শিল্প -বাণিজ্য

রাজ্যে শিল্পে কোনও বাধা বরদাস্ত করব না, বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শিল্প স্থাপনের ক্ষেত্রে কোনও রকম অন্তরায় বরদাস্ত করবেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবারের বৈঠকে তিনি তা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।  এদিনের আলোচনাসভায় শিল্পের অগ্রগতি বজায় রাখতে শিল্পপতিদের মতামত জানতে চান মুখ্যমন্ত্রী। কোন কোন ক্ষেত্রে আরও বিনিয়োগ সম্ভব, তা নিয়ে মতামত দেন শিল্প উদ্যোগীরা। পাশাপাশি, বিনিয়োগের সমস্যা নিয়েও আলোচনা হয়। আর তাঁদের অসুবিধার কথা জানতে পেরেই ক্ষোভ উগরে দেন মমতা। তাঁর সাফ বার্তা, শিল্প স্থাপনের ক্ষেত্রে আসা কোনও ফাইল অকারণে ফেলে রাখা যাবে না। অনুমতি দেওয়ার প্রক্রিয়াও দ্রুত সেরে ফেলতে হবে। আর তা সত্ত্বেও যদি কেউ অন্তরায় হওয়ার চেষ্টা করেন  তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক পদক্ষেপ নেওয়ারও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বলেই সূত্রের খবর। প্রসঙ্গত, কয়েক মাস আগেই আসানসোল, খড়গপুর সহ রাজ্যের বেশ কিছু এলাকা থেকে নানান অজুহাতে শিল্প স্থাপনে বাধা সৃষ্টি করার অভিযোগ জমা পড়ে নবান্নে। তার প্রেক্ষিতেই মমতার এদিনের এই কড়া পদক্ষেপ বলেই মত ওয়াকিবহাল মহলের। পশ্চিমবঙ্গে শিল্প স্থাপনের জন্য জমিও কোনও রকম অন্তরায় হবে না বলে আশ্বাস দিয়েছেন মমতা।
 এদিন নবান্ন সভাঘরে বণিক সভার প্রতিনিধি সহ হর্ষ নেওটিয়া, সুশীল মহতা, রুদ্র চট্টোপাধ্যায়ের মতো শিল্পপতিদের সঙ্গে বৈঠক সারেন মমতা। প্রায় দু’ঘণ্টা ধরে চলা এই বৈঠকের শুরুতেই উপস্থিত সকলকে মমতা বলেন, নির্বাচনের জন্য গত তিন মাস আপনাদের সঙ্গে দেখা হয়নি। রাজ্যের শিল্প ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল। সেই কারণে মাঝেমধ্যেই আপনাদের সুবিধা-অসুবিধার খোঁজখবর নেওয়ার জন্য দেখা করা উচিত। 
শিল্পপতিদের সঙ্গে আলোচনা করেই এদিন আরও একটি বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। আগামী ২০ সেপ্টেম্বর থেকে ৬ অক্টোবর পর্যন্ত বিশ্ব বাংলা মেলা প্রাঙ্গণে বিশ্ববঙ্গ শপিং ফেস্টিভালের আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দুর্গাপুজোর আগে ১৫ দিন ধরে চলা এই ফেস্টিভালে হস্তশিল্প, বস্ত্র ও ক্ষুদ্র শিল্প, বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য সহ রাজ্যের সমস্ত বিখ্যাত পণ্য তুলে ধরা হবে বিশ্বের সামনে। বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনের আদলেই নানা দেশের প্রতিনিধিরা আসবেন এই শপিং ফেস্টিভালে। প্রসঙ্গত, দুবাই, সিঙ্গাপুরের  মতো উন্নত জায়গায় এই ধরনের ফেস্টিভালের আয়োজন করা হয়। স্বাভাবিকভাবেই এবছর অর্থাৎ ২০২৪ সালে আর বাণিজ্য সম্মেলন আয়োজন সম্ভব নয়। রাজ্য সরকার সূত্রে খবর, তিন মাস ধরে নির্বাচনী প্রক্রিয়া চলার কারণে প্রস্তুতিই নেওয়া যায়নি। সেকারণেই চলতি বছরে  বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলন করা গেল না। ২০২৫ সালে ফের এর  পসরা। 
এদিনের বৈঠকে রাজ্যের পাঁচটি আর্থিক করিডোর দ্রুত তৈরির পাশাপাশি রপ্তানিতেও জোর দেওয়ার কথা বলেন মমতা।  তৃতীয়বার সরকারে এসে বাংলাকে দেশে শিল্পের এক নম্বর করার কথা বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তার পর আড়াই বছরে কয়েক হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ এসেছে বাংলায়। তবে রাজ্যের শিল্প সম্ভাবনা সম্পূর্ণ কাজে লাগিয়ে ২০২৬’এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে বাংলায় আরও বেশি মাত্রায় কর্মসংস্থান সৃষ্টি করাই লক্ষ্য মমতার। আগামী তিন মাসের মধ্যে ফের শিল্পপতিদের সঙ্গে  মমতা বৈঠক করতে পারেন বলে জানা গিয়েছে।
ফাইল চিত্র
1Month ago
কলকাতা
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

গুরুজনের থেকে অর্থকড়ি লাভ হতে পারে। স্বার্থান্বেষী আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে দূরত্ব রেখে চলুন। মনে চাঞ্চল্য।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮২.৮১ টাকা৮৪.৫৫ টাকা
পাউন্ড১০৬.৫৫ টাকা১১০.০৬ টাকা
ইউরো৮৯.৫৫ টাকা৯২.৭১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা