রাজ্য
 
 

শান্তিপুরে কুমোরপাড়ায় সরস্বতী প্রতিমা তৈরি চলছে। নিজস্ব চিত্র

 মৃত্যুহীন জীবন...

একজন জন্মসন্ন্যাসী, ঠাকুর যাঁকে এই বলে বিশ্বাস করতেন, যে এই মহাপ্রাণটি জগতের হিতের জন্যে অবতীর্ণ হয়েছেন অনন্তের পরিমণ্ডল থেকে। ঠাকুর এও জানতেন তাঁর এই ধ্রুব শিষ্যটির শরীর বেশি দিন থাকবে না। স্বামীজিও সেকথা জানতেন কিন্তু তিনি সাধারণ পরিবেশে, সাধারণের মতো সাধারণ। তখন তাঁর কোনও অহঙ্কারই থাকত না। সাধারণের সঙ্গে সাধারণের মতোই নিজের বৃহৎ সত্তাকে গুটিয়ে আনতেন।

অপূর্ব চট্টোপাধ্যায়: সদ্য স্বামীহারা মিসেস সেভিয়ারকে সান্ত্বনা দিয়ে স্বামীজি ফিরে এলেন বেলুড় মঠে। সেইসময় তাঁর শরীর একদম ভালো ছিল না। তিনি তখন মুক্তির আকাশে মুক্ত বিহঙ্গের মতো ওড়ার জন্য ছটফট করছেন। একদিন তিনি তাঁর গুরুভ্রাতাদের বললেন, দেখ আমি তো মায়ের জন্য কখনও কিছু করলুম না; আমার শরীরের যেরকম অবস্থা তাতে দু-এক বছরের বেশি বাঁচব বলে মনে হয় না। তাই আমার ইচ্ছা মাকে কিছু তীর্থ করাই। তাহলে তবু তাঁর কিছু করা হবে। তা তোমরা যদি আমায় এ বিষয়ে সাহায্য কর তো ভালো হয়; আমার নিজের শরীরের তো এই অবস্থা।
এরপরই মা-দিদিমা ও দু-একজন গুরুভ্রাতাকে সঙ্গে নিয়ে স্বামীজি তীর্থভ্রমণে বেরলেন। তাঁরা যাবেন পূর্ববঙ্গ ও আসামের দিকে। শিলং-এ পৌঁছে স্বামীজি আবার অসুস্থ হয়ে পড়লেন। শুরু হল প্রবল শ্বাসকষ্ট। এক ফোঁটা বাতাসের জন্য তিনি তখন ছটফট করছেন। গুরুভ্রাতারা স্বামীজির অবস্থা দেখে অত্যন্ত বিচলিত হয়ে পড়লেন। ভয়ানক শ্বাসকষ্ট উপেক্ষা করেই স্বামীজি তাঁদের বলেছিলেন, ‘যাক, মৃত্যুই যদি হয়, তাতেই বা কি আসে যায়? যা দিয়ে গেলুম, দেড়হাজার বছরের খোরাক।’
এই তীর্থভ্রমণে বেরিয়ে বেশ কয়েকটি মজার ঘটনা ঘটেছিল। একদিন ভুবনেশ্বরী দেবী তাঁর জগৎবিখ্যাত পুত্র স্বামী বিবেকানন্দকে বলেছিলেন, ‘দেখ এসব তো অনেক হলো, বেশ ভাল, এইবার একটা বিয়ে কর।’ উত্তরে স্বামীজি বলেছিলেন, ‘দেখো মা, বিয়ে করবার কি দরকার? এই দেখনা আমার সব কত বড় বড় ছেলে (শিষ্যদের দেখিয়ে) রয়েছে।’ কিন্তু এই বিয়ের প্রসঙ্গ দিদিমা তুললেই, স্বামীজি মজা করে হাসতে হাসতে বলতেন, ‘দেখ দিদিমা, এখনও আমার হাতে কিছু টাকা আছে; তুমি এই বেলা মর, আমি তোমার বেশ ঘটা করে শ্রাদ্ধ করি।’
একজন জন্মসন্ন্যাসী, ঠাকুর যাঁকে এই বলে বিশ্বাস করতেন, যে এই মহাপ্রাণটি জগতের হিতের জন্যে অবতীর্ণ হয়েছেন অনন্তের পরিমণ্ডল থেকে। ঠাকুর এও জানতেন তাঁর এই ধ্রুব শিষ্যটির শরীর বেশি দিন থাকবে না। স্বামীজিও সেকথা জানতেন কিন্তু তিনি সাধারণ পরিবেশে, সাধারণের মতো সাধারণ। তখন তাঁর কোনও অহঙ্কারই থাকত না। সাধারণের সঙ্গে সাধারণের মতোই নিজের বৃহৎ সত্তাকে গুটিয়ে আনতেন। রঙ্গ রসিকতা ,মেয়েলি কথাবার্তাতেও তাঁর আপত্তি ছিল না। এখানে তিনি পবিত্র এক অস্তিত্বকে বহন করে নিয়ে চলেছেন— তাঁর গর্ভধারিণীকে। এই পরিক্রমা বৃত্তাকারে ফিরে আসবে উৎসে। আর সেইখান থেকেই ঘটবে তাঁর আবার ফিরে যাওয়া অনন্তে।
