Bartaman Patrika
রাজ্য
 

অপর্যাপ্ত ক্লাসরুম, প্রাথমিকে পঞ্চম
শ্রেণী এখনই আসা নিয়ে সংশয়

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিকে পঞ্চম শ্রেণীর আসা বড়সড় প্রশ্নচিহ্নের মুখে। সরকারের এই পরিকল্পনা কার্যকর করতে স্কুলগুলিতে যে অতিরিক্ত ক্লাসরুমের বন্দোবস্ত করতে হবে, তার সংখ্যা এখনও প্রায় ৬৫ হাজার। সরকারের কর্তাব্যক্তিরাই বলছেন, আগে থেকে নিশ্চিত মন্তব্য করে দেওয়া ঠিক হবে না। তবে, বাস্তব চিত্র বলছে, এটা রূপায়ণ করা আপাতত বেশ কঠিন। কারণ কোনওভাবেই অতিরিক্ত ক্লাসরুম তৈরির কাজ এত কম সময়ে শেষ হবে না। আর কিছু ক্লাসরুমের কাজ শেষ করে তা ধাপে ধাপে চালু করে দেওয়ার ইচ্ছেও সরকারের নেই।
পঞ্চম শ্রেণীকে মাধ্যমিকে নিয়ে আসার পরিকল্পনা বেশ কয়েক বছরের। এত বিপুল সংখ্যক প্রাথমিক স্কুলে একটি বাড়তি ক্লাস নিয়ে আসার প্রক্রিয়াটা সহজ নয়। এর জন্য বাড়তি পরিকাঠামো প্রয়োজন। ক্লাসরুম তো বটেই, সমান অনুপাতে অন্যান্য পরিকাঠামো বৃদ্ধিরও প্রয়োজনীয়তা ছিল। এই লক্ষ্যে বাজেটে প্রাথমিক শিক্ষায় বাড়তি অর্থও বরাদ্দ করে সরকার। বহু স্কুলকে অতিরিক্ত ক্লাসরুম (এসিআর) তৈরির অর্থ দেওয়া হয়। অন্যান্য পরিকাঠামো উন্নয়নের জন্যও বিভিন্ন সময় ধাপে ধাপে টাকা দেওয়া হয়েছে। তারপর পঞ্চম শ্রেণীকে প্রাথমিকে আনার জন্য সরকার গত বছর একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করে দিয়েছিল। তারা রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলের হাল-হকিকৎ খতিয়ে দেখে। এখন দেখা যাচ্ছে, সিংহভাগ কাজই বাকি রয়ে গিয়েছে।
শিক্ষামন্ত্রী ঘনিষ্ঠমহলে জানিয়েছেন, প্রায় ২০০ স্কুলে এখনও প্রাথমিকেই পঞ্চম শ্রেণী রয়েছে। কিন্তু বাকিগুলিতে চালুর ক্ষেত্রে এখনও চূড়ান্ত ঘোষণার সময় আসেনি। বহু স্কুল এসিআর গ্রান্টের টাকা অন্য প্রকল্পেও ব্যয় করে দিয়েছে বলে ঊষ্মাপ্রকাশ করেন তিনি। শিক্ষা দপ্তরের কর্তারা বলছেন, পঞ্চম শ্রেণী প্রাথমিকে আনার অনেক ইতিবাচক দিক রয়েছে। কিন্তু সেটা ধাপে ধাপে চালু করে কোনও লাভ হবে না। তৃণমূল শিক্ষা সেলের নেতা জয়দেব গিরি বলেন, শিক্ষাবিদ রুশোও বলেছেন, যে কোনও প্রতিষ্ঠানে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বয়সের বিভাজন পাঁচ বছরের কম হওয়া উচিত। জাতীয় শিক্ষানীতিতেও তাই বলা রয়েছে। বিএড পাঠ্যক্রমেও এটা পড়ানো হচ্ছে। কিন্তু সেই বিএড ডিগ্রি নিয়ে আসা প্রার্থীরা শিক্ষক হয়ে দেখছেন, বাস্তব ছবিটা অন্য। একটি উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে পঞ্চম এবং একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রদের মধ্যে বয়সের ফারাকটা অনেকটাই বেশি হয়ে যায়। এর ফলে, একই প্রতিষ্ঠানে থাকার জন্য বয়ঃসন্ধিকালের যাবতীয় নেতিবাচক দিকগুলি উঁচু ক্লাসের পড়ুয়াদের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে ছোট ছেলেমেয়েদের মধ্যেও। এটা একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। আবার এটাও ঠিক, পঞ্চম শ্রেণী হাইস্কুলে পড়ানোর জন্য ১৫,০০০ বাড়তি শিক্ষককে নিয়োগ করতে হচ্ছে। এঁদের বেতন কাঠামো প্রাথমিক শিক্ষকদের থেকে অনেকটাই বেশি। এর জন্য বাড়তি ৫০ কোটি টাকা খরচ করতে হচ্ছে রাজ্য সরকারকে, দাবি জয়দেববাবুর।
যদিও প্রথমে ব্যাপারটা ধাপে ধাপে করারই পরিকল্পনা ছিল। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছিল, ১৫০০ বা তার বেশি সংখ্যক ছাত্রছাত্রী রয়েছে, এমন স্কুলগুলিকে এর আওতায় আনা হবে। একটি বড় হাইস্কুলের ফিডার প্রাথমিক স্কুলগুলিতে এই বাড়তি ছাত্রছাত্রী ভাগ করে দেওয়া হবে। তার জন্য পরিকাঠামো গড়ে তোলা হবে সেগুলিতে। এর পরের ধাপে আসবে ১০০০ বা তার বেশি সংখ্যক ছাত্রছাত্রী থাকা স্কুলগুলি। তারপর আসবে ১০০০-এর কম পড়ুয়ার স্কুলগুলি। এভাবে পাঁচ বছরে গোটা ব্যাপারটি রেগুলারাইজড (নিয়মিত) হয়ে যাবে বলে আশা করেছিলেন আধিকারিকরা। যদিও সরকার বা শাসক-ঘনিষ্ঠ শিক্ষকদের একাংশ চাইছিল, ২০২০ সালের মধ্যেই গোটা প্রক্রিয়া শেষ করা হোক।

08th  November, 2019
জুন মাসজুড়ে শুধু কন্টেইনমেন্ট জোনে লকডাউন ৫
আনলক ১ স্বাভাবিক হচ্ছে দেশ

সমৃদ্ধ দত্ত, নয়াদিল্লি, ৩০ মে: অবশেষে শুধুমাত্র করোনা সংক্রামিত এলাকায় লকডাউনকে সীমাবদ্ধ রেখে সর্বত্র স্বাভাবিকতায় ফেরার প্রক্রিয়া শুরু করে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। আজ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের জারি করা নতুন নির্দেশিকার শিরোনাম তাই লকডাউন-৫ নয়, ‘আনলক ওয়ান’। অর্থাৎ জুন মাস থেকেই লকডাউন থেকে বেরিয়ে জীবনযাপন ও অর্থনীতির কর্মকাণ্ড স্বাভাবিক ছন্দে ফিরবে। তবে ধাপে ধাপে। সেই লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় সরকার একঝাঁক ছাড়ের পথে হাঁটছে। মোট তিনটি ধাপে লকডাউন থেকে বেরিয়ে আসার প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। প্রথম ধাপে, আগামী ৮ জুন থেকে খুলে দেওয়া হচ্ছে ধর্মীয় স্থান, হোটেল, রেস্তরাঁ, শপিং মল, রিসর্ট, গেস্টহাউসের মতো পরিষেবা। তবে তা করা হবে নির্দিষ্ট নিয়ম অনুসরণ করেই। স্বাস্থ্যমন্ত্রক শীঘ্রই গাইডলাইন জারি করে জানিয়ে দেবে যে, এই স্থানগুলিতে জমসমাগম কিংবা উপস্থিতির রীতিনীতি ঠিক কেমন হবে।
বিশদ

