Bartaman Patrika
শিক্ষা-কেরিয়ার
 

এগতে হবে অঙ্ক না কষেই 

কৌলিক ঘোষ: যাবতীয় বোর্ড পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হওয়ার পর আবার যথারীতি ক্লাস শুরুও হয়ে গিয়েছে। যারা মাধ্যমিক সহ অন্যান্য বোর্ডের দশম মান উত্তীর্ণ করল, তারা ১০+২ পড়াশোনা শুরু করেছে, আর যারা ১০+২ পাশ করল তারা শুরু করল কলেজ জীবন। কিন্তু একটা বিষয় নিয়ে আমরা খুব একটা ভাবনার ধার ধারি না, যে এই রেজাল্টের গুরুত্ব ঠিক কতখানি? মাধ্যমিকে প্রথম দশ বা উচ্চমাধ্যমিকের প্রথম দশকে নিয়ে যেভাবে প্রচার চলে তা কি আদৌ কাম্য! কোনও দিনও কোনও পরিসংখ্যান নেওয়ার চেষ্টা বা ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন কি যে ১০ম বা ১০+২-এ যারা বিভিন্ন বোর্ডে প্রথম থেকে দশম হল তারা আজ থেকে দশ বছর পরে ঠিক কোন জায়গায় রয়েছে। বা, গত দশ বছর আগে যারা মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিকে জ্বলজ্বলে রেজাল্ট নিয়ে সংবাদপত্র বা বৈদ্যুতিন মাধ্যমে এসে ভূরি ভূরি উপদেশ দিয়েছিল তারা আজ কোন জায়গায়, কী করছে, সমাজে তাদের স্থানই বা কোথায়?
গত বিশ বছর কেরিয়ার সাংবাদিকতার অভিজ্ঞতা থেকে হলফ করে একটা কথা বলতে পারি এদের মধ্যে পাঁচ থেকে দশ শতাংশ বাদ দিলে বাকিরা নিতান্তই মাঝারি গতানুগতিক জীবনেই আবর্তিত। স্কুল শিক্ষক, ইঞ্জিনিয়ার বা ডাক্তারির বাইরের পেশা গ্রহণের বাঁধাগত থেকে বেরতে পারেনি বেশিরভাগ তথাকথিত ‘কৃতী’-রা। সর্বভারতীয় সিভিল সার্ভিস-এর মতো প্রতিযোগিতাতে তাদের সংখ্যা চোখে ‘না পড়ার’ মতো। পরিবারের আনুগত্যের কারণে রাজ্যের বাইরে যাওয়াটাও হয়ে ওঠেনি। আর, ব্যবসা? সে তো চিরকালই বাঙালির কাছে ব্রাত্য বিষয়।
বাস্তবে ১০ম বা ১০+২-এর প্রাপ্ত নম্বর প্রকৃতপক্ষে জীবনের ক্ষেত্রেও তা শুধুই ‘নম্বর’। যতদিন উচ্চশিক্ষা বা চাকরি না মিলছে ততদিন পর্যন্ত সযত্নে রেখে দেওয়ার বস্তু। কতজন চল্লিশোর্ধ্ব ব্যক্তিকে মাধ্যমিকের অঙ্ক বা ইংরেজির নম্বর জিজ্ঞেস করলে বলতে পারবে বলুন তো!
এতটা ব্যাখ্যা করার উদ্দেশ্য একটাই অভিভাবকদের ছেলেমেয়েদের প্রতি উচ্চাশা জনিত চাপ বৃদ্ধি করা আর তার ফলস্বরূপ অবসাদ এমনকী আত্মহননের মতো পথ বেছে নেওয়া— এটা যাতে না হয় বা না বৃদ্ধি পায়। পড়ুক, শিখুক, প্রকৃতির কোলে বড় হোক, খেলাধূলা করুক, পরিবার ও সমাজের সঙ্গে পরিচিত হোক, আত্মীয়স্বজনের বাড়ি যাতায়াত করুক। কুয়োর ব্যাং হয়ে সারাদিন বইমুখো হয়ে থাকলে পরীক্ষায় হয়তো নম্বর মিলবে, কিন্তু জীবনের অনেক দিক অজানা-অচেনাই থেকে যাবে। বাংলার বাঘ আশুতোষ মুখোপাধ্যায় বা নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু থেকে শুরু করে বিশিষ্ট বৈজ্ঞানিক মণি ভৌমিক সারাদিন বই নিয়ে পড়ে থাকতেন এমনটা কোথাও শোনা যায় না।
অবশ্য আজকালকার বাবা মায়েদের একটা অজুহাত সব সময় রয়েছে সময়ের সঙ্গে প্রতিযোগিতা বেড়েছে। হোমওয়ার্ক, ক্লাস টেস্ট, ইউনিট টেস্ট, প্রজেক্ট, টিউশন-এর চাপ নেবে না খেলবে? এর উত্তরে বলি শৈশব হোক বা কৈশোর, এতটা অঙ্ক কষে এগবেন না। আর, ছাত্রদের নমুনা দেবেন না— দেখো এই ছেলেটির বোর্ডের পরীক্ষাতে মোট দু’নম্বর কাটা গিয়েছে। তোমাকেও কিন্তু এমনি করতে হবে। বলুন তোমার যে বিষয় পড়তে ভালো লাগে সেটাই পড়ো, যা নম্বরই পাও— আমরা তাতেই খুশি।
তবে যেটা পড়বে তার প্রতি তোমার যেন ভালোবাসা থাকে। একটা বিষয় জানবেন ভয়-ভীতি থেকে পড়াশোনা করে ভালো নম্বর পেলে সেই ছাত্রের সাফল্য জীবনে কোনও না কোনও ক্ষেত্রে ধামাচাপা পড়বে, কিন্তু ছাত্র-ছাত্রীরা যখন দেখবে অভিভাবকরা তাদের সঙ্গে রয়েছে তখন সে পড়বে নির্ভয়ে, নির্ভাবনায়, চাপমুক্ত পরিবেশে। আখেরে সাফল্য মেলে এদেরই। এখন তো ক্লাস ফাইভ-সিক্স থেকে আইআইটি বা নিট-এর কোচিং-এর জন্য পাঠিয়ে দেন। তখন তো ছাত্রের ইঞ্জিনিয়ারিং বা ডাক্তারি সম্পর্কে কোনও ধারণাই গড়ে ওঠেনি। আইআইটি বা নিট-এর পুরো কথাটিই তার জানা নেই। অথচ, ইচ্ছাকৃতভাবে চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে বোঝা। আগে ক্লাস টেন অবধি অন্তত ছাত্রকে নিজের মতো চলতে দিতে শিখুন, অবশ্যই শাসনের আগলে রেখে, হোয়াটসঅ্যাপ বা ফেসবুক-এর বাইরেও নেট যোগাযোগের ফায়দা কীভাবে তোলা যায় তা ব্যাখ্যা করুন সাবলীলভাবে। একবার এক স্বনামধন্য অঙ্কের শিক্ষক বলেছিলেন ক্লাস ফাইভের মধ্যে যদি অঙ্কের অর্থাৎ লজিকের মাথা না তৈরি হয়, তাহলে সমস্যা আছে। (মানে দশ বছর বয়সের মধ্যে)। গাধা পিটিয়ে ঘোড়া হয় না। ওই প্রণম্য শিক্ষকের কথার রেশ টেনেই বলি অঙ্ক শেখান মুখে বুলি ফোটার সঙ্গে সঙ্গে কিন্তু সেখানে থাকবে না বই খাতা। কী, কেন, কোথায়— এর উত্তর দিন গাণিতিক নমুনা দিয়ে। সেখানেই তৈরি হবে অঙ্কের আকর। কিন্তু সাফল্যকে টেনে আনার জন্য অঙ্ক কষে চললে চলবে না। 
28th  July, 2019
 চাকরির অবস্থার পরিবর্তন হলেও বাজারে নতুন চাকরির সুযোগও কম নয়

পড়ার বিষয়ের যেমন বদল ঘটছে তেমনই পড়ুয়াদেরও সুযোগ রয়েছে নতুন নতুন বিষয়কে কেরিয়ার হিসেবে বেছে নেওয়ার। চাকরির বাজারে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা থাকলেও সঠিকভাবে তৈরি হতে পারলে এখনও ভালো প্রতিষ্ঠানে চাকরি হাতের নাগালের বাইরে নয়। এসব নিয়েই কথা বললেন কলিঙ্গ ইনস্টিটিউট অব ইন্ডাস্ট্রিয়াল টেকনোলজি’র প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ডঃ অচ্যুত সামন্ত।
বিশদ

 শিক্ষার ভিত্তিই প্রাথমিক শিক্ষা

 যে কোনও শিক্ষার ভিত্তিই প্রাথমিক শিক্ষা। এটা নতুন কথা নয়। কিন্তু আধুনিক শিক্ষাব্যবস্থা বলছে, প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ। বিশদ

 বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন বিষয়ে ডিপ্লোমা এবং সার্টিফিকেট কোর্স

বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্য সেন্টার ফর কন্টিনিউইং অ্যান্ড অ্যাডাল্ট এডুকেশন ২০১৯-২০২০ সেশনে বিভিন্ন বিষয়ের উপর ডিপ্লোমা এবং সার্টিফিকেট কোর্স করাচ্ছে। বিষয়গুলিতে ভর্তির আবেদনের শেষ তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর।
বিশদ

 টি ম্যানেজমেন্ট কোর্সে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

 উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯-২০২০ সেশনে টি ম্যানেজমেন্টের ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছ। যে কোনও শাখায় স্নাতক হলে এবং সঙ্গে বিষয় হিসাবে এগ্রিকালচার থাকলে আবেদন করা যাবে।
বিশদ

 বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় ইন্টিগ্রেটেড বিএড কোর্সে ভর্তি নিচ্ছে

 ইন্টিগ্রেটেড বিএড কোর্সে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে। ১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন সেলফ ফাইন্যান্সড কলেজগুলিতে ভর্তি হওয়া যাবে।
বিশদ

 ‘দি বাকিংহাম প্যালেট’ হোটেল ম্যানেজমেন্টের কর্মশালা

ভারতীয় ‘কারি’ এখন ব্রিটেনের এক নম্বর জাতীয় খাদ্য বনে গিয়েছে। হট, মাইল্ড, ক্রিমি অথবা ড্রাই— এমন বিভিন্ন ধরনের কারি কীভাবে বানাতে হয়, ভারতীয় এবং ব্রিটিশ কারির মধ্যে মূল পার্থক্যগুলি কী— এইসব নিয়েই কর্মশালা হয়ে গেল কলকাতার স্বভূমিতে।
বিশদ

 গুরু নানক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির উদ্ভাবনী কর্মশালা

 পড়ুয়াদের উদ্ভাবনী শক্তিতে আরও শান দিতে বিশেষ উদ্যোগ নিল জেআইএস গোষ্ঠীর গুরু নানক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি। প্রতিষ্ঠানের দ্য ইনস্টিটিউটস ইনোভেশন কাউন্সিল (আইসি) মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক এবং এআইসিটিইর সহযোগিতায় আয়োজন করে একদিনের বিশেষ কর্মশালা।
বিশদ

তীব্র মন্দা আর প্রযুক্তির পরিবর্তনে পড়তি অবস্থা গাড়ি শিল্পে 

বাতাসে হিমের পরশ লাগতে এখনও দেরি আছে। কিন্তু দেশের গাড়ির বাজারে গভীর শীতঘুম আর কাটতেই চাইছে না। জুলাই মাসের হিসেব ধরলে টানা ন’মাস ধরে কমে চলেছে গাড়ির বিক্রি। ২০১৮ সালের তুলনায় এই বছর জুলাইয়ে যাত্রীবাহী গাড়ির বিক্রি কমেছে প্রায় ৩১ শতাংশ, আর পণ্যবাহী গাড়ির বিক্রি কমেছে প্রায় ২৬ শতাংশ। 
বিশদ

25th  August, 2019
চাকরি যখন হাতের মুঠোয় 

কৌলিক ঘোষ: একটা চাকরি চাই। সরকারি হোক বা বেসরকারি। মোটা মাইনের হোক বা মাঝারি বেতনের। যোগ্যতার নিরিখে পদেরও রকমফের হবে। কিন্তু, একটা সাধারণ মানসিকতা প্রত্যেক প্রার্থীর মধ্যেই দেখা যায়। সেটা হল একেবারে ব্যক্তিগত সুযোগ-সুবিধা, বেতনক্রম নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা, চাকরিস্থল এবং বদলি নিয়ে নিমরাজি হওয়া। 
বিশদ

25th  August, 2019
কেরিয়ারের কয়েকশো পথ 

‘আমার সন্তান যেন থাকে দুধেভাতে’। বাক্যটি এখন বহন করে নিয়ে চলেছে আজকালকার বাবা-মায়েরাও। যতই আধুনিক মনস্কতা আসুক, যতই পশ্চিমী দুনিয়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে পা মিলিয়ে চলতে উৎসাহী হোন কিন্তু, একটি ব্যাপারে স্বার্থপর, তা হল সন্তানের কেরিয়ার।  
বিশদ

25th  August, 2019
মুখোমুখি 

মার্কেটিং-এর ভদ্রলোকটি অনেকদিন ধরেই চাকরি পরিবর্তনের সুযোগ খুঁজছিলেন। শেষমেশ ঘনিষ্ঠ একজনের তদ্বিরে একটি মাঝারি মানের সংস্থায় চাকরির সুযোগ খুলল। যেহেতু মালিকের ঘনিষ্ঠ এক ব্যক্তি কাজ পাওয়ার ক্ষেত্রে মধ্যস্থতা করছেন, তাই ইন্টারভিউ-এর সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরাও একটু ক্যাজুয়াল।  
বিশদ

25th  August, 2019
প্রয়োজনীয় বিষয়
অপ্টোমেট্রি

বর্ণালী ঘোষ: আমাদের দেশে অপ্টোমেট্রিস্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকেন। হাজার হাজার মানুষ আছেন যাঁদের চোখের যত্ন খুবই প্রয়োজন রয়েছে। আর এক্ষেত্রে এগিয়ে এসেছেন অপ্টোমেট্রিস্টরা।
বিশদ

19th  August, 2019
বায়োটেক ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিং প্রোগ্রাম

কেন্দ্রীয় সরকারের সায়েন্স এবং টেকনোলজি মন্ত্রকের বায়ো টেকনোলজি বিভাগ বায়োটেক ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিং প্রোগ্রামের আয়োজন করেছে। আবেদন করার শেষ তারিখ ২২ আগস্ট।
বিশদ

19th  August, 2019
গেট (GATE) পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স, বেঙ্গালুরু এবং সাতটি ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (মুম্বই, দিল্লি, গুয়াহাটি, কানপুর, খড়্গপুর, চেন্নাই এবং রুরকি) ন্যাশনাল কোঅর্ডিনেশন বোর্ডের (এনসিবি), জিএটিই, ডিপার্টমেন্ট অব হায়ার এডুকেশন, মিনিস্ট্রি অব হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট, ভারত সরকারের তরফ থেকে গ্র্যাজুয়েট অ্যাপটিটিউড টেস্ট ইন ইঞ্জিনিয়ারিং (জিএটিই) –এর আয়োজন করেছে।
বিশদ

19th  August, 2019
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ২৫ আগস্ট: প্রবল অর্থসঙ্কটে রেল। আর তাই আয় বাড়াতে মরিয়া মন্ত্রক। সেই কারণে পণ্য পরিবহণ এবং যাত্রীভাড়া বৃদ্ধি না করে অন্য কোনও পদ্ধতিতে আয় বৃদ্ধির উপর জোর দিচ্ছে রেলমন্ত্রক। ...

 একনজরে পিভি সিন্ধু ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আনাজপাতির মূল্যবৃদ্ধি রোধে রাজ্য সরকারের গড়া বিশেষ টাস্ক ফোর্সের সর্বশেষ বৈঠক হয়েছিল প্রায় ছ’মাস আগে। অথচ ২০১১ সালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন, বাজারদর সাধারণের বাগে রাখতে প্রতি মাসে দু’বার করে এই বৈঠক হবে। ...

সৌম্যজিৎ সাহা  কলকাতা: খাতা দেখার ক্ষেত্রে কড়া নিয়ম চালু করছে প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। কাগজ-কলম ছেড়ে কম্পিউটারে খাতা দেখার ব্যবস্থা চালু করছে তারা। তার মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় ঠিক করেছে, উত্তরপত্রের প্রতি পাতার জন্য অন্তত চার মিনিট সময় ব্যয় করতেই হবে পরীক্ষকদের। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের ক্ষেত্রে ভাবনাচিন্তা করে বিষয় নির্বাচন করলে ভালো হবে। প্রেম-প্রণয়ে বাধাবিঘ্ন থাকবে। কারও সঙ্গে মতবিরোধ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯১০: নোবেল জয়ী সমাজসেবী মাদার টেরিজার জন্ম
১৯৩৪: কবি ও গীতিকার অতুলপ্রসাদ সেনের মৃত্যু
১৯৫৬: রাজনীতিক মানেকা গান্ধীর জন্ম
১৯৬৮: চিত্র পরিচালক মধুর ভাণ্ডারকরের জন্ম

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৭৯ টাকা ৭২.৪৯ টাকা
পাউন্ড ৮৫.৩৪ টাকা ৮৮.৫১ টাকা
ইউরো ৭৭.৯৮ টাকা ৮০.৯৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
23rd  August, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৯, ০২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৭, ০২৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭, ৫৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৪, ৮৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪. ৯৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
25th  August, 2019

দিন পঞ্জিকা

৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২৬ আগস্ট ২০১৯, সোমবার, দশমী ৪/১৬ দিবা ৭/৩ পরে একাদশী ৫৯/৩৪ শেষরাত্রি ৫/১০। আর্দ্রা ৪৯/০ রাত্রি ২/৫৬। সূ উ ৫/২০/৩০, অ ৫/৫৬/৩৯, অমৃতযোগ দিবা ৭/০ মধ্যে পুনঃ ১০/২৩ গতে ১২/৫৪ মধ্যে। রাত্রি ৬/৪২ গতে ৯/০ মধ্যে পুনঃ ১১/১৫ গতে ২/১৮ মধ্যে, বারবেলা ৬/৫৫ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ২/৪৭ গতে ৪/২২ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১৩ গতে ১১/৩৮ মধ্যে। 
৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২৬ আগস্ট ২০১৯, সোমবার, একাদশী ৪৮/৪০/৩৭ রাত্রি ১২/৪৭/৪২। আর্দ্রানক্ষত্র ৪৬/২৩/৪৪ রাত্রি ১১/৫২/৫৭, সূ উ ৫/১৯/২৭, অ ৫/৫৯/২৭, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩ মধ্যে ও ১০/১৯ গতে ১১/৪৭ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/২৯ গতে ৮/৪৯ মধ্যে ও ১১/১০ গতে ২/১৭ মধ্যে, বারবেলা ২/৪৯/২৭ গতে ৪/২৪/২৭ মধ্যে, কালবেলা ৬/৫৪/২৭ গতে ৮/২৯/২৭ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১৪/২৭ গতে ১১/৩৯/২৭ মধ্যে। 
২৪ জেলহজ্জ 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
নিমতায় ফের গুলি করে খুন 
ফের খুন উত্তর দমদম পুর এলাকার নিমতায়। গত রাতে পাটনা-ঠাকুরতলা ...বিশদ

10:27:00 AM

১৩১৩৭ আপ কলকাতা-আজমগঢ় এক্সপ্রেস আজ সকাল ১১:২৫ মিনিটের বদলে বেলা ২:৪৫ মিনিটে কলকাতা স্টেশন থেকে ছাড়বে 

10:16:31 AM

জিয়াগঞ্জে প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে বধূকে ধারালো অস্ত্রের কোপ যুবকের 

10:10:00 AM

শহরে ট্রাফিকের হাল 
আজ, সোমবার সকালে শহরে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে অফিস টাইমের ...বিশদ

10:06:59 AM

শিবপুর পিটিআর সাইডিংয়ে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির দেহ উদ্ধার 

09:52:32 AM

আজ ২ হাজার অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র পরিদর্শনে হুগলি জেলা প্রশাসন 
আজ, সোমবার একইসঙ্গে হুগলির ২ হাজার অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র পরিদর্শন করবে ...বিশদ

09:30:16 AM