রাজ্য

বোসকে ফের আইনি চিঠি প্রাক্তন উপাচার্যদের, দাবি না মানলে মামলার হুঁশিয়ারি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ফের আচার্য সি ভি আনন্দ বোসকে আইনি চিঠি পাঠাল প্রাক্তন উপাচার্য এবং শিক্ষাবিদদের সংগঠন দি এডুকেশনিস্টস ফোরাম। মঙ্গলবার কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক বৈঠক করে ফোরামের অন্যতম আহ্বায়ক ওমপ্রকাশ মিশ্র জানান, ‘এদিনই সকাল সাড়ে ১০টায় স্পিড পোস্টের মাধ্যমে রাজভবনে সেই চিