উত্তরবঙ্গ

আলিপুরদুয়ারে বেহাল পানীয় জল পরিষেবা নিয়ে ক্ষোভ মুখ্যমন্ত্রীর

সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ার: আলিপুরদুয়ার পুর এলাকায় পানীয় জল পরিষেবার বেহাল অবস্থা নিয়ে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার নবান্নে পুর চেয়ারম্যানদের নিয়ে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী পানীয় জল পরিষেবায় রাজ্যের খারাপ পুরসভাগুলির তালিকায় আলিপুরদুয়ারকেও রেখেছেন। পানীয় জল পরিষেবার বেহাল অবস্থার জন্য মুখ্যমন্ত্রী আলিপুরদুয়ার পুরসভাকেও নিশানা করায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। 
আলিপুরদুয়ার পুরসভা এলাকায় বাড়ি বাড়ি পরিস্রুত পানীয় জল পৌঁছে দিতে রাজ্য থেকে ১০২ কোটি বরাদ্দ করা হয়েছিল। পাঁচ বছর আগে প্রকল্পের কাজও শুরু হয়। কিন্তু পাঁচ বছরেও সেই কাজ শেষ না হওয়ায় ক্ষুব্ধ শহরের মানুষ। তৃণমূল পরিচালিত পুরসভা এখনও প্রকল্পের পাইপ লাইন বসানোর কাজই শেষ করে উঠতে পারেনি। দু’বছর আগে পুরসভা জলের পাইপ লাইন বসানোর কাজ শুরু করেছে। এজন্য ২০টি ওয়ার্ডকে পাঁচটি জোনে ভাগ করেছে পুরসভা। এরমধ্যে মাত্র দু’টি জোনে পাইপ লাইন বসানোর কাজ ৭৫ শতাংশ এগিয়েছে। আর বাকি তিনটি জোনে পাইপ লাইন বসানোর কাজই শুরু হয়নি। প্রকল্পের কাজ কবে শেষ হবে পুর নাগরিকরা তা জানেন না। এবার মুখ্যমন্ত্রী আলিপুরদুয়ার পুরসভার পানীয় জল পরিষেবা নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করায় খুশি শহরের বাসিন্দারা। 
যদিও পানীয় জল প্রকল্পের কাজ শেষ হওয়ার এই ঢিলেমির জন্য টেন্ডার প্রক্রিয়াকে দায়ী করেছে পুরসভা। পুর চেয়ারম্যান প্রসেনজিৎ করের সাফাই, পানীয় জল প্রকল্পের জন্য পাঁচটি রিজার্ভার তৈরির কাজ শেষ। দু’টি জোনে জলের পাইপ লাইন বসানোর কাজ ৭৫ শতাংশ এগিয়েছে। বাকি তিনটি জোনের পাইপ লাইন বসানোর কাজের টেন্ডারে অংশ নিতে আগ্রহী কাউকে পাওয়া যাচ্ছে না। তার জন্যই প্রকল্পের কাজ শেষ করতে দেরি হচ্ছে। তবে এবার দ্রুত এই টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ করার উপর জোর দেওয়া হচ্ছে।
27d ago
কলকাতা
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

বিকল্প উপার্জনের নতুন পথের সন্ধান লাভ। কর্মে উন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। মনে অস্থিরতা।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
21st     July,   2024
দিন পঞ্জিকা