জিলিপি, গোলাপজাম, পাঁপড় ভাজা: রথে তিনের সমাহার তৃপ্তি দেয় খাদ্যবিলাসীদেরও

সংবাদদাতা, মালদহ: ‘রথযাত্রা, লোকারণ্য, মহা ধুমধাম...।’ প্রতিটি রথযাত্রার কিছু স্থানীয় নিজস্বতা থাকে। মালদহ শহরের মকদুমপুরের প্রাচীন রথযাত্রাকে ঘিরেও রয়েছে এমনই কিছু আঙ্গিক। এই রথযাত্রাকে ঘিরে চলে মেলা। মেলার ভিড় আজও চোখে পড়ার মতো। আর এই মেলার অন্যতম আকর্ষণ পাঁপড় ভাজা এবং জিলিপি। সঙ্গে থাকে গোলাপজাম। এই তিনের সমাহার না হলে নাকি এই রথের মেলাই সম্পূর্ণ হয় না। তাই মালদহ শহরের বলদেবানন্দ গিরি রোডের দু’পাশে সারিসারি বসে জিলিপি ও পাঁপড় ভাজার দোকান। প্রতিটি দোকানেই থাকে ক্রেতাদের ভিড়।
রাস্তার দু’পাশে মেলা উপলক্ষ্যে অস্থায়ী দোকান করতে আগে থেকেই প্রস্তুতি নেন দোকানীরা। আগে ছোট ছোট খুঁটি পুঁতে নিজেদের দোকান চিহ্নিত করে রাখতেন তাঁরা। এখন অবশ্য প্রতি বছর নিজেরা নিজেদের নির্দিষ্ট জায়গাতেই বসেন। রথের এক বা দু’দিন আগে থেকেই শুরু হয়ে যায় বিকিকিনি। গরম গরম জিলিপি ভেজে রসে ডোবাতেই যা দেরি! মুহূর্তে দাঁড়িপাল্লায় ওজন হয়ে রসে টইটম্বুর আড়াই প্যাঁচের জিলিপি কাগজের ঠোঙায় পৌঁছে যায় ক্রেতাদের হাতে হাতে। তারপর সটান মুখে। একটি, দু’টি নয়, রথযাত্রার আগে থেকে সব জিলিপির দোকানেই প্রায় একই ছবি। 
জিলিপির সঙ্গে চাহিদায় পাল্লা দেয় গোলাপজামও। অনেকটা লালমোহন বা লেডিকেনির মতো দেখতে এই মিষ্টি। কিন্তু সাইজে মার্বেল গুলির মতো ছোট। ডাই করে সাজানো থাকে গোলাপজাম। জিলিপির পাশাপাশি এই গোলাপজামও হয়ে উঠেছে মালদহের রথযাত্রার এক অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। মিষ্টিমুখের সঙ্গে প্রায় সকলেই কেনেন পাঁপড় ভাজা। রাস্তার দু’পাশে ছোট ছোট দোকানে ক্রমাগত ভাজা হয়ে চলে পাঁপড়। ডালের পাঁপড়ের চাহিদাই সবচেয়ে বেশি থাকে। তবে বিকোয় সাবুর পাঁপড়ও। রথের মেলায় এসে জিলিপি, গোলাপজাম, পাঁপড় মুখে দেবেন না এমন মানুষের সংখ্যা প্রায় শূন্য। এমনকী শারীরিক কারণে যাঁদের মিষ্টি খাওয়ার বিধি নিষেধ রয়েছে, তাঁরাও খানিকটা নিয়ম ভেঙে রথের মেলার জিলিপি, গোলাপজাম খেয়ে ফেলেন। 
জিলিপির দোকানে আবার বিক্রি হয় ‘হাতিপায়া’ লুচি এবং আলুর তরকারিও। একেকটি লুচির আকার অনেকটা হাতির পদতলের মতো বলেই এই লুচি ‘হাতিপায়া’ নামে পরিচিত। মালদহের মহাশ্মশান শাদুল্লাপুর এলাকায় এই  লুচির উৎপত্তি বলে মনে করা হয়।
তবে শুধু খাবারই নয়, এই মেলায় দেদার বিক্রি হয় হাঁড়ি, কড়াই, খুন্তি, বেলনচাকির মতো মাটি এবং প্লাস্টিকের সামগ্রী এবং পুতুলও। 
14d ago
কলকাতা
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

গুরুজনের থেকে অর্থকড়ি লাভ হতে পারে। স্বার্থান্বেষী আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে দূরত্ব রেখে চলুন। মনে চাঞ্চল্য।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা