রঙ্গভূমি
 

ট্র্যাজেডির রঙ্গ কৌতুক: একটি মৃত্যু আলেখ্য

শেকসপিয়রের ট্র্যাজেডি হ্যামলেটের দুটি অকিঞ্চিৎকর চরিত্রকে নিয়ে নাট্যকার টম স্টপার্ড লিখেছিলেন এই নাটকটি। বহুব্রীহি নাট্যসংস্থা সেই নাটককেই হাজির করলেন বঙ্গ রঙ্গমঞ্চে। দেখে এলেন শিবানন্দ মুখোপাধ্যায়।

বহুব্রীহি নাট্য সংস্থার সাম্প্রতিক প্রযোজনা নাট্যকার টম স্টপার্ড-এর বিশ্বখ্যাত ও বহু চর্চিত নাটক ‘রোজেনক্রাঞ্জ অ্যান্ড গিল্ডেনস্টার্ন আর ডেড’ (Rosencrantz And Guildenstern Are Dead)। ১৯৬৫ সালে লেখা এই নাটক স্টপার্ডকে খ্যাতি এনে দেয়। পরে এই নাটক নিয়ে চর্চা উত্তরোত্তর বাড়তে থাকে। গভীর দার্শনিক ভাবনার সঙ্গে শ্লেষ, বিদ্রুপ, কৌতুক মিশিয়ে এক মৌলিক সিরিয়াস কমেডির উদ্ভাবন করেছেন তিনি। দৃশ্যগত কৌতুক, শব্দের খেলা, অতিশয়োক্তি ইত্যাদির মধ্যে দিয়ে হালকা মেজাজে স্টপার্ড দর্শককে এক গভীর বোধের জগতে পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছেন।
আলো-আঁধার, কৌতুক-বিষাদ মিলেমিশে জীবনের প্রতি মুহূর্তে তৈরি হচ্ছে নানান নকশা। একের থেকে অপরকে আলাদা করা সম্ভব নয়। ট্র্যাজেডি কমেডিকে আলাদা না করে, কৌতুক ও বিষাদের সংমিশ্রণে সম্পূর্ণ নতুন ধারার নাটক তৈরি করেছিলেন ইতালির মহান নাট্যকার লুইজি পিরানদেল্লো। তাঁর হাত ধরেই নাটকে রোম্যান্টিক যুগের শেষ হয়ে শুরু হয় গ্রোটেস্ক (Grotesque) যুগ। পরবর্তী সময়ে বহু মহান নাট্যকার প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে তাঁর কাছে ঋণী। অ্যাবসার্ড নাটকের সঙ্গে তাঁর নাটকের মৌলিক পার্থক্য থাকলেও অনেক মিলও আছে। পিরানদেল্লো— বেকেট-এর তৈরি মজবুত ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে টম স্টপার্ড রচনা করেছেন তাঁর বহু আলোচিত নাটক ‘রোজেনক্রাঞ্জ অ্যান্ড গিল্ডেনস্টার্ন আর ডেড’।
অর্থ, ক্ষমতা, আর পেশি শক্তি দিয়ে সারা বিশ্ব নিয়ন্ত্রণ করছে অল্প কিছু মানুষ। আর বিপরীতে অগণিত সাধারণ মানুষের জন্য রয়েছে পরাধীন, অর্থহীন, বিরক্তিকর, ক্লান্তিকর একঘেয়ে জীবন। ক্ষমতাসীন শ্রেণির সঙ্গে আপস করে, তাদের ছিটেফোঁটা উচ্ছিষ্ট নিয়ে বেঁচে থাকা। প্রশ্নহীন আনুগত্য নিয়ে জীবন কাটানো। যদিও মৃত্যু সবার জন্যই অবশ্যম্ভাবী। সবার জন্যই সত্য কুয়াশাবৃত মৃত্যুর অজানা, ধূসর ঠিকানা। এর হাত থেকে পরিত্রাণ নেই। এ যেন এক জাহাজে উঠে পড়া। জাহাজের মধ্যে হাঁটানো যায় কিন্তু বৃহত্তর অর্থে এগিয়ে যেতে হয় জাহাজ যেদিকে নিয়ে যায় সেদিকেই। স্টপার্ডের নাটকে একজন প্রধান চরিত্র গিল্ডেনস্টার্ন বলে, Where we went wrong was getting on a boat. We can move, of course, change direction, rattle about, but our movement is contained within a larger one that carries us along as inexorably as the wind and current...
শেক্সপিয়রের জগদ্বিখ্যাত ট্র্যাজেডি হ্যামলেট-এর দুই অপ্রধান চরিত্র রোজেনক্রাঞ্জ আর গিল্ডেনস্টার্ন। এই দুই পারিষদ স্টপার্ডের নাটকের প্রধান দুই চরিত্র। হ্যামলেট নাটকে তাদের মূল কাজ ডেনমার্ক অধিপতি ক্লডিয়াস আর রানি গার্ট্রুড-এর আদেশ মেনে চলা। যুবরাজ হ্যামলেটের পাশে থেকে তাঁর মতিগতি সম্পর্কে জানা ও সে বিষয়ে রাজা-রানিকে ওয়াকিবহাল করা। স্টপার্ড কিন্তু এই দুই পারিষদের দৃষ্টি দিয়ে ঘটনাগুলো দেখিয়েছেন। হ্যামলেটের প্রতি সহানুভূতি তৈরি না করে বরা হ্যামলেটের সমালোচনা করা হয়েছে। কখনও হ্যামলেটকে নিয়ে ঠাট্টাও করা হয়েছে। হ্যামলেট নাটকে মঞ্চের বাইরে ঘটা অথবা না ঘটা কয়েকটা ঘটনাও এই নাটকে মঞ্চে ঘটে যায়। যেমন মূল নাটকে হ্যামলেটকে ইংল্যান্ডে পাঠিয়ে সুস্থ করার কথা বলে রাজা (তৃতীয় অঙ্ক, প্রথম দৃশ্য)। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তেমন ঘটনা ঘটেনি। স্টপার্ডের নাটকে তৃতীয় অঙ্কে দেখা যায় রোজেনক্রাঞ্জ ও গিল্ডেনস্টার্ন হ্যামলেটকে নিয়ে সমুদ্রে পাড়ি দিয়েছে। জাহাজ চলেছে ইংল্যান্ডের দিকে। এই দুই পারিষদের পকেটে আছে সিল করা খামে চিঠি। সেই চিঠিতে আছে হ্যামলেটের মৃত্যুর পরোয়ানা। সেই চিঠি হ্যামলেট সরিয়ে নিয়ে তার বদলে রেখে দেয় ওই দুই পারিষদের মৃত্যুর আদেশ দেওয়া চিঠি। শেষ পর্যন্ত অবশ্য মৃত্যুর অবশ্যম্ভাবিতাকে মেনে নিতে বাধ্য হয় তিনজনেই। শেক্সপিয়রের ট্র্যাজেডির ওপর ভিত্তি করে এই নাটক গড়ে তোলে এক ফ্যান্টাসির জগৎ যেখানে মূল নাটককে প্রয়োজনে বিদ্রুপ করতেও ছাড়েন না বর্তমান নাট্যকার। ক্ল্যাসিকাল যুগের গ্রিক নাটক থেকে বর্তমান যুগের— সামগ্রিক নাট্য জগতের সমালোচনা ধরা পড়ে তাঁর দৃষ্টিভঙ্গিতে।
টম স্টপার্ডের এই অতি গুরুত্বপূর্ণ নাটকটি মঞ্চস্থ করা খুবই কঠিন কাজ। সেই গুরুদায়িত্ব সফলভাবে পালন করেছেন পরিচালক-অভিনেতা অশোক বিশ্বনাথন। রোজেনক্রাঞ্জ, গিল্ডেনস্টার্ন ও হ্যামলেট চরিত্রে যথাক্রমে বিনয় শর্মা, অশোক বিশ্বনাথন ও সুদীপ্ত চট্টোপাধ্যায় দক্ষতার সঙ্গে অভিনয় করেছেন। পোলোনিয়াস— তমাল রায়চৌধুরী, প্লেয়ার ক্যাপটেন—সোফি ব্যারি, ক্লডিয়াস— গৌতম শঙ্কর যথাযথ সংগত করেছেন। নাটকের মঞ্চসজ্জায় নান্টু দত্ত, আলোক পরিকল্পনায় বিজয় চ্যাটার্জি, সংগীত ভাবনায় সন্দীপ দে ও নৃত্য পরিচালনায় দেবকুমার পাল যথাযথভাবে তাঁদের দায়িত্ব পালন করেছেন। পঞ্চাশ বছর আগে লেখা হলেও এই নাটক বর্তমান সময়েও যুগোপযোগী। গভীর ভাবনায় সমৃদ্ধ এই নাটক বহুব্রীহি-র প্রযোজনার মধ্যে দিয়ে নতুন করে নাট্যপ্রেমী দর্শকের মনে জায়গা করে নেবে তেমনটা আশা করাই যায়।

14th  May, 2017
নিম্নবর্গীয় চোরকে দিয়ে কর্পোরেট রাষ্ট্রের সিদ কাটিয়েছেন নাটককার

এক চোরের কাহিনী। যে সে চোর নয়, রীতিমতো খানদানি চোর। চৌর্যবৃত্তির একটা বংশানুক্রমিক ধারা রয়েছে। বলা ভালো ঐতিহ্য রয়েছে, কৃতিত্ব স্থাপনের। সেই চোরের নাম বিশু। গ্রামের চোর। পাড়াগাঁয়ের ধনীর বাড়ি থেকে শুরু করে দেব-দেউল সবই তার হাত সাফাইয়ের মৃগয়াক্ষেত্র। বহুরূপীর নতুন নাটক মেডেল দেখে এসে উপলব্ধি করলেন জয়ন্ত চৌধুরি।
বিশদ

মিনার্ভা নিয়ে উত্তাল স্যোশাল মিডিয়া, অভিযোগের জবাব দিলেন অর্পিতা

মিনার্ভা প্রেক্ষাগৃহের দিন বন্টন নিয়ে সম্প্রতি তীব্র বাদানুবাদ শুরু হয়েছে স্যোশাল মিডিয়ায়। অবস্থা এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে ‘মিনার্ভা নাট্য সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্র’-র চেয়ারপার্সন ও তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সদস্য অর্পিতা ঘোষ তিতিবিরক্ত হয়ে তাঁর করা একটি পোস্টে ‘নাটক ছেড়ে দেব’ বলেও মন্তব্য করেছেন।
বিশদ

দুর্ভাগ্য! বাংলা থিয়েটার কোনও করন্থকে পায়নি

বাংলা থিয়েটারে ‘গভীর গভীরতর অসুখ এখন’। হল বন্টনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উঠছে স্বজনপোষণের অভিযোগ। তারই পরিপ্রেক্ষিতে কলম ধরলেন নাট্যব্যক্তিত্ব মনীশ মিত্র। সম্প্রতি প্রয়াত হলেন পান্ডবানী শিল্পী পদ্মশ্রী পুনারাম নিষাদ। ছত্তিশগড়ের রিংনি গ্রামে বাস করতেন তিনি।
বিশদ

 মহাভারতের পর পিটার ব্রুকস আর সৃষ্টিশীল হতে পারেননি

 নাদিরা বব্বর। ভারতীয় নাট্যজগতের এক উল্লেখযোগ্য নাম। ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামা-র স্নাতক (১৯৭১)। স্বর্ণপদক জয়ী নাদিরা স্কলারশিপ পেয়ে জার্মানিতে যান নাট্যচর্চার জন্য। গ্রোতোভিস্কি এবং পিটার ব্রুকস-এর মতো নির্দেশকদের কাছ থেকে দেখার এবং তাঁদের কাছে শিক্ষালাভের সুযোগ পেয়েছিলেন। পরবর্তীতে নিজস্ব নাটকের দল ‘একজুট’ (Ekjute) তৈরি করেন। তাঁর সঙ্গে কথোপকথনে অজয় মুখোপাধ্যায়।
বিশদ

16th  July, 2017
 হাওড়া নাট্যজনের এবং কুরুক্ষেত্র

 যুদ্ধের ইতিহাস বইতে বইতে পৃথিবী আজ ক্লান্ত। মহাবিশ্বের কোনও না কোনও প্রান্তে প্রতিনিয়ত যুদ্ধ চলছেই। আধুনিক পৃথিবী আজ বারুদের স্তূপের উপর দাঁড়িয়ে। যুদ্ধবাজ মানুষেরা চাইলেই এক মুহূর্তে সভ্যতা ধ্বংস করে দিতে পারে।
বিশদ

16th  July, 2017
 বাস্তবের ভাবনাগুলোকে নাড়িয়ে দেয় ব্রজর কাণ্ড

  স্বপ্নে আমরা যা চাই, বাস্তবে হয়তো তা আমাদের সহ্য নাও হতে পারে। কারণ চাওয়া-পাওয়ার সঙ্গে আনুষঙ্গিক আরও অনেকগুলো বিষয় জড়িয়ে থাকে। স্বপ্ন দেখার সময় সেগুলো স্পষ্ট হয় না।
বিশদ

16th  July, 2017
মো হি ত সন্ধ্যা

 খুব সাধারণ একজন মানুষের গল্প। এমন একজন মানুষ যাকে একটু চোখ ঘোরালেই দেখা যায়। তাই তাদের দিকে খুব একটা নজর দেবার দরকার পড়ে না। যতক্ষণ না পর্যন্ত সেই অতি সাধারণ মানুষটি একটি অসাধারণ কাজ করে সমাজের নজর তার দিকে ঘুরিয়ে নেন। তাতে তার নিজের জীবনটাও অবশ্য উজ্জ্বল হয়ে ওঠে, কিন্তু সেটি এই গল্পের বিষয় নয়। এমনই একটি নাটক ছিল ‘সাউথ কলকাতা স্রাইন’ আয়োজিত ‘মোহিত সন্ধ্যা’য়।
বিশদ

16th  July, 2017
 সংশোধনাগারের কয়েদিদের নিয়ে থিয়েটার ট্রাভেলার-এর সাম্প্রতিক প্রযোজনা তারিফযোগ্য

  ‘থিয়েটার ট্রাভেলার’ নাটকের দল হিসেবে বেশ স্বতন্ত্র। কেননা নাট্যচর্চার পাশাপাশি, নাটক থেরাপি এবং থিয়েটার এডুকেশন নিয়ে এরা নানা কাজকর্ম করে থাকে। পথশিশুদের নিয়ে নিয়মিত নাটক করে এই সমাজসেবী দলটি। তাদের সাম্প্রতিকতম প্রযোজনা ‘মৈমনসিংহ-গীতিকা’র শিল্পীরা প্রত্যেকেই দমদম সংশোধনাগারের কয়েদি।
বিশদ

16th  July, 2017
 ৬৭ তম বর্ষে খিদিরপুর স্কাউট আকাদেমি

  খিদিরপুর আকাদেমি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হল ষোড়শ দক্ষিণ কলকাতা খিদিরপুর স্কাউট আকাদেমি গ্রুপের ৬৭ তম বার্ষিক আনন্দানুষ্ঠান ও প্রদর্শনী। তিনদিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠানের সূচনা হয় হস্তশিল্প প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে এবং শেষ দিনে দেখানো হয় অভিপ্রদর্শনী।
বিশদ

16th  July, 2017
 গোবরডাঙ্গা নকসা

 আধুনিক বাংলা থিয়েটারের ব্রহ্মা-বিষ্ণু-মহেশ্বর শম্ভু মিত্র নিজের মতো করে নাটক করার জন্য সরকারের কাছে একটা প্রেক্ষাগৃহ দাবি করেছিলেন। আরও আগে সেই একই দাবি শোনা গিয়েছিল শিশির ভাদুড়ির কণ্ঠেও। কোনওটিই পূরিত হয়নি।
বিশদ

09th  July, 2017
 ক্ষমতার দম্ভ ডেকে আনে সিংহাসনের ক্ষয়রোগ

 মানুষ কেবল হারানোর ভয়ে অস্থির। এই ভয়ের কোন শেষ নেই। কেউ নিজেদের অধিকার হারানোর ভয়ে শঙ্কিত, কেউ ভীত নিজের অস্তিত্ব হারানোর ভয়ে, কখনও আবার নিজের মনের অন্ধকারে আশার আলোর রেখাটাই হারিয়ে ফেলার ভয়।
বিশদ

09th  July, 2017



একনজরে
বিএনএ, রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ পুর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন স্থানে গত ৯ জুলাই আদিবাসী নাবালিকাদের ধর্ষণ এবং ঘটনার প্রতিবাদে ১৪ জুলাই শহরে আদিবাসীদের তাণ্ডবের পর শনিবার রায়গঞ্জে এসে বৈঠক করলেন আদিবাসী উন্নয়নমন্ত্রী জেমস কুজুর। এদিন কর্ণজোড়ায় সার্কিট হাউসে এই বৈঠক হয়েছে। ...

 সংবাদদাতা, ঘাটাল: দুই দেশের খেলা দেখার জন্য ভিড় উপচে পড়ল দাসপুর-১ ব্লকের কলোড়াতে। শনিবার পশ্চিম মেদিনীপুর ফুটি অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে কলোড়া স্কুল ফুটবল মাঠে ভারতের জাতীয় ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ফের শহরে তোলাবাজির অভিযোগ। পাঁচ লক্ষ টাকা তোলা চেয়ে হুমকি দেওয়ায় কলকাতার বেনিয়াপুকুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন এক প্রোমোটার। মহম্মদ ওমর ফারুখ নামে ওই প্রোমোটারের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তিন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে। লালবাজার সূত্রে এই ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বহরমপুর সেন্ট্রাল জেল থেকে চিকিৎসার জন্য কলকাতায় নিয়ে আসা বিচারাধীন বন্দি উধাও হল হাসপাতাল থেকে। পলাতক ওই বন্দির নাম সোহেল রানা (২৫)। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

ব্যাবসা সূত্রে উপার্জন বৃদ্ধি। বিদ্যায় মানসিক চঞ্চলতা বাধার কারণ হতে পারে। গুরুজনদের শরীর স্বাস্থ্য নিয়ে ... বিশদ



ইতিহাসে আজকের দিন

 ১৮৫৬- স্বাধীনতা সংগ্রামী বাল গঙ্গাধর তিলকের জন্ম
 ১৮৯৫ – চিত্রশিল্পী মুকুল দের জন্ম
 ২০০৪- অভিনেতা মেহমুদের মৃত্যু
 ২০১২- আই এন এ’ যোদ্ধা লক্ষ্মী সায়গলের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.৫৫ টাকা ৬৬.২৩ টাকা
পাউন্ড ৮১.৯৮ টাকা ৮৪.৯৬ টাকা
ইউরো ৭৩.৫৬ টাকা ৭৬.১৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
22nd  July, 2017
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,০৭০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৭,৫৮০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৭,৯৯৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৫০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৬০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

 ৭ শ্রাবণ, ২৩ জুলাই, রবিবার, অমাবস্যা দিবা ৩/১৬, পুনর্বসুনক্ষত্র দিবা ৯/৫৩, সূ উ ৫/৭/৫৭, অ ৬/১৮/৫, অমৃতযোগ প্রাতঃ ৬/১-৯/৩১ রাত্রি ৭/৪৫-৯/১১, বারবেলা ১০/৪-১/২২, কালরাত্রি ১/৪-২/২৬।
৬ শ্রাবণ, ২৩ জুলাই, রবিবার, অমাবস্যা ৩/৫২/৫৯, পুনর্বসুনক্ষত্র ১১/৫/৩৬, সূ উ ৫/৪/৫০, অ ৬/২০/৬, অমৃতযোগ দিবা ৫/৫৭/৫১-৯/২৯/৫৫, বারবেলা ১০/৩/৩-১১/৪২/২৮, কালবেলা ১১/৪২/২৮-১/২১/৫২, কালরাত্রি ১/৩/৪-২/২৩/৩৯।
 ২৮ শওয়াল

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ভারতের জয়ের জন্য ২ ওভারে ১১ রান প্রয়োজন 

10:06:00 PM

ভারতের জয়ের জন্য ৬ ওভারে ৩১ রান প্রয়োজন 

09:47:31 PM

ভারত ১৪৫/৩ (৩৫ ওভার) 

09:08:03 PM

ভারত ১২০/২ (৩০ ওভার) 

08:45:54 PM

ভারত ৬৯/২ (২০ ওভারে)

08:10:29 PM

ভারত ৪৩/২ (১২ ওভারে)

07:41:49 PM