’মাসে এই ধরনের ট্যুর প্ল্যান করা অসংখ্য কর্মী কার্যত হাহুতাশ করছেন। তাঁদের বড় একটা অংশ লকডাউনের মধ্যে অবসর নিয়েছেন। বিশদ

আর্থিক সঙ্কট সত্ত্বেও ডিএ
ঘোষণায় খুশির হাওয়া কর্মিমহলে

করোনা পরিস্থিতিতে আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্য বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মহার্ঘ ভাতা (ডিএ) ঘোষণা করাকে নজিরবিহীন বলে মনে করছে তৃণমূল প্রভাবিত রাজ্য সরকারি কর্মচারি ফেডারেশন। সংগঠনের আহ্বায়ক দিব্যেন্দু রায় জানিয়েছেন, অন্য সব রাজ্য সরকার যেখানে আর্থিক অসুবিধার জন্য কর্মীদের বেতন কমিয়ে দিচ্ছে, সেখানে অন্য পথে হাঁটলেন মুখ্যমন্ত্রী। বিশদ

গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব সামলে সংগঠন মজবুত করুন,
বঙ্গ বিজেপিকে নির্দেশ কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের

শুধুই দলবদল কিংবা অন্য দল ভাঙার উপর ভরসা করবেন না। বরং গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব সামলে দলের সংগঠনকে মজুবত করার উপর জোর দিন। পশ্চিমবঙ্গের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে বঙ্গ বিজেপিকে এমনই নির্দেশ দিয়েছে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। দলবদল সংক্রান্ত একাধিক জল্পনার পরিপ্রেক্ষিতে যাকে রীতিমতো তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। বিশদ

নতুন ইএসআই হাসপাতালের 
পরিচালনা আর রাজ্যের হাতে নয়

রাজ্য সরকারগুলির পরিচালনায় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা ইএসআই হাসপাতালগুলিতে যথেষ্ট চিকিৎসা পরিষেবা পাচ্ছেন না শ্রমিক-কর্মচারীরা। এব্যাপারে ভুরি ভুরি অভিযোগ আসছে কেন্দ্রের শ্রমমন্ত্রকের কাছে। বিশদ

বাংলায় পাল্টা কৃষি আইন চেয়ে
বাম-কং চিঠি দিল মুখ্যমন্ত্রীকে

নয়া কৃষি আইনের প্রয়োগ রাজ্যে রুখে দিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশাসনের উপর চাপ বাড়াচ্ছে বাম ও কংগ্রেস। তারা চায় অবিলম্বে বিধানসভার অধিবেশন ডাকা হোক। আলোচনার মাধ্যমে রাজ্যস্তরে তৈরি করা হোক একটি পাল্টা আইন। বিশদ

বিজেপিশাসিত রাজ্যগুলিকে টপকে
রাস্তার রক্ষণাবেক্ষণেও শীর্ষে বাংলা
গ্রামীণ সড়ক যোজনায় মিলল কেন্দ্রীয় স্বীকৃতি

বাংলা গ্রামীণ সড়ক যোজনার রাস্তার রক্ষণাবেক্ষণেও সাফল্যের শীর্ষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। কাজ ভালোমতোই হচ্ছে বলে রিপোর্ট দিল গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের ন্যাশনাল লেভেল মনিটরিং টিম। দেশজুড়ে ১৯৭টি জেলার প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ সড়ক যোজনার অধীনে সম্পূর্ণ হওয়া ৪৪৮টি রাস্তা পরিদর্শন করে তারা। তার মধ্যে ৮৫ শতাংশই সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ হচ্ছে, রিপোর্ট জমা পড়েছে গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকে। বিশদ

03rd  December, 2020
ইসিএলের অফিস ও কর্তাদের বাংলোয় হানা
কয়লাকাণ্ড: সিবিআই তল্লাশিতে
উদ্ধার হল বিপুল পরিমাণ টাকা

কয়লা পাচারকাণ্ডে তদন্তে নেমে ইসিএলের বিভিন্ন অফিস ও আধিকারিকদের বাংলোয় হানা দিয়ে বিপুল পরিমাণ টাকা উদ্ধার করেছে সিবিআই। যা মালখানাতে রাখাও নিরাপদ নয় বলে আধিকারিকদের আশঙ্কা। সেই টাকা নিজেদের অ্যাকাউন্টে রাখার জন্য বুধবার আদালতে আবেদন করল সিবিআ‌ই। সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, মাত্র দু’দফায় কয়েকজন আধিকারিক ও কয়লা পাচারকাণ্ডের কিংপিন লালার বিভিন্ন বাংলো ও অফিসে তল্লাশি করতেই উদ্ধার হয়েছে ৫০ লক্ষের বেশি টাকা। বিশদ

03rd  December, 2020
বিএসএফ কমান্ডান্টের স্ত্রীর সম্পত্তির
উৎস জানতে তদন্তে নামল সিবিআই
গোরু পাচারকাণ্ড

গোরু পাচারকাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত বিএসএফ কমান্ডান্ট সতীশ কুমারের স্ত্রীর সম্পত্তির উৎস সন্ধানে নামল সিবিআই। তাঁর ব্যাঙ্ক ‘লকার’ই এবার তদন্তের কেন্দ্রবিন্দুতে। এর আগে ধৃতের শ্বশুরের অ্যাকাউন্টের ১২ কোটি টাকা ও ছেলে ভুবন ভাস্করের এনামুলের কোম্পানিতে চাকরি নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও স্ত্রী তানিয়া সান্যাল ছিলেন আড়ালেই। এদিন সিবিআই জানিয়েছে, স্ত্রীর অ্যাকাউন্টে থাকা চার কোটি টাকারও যোগ রয়েছে গোরুপাচারের সঙ্গে। বিশদ

03rd  December, 2020
শুধু প্রকৃত চাষির কাছ থেকে ধান কেনা নিশ্চিত করতে উদ্যোগী খাদ্যদপ্তর

চাষিদের  কাছ থেকে ধান কেনার প্রক্রিয়ায় নজরদারি চালাতে সব জেলায় একজন করে বিশেষ আধিকারিক নিযুক্ত করল খাদ্যদপ্তর। মোট ১৬ জন আধিকারিককে জেলাগুলির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। বিশদ

03rd  December, 2020
জিএসটি ফাঁকির বিরুদ্ধে অভিযান,
হানা রাজ্যের ১০৪টি ফ্লাওয়ার মিলে

জিএসটি ফাঁকির অভিযোগে বুধবার দিনভর দেশ জুড়ে একাধিক ফ্লাওয়ার মিলে তল্লাশি চালাল ডিরেক্টর জেনারেল অব গুডস অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্যাক্স ইন্টেলিজেন্সের আধিকারিকরা। যার মধ্যে এরাজ্যের ১০৪টি মিল রয়েছে। দুই চব্বিশ পরগণা, বধর্মান এবং মেদিনীপুর সহ একাধিক জায়গায় হানাদারি চলে। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে জিএসটি  সংক্রান্ত একাধিক নথি ও চালান। অভিযুক্ত মিল মালিকদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নোটিস পাঠিয়ে ডেকে পাঠাচ্ছে জিএসটির ইন্টেলিজেন্স ইউনিট। বিশদ

03rd  December, 2020
প্রতিষ্ঠার শতবর্ষ পূর্তিতে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণপত্র পাঠাল বিশ্বভারতী

বিশ্বভারতীর প্রতিষ্ঠার ১০০ বছর পূর্তি উপলক্ষে এবারের শান্তিনিকেতন পৌষ উৎসবে হাজির থাকতে পারেন বিশ্বভারতীর আচার্য তথা দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিশ্বভারতীর তরফে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে। যদিও প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে এখনও কোনও সবুজ সংকেত আসেনি। বিশদ

03rd  December, 2020

Pages: 12345

একনজরে
রাজ্য সরকারি কর্মীদের বিজেপি প্রভাবিত সংগঠনের গোষ্ঠী  লড়াই আরও তীব্র হল। বুধবার সরকারি কর্মচারী পরিষদের তরফে সাংবাদিক বৈঠক করে নতুন কমিটি গড়ার কথা ঘোষণা করা হয়। একইসঙ্গে সংগঠনের নেতারা জানিয়ে দেন, এতদিন  যে জেলা কমিটিগুলি ছিল তা  ভেঙে দেওয়া হল। ...

চীন সহ যে কোনও দেশের হুমকি মোকাবিলায় প্রস্তুত ভারতীয় নৌবাহিনী। বৃহস্পতিবার নৌসেনা দিবস উপলক্ষে এক সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই জানিয়েছেন ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল করমবীর সিং। ...

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটে ভালো ফল করাই এখন লক্ষ্য টিম ইন্ডিয়ার। একদিনের সিরিজের ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা নিয়ে দলকে আরও শক্তপোক্ত করার চেষ্টা করবেন বলে ...

সংবাদদাতা, দিনহাটা: এক বছর আগে মৃত্যু হয়েছে মায়ের। গরিব, অসহায় ছেলে সরকারি সুবিধার আশায় মায়ের মৃত্যুর সরকারি নথির জন্য হন্যে হয়ে ঘুরছেন বছরভর। এখনও মেলেনি ডেথ সার্টিফিকেট।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

অতি সত্যকথনের জন্য শত্রু বৃদ্ধি। বিদেশে গবেষণা বা কাজকর্মের সুযোগ হতে পারে। সপরিবারে দূরভ্রমণের যোগ। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

ভারতীয় নৌ দিবস
১১৩১- পারস্যের কবি ও দার্শনিক ওমর খৈয়ামের মৃত্যু
১৮২৯- সতীদাহ প্রথা রদ করলেন লর্ড বেন্টিঙ্ক
১৮৮৪- ঐতিহাসিক রমেশচন্দ্র মজুমদারের জন্ম
১৯১০- ভারতের ষষ্ঠ রাষ্ট্রপতি আর বেঙ্কটরামনের জন্ম
১৯২৪- মুম্বইয়ে গেটওয়ে অব ইন্ডিয়ার উদ্বোধন হল
১৯৭৭- ক্রিকেটার অজিত আগরকরের জন্ম  



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৯৯ টাকা ৭৪.৭০ টাকা
পাউন্ড ৯৭.১৫ টাকা ১০০.৫৫ টাকা
ইউরো ৮৭.৯২ টাকা ৯১.১০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫০, ০৬০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭, ৫০০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৮, ২১০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৩, ৬০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৩, ৭০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০, চতুর্থী ৩৪/৫৫ রাত্রি ৮/৪। পুনর্বসু নক্ষত্র ১৮/৫২ দিবা ১/৩৯। সূর্যোদয় ৬/৬/৩, সূর্যাস্ত ৪/৪৭/৩৯। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৮ মধ্যে পুনঃ ৭/৩২ গতে ৯/৪০ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৮ গতে ২/৩৯ মধ্যে পুনঃ ৩/২৩ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৫/৪১ গতে ৯/১৪ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/২৭ মধ্যে পুনঃ ৪/২০ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/৪৫ গতে ১১/২৬ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৬ গতে ৯/৪৬ মধ্যে।
১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০, চতুর্থী রাত্রি ৫/৪৫। পুনর্বসু নক্ষত্র দিবা ১২/২৮। সূর্যোদয় ৬/৭, সূর্যাস্ত ৪/৪৮। অমৃতযোগ দিবা ৭/২ মধ্যে ও ৭/৪৪ গতে ৯/৫০ মধ্যে ও ১১/৫৭ গতে ২/৫১ মধ্যে ও ৩/২৭ গতে ৪/৪৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৫ গতে ৯/২১ মধ্যে ও ১২/৩ গতে ৩/৩৮ মধ্যে ও ৪/৩২ গতে ৬/৮ মধ্যে। বারবেলা ৮/৪৭ গতে ১১/২৮ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৮ গতে ৯/৪৮ মধ্যে। 
১৮ রবিয়ল সানি।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
যাদবপুরে বাড়ির ছাদ থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী প্রৌঢ়
গভীর রাতে বাড়ির ছাদ থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হলেন এক ...বিশদ

11:54:00 AM

যাদবপুরে মহিলার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার
যাদবপুর থানা এলাকায় ভাড়া বাড়ি থেকে এক মহিলার ঝুলন্ত দেহ ...বিশদ

11:43:00 AM

পূর্ব যাদবপুর থানা এলাকায় চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে ধৃত ২

11:30:43 AM

শান্তিপুরের স্কুল শিক্ষকের বাড়ি থেকে পাঁচ ভরি সোনার গয়না চুরি

11:21:00 AM

সালারে যুবক খুন
জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরে ভোজালি দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হল ...বিশদ

10:30:37 AM

রেপো রেট ও রিভার্স রেপো রেট ৪ শতাংশ ও ৩.৩৫ শতাংশে অপরিবর্তিত রাখল আরবিআই

10:15:00 AM