উত্তরবঙ্গ

উত্তর দিনাজপুর জেলায় গ্রামাঞ্চলের একাধিক রাস্তা বেহাল, সংস্কারের দাবি

সংবাদদাতা, ইসলামপুর: উত্তর দিনাজপুর জেলায় গ্রামাঞ্চলের বহু রাস্তা বেহাল। গত কয়েক দিনের বৃষ্টিতে সেই সমস্ত রাস্তায় জল জমে আরও বেহাল হয়ে পড়েছে। বর্তমানে চলাচল করাই মুশকিল হয়ে পড়েছে। এতে বাসিন্দারা প্রশাসনের উপর ক্ষুব্ধ। অভিযোগ, প্রশাসন সমস্যার কথা জেনেও উদ্যেগ নিচ্ছে না। রাস্তাগুলি দ্রুত মেরামতি করার উদ্যোগ নিক প্রশাসন। 
স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ইসলামপুরের তিনপুল থেকে তেলকানি ব্রিজ পর্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি দীর্ঘদিন থেকে বেহাল হয়ে আছে। ফুলবাড়ি, হাসকুণ্ড, রিংকুয়া এলাকায় রাস্তার পিচের চাদর উঠে বড় বড় গর্ত হয়ে আছে। অলিপুর থেকে কালনাগীন বাজার যাওয়ার রাস্তা খুবই খারাপ হয়ে আছে। গোয়ালপোখর ব্লকের নাড়ুখাওয়া, পাঞ্জিপাড়া থেকে মজলিশপুর যাওয়ার রাস্তা, চাকুলিয়ার মজলিশপুর মোড় থেকে মিশন যাওয়ার রাস্তা, মজলিশপুর থেকে চৌঘুরিয়া পর্যন্ত রাস্তা মাটির। চাথল থেকে বরগাঁও যাওয়ার রাস্তা মাঝে মাঝে কাঁচা অবস্থায় আছে। বৃষ্টির জলে সেই জায়গাগুলি কাদা জমে আছে। চাকুলিয়ার পাটহাটি থেকে ডালখোলা যাওয়ার রাস্তা দীর্ঘদিন থেকে বেহাল হয়ে আছে। করণদিঘি ব্লকের পাতনোর থেকে নারায়ণপুর যাওয়ার রাস্তায় পিচ উঠে গিয়ে বড় বড় গর্ত হয়েছে। গর্তগুলিতে বৃষ্টির জল দাঁড়িয়ে থাকছে। যে কোনও মুহূর্তে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। বিহিনগড় থেকে মেহন্দেবাড়ি পর্যন্ত রাস্তায় পিচ নেই বললেই চলে। কালিয়াগঞ্জ কলেজ সংলগ্ন এলাকা থেকে নওদা যাওয়ার রাস্তা, হেমতাবাদ ব্লকের ডেহুচিমোড় থেকে চৌনগর যাওয়ার রাস্তা। রায়গঞ্জের সোনাডাঙ্গি থেকে বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতে যাওয়ার রাস্তাও বেহাল। ইটাহার ব্লকের শ্রীপুর মোড় থেকে ভাটিন গ্রাম যাওয়ার রাস্তা, চোপড়া ব্লকের কইমারি থেকে ধুমডাঙ্গি, সুইগছ থেকে বোধিগছ পর্যন্ত রাস্তা খারাপ হয়ে আছে।
ইসলামপুরের বাসিন্দা নুর উদ্দিন, মহম্মদ কালাম, দিলীপ সিংহ বলেন, গ্রামের মানুষজন তাদের উৎপাদিত কৃষি ফসল, সব্জি বাজারে বিক্রি করার জন্য টোটো, ভুটভুটিতে করে নিয়ে যায়। কিন্তু রাস্তা খারাপ থাকার কারণে সময় অনেক বেশি লাগে। ভুটভুটি উল্টে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। বর্ষার আগেই বাসিন্দারা রাস্তা মেরামত করলে চলতি মরশুমে সমস্যায় পড়তে হতো না।
উত্তর দিনাজপুর জেলা পরিষদের সহকারী সভাধিপতি গোলাম রসুল (মণি) বলেন, ২০১১ থেকে ২০২৪ পর্যন্ত যত রাস্তা হয়েছে তা বাম আমলের ৩৪ বছরেও হয়নি। জেলাতেও প্রচুর রাস্তার কাজ হয়েছে। তারমধ্যে বর্ষায় কয়েকটি রাস্তা খারাপ হতে পারে। বিজেপি সরকার ১০০ দিনের প্রকল্পের টাকা আটকে না রাখলে এতদিনে সমস্ত রাস্তার কাজ হয়ে যেত। কেন্দ্রের বঞ্চনার পরেও মানবিক মুখ্যমন্ত্রী উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তর থেকে রাস্তার কাজ করাচ্ছেন। রাস্তাশ্রী, পথশ্রী প্রকল্পের মাধ্যমে কাজ করাচ্ছেন। বর্ষার পরে আরও অনেক রাস্তার কাজ হবে। 
করণদিঘির পানতোর থেকে নারায়ণপুরগামী রাস্তার বেহাল দশা। 
- নিজস্ব চিত্র।
27d ago
কলকাতা
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

বিকল্প উপার্জনের নতুন পথের সন্ধান লাভ। কর্মে উন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। মনে অস্থিরতা।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
21st     July,   2024
দিন পঞ্জিকা