Bartaman Patrika
রাজ্য
 

কাটমানি নেওয়ার মতো দেওয়াও সমান
অপরাধ, বিধানসভায় স্পষ্ট বললেন পার্থ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঘুষ নেওয়ার মতো সমান অপরাধ ঘুষ দেওয়াও। আইনেই এই নিদান রয়েছে। কাটমানি নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে রাজ্যের নানা প্রান্তে যে তুমুল শোরগোল ও বিক্ষোভ শুরু হয়েছে, তার পরিপ্রেক্ষিতে আরও একবার একথা স্মরণ করিয়ে দিলেন রাজ্যের পরিষদীয়মন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার তিনি বিধানসভার অধিবেশন কক্ষে দাঁড়িয়ে বলেন, কাটমানি নিয়ে অনেকে হইচই করছেন। কিন্তু এঁদের মধ্যে কেউ কেউ সস্তা রাজনীতি করার জন্য পতাকা নিয়ে রাস্তায় নেমে পড়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই তো এনিয়ে অভিযোগ জানানোর জন্য সকলের কাছে দরজা খুলে দিয়েছেন। তবে তার সুযোগ নিয়ে সবাইকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর চেষ্টা চলছে। মনে রাখতে হবে, কাটমানি নেওয়া যেমন অপরাধ, তেমন তা দেওয়াও সমান দোষ। তাই এমন ঘটনা ঘটলে দু’পক্ষকেই শাস্তি পেতে হবে।
নির্দিষ্টভাবে কাটমানি প্রসঙ্গে আলোচনার জন্য এদিন কোনও নির্ধারিত সূচি ছিল না অধিবেশনে। মন্ত্রী-বিধায়কদের দৈনিক ভাতা এক হাজার টাকা করে বাড়ানোর ব্যাপারে সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণাকে পাকাপোক্ত রূপ দিতে এদিন একটি বিল পাশের ব্যবস্থা করা হয়। প্রাক্তন বিধায়কদের চিকিৎসা ও ভ্রমণ ভাতা বৃদ্ধি এবং সরকারি কর্মচারীদের পে-কমিশন ও বকেয়া ডিএ’র ব্যাপারে সরকার কোনও পদক্ষেপ না করার অভিযোগে বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী সেই বিলকে মৌখিকভাবে সমর্থন জানাননি। আলোচনা শেষে জবাবি ভাষণ দেওয়ার সময় সাংগঠনিক নিয়ম অনুযায়ী সুজনবাবুদের বেতন বা ভাতার টাকার একাংশ দলীয় তহবিলে জমা দেওয়া বাধ্যবাধকতার কারণে তাঁরা এই বৃদ্ধির জন্য খুশি হতে পারছেন না বলে কটাক্ষ করেন পার্থবাবু। সেই সঙ্গে সুজনবাবুদের খরচ কীভাবে এই টাকায় চলে, তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। তখনই বাম বিধায়কদের বেঞ্চ থেকে পাল্টা ‘কাটমানি, কাটমানি’ বলে টিপ্পনি করা হয়। সেই শুনেই কিঞ্চিৎ চটে যান পরিষদীয়মন্ত্রী। তিনি তখনই কাটমানি ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রীর নেওয়া পদক্ষেপ এবং তার পরিপ্রেক্ষিতে নানা জায়গায় শাসকদলের নেতা-কর্মীদের বাড়ি বা অফিসে বিক্ষোভ দেখানোর প্রসঙ্গে কিছু কড়া কথা বলেন।
বাম শিবিরের উদ্দেশে পার্থবাবু বলেন, আরে রাখুন, কাটমানি। আপনাদের সময় কত কেলেঙ্কারি হয়েছিল মনে নেই। জমি কেলেঙ্কারি, ট্রেজারি কেলেঙ্কারি, আরও কত কী। সবচেয়ে বড় কথা, এই সদনেরই একদা সদস্য তথা তৎকালীন ভূমিমন্ত্রী বিনয় চৌধুরী একদিন বলেছিলেন, তাঁদের সরকার প্রোমোটার, ঠিকাদারদের সরকারে পরিণত হয়েছে। আর একজন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তো চোরেদের সরকারে থাকবেন না বলে ইস্তফা দিয়েছিলেন। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী তো সাহস করে বলেছেন, দরজা খুলে দিলাম। অভিযোগ করুন। সত্যতা থাকলে তার বিহিত করা হবে। কিন্তু পতাকা নিয়ে ঘোরার দরকার কী? হাওয়া তুলে বাড়িতে বাড়িতে গেলাম—এটা ঠিক নয়। মুখ্যমন্ত্রী একটা ভালো উদ্যোগ নিয়েছেন। সবাই তো খারাপ নয়। প্রমাণ দিন, কে কাটমানি খেয়েছে, আর কেই বা দিয়েছে। মনে রাখবেন যারা টাকা নিয়েছে বা দিয়েছে, তাদের সবাইকেই জেলে যেতে হবে। আর যারা পতাকা নিয়ে ওইসব করছে, তাদেরও জেলে যেতে হবে।
পার্থবাবুর এহেন বক্তব্য শুনে অবশ্য সুজনবাবু পরে বলেন, একেই বোধহয় বলে চোরের মায়ের বড় গলা। মুখ্যমন্ত্রী নিজেই দলীয় বৈঠকে বারবার বলেছেন যে, আবাস যোজনার বাড়ি বা শৌচালয় তৈরি থেকে শুরু করে মৃতদেহ সৎকারের সমব্যাথী প্রকল্পের টাকা থেকেও কাটমানি খাচ্ছেন শাসকদলের নেতা-কর্মীরা। গ্রাম বা শহরের গরিব মানুষ বাসস্থান বা অন্যান্য সরকারি সুবিধা পেতে এই কাটমানি দিতে বাধ্য হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পর তারা সেই টাকাই ফেরত চাইছে। এখন পার্থবাবুরা সেই টাকা ফেরতের জন্য গণবিক্ষোভ ঠেকাতে সেই কাটমানি দেওয়ার অপরাধে নিরীহ সাধারণ মানুষকে হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন, যাতে তারা এগিয়ে না আসে।
12th  July, 2019
আইন ভেঙে বাজি ফাটালে লক্ষাধিক
টাকা জরিমানা, জানিয়ে দিল পর্ষদ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আইন না মেনে শব্দবাজি ফাটালে এবার হবে ৫ হাজার থেকে লক্ষ টাকারও বেশি জরিমানা। এই বার্তা আর শুধু হুঁশিয়ারি হয়েই থাকবে না, কাজে করে দেখানো হবে। রবিবার রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের সদস্য সচিব ডঃ রাজেশ কুমার এ কথা জানিয়ে বলেন, একটা বড় ‘অ্যাকশন’ আমরা পরিকল্পনা করছি এবারের কালীপুজো ও দীপাবলির জন্য। 
বিশদ

উদ্যোগী খাদ্য দপ্তর
সম্পন্ন পরিবার রেশনে ভর্তুকিযুক্ত খাদ্য
না নিলে শপিং মলে মিলতে পারে ছাড়

কৌশিক ঘোষ, কলকাতা: প্রথম দফায় প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর নরেন্দ্র মোদি আর্থিকভাবে সম্পন্ন লোকেদের স্বেচ্ছায় রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি ছেড়ে দেওয়ার জন্য ‘গিভ ইট আপ’ স্লোগান তুলেছিলেন। অনেকে তাতে সাড়া দিয়ে স্বেচ্ছায় ভর্তুকি ছেড়েছিলেন। কিন্তু রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি ছাড়ার জন্য কোনও পুরস্কার দেওয়া হয়নি। 
বিশদ

পুলিস হেফাজতে সন্ময়ের উপর দৈহিক
অত্যাচার হয়েছে, অভিযোগ কংগ্রেসের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সমমনোভাবাপন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে সমন্বয় গড়ে তোলার পরিকল্পনা নিল প্রদেশ কংগ্রেস। বিধানভবনে দলের দুইদিন ব্যাপী সাংগঠনিক কর্মশালা রবিবার শেষ হয়। সেখানেই কংগ্রেস নেতা সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে পুলিসি হেফাজতে দৈহিক অত্যাচার করা হয়েছে বলে অভিযোগ তোলা হয়। 
বিশদ

অসহিষ্ণুতা গণতন্ত্রের পক্ষে ধ্বংসাত্মক, মত
প্রকাশের স্বাধীনতার পক্ষে বিবৃতি রাজ্যপালের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিভিন্ন ইস্যুতে রাজ্য সরকারের সঙ্গে প্রকাশ্য বিরোধিতার ম঩঩ধ্যেই ‘অসহিষ্ণুতা’ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার। রবিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় জারি করা ওই বিবৃতিতে নিজস্ব মত প্রকাশের স্বাধীনতার কথাও তিনি বলেছেন।
বিশদ

আজ থেকে পাঁচ দিনের
উত্তরবঙ্গ সফরে মমতা

বিএনএ, শিলিগুড়ি: লোকসভা ভোটের পর এই প্রথম টানা পাঁচদিনের সফরে উত্তরবঙ্গ সফরে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ, সোমবার বিকালে তিনি শিলিগুড়িতে আসবেন। মঙ্গলবার উত্তরকন্যায় প্রশাসনিক বৈঠক করে কার্শিয়াং পাহাড়ে যাবেন তিনি। তারপর ২৫অক্টোবর কলকাতায় ফিরে যাবেন। তাঁর এই সফর ঘিরে প্রশাসনিক মহল চরম ব্যস্ত।
বিশদ

সিদ্ধার্থ স্মরণে বিধানসভায় অধ্যক্ষ, কং প্রতিনিধি ছাড়া অন্যরা গরহাজির 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থশঙ্কর রায়ের শততম জন্মদিবসে তাঁর স্মরণ অনুষ্ঠানে বিধানসভার অধ্যক্ষ ও কংগ্রেসের প্রতিনিধি ছাড়া সবাই গরহাজির। রবিবার ছুটির দিনে বিধানসভার অলিন্দে প্রক্তন মুখ্যমন্ত্রীর জন্মদিবসের অনুষ্ঠানে শাসক তৃণমূল, বিরোধী বামফ্রন্ট বা বিজেপি কারও দেখা মিলল না। 
বিশদ

প্রশাসনে স্বচ্ছতা আনতে তৃণমূলকে ঝাঁট দিয়ে হটানোর আহ্বান রূপার 

নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: আগামী বিধানসভা নির্বাচনের মধ্যে দিয়ে প্রশাসন ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আনতে ঝাঁট দিয়ে তৃণমূলকে তাড়ানোর আহ্বান জানালেন বিজেপির রাজ্যসভার সদস্য রূপা গঙ্গোপাধ্যায়।
বিশদ

এনআরসি: বিজেপি-তৃণমূলকে তোপ সূর্যকান্তের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: এনআরসি ইস্যুতে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। রবিবার হাওড়ায় সিপিএমের এক সমাবেশে তিনি বলেন, অসমে এনআরসি করে ১৯ লক্ষ মানুষকে বিজেপি ঘরছাড়া করেছে।
বিশদ

লক্ষ্য একুশের বিধানসভা ভোট
যোগ্য প্রার্থীর খোঁজে রাজ্যজুড়ে গোপন
মিশনে বিজেপি, চলছে চার দফা সমীক্ষা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ২০২১-এর বিধানসভা ভোটের লক্ষ্যে যোগ্য প্রার্থী খুঁজতে রাজ্যজুড়ে চার দফা সমীক্ষা করছে বিজেপি। মোদি-শাহের ‘মিশন বেঙ্গল’-কে সফল করতে গোপনে সেই কাজ চালু করে দিয়েছে গেরুয়া শিবির। চার দফা সমীক্ষা কারা করাচ্ছে? কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব, রাজ্য নেতৃত্ব, বিস্তারক এবং এক বেসরকারি সংস্থাকে দিয়ে পৃথক চারটি সমীক্ষা করা হচ্ছে। 
বিশদ

রোপার ‘পে ম্যাট্রিক্স’-এর জেরে রাজ্য সরকারি কর্মীদের বেতন বেশিই হচ্ছে 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রোপা বিধি প্রকাশিত হওয়ার পর সরকারি কর্মীরা পর্যালোচনা করে দেখতে পাচ্ছেন, অনেকের বর্ধিত মূল বেতন আগে যা হবে বলে আশা করা হচ্ছিল, তার থেকে কিছুটা বেশিই হচ্ছে। রোপা-তে যে ‘পে ম্যাট্রিক্স’ তৈরি হয়েছে, তার কারণে মূল বেতন আরও কিছুটা বেড়ে যাচ্ছে।  
বিশদ

১০টি হোমিওপ্যাথিক, তিনটি আয়ুর্বেদ, একটি ইউনানি
বাংলার ৫৬ শতাংশ আয়ূশ আসনই ফাঁকা 

বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: অ্যালোপ্যাথিক চিকিৎসার প্রতি আগ্রহ কমছে। এ কথা দেশ-বিদেশের বিভিন্ন গবেষণাপত্র থেকে প্রায়ই জানা যায়। সাধারণ মানুষের মধ্যে অনেকেই ঝুঁকছেন আয়ূশের মতো বিকল্প চিকিৎসার দিকে। আর হোমিওপ্যাথি যে অ্যালোপ্যাথির পরই সবচেয়ে বেশি রোগীদের আকর্ষণ করছে, তা বলাই বাহুল্য।  
বিশদ

টেলিকম পরিষেবায় দেশের নিরিখে পিছিয়ে পশ্চিমবঙ্গ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মোবাইল ফোন হোক বা ল্যান্ডলাইন— টেলিকম পরিষেবা নেওয়ার ক্ষেত্রে দেশে ১৩ নম্বর স্থানে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। দেশজুড়ে ফোন ব্যবহার করার গড় হারের চেয়ে খানিকটা পিছিয়েই আছে এই রাজ্য। এখানে টেলিকম পরিষেবা নেওয়ার হার ৮৫.৯৪ শতাংশ। দেশের গড় হার ৯০.৩৪ শতাংশ। এক্ষেত্রে দেশের শীর্ষে রয়েছে দিল্লি। 
বিশদ

নেই জুডিশিয়াল মেম্বার, নিয়মিত শুনানি হচ্ছে না রাজ্য মানবাধিকার কমিশনে 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ক্রমেই কার্যকারিতা হারাচ্ছে রাজ্য মানবাধিকার কমিশন। অভিযোগ, গত ছ’মাস ধরে কমিশনের দৈনন্দিন শুনানি প্রক্রিয়া কার্যত বন্ধ। আইন অনুসারে রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানকে নিয়ে আর দুই সদস্য সহ মোট তিন জনের বেঞ্চ। কিন্তু গত মে মাস থেকে কমিশনের জুডিশিয়াল মেম্বারের পদটি খালি।  
বিশদ

ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়, বিপাকে ৬ কোটি গ্রাহক
রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার
যুক্ত না হলেই ভর্তুকি বন্ধ

কৌশিক ঘোষ, কলকাতা: রাজ্যের রেশন গ্রাহকদের কার্ডের সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণের কাজ আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করতে নির্দেশ দিল কেন্দ্রীয় সরকার। তা না করলে রেশনে সরবরাহ করা খাদ্যে ভর্তুকি বন্ধ করে দেওয়ার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে। এই অবস্থায় রাজ্য খাদ্য দপ্তর আধার সংযুক্তিকরণের কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে চাইছে। শুক্রবার খাদ্য ভবনে এব্যাপারে জরুরি বৈঠকও হয়েছে।
বিশদ

20th  October, 2019

Pages: 12345

একনজরে
পাপ্পা গুহ, উলুবেড়িয়া: দুর্গাপুজোর পর এবার কালীপুজো। আর এই কালীপুজোতে অতিরিক্ত উপার্জনের আশায় বুক বাঁধতে শুরু করেছেন রাজ্যের জবা ফুলচাষীরা। কালীপুজোয় জবার চাহিদার কথা মাথায় ...

লন্ডন ২০ অক্টোবর (এএফপি): ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বোরিস জনসনের আর্জি মেনে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া বিলম্বের বিষয়টি বিবেচনা করবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। আগামী ৩১ অক্টোবর ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া চূড়ান্ত সম্পাদন করার শেষ সময়সীমা। গতকাল ব্রিটিশ পার্লামেন্টে বিরোধীরা প্রক্রিয়াটি বিলম্বিত করার প্রস্তাব রাখেন। ...

বিড, ২০ অক্টোবর (পিটিআই): নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়ে তুতো বোন তথা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী পঙ্কজা মুণ্ডের বিরুদ্ধে আপত্তিকর মন্তব্য করে ইতিমধ্যে বিতর্কে জড়িয়েছেন এনসিপি নেতা ধনঞ্জয় মুণ্ডে। এবার ধনঞ্জয়ের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল পুলিস। যদিও এনসিপি নেতা দাবি করেন, তাঁর মন্তব্য ‘বিকৃত’ ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলকাতাই যে নিষিদ্ধ মাদক কারবারিদের মূল টার্গেট, একের পর এক ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারের ঘটনায় তার আভাস মিলতে শুরু করেছে। শনিবারই ময়দান এলাকা ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীরা শুভ ফল লাভ করবে। মাঝে মাঝে হঠকারী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করায় ক্ষতি হতে পারে। নতুন ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮০৫: ত্রাফালগারের যুদ্ধে ভাইস অ্যাডমিরাল লর্ড নেলসনের নেতৃত্বে ব্রিটিশ নৌবাহিনীর কাছে পরাজিত হয় নেপোলিয়ানের বাহিনী
১৮৩৩: ডিনামাইট ও নোবেল পুরস্কারের প্রবর্তক সুইডিশ আলফ্রেড নোবেলের জন্ম
১৮৫৪: ক্রিমিয়ার যুদ্ধে পাঠানো হয় ফ্লোরেন্স নাইটেঙ্গলের নেতৃত্বে ৩৮ জন নার্সের একটি দল
১৯৩১: অভিনেতা শাম্মি কাপুরের জন্ম
১৯৪০: আর্নেস্ট হেমিংওয়ের প্রথম উপন্যাস ফর হুম দ্য বেল টোলস-এর প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয়
১৯৪৩: সিঙ্গাপুরে আজাদ হিন্দ ফৌজ গঠন করলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু
১৯৬৭: ভিয়েতনামের যুদ্ধের প্রতিবাদে আমেরিকার ওয়াশিংটনে এক লক্ষ মানুষের বিক্ষোভ হয়
২০১২: পরিচালক ও প্রযোজক যশ চোপড়ার মৃত্যু





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৩৪ টাকা ৭২.০৪ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৮৬ টাকা ৯৩.১৫ টাকা
ইউরো ৭৭.৭৩ টাকা ৮০.৬৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  October, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৯২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৯৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,৪৮৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,৬৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৫,৭৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
20th  October, 2019

দিন পঞ্জিকা

২ কার্তিক ১৪২৬, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ষষ্ঠী ৪/৩৯ দিবা ৭/৩০। আর্দ্রা ৩০/৩৪ সন্ধ্যা ৫/৫২। সূ উ ৫/৩৮/৩৫, অ ৫/৪/৩৯, অমৃতযোগ দিবা ৬/২৫ গতে ৮/৪২ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৪ গতে ২/৪৫ মধ্যে। রাত্রি ৭/৩৫ গতে ৯/১৬ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৭ গতে ১/২৮ মধ্যে পুনঃ ২/১৮ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৯/৫৬ গতে ১২/৪৭ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৬ গতে ২/৩০ মধ্যে।
২ কার্তিক ১৪২৬, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, সপ্তমী ৫৩/৪/১৩ রাত্রি ২/৫২/৫২। আর্দ্রা ২৪/৪১/৫৯ দিবা ৩/৩১/৫৯, সূ উ ৫/৩৯/১১, অ ৫/৫/৫১, অমৃতযোগ দিবা ৬/৩২ গতে ৮/৪৫ মধ্যে ও ১১/৪২ গতে ২/৪০ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২৮ গতে ৯/১১ মধ্যে ও ১১/৪৬ গতে ১/২৯ মধ্যে ও ২/২১ গতে ৫/৪০ মধ্যে, বারবেলা ৯/৫৬/৪১ গতে ১১/২২/৩১ মধ্যে, কালবেলা ১১/২২/৩১ গতে ১২/৪৮/২১ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৬/৪১ গতে ২/৩০/৫১ মধ্যে।
২০ শফর

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
নানুরে বিজেপি সমর্থকের মাকে গুলি করে খুন 
বীরভূমের নানুরে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে প্রাণ গেল বিজেপি সমর্থকের মায়ের। গুলিবিদ্ধ ...বিশদ

04:55:03 PM

মোবাইল ফোন হারিয়ে ফেলায় বকুনি, নদীয়ার ভীমপুরে আত্মঘাতী কিশোরী 

04:39:00 PM

কোচবিহারে পাতলাখাওয়ায় মৃত তৃণমূল কর্মীর পরিজনদের সঙ্গে দেখা করলেন সুব্রত বক্সি 

04:34:00 PM

শান্তিপুরে বাড়িতে ভূতের অপবাদ দিয়ে মারধর 
বাড়িতে ভূত রয়েছে এমন অপবাদ দিয়ে বেশ কয়েকটি পরিবারের উপর ...বিশদ

04:29:00 PM

সম্পাদক শুভা দত্ত প্রয়াত 
প্রয়াত বর্তমান সংবাদপত্রের সম্পাদক শুভা দত্ত। সোমবার, ২১ অক্টোবর সকাল ...বিশদ

01:39:53 PM

বিধানসভা নির্বাচন: মুম্বইতে স্ত্রী ও পুত্রকে সঙ্গে নিয়ে ভোট দিলেন শচীন তেন্ডুলকর 

12:26:00 PM