তিনি যে চলে যাবেন এই তথ্যটি তিনি নিজের মধ্যে সঙ্গোপনে রেখে দিয়েছিলেন। কেউ যেন বুঝতে না পারে অগ্নিনির্বাপিত হতে চলেছে। ঘটনাটি এত আকস্মিক যে তাঁর ঘনিষ্ঠ গুরুভ্রাতারাও বুঝতে পারেননি। সেইদিন তিনি দেখিয়ে গেলেন তাঁর লীলা। সম্পূর্ণ সুস্থ সেদিন। একমাইলেরও অধিক পথ হেঁটে এলেন। তারপর নিঃশব্দে নিজের শক্তি দিয়ে যেন জ্বালালেন আর একটি বৃহৎ হোমকুণ্ড, আহুতি দিলেন নিজেকে।
ঠাকুর বলতেন, যাবার আগে হাটে হাঁড়ি ভেঙে দিয়ে যাব। অর্থাৎ আমি কে, সাধারণ ও অসাধারণ মানুষ উভয়েই বুঝতে পারবে। তাঁরই প্রধান শিষ্য স্বামী বিবেকানন্দ সিমুলিয়ার ‘বিলেটি’কে তা অগ্নিআখরে আকাশের গায়ে লিখে রেখে যাবেন। সেই কারণেই প্রথম দিনেই শেষ দিনের কথা বলার চেষ্টা। রবীন্দ্রনাথ বড় সুন্দর একটা লাইন রেখে গেছেন— ‘যা পেয়েছি প্রথম দিনে তাই যেন পাই শেষে।’ স্বামীজির শেষ কোথায়! তিনি তো অনন্ত, তিনি তো ব্রহ্মস্বরূপ। তিনি বলতেন অহং ব্রহ্মাষ্মি। হাজার বার বললেও, ব্রহ্মস্বরূপ হওয়া যায় না।
স্বামীজি আবার বলতেন ব্রহ্মের আবার অসুখ কী? শ্বাসকষ্ট, মধুমেহ— এসবই তো শরীরের। ঠাকুর যাকে বলতেন খাঁচা। ঠাকুরও তো বলতেন, রোগ জানুক আর দেহ জানুক। আমেরিকা ভ্রমণের শেষের দিকে স্বামীজি অত্যন্ত অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন কিন্তু পাত্তা দেননি। পূর্ববঙ্গ ভ্রমণের সময় শরীর সহযোগিতা করেনি। তিনি সেসব গ্রাহ্যের মধ্যেই আনেননি। পরিব্রাজক অবস্থায় হৃষীকেশে গুরুভাইরা মনে করেছিলেন তিনি দেহ ছেড়ে দিয়েছেন। বরাহনগর মঠে একবার ভীষণ অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। স্বামীজির অসুখ করে না, কারণ তিনি মুহূর্তে নিজেকে দেহাতীত অবস্থায় নিয়ে যেতে পারেন। তাঁর শেষের দিনটি স্পষ্ট করে দিয়ে গেছে — দেহ নয় তিনি ছিলেন একটি অগ্নিশিখা। পাশ্চাত্যের পাদরিরাও বারে বারে সে প্রমাণ পেয়েছিলেন।
ফিরে আসি শেষ দিনটির কথায়। সেদিন তিনি ভীষণ সুস্থ। ঠাকুরও চলে যাবার কয়েক ঘণ্টা আগে তাঁর সেবকদের বড় আনন্দ দিয়েছিলেন। সুস্থ মানুষের মতো গলা অন্ন সহজে গ্রহণ করে (স্বামীজিই খাইয়ে দিয়েছিলেন) বড় আরামে বালিশে মাথা রেখে শুয়েছিলেন। আনন্দের হিল্লোল বয়ে গিয়েছিল।
শেষদিনে স্বামীজি কী করলেন! যেটিকে বলা যেতে পারে একটু অন্যরকম। রুদ্ধদ্বার ঠাকুরঘরে দীর্ঘক্ষণ ধ্যানে বসে রইলেন। তারপর বারান্দায় পায়চারি করতে করতে একটি গান বারে বারে গাইলেন। বিকেলে ভ্রমণ শেষে তিনি তাঁর নিজের ঘরে মেঝেতে শুয়ে পড়লেন, সেবককে বললেন বাইরে থাক। সেবক বাইরে থেকে একসময় একটি আর্ত কন্ঠস্বর শুনলেন। এসে দেখলেন স্বামীজি চিরনিদ্রায় নিদ্রিত। এখানেই শেষ নয়, তিনি তাঁর দেহের বাইরে বিচরণ করছিলেন। তা নাহলে তিনি নিবেদিতার প্রার্থনা কেমন করে শুনতে পেলেন। সিস্টার একটি স্মারক নিজের কাছে রাখতে চাইছিলেন। অগ্নি সমন্বিত একটি বস্ত্রখণ্ড পূতচিতাগ্নি থেকে উড়ে এসে তাঁর শরীর স্পর্শ করল। বিদেশিনী স্তম্ভিত। কে কী বুঝলেন জানা নেই, তাঁর এই মানস কন্যা হয়তো রবীন্দ্রনাথের এই লাইনটির অর্থ আর একবার বুঝলেন— এনেছিলে সাথে করে মৃত্যুহীন প্রাণ...।
12th  January, 2019
২৩টি আসন দিন বাংলা বদলে দেব,
ডাক অমিতের, উন্মাদ বলল তৃণমূল

মালদহে সভাশেষে অসুস্থ, ফিরলেন দিল্লি

বিএনএ, মালদহ এবং নিজস্ব প্রতিনিধি কলকাতা: ‘বাংলার জনতাকে হাতজোড় করে বলছি, আমাদের ২৩টির বেশি আসন দিন,বাংলাকে প্রকল্পে ভরিয়ে দেব। বদলে দেব।’ মঙ্গলবার পুরাতন মালদহের সভায় এসে এভাবেই লোকসভা নির্বাচন নিয়ে আমবাঙালির কাছে আবেদন করলেন বিজেপি’র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। যা শুনে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্যোপাধ্যায়ের দাবি, উন্মাদ না হলে কেউ একথা বলে না। এদিন প্রায় আধ ঘণ্টার ভাষণে অমিত শাহ বাংলার তৃণমূল কংগ্রেস শাসন থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্রিগেড সভা নিয়ে তীব্র সমালোচনা করেন। 
বিশদ

ভিভিপ্যাট নিয়ে মিথ্যা অভিযোগ
জানালে হতে পারে জেল: কমিশন

ইন্দ্র মহন্ত, বালুরঘাট, সংবাদদাতা: ভিভি প্যাটে ভুল ভোট পড়েছে এমন অভিযোগ শুধু জানালেই হবে না, অভিযোগকারীকে তা প্রমাণও করতে হবে। যদি অভিযোগকারীর অভিযোগ প্রমাণিত না হয় তবে তাকে জেল খাটতে হবে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।
বিশদ

মৃত রেশন গ্রাহকদের নাম বাদ দিতে পোর্টাল চালু করা হবে খাদ্য দপ্তরে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মৃত রেশন গ্রাহকদের নাম দ্রুত বাদ দেওয়ার জন্য বিশেষ সফটওয়্যার তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে খাদ্য দপ্তর। তথ্য প্রযুক্তি সংস্থাকে দিয়ে এই কাজ করানো হবে। এর জন্য একটি বিশেষ পোর্টাল চালু করা হবে। পঞ্চায়েত ও পুরসভার পক্ষ থেকে মৃত ব্যক্তির নাম ওই পোর্টালে অন্তর্ভুক্ত করলে, সেই তথ্য খাদ্য দপ্তর পেয়ে যাবে।
বিশদ

প্রধান শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় এক মাসের স্থগিতাদেশ হাইকোর্টে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রধান শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া সোমবার কলকাতা হাইকোর্টে হোঁচট খেয়েছিল। মঙ্গলবার তা আপাতত এক মাসের জন্য সম্পূর্ণভাবে থমকে গেল। বিচারপতি শেখর ববি শরাফ ওই নিয়োগ প্রক্রিয়ার উপর অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ জারি করে এদিন জানিয়েছেন, ২৮ জানুয়ারি বিষয়টির চূড়ান্ত শুনানি শুরু হবে।
বিশদ

উচ্চ মাধ্যমিক: সংসদ মনোনীত প্রার্থীদেরও মোবাইল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা, একাদশের পরীক্ষা শেষ পর্যন্ত পুলিস

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পরীক্ষার হলে মোবাইল নিষিদ্ধ আগেই করেছিল মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক বোর্ড। কারা মোবাইল রাখতে পারবেন, তাও নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছিল। এতদিন মাত্র চারজনের কাছে মোবাইল থাকত। যার মধ্যে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ বা উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের মনোনীত প্রতিনিধিও ছিলেন।
বিশদ

অমিত শাহের দাবি বিভ্রান্তিকর, যুক্তি দিয়ে খণ্ডন পার্থ, ফিরহাদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ব্রিগেডের সভা দেখার পর বিজেপির যে ঘুম ছুটেছে, এদিন তা ফের বুঝিয়ে দিলেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। গত শনিবার কলকাতায় ব্রিগেড সমাবেশে দেশের ২৩ জন বিরোধী নেতা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে সাড়া দিয়ে হাজির হয়েছিলেন।
বিশদ

নস্যাৎ শিক্ষামন্ত্রীর
স্থগিত ঘোষণার পরেও ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে বদলিতেই শিক্ষক আসছে বলে অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যে ৬৫টি ইংরেজি মাধ্যম স্কুল চালু করছে শিক্ষা দপ্তর। তার মধ্যে কয়েকটি ইতিমধ্যে শুরুও হয়ে গিয়েছে। কিন্তু বিরোধী সংগঠনগুলির অভিযোগ, এই স্কুলগুলিতে যে শিক্ষকদের আনা হচ্ছে, তা এক প্রকার বদলি করেই করা হচ্ছে। অথচ শিক্ষা দপ্তরের বদলি স্থগিত রয়েছে বলে একটি বিজ্ঞপ্তি এখনও জারি রয়েছে।
বিশদ

 উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা, গাঙ্গেয় বঙ্গে শীতের মাত্রা কিছুটা কমবে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে দার্জিলিং সহ হিমালয় সংলগ্ন উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে আজ, বুধবার বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। চলতি সপ্তাহে আরও একদিন ওই এলাকায় বৃষ্টি হতে পারে বলে আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন। ঝঞ্ঝার প্রভাবে আগামী তিন-চারদিন কলকাতা সহ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে শীতের মাত্রা কমবে। তাপমাত্রা কিছুটা বাড়বে।
বিশদ

ঠাকুরনগরে আসছেন মোদি, মঞ্চে বড়মাকে পাওয়া নিয়ে দড়ি টানাটানি দুই শিবিরে

বিএনএ, বারাসত: মতুয়া মহাসংঘের বড়মা বীণাপাণিদেবীর জন্মশতবর্ষ উদ্যাপন অনুষ্ঠান উপলক্ষে গত নভেম্বর মাসেই ঠাকুরনগরের ঠাকুরবাড়িতে এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই মঞ্চে বড়মা উপস্থিতও হয়েছিলেন। এবার মতুয়া সহ উদ্বাস্তুদের নাগরিকত্ব প্রদান ইস্যুতে খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঠাকুরনগরের ঠাকুরবাড়িতে আসছেন।
বিশদ

রাজ্য বিধানসভার
বাজেট অধিবেশন শুরু ১ ফেব্রুয়ারি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ১ ফেব্রুয়ারি রাজ্যপালের ভাষণের মধ্য দিয়ে শুরু হবে রাজ্যের বাজেট অধিবেশন। উল্লেখ্য, ওইদিনই সংসদে কেন্দ্রের ভোট অন অ্যাকাউন্ট পেশ হওয়ার কথা। নিয়ম অনুসারে, রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠির ভাষণের মাধ্যমে অধিবেশন উদ্বোধনের পরের দিন শোকপ্রস্তাব পাশ করে সভা মুলতুবি হয়ে যাওয়ার কথা।
বিশদ

 এসএফআইয়ের মিছিল

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ইন্টার্ন শিক্ষক, সিবিসিএস এবং ছাত্র কাউন্সিলের প্রতিবাদে মঙ্গলবার শ্যামবাজার থেকে কলেজ স্ট্রিট পর্যন্ত মিছিল করল এসএফআই। কলেজ স্ট্রিটে মিনিট দশেক পথ অবরোধও করে তারা। এতে কিছুক্ষণ যান চলাচল ব্যাহত হয়। মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন এসএফআইয়ের সর্বভারতীয় সভাপতি ভি পি শানু।
বিশদ

আসছে নতুন ভোর, ঘোষণা
বিজেপি বধে প্রত্যয়ী মমতার
প্রত্যেকটি ভোট গুরুত্বপূর্ণ, ইভিএম নিয়ে সরব নেত্রী

দেবাঞ্জন দাস, শিলিগুড়ি: ২০১৯ সালে দিল্লির মসনদে পরিবর্তন যে হচ্ছেই, নিজে উপলব্ধি করেছেন সেটা। ব্রিগেডের মঞ্চে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই উপলব্ধিতে জোরালো সায় দিয়ে গিয়েছে গোটা ভারতের বিরোধী দলের নেতৃত্ব। সোমবার শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে উত্তরবঙ্গ উৎসবের উদ্বোধনী মঞ্চে নিজের সেই উপলব্ধি ভাগ করে নিলেন হাজার হাজার মানুষের সঙ্গে।
বিশদ

22nd  January, 2019
সর্বশিক্ষা কর্মীদের বেতন ৪০ শতাংশ বাড়াল রাজ্য

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এবার সর্বশিক্ষা মিশন কর্মীদের বেতন অনেকটাই বাড়িয়ে দিল রাজ্য সরকার। সোমবার সাংবাদিক বৈঠক করে সেই ঘোষণা করেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সর্বশিক্ষার অধীনে কর্মরত শিক্ষাবন্ধু এবং ম্যানেজমেন্ট স্টাফদের ৪০ শতাংশ করে বেতন বৃদ্ধি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। এর ফলে শিক্ষাবন্ধুদের বেতন ৫৯৯৪ টাকা থেকে বেড়ে হল ৮৩৯২ টাকা।
বিশদ

22nd  January, 2019
২৮শে ঠাকুরনগর, ২ ফেব্রুয়ারি শিলিগুড়ি
৮ ফেব্রুয়ারি মোদির ব্রিগেড বাতিল, ওই দিন আসানসোলে সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি ব্রিগেডে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রস্তাবিত সভা হচ্ছে না। বদলে ওই দিন আসানসোলে সভা করতে আসছেন তিনি। পাশাপাশি আগামী ২৮ জানুয়ারি উত্তর ২৪ পরগনার ঠাকুরনগরে এবং ২ ফেব্রুয়ারি শিলিগুড়িতে রাজনৈতিক সমাবেশ করবেন প্রধানমন্ত্রী। সোমবার রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ এ কথা জানান।
বিশদ

22nd  January, 2019

Pages: 12345

একনজরে
সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম: গোরু চরানো নিয়ে বচসার জেরে এক ব্যক্তিকে কুড়ুল দিয়ে মেরে খুন করার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার সাঁকরাইল থানার রগড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের শিমুলিয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় পুলিস অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে।  ...

গজনি, ২২ জানুয়ারি (এএফপি): তালিবান আক্রমণে আফগানিস্তানে মৃত্যু হল ৬৫ জনের। সোমবার আফগানিস্তানের গোয়েন্দা ঘাঁটিতে আক্রমণ চালায় জঙ্গিরা। প্রাথমিকভাবে ১২ জনের মৃত্যুর কথা জানানো হয়।  ...

লখনউ, ২২ জানুয়ারি: ভোটের অঙ্ক ঠিক রাখতেই কংগ্রেসকে বাইরে রেখে উত্তরপ্রদেশে জোট বেঁধেছে সমাজবাদী পার্টি (এসপি) এবং মায়াবতীর বহুজন সমাজপার্টি (বিএসপি)। এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব।  ...

 নয়াদিল্লি, ২২ জানুয়ারি: হকি খেলোয়াড় আরএস ভোলা ৯২ বছর বয়সে প্রয়াত হলেন। তিনি ১৯৫৬ সালে মেলবোর্ন ওলিম্পিক ও ১৯৬০ সালে রোম ওলিম্পিকে ভারতীয় সোনা ও রুপো জয়ী দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় ছিলেন। হকি ছিল তাঁর প্যাশন। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

আত্মীয়স্বজন, বন্ধু-বান্ধব সমাগমে আনন্দ বৃদ্ধি। চারুকলা শিল্পে উপার্জনের শুভ সূচনা। উচ্চশিক্ষায় সুযোগ। কর্মক্ষেত্রে অযথা হয়রানি। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৯৪- সাহিত্যিক জ্যোতির্ময়ীদেবীর জন্ম
১৮৯৭- মহাবিপ্লবী নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্ম
১৯২৬- শিবসেনার প্রতিষ্ঠাতা বাল থ্যাকারের জন্ম
১৯৩৪- সাংবাদিক তথা ‘বর্তমান’ এর প্রাণপুরুষ বরুণ সেনগুপ্তর জন্ম
১৯৭৬- গায়ক পল রোবসনের মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৩৯ টাকা ৭২.০৯ টাকা
পাউন্ড ৯০.১০ টাকা ৯৩.৫৪ টাকা
ইউরো ৭৯.৫৪ টাকা ৮২.৫৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৯০৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,২২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৬৯০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,০০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,১০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৯ মাঘ ১৪২৫, ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, বুধবার, তৃতীয়া ৪৪/২ রাত্রি ১১/৫৯। নক্ষত্র- মঘা ৩৬/০ রাত্রি ৮/৪৭, সূ উ ৬/২২/২৭, অ ৫/১৪/১৭, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৮ মধ্যে পুনঃ ১০/০ গতে ১১/২৬ মধ্যে পুনঃ ৩/৪ গতে ৪/৩০ মধ্যে। রাত্রি ৬/৭ গতে ৮/৪৫ মধ্যে পুনঃ ২/০ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ঘ ৯/৫ গতে ১০/২৬ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৭ গতে ১/৯ মধ্যে, কালরাত্রি ঘ ৩/৬ গতে ৪/৪৪ মধ্যে।
৮ মাঘ ১৪২৫, ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, বুধবার, দ্বিতীয়া প্রাতঃ ৬/৫৪/১৬ পরে তৃতীয়া রাত্রিশেষ ৪/৩৪/৪৮। মঘানক্ষত্র রাত্রি ১/১৫/৩৪। সূ উ ৬/২৪/৫০, অ ৫/১১/৩৪, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৫১/৪ মধ্যে ও ঘ ১০/০/২৫ থেকে ১১/২৬/৩৯ মধ্যে ও ৩/২/১৪ থেকে ৪/২৮/২৭ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৪/২৭ থেকে ৮/৪৩/৬ মধ্যে ও ২/০/২৪ থেকে ৬/২৪/৩১ মধ্যে। বারবেলা ১১/৪৮/১২ থেকে ১/৯/৩ মধ্যে, কালবেলা ৯/৬/৩১ থেকে ১০/২৭/২২ মধ্যে, কালরাত্রি ৩/৬/৩১ থেকে ঘ ৪/৪৫/৪০ মধ্যে। আজ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৩তম জন্মদিবস
 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ডালখোলায় তৃণমূল কর্মী খুন 
উত্তর দিনাজপুরের ডালখোলার হাসান এলাকায় দুষ্কৃতীদের গুলিতে প্রাণ গেল এক ...বিশদ

10:41:54 AM

প্রথম ওয়ান ডে: ১৫৭ রানে অল আউট নিউজিল্যান্ড 

10:24:23 AM

শহরে ট্রাফিকের হাল 
আজ, বুধবার সকালে শহরের রাস্তাঘাটে যান চলাচল মোটের উপর স্বাভাবিক। ...বিশদ

10:08:36 AM

প্রথম ওয়ান ডে: নিউজিল্যান্ড ১৪৬/৬ (৩২ ওভার) 

09:59:49 AM

নির্বাচকদের ২০ লক্ষ টাকা বোনাস দেবে বিসিসিআই
বিসিসিআই ভারতীয় সিনিয়র ক্রিকেট দলের তিন নির্বাচককে সফল দল চয়নের ...বিশদ

09:42:28 AM

  ফের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চান অশোক
ফের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে চান শিলিগুড়ি পুরসভার ...বিশদ

09:40:00 AM