রাজ্যে আরও ৩১৭ জন
করোনার কবলে, মৃত ৭

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩১৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গিয়েছেন ৭ জন। তাঁদের মধ্যে ছ’জনই কলকাতার বাসিন্দা, একজন উত্তর ২৪ পরগনার। রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ৫১৩০। মোট সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৮৫১।
বিশদ

কাল থেকে বেসরকারি
বাস নামছে কিছু রুটে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাসে যতগুলি সিট, ততজন যাত্রী তোলার অনুমতি মেলায় আগামীকাল, সোমবার থেকে কলকাতা, শহরতলি সহ বিভিন্ন জেলায় কিছু রুটে বেসরকারি বাস চলবে। মালিকদের অন্যতম সংগঠন অল বেঙ্গল বাস-মিনিবাস সমন্বয় সমিতির নেতৃত্ব বিভিন্ন জেলার প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
বিশদ

 কাল খুলছে না দক্ষিণেশ্বর, তারাপীঠ,
বেলুড় মঠ, বিধি মেনে দর্শন কালীঘাটে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা ও সংবাদদাতা, রামপুরহাট, তারকেশ্বর: আগামীকাল, সোমবার থেকে খুলছে না দক্ষিণেশ্বর, তারাপীঠ মন্দির। ভক্তদের জন্য দরজা বন্ধ থাকবে বেলুড় মঠেরও। তবে কালীঘাট মন্দির খুলবে। অন্যদিকে, তারকেশ্বর মন্দির খোলার বিষয়ে শনিবার পর্যন্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।
বিশদ

সিনেমা, সিরিয়ালের
শ্যুটিংয়ে সায় রাজ্যের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শুক্রবারই অর্থনীতি ও জনজীবন স্বাভাবিক করতে একগুচ্ছ গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সেই পথেই হাঁটল কেন্দ্র। ধর্মীয় স্থান খোলার কথা গতকালই জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী, শনিবার আরও একধাপ এগিয়ে রাজ্য সরকার জানিয়ে দিল, সোমবার থেকে ৩৫ জন কলাকুশলীকে নিয়ে টিভি সিরিয়াল, সিনেমার শুটিং শুরু করা যাবে।
বিশদ

বিধ্বস্ত জেলাগুলির সব অঙ্গনওয়াড়ি
কেন্দ্রে খাদ্য সামগ্রী দেওয়া গেল না

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শনিবার থেকে রাজ্যজুড়ে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে চাল, ডাল ও আলু বণ্টন প্রক্রিয়া শুরু হল। আশঙ্কা ছিলই, উম-পুনে ক্ষতিগ্রস্ত জেলাগুলিতে বণ্টন প্রক্রিয়া শুরু করা যাবে না। বাস্তবেও তেমনটাই হল।
বিশদ

লকডাউনে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে
ফেনসিডিলের পাচার বেড়েছে
রিপোর্ট বিএসএফের

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের বিস্তীর্ণ এলাকাকে বরাবরই পাচারের স্বর্গরাজ্য বলে ধরা হয়। গোরু, সোনা, জাল টাকা, গাঁজা, ফেনসিডিল সহ একাধিক সামগ্রী এপার থেকে ওপারে রাতের অন্ধকারে পাচার হয়।
বিশদ

 অনলাইন শিক্ষার ভিত্তিতে পরীক্ষা নয়,
শিক্ষামন্ত্রীকে চিঠি ১৪২ জন অধ্যাপকের

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: অনলাইন ক্লাসের ভিত্তিতে লিখিত পরীক্ষা নয়, আগের পরীক্ষাগুলির প্রাপ্ত নম্বরের গড় বা হোম অ্যাসাইনমেন্ট দিয়ে পাশ করানো হোক কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের। এমনই দাবি জানিয়ে রাজ্যের ১৪২ জন অধ্যাপক চিঠি দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে।
বিশদ

ত্রাণের পর্যাপ্ত জোগান রয়েছে,
বৈঠক জানালেন স্বরাষ্ট্রসচিব

  নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: তারপোলিন ও ত্রাণ সামগ্রীর জোগান পর্যাপ্ত রয়েছে। স্থানীয় কোনও ইস্যুর জন্য কোনও পঞ্চায়েত এলাকায় বিক্ষিপ্তভাবে সমস্যা হতে পারে। তবে এমন পরিস্থিতি কোথাও হলে, মহকুমা ও ব্লক অফিসারদের মাধ্যমে এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী পাঠানো হবে।
বিশদ

১০ বছর কেটে গেলেও
জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেসের যাত্রীদের
অনেকের ডেথ সার্টিফিকেট মেলেনি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মাওবাদী নাশকতার পর ১০ বছর পেরিয়ে গেলেও মুম্বইগামী জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেস ট্রেনের হতভাগ্য যাত্রীদের পরিজনদের অনেকেই এখনও প্রিয়জনের মৃত্যুর প্রমাণপত্র (ডেথ সার্টিফিকেট) পাননি। বাম আমলের ওই ভয়াবহ রেল নাশকতার পর মৃত যাত্রীদের ডেথ সার্টিফিকেট তিনদিনের মধ্যে দিয়ে দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেছিল রাজ্য সরকার। বিশদ

অনলাইনে দেড় লক্ষেরও বেশি ক্লাস
প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজগুলিতে
লকডাউনে রিপোর্ট

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: অনলাইন ক্লাসে রাজ্যে পথ দেখাল মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। লকডাউন শুরু হওয়ার পর দিন তিনেক বাদে অনলাইনে ক্লাস শুরু করেছিল তারা।
বিশদ

জেলার স্কুলগুলিতে চাল, আলু বিলির
দিনক্ষণ চূড়ান্ত, প্রক্রিয়া শুরু ১ জুন

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যে তৃতীয় দফায় মিড ডে মিলের খাদ্যসামগ্রী বণ্টনের দিন নির্দিষ্ট করে দেয়নি শিক্ষা দপ্তর। সেই দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়া হয়েছে জেলাগুলির উপর। কিন্তু ঘূর্ণিঝড়ে অনেক জেলাই বিধ্বস্ত। ফলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে, সেখানে এই কাজ করা সম্ভব নয়।
বিশদ

৮ জুন থেকে রাজ্য সরকারি কর্মীদের
পর্যাপ্ত পরিবহণের দাবি সংগঠনের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী ৮ জুন থেকে রাজ্য সরকারি অফিসে ৭০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ শুরু করা হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করছেন।
বিশদ

বিধ্বস্ত জেলাগুলির সব অঙ্গনওয়াড়ি
কেন্দ্রে খাদ্য সামগ্রী দেওয়া গেল না

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শনিবার থেকে রাজ্যজুড়ে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে চাল, ডাল ও আলু বণ্টন প্রক্রিয়া শুরু হল। আশঙ্কা ছিলই, উম-পুনে ক্ষতিগ্রস্ত জেলাগুলিতে বণ্টন প্রক্রিয়া শুরু করা যাবে না। বাস্তবেও তেমনটাই হল।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
সংবাদদাতা, রামপুরহাট: রাজ্য সরকার সোমবার থেকে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান খোলার ক্ষেত্রে ছাড় দিলেও এখনই খুলছে না তারাপীঠ মন্দির। শনিবার বৈঠকে বসে বেড়ে চলা করোনা আক্রান্তের কথা ভেবে এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্দির কমিটি।  ...

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলকাতা পুলিসের চতুর্থ ব্যাটেলিয়ানে বিক্ষোভের ঘটনায় পাঁচজনকে সাসপেন্ড করা হল। সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুরের অভিযোগে নির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। ...

  নয়াদিল্লি, ৩০ মে: ইসলাম ভীতি ও বিদ্বেষের অজুহাতে ভারতকে কলঙ্কিত করতে মরিয়া পাকিস্তান। আর সেই লক্ষ্যে অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন (ওআইসি) গোষ্ঠীর প্রতিনিধিদের নিয়ে রাষ্ট্রসঙ্ঘে ভারত বিরোধী দল পাকানোর তালে ছিল ইসলামাবাদ। ...

নয়াদিল্লি, ৩০ মে: গতবছর বিশ্বকাপ সেমি-ফাইনালে ভারতীয় দলের বিদায়ের পরেই মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসর নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। আইপিএলে কামব্যাক করার থাকলেও তা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে যায় করোনার জন্য।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

স্বাস্থ্য বেশ ভালোই থাকবে। আর্থিক দিকটিও ভালো। সঞ্চয় খুব ভালো না হলেও উপার্জন ভালো হবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস
১৬১১: মুঘল সম্রাজ্ঞী নুরজাহানের জন্ম
১৮৫৮ - ওয়েস্টমিনিস্টার জুড়ে প্রথম ধ্বনিত হয়েছিল বিগ বেনের শব্দ
১৯২৬-ক্রিকেটার প্রবীর সেনের জন্ম
১৯২৮-ক্রিকেটার পঙ্কজ রায়ের জন্ম
১৯৩০- মার্কিন অভিনেতা ক্লিন্ট ইস্টউডের জন্ম
১৯৯৪: তবলা বাদক সামতা প্রসাদের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৭৯ টাকা ৭৬.৫১ টাকা
পাউন্ড ৯১.৭৩ টাকা ৯৫.০৩ টাকা
ইউরো ৮২.৪৬ টাকা ৮৫.৫০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৩১ মে ২০২০, রবিবার, নবমী ৩১/৪৪ অপরাহ্ন ৫/৩৭। উত্তরফল্গুনী নক্ষত্র ৫৫/১৩ রাত্রি ৩/১। সূর্যোদয় ৪/৫৫/৪৫, সূর্যাস্ত ৬/১২/৩০। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪১ গতে ৯/২১ মধ্যে পুনঃ ১২/০ গতে ২/৩৯ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩৮ মধ্যে পুনঃ ১০/২৯ গতে ১২/৩৮ মধ্যে। বারবেলা ৯/৫৫ গতে ১/১৩ মধ্যে। কালরাত্রি ১২/৫৪ গতে ২/১৫ মধ্যে।
১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৩১ মে ২০২০, রবিবার, নবমী দিবা ২/৪০। উত্তরফল্গুনী নক্ষত্র রাত্রি ১২/৪০। সূর্যোদয় ৪/৫৬, সূর্যাস্ত ৬/১৪। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪২ গতে ৯/২২ মধ্যে ও ১২/৪ গতে ২/৪৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪৪ মধ্যে ও ১০/৩৪ গতে ১২/৪০ মধ্যে। বারবেলা ৯/৫৫ গতে ১/১৫ মধ্যে। কালরাত্রি ১২/৫৫ গতে ২/১৬ মধ্যে।
৭ শওয়াল

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
করোনা: কোন রাজ্যে কত আক্রান্ত? 
ভারতে এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ...বিশদ

12:12:51 PM

ছাড় মিললেও মনে রাখতে হবে, আমরা যেন বেপরোয়া না হয়ে যাই, সতর্কতা বজায় রাখতে হবে: প্রধানমন্ত্রী 

11:34:46 AM

করোনা ভাইরাসের জেরে সর্বাধিক প্রভাবিত দেশের গরিব ও শ্রমিকরা: প্রধানমন্ত্রী 

11:31:06 AM

ওড়িশায় করোনা পজিটিভ আরও ১২৯ জন, রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১,৯৪৮ 

10:49:25 AM

করোনা: কোন কোন দেশ বেশি আক্রান্ত?
করোনায় আক্রান্তের বিচারে তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আমেরিকা। এদেশে করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

10:42:00 AM

নয়াদিল্লি সেনা ক্যান্টিনে আগুন
নয়াদিল্লির ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় সেনা ক্যান্টিনে আগুন লাগল। ঘটনাস্থলে দমকলের ৮টি ...বিশদ

10:19:15 AM