Bartaman Patrika
রাজ্য
 

অপর্যাপ্ত ক্লাসরুম, প্রাথমিকে পঞ্চম
শ্রেণী এখনই আসা নিয়ে সংশয়

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিকে পঞ্চম শ্রেণীর আসা বড়সড় প্রশ্নচিহ্নের মুখে। সরকারের এই পরিকল্পনা কার্যকর করতে স্কুলগুলিতে যে অতিরিক্ত ক্লাসরুমের বন্দোবস্ত করতে হবে, তার সংখ্যা এখনও প্রায় ৬৫ হাজার। সরকারের কর্তাব্যক্তিরাই বলছেন, আগে থেকে নিশ্চিত মন্তব্য করে দেওয়া ঠিক হবে না। তবে, বাস্তব চিত্র বলছে, এটা রূপায়ণ করা আপাতত বেশ কঠিন। কারণ কোনওভাবেই অতিরিক্ত ক্লাসরুম তৈরির কাজ এত কম সময়ে শেষ হবে না। আর কিছু ক্লাসরুমের কাজ শেষ করে তা ধাপে ধাপে চালু করে দেওয়ার ইচ্ছেও সরকারের নেই।
পঞ্চম শ্রেণীকে মাধ্যমিকে নিয়ে আসার পরিকল্পনা বেশ কয়েক বছরের। এত বিপুল সংখ্যক প্রাথমিক স্কুলে একটি বাড়তি ক্লাস নিয়ে আসার প্রক্রিয়াটা সহজ নয়। এর জন্য বাড়তি পরিকাঠামো প্রয়োজন। ক্লাসরুম তো বটেই, সমান অনুপাতে অন্যান্য পরিকাঠামো বৃদ্ধিরও প্রয়োজনীয়তা ছিল। এই লক্ষ্যে বাজেটে প্রাথমিক শিক্ষায় বাড়তি অর্থও বরাদ্দ করে সরকার। বহু স্কুলকে অতিরিক্ত ক্লাসরুম (এসিআর) তৈরির অর্থ দেওয়া হয়। অন্যান্য পরিকাঠামো উন্নয়নের জন্যও বিভিন্ন সময় ধাপে ধাপে টাকা দেওয়া হয়েছে। তারপর পঞ্চম শ্রেণীকে প্রাথমিকে আনার জন্য সরকার গত বছর একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করে দিয়েছিল। তারা রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলের হাল-হকিকৎ খতিয়ে দেখে। এখন দেখা যাচ্ছে, সিংহভাগ কাজই বাকি রয়ে গিয়েছে।
শিক্ষামন্ত্রী ঘনিষ্ঠমহলে জানিয়েছেন, প্রায় ২০০ স্কুলে এখনও প্রাথমিকেই পঞ্চম শ্রেণী রয়েছে। কিন্তু বাকিগুলিতে চালুর ক্ষেত্রে এখনও চূড়ান্ত ঘোষণার সময় আসেনি। বহু স্কুল এসিআর গ্রান্টের টাকা অন্য প্রকল্পেও ব্যয় করে দিয়েছে বলে ঊষ্মাপ্রকাশ করেন তিনি। শিক্ষা দপ্তরের কর্তারা বলছেন, পঞ্চম শ্রেণী প্রাথমিকে আনার অনেক ইতিবাচক দিক রয়েছে। কিন্তু সেটা ধাপে ধাপে চালু করে কোনও লাভ হবে না। তৃণমূল শিক্ষা সেলের নেতা জয়দেব গিরি বলেন, শিক্ষাবিদ রুশোও বলেছেন, যে কোনও প্রতিষ্ঠানে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বয়সের বিভাজন পাঁচ বছরের কম হওয়া উচিত। জাতীয় শিক্ষানীতিতেও তাই বলা রয়েছে। বিএড পাঠ্যক্রমেও এটা পড়ানো হচ্ছে। কিন্তু সেই বিএড ডিগ্রি নিয়ে আসা প্রার্থীরা শিক্ষক হয়ে দেখছেন, বাস্তব ছবিটা অন্য। একটি উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে পঞ্চম এবং একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রদের মধ্যে বয়সের ফারাকটা অনেকটাই বেশি হয়ে যায়। এর ফলে, একই প্রতিষ্ঠানে থাকার জন্য বয়ঃসন্ধিকালের যাবতীয় নেতিবাচক দিকগুলি উঁচু ক্লাসের পড়ুয়াদের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে ছোট ছেলেমেয়েদের মধ্যেও। এটা একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। আবার এটাও ঠিক, পঞ্চম শ্রেণী হাইস্কুলে পড়ানোর জন্য ১৫,০০০ বাড়তি শিক্ষককে নিয়োগ করতে হচ্ছে। এঁদের বেতন কাঠামো প্রাথমিক শিক্ষকদের থেকে অনেকটাই বেশি। এর জন্য বাড়তি ৫০ কোটি টাকা খরচ করতে হচ্ছে রাজ্য সরকারকে, দাবি জয়দেববাবুর।
যদিও প্রথমে ব্যাপারটা ধাপে ধাপে করারই পরিকল্পনা ছিল। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছিল, ১৫০০ বা তার বেশি সংখ্যক ছাত্রছাত্রী রয়েছে, এমন স্কুলগুলিকে এর আওতায় আনা হবে। একটি বড় হাইস্কুলের ফিডার প্রাথমিক স্কুলগুলিতে এই বাড়তি ছাত্রছাত্রী ভাগ করে দেওয়া হবে। তার জন্য পরিকাঠামো গড়ে তোলা হবে সেগুলিতে। এর পরের ধাপে আসবে ১০০০ বা তার বেশি সংখ্যক ছাত্রছাত্রী থাকা স্কুলগুলি। তারপর আসবে ১০০০-এর কম পড়ুয়ার স্কুলগুলি। এভাবে পাঁচ বছরে গোটা ব্যাপারটি রেগুলারাইজড (নিয়মিত) হয়ে যাবে বলে আশা করেছিলেন আধিকারিকরা। যদিও সরকার বা শাসক-ঘনিষ্ঠ শিক্ষকদের একাংশ চাইছিল, ২০২০ সালের মধ্যেই গোটা প্রক্রিয়া শেষ করা হোক।

08th  November, 2019
মুখ্যমন্ত্রীর ভিডিও বিজ্ঞাপন ফৌজদারি অপরাধ, প্রত্যাহারের আর্জি রাজ্যপালের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নাগরিকপঞ্জি এবং সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন রাজ্যে কার্যকর হবে না। এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ভিডিও বার্তার বিজ্ঞাপন প্রকাশ করেছে রাজ্য সরকার। আর তা নিয়েই এবার রাজ্যের সঙ্গে সংঘাতে জড়ালেন রাজ্যপাল।
বিশদ

নাগরিকত্ব ইস্যুতে তাণ্ডব দমাতে কঠোর
প্রশাসন, নামল পুলিসের সশস্ত্র বাহিনীও

উস্কানি ঠেকাতে ৬ জেলায় ইন্টারনেট বন্ধ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা এবং বিএনএ: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি বিরোধিতার নামে বিশৃঙ্খল ও উন্মত্ত আচরণ তিনি বরদাস্ত করবেন না। সেইমতো কড়া হাতে বিশৃঙ্খলা দমন করতে নেমে পড়ল রাজ্য সরকার। সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার করে উস্কানি, অপপ্রচার রুখতে বন্ধ করা হল রাজ্যের ছয় জেলার বিভিন্ন এলাকায় ইন্টারনেট পরিষেবা। জেলাগুলি হল উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, মুর্শিদাবাদ, মালদহ ও উত্তর দিনাজপুর। বিভিন্ন জায়গায় শুরু হয়েছে সশস্ত্র পুলিসবাহিনীর রুট মার্চ।
বিশদ

রেলে খড়্গপুর বিভাগেই ক্ষতি প্রায় ১৬ কোটির
হিংসাত্মক আন্দোলনে কয়েকদিনে
ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৩১টি সরকারি বাস

প্রসেনজিৎ কোলে, কলকাতা: নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে হিংসাত্মক আন্দোলনে গত কয়েকদিনে ৩১টি সরকারি বাস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তার মধ্যে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়েছিল ১১টি বাসে। সেইসব বাসগুলিই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে সরকারি বাসের তুলনায় ক্ষতিগ্রস্ত বেসরকারি বাসের সংখ্যা অনেক বেশি।
বিশদ

গোলমালপ্রবণ এলাকা চিহ্নিত করা হবে
রেল পুলিস এলাকায় হিংসা
রুখতে পৃথক ফোর্সের ভাবনা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে রেল এলাকায় ব্যাপক হামলার জেরে গোলমালপ্রবণ এলাকা চিহ্নিত করতে চাইছেন পুলিস কর্তারা। যাতে সেই অনুপাতে ফোর্স মোতায়েন করা যায়। পাশাপাশি রেল পুলিস এলাকায় হিংসার মোকাবিলায় আলাদা কোনও ফোর্স তৈরি করা যায় কি না, তা নিয়ে প্রশাসনিক স্তরে ভাবনাচিন্তা শুরু হয়েছে। যারা এই ধরনের ঘটনারই মোকাবিলা করবে।
বিশদ

আইন পাশ হতেই বাংলাদেশে পালানোর
হিড়িক, মাথাপিছু দর উঠল ৫ হাজার টাকা

বিশ্বজিৎ মাইতি, বাগদা, বিএনএ: নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি নিয়ে দেশজোড়া বিতর্কের আবহে পোয়াবারো সীমান্তের পাচারকারীদের। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে কাজের সূত্রে থাকা আতঙ্কিত বাংলাদেশিদের সীমান্ত পার করাতে নেওয়া হচ্ছে মাথাপিছু পাঁচ হাজার টাকা। বনগাঁ ও বসিরহাট মহকুমার সীমান্তবর্তী এলাকায় সেকারণে ‘ধুর’দের ব্যবসা (দালাল) এখন রমরমিয়ে চলছে।
বিশদ

নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলনে উদ্বিগ্ন অধীর চান রাজ্যের পদক্ষেপ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে অসম নতুন কাশ্মীর হতে চলেছে। রবিবার সংবাদ সংস্থার কাছে এমনই দাবি করলেন কংগ্রেসের সংসদীয় নেতা অধীর চৌধুরী। অসম সহ গোটা উত্তর-পূর্ব ভারতে এই বিতর্কিত আইনের জেরে হিংসা ছড়িয়ে পড়েছে বলে উদ্বেগ প্রকাশের পাশাপাশি কেন্দ্রের শাসক বিজেপিকে দুষেছেন কংগ্রেস নেতা।  
বিশদ

নেপথ্যে বড় মাথা, নিশ্চিত গোয়েন্দারা
আসরে নিষিদ্ধ ছাত্র সংগঠন

শুভ্র চট্টোপাধ্যায়, কলকাতা: সংশোধিত নাগরিক আইন নিয়ে জেলায় জেলায় হিংসার পিছনে একটি নিষিদ্ধ ছাত্র সংগঠনের হাত দেখছেন গোয়েন্দারা। তার সঙ্গে জুড়েছে একাধিক উগ্রবাদী গোষ্ঠী ও দক্ষিণ ভারত ভিত্তিক একটি দল। গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, পরিকল্পনামাফিক যাতে রাজ্যে অশান্তি পাকানো যায়, সেজন্য সীমান্ত এলাকায় একাধিকবার তারা বৈঠকও করেছে।
বিশদ

আজ থেকে প্রতিবাদ মিছিল শুরু
মমতার, আবেদন শান্তি রক্ষারও

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় এবার সরাসরি জনতার দরবারে পৌঁছে যেতে পথে নামছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার থেকে টানা তিনদিন মিছিল করবেন তৃণমূল নেত্রী। ইতিমধ্যে দ্ব্যর্থহীন ভাষায় রাজ্য সরকারের তরফে মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং রাজ্যবাসীকে আশ্বাস দিয়েছেন, এই আইন বাংলায় লাগু হবে না।
বিশদ

বাতিল বহু ট্রেন, যাত্রীদের ভোগান্তি চলছেই 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে হিংসাত্মক আন্দোলনের জেরে রবিবারও বাতিল করা হল একগুচ্ছ ট্রেন। এদিনও বিভিন্ন জায়গায় অবরোধ, হামলা হয়। সন্ধ্যা পর্যন্ত ১৫ জোড়া দূরপাল্লার ট্রেন, ৩০টি লোকাল ট্রেন এবং ৩৭টি প্যাসেঞ্জার ট্রেন বাতিল করেছিল পূর্ব রেল। ট্রেন বাতিল করেছিল দক্ষিণ-পূর্ব রেলও। সব মিলিয়ে গত কয়েকদিনের মতো এদিনও ভোগান্তিতে পড়তে হয় যাত্রীদের। 
বিশদ

নিরাপত্তারক্ষী সংস্থার কর্ণধারকে সম্মান 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শুরু করেছিলেন তিনজন নিরাপত্তারক্ষীকে নিয়ে। প্রথম বিল পেয়েছিলেন ১ হাজার ৫০ টাকা। ১৯৮৫ সালের ১৫ আগস্ট শুরু। ২৪ বছর অতিক্রম করে সেই নিরাপত্তরক্ষী সংস্থার বর্তমানে টার্নওভার প্রায় ৪০০ কোটি টাকার। 
বিশদ

আজ সামান্য কমতে পারে তাপমাত্রা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আজ, সোমবার সামান্য কমতে পারে তাপমাত্রা। কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে শীতের ভাব আরেকটু স্পষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। কারণ দেশের উত্তর অংশে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার দাপট ইতিমধ্যেই বেশ কিছুটা ম্রিয়মান হয়েছে। এর ফলে ধীরে ধীরে পূর্ব ভারত সহ এ রাজ্যে ঢুকতে শুরু করেছে উত্তর-পশ্চিমের শীতল হাওয়া। 
বিশদ

জীবনের এতগুলি বছর মানুষ গড়ার কাজ করে এলাম, সেসব ভিত্তিহীন!
আজ চারটে হলদে হয়ে যাওয়া কাগজ ঠিক করে দেবে দেশের জন্যে ঘামরক্ত ঝরেছে কি না? 

নাগরিকত্ব আইন-২০১৯। যা নিয়ে এই মুহূর্তে দেশসহ গোটা রাজ্য উত্তাল। রাজনৈতিক কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি তো সব সময়ই শোনা যায়। কিন্তু, কী ভাবছেন সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ! সরাসরি তাঁদের মুখেই শোনা যাক। আজ হুগলি জেলার প্রতিক্রিয়া। 
বিশদ

কোচবিহার, ঝাড়গ্রামে হচ্ছে কী করে? চন্দ্রিমা
মেডিক্যাল কলেজের জন্য প্রস্তাব না পাঠিয়ে রাজনীতি করছে রাজ্য, অভিযোগ বিজেপির 

রাজু চক্রবর্তী, কলকাতা: রাজ্যের সার্বিক উন্নয়নকে স্তব্ধ করে দিতে বাংলার প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের বঞ্চনার অভিযোগ প্রায়ই শোনা যায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গলায়। কিন্তু এবার জেলায় জেলায় নয়া মেডিক্যাল কলেজ গড়ার ক্ষেত্রে নবান্নের বিরুদ্ধেই অসহযোগিতার পাল্টা অভিযোগ তুলল বিজেপি। 
বিশদ

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন প্রত্যাহারের দাবি আন্দোলনে থাকলেও হিংসা বরদাস্ত নয়, জানালেন মুসলিম সংগঠনের নেতারা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আন্দোলন চলুক, তবে হিংসাত্মক নয়। রবিবার কয়েকটি মুসলিম সংগঠনের পক্ষ থেকে যৌথভাবে এমনই আবেদন করা হয়। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসির বিরুদ্ধে গোটা রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবাদ, বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। রাজ্যের কয়েকটি জেলার একাংশে এই বিক্ষোভ হিংসাত্মক আকার নিয়েছে। 
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
জয় চৌধুরি, কলকাতা: সোমবার আই লিগে বাংলা আর কেরলের মর্যাদার লড়াই। ডুরান্ড কাপ ফাইনালের রিপ্লেও বলা যেতে পারে। গোকুলাম কেরল ম্যাচের জন্য মোহন বাগান রবিবার ...

সংবাদদাতা, শান্তিনিকেতন: লাভপুরের কাজিপাড়া গ্রামে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার বাড়ি তৈরির জন্য পুরনো বাড়ি ভেঙে ফেলা হচ্ছিল। সেই বাড়ির দেওয়াল চাপা পড়ে মৃত্যু হল ছোট ছেলের। মৃতের নাম রোজ শেখ(৮)।   ...

সংবাদদাতা, ইসলামপুর: নাগরিক সংশোধনী আইন ও জাতীয় নাগরিক পঞ্জির বিরোধিতা নিয়ে কর্মসূচিতেও ইসলামপুর তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী কোন্দল প্রকাশ্যে এল ইসলামপুরে।  ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: চলন্ত বাসের মধ্যে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ল দুই স্কুল ছাত্রী। এমনকী দু’জনেই দু’জনকে ধারালো কিছু দিয়ে আঘাত করে বলে অভিযোগ। শনিবার বিকেলে ঘটনাটি ঘটেছে এন্টালি থানা এলাকার বরফকলের কাছে। দুই ছাত্রীর পরিবারই একে অন্যের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
aries

বাড়তি অর্থ পাওয়ার যোগ আছে। পদোন্নতির পাশাপাশি কর্মস্থান পরিবর্তন হতে পারে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ পক্ষে থাকবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৭০: জার্মান সুরকার লুদভিগ ভ্যান বেটোভেনের জন্ম
১৯১৭: কল্পবিজ্ঞান লেখক আর্থার সি ক্লার্কের জন্ম
১৯২১: হুগলি নদীর নীচ দিয়ে টানেল তৈরির কাজ শুরু করল সিইএসসি
১৯৭১: বাংলাদেশে ভারতীয় বাহিনীর কাছে পাক সেনার আত্মসমর্পণ। জন্ম স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের
২০১২: দিল্লির গণধর্ষণের ঘটনায় উত্তাল দেশ 





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৮০ টাকা ৭১.৪৯ টাকা
পাউন্ড ৯৩.৪৩ টাকা ৯৬.৮০ টাকা
ইউরো ৭৭.৪৪ টাকা ৮০.৪৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
14th  December, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮, ৪৫৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬, ৪৮৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭, ০৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৪, ০০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪, ১০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
15th  December, 2019

দিন পঞ্জিকা

২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, পঞ্চমী ৫৩/৩৭ দিবা ৩/৪০। অশ্লেষা ৫১/২৫ রাত্রি ২/৪৭। সূ উ ৬/১৩/১০, অ ৪/৫০/৪০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৮ মধ্যে পুনঃ ৯/৩ গতে ১১/১১ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩১ গতে ১১/৫ মধ্যে পুনঃ ২/৪০ গতে ৩/৩৩ মধ্যে, বারবেলা ৭/৩২ গতে ৮/৫২ মধ্যে পুনঃ ২/১১ গতে ৩/৩১ মধ্যে, কালরাত্রি ৯/৫১ গতে ১১/৩১ মধ্যে। 
২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, চতুর্থী ১/২৭/৫৩ প্রাতঃ ৬/৫০/১৯ পরে পঞ্চমী ৫৬/৩৮/৫ শেষরাত্রি ৪/৫৪/২৪। অশ্লেষা ৫৫/৪৫/৩৮ শেষরাত্রি ৪/৩৩/২৫, সূ উ ৬/১৫/১০, অ ৪/৫০/৪০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৬ মধ্যে ৯/১১ গতে ১১/১৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩৮ গতে ১১/১২ মধ্যে ও ২/৪৭ গতে ৩/৪০ মধ্যে, কালবেলা ৭/৩৪/৩৬ গতে ৮/৫৪/২ মধ্যে, কালরাত্রি ৯/৫২/২১ গতে ১১/৩২/৫৫ মধ্যে। 
১৮ রবিয়স সানি 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
জামিয়া ইস্যুতে ইন্ডিয়া গেটের সামনে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর ধর্না
জামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিসি অত্যাচারের প্রতিবাদে দিল্লির ইন্ডিয়া গেটের সামনে প্রিয়াঙ্কা ...বিশদ

04:37:00 PM

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে ২৪ ডিসেম্বর উত্তরবঙ্গে মিছিলের ডাক বিজেপির 

04:08:00 PM

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে ২৩ ডিসেম্বর ধর্মতলায় মিছিল বিজেপির, থাকবেন দলের সর্বভারতীয় কার্যকরী সভাপতি জেপি নাড্ডা 

04:07:42 PM

  উন্নাওকাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ক
উন্নাওকাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত হলেন প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ক কূলদীপ সিং সেঙ্গার। ...বিশদ

03:29:47 PM

বিজেপির মিছিল ঘিরে গোলমাল, অবরুদ্ধ সুলেখা মোড়ে 
সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে বিজেপির মিছিলে গোলমাল। দক্ষিণ কলকাতার ...বিশদ

03:05:57 PM

 বিজেপির মিছিল ঘিরে গোলমাল, অবরুদ্ধ দঃকলকাতার সুলেখা মোড়
সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে বিজেপির মিছিলে গোলমাল। দক্ষিণ কলকাতার ...বিশদ

03:00:00 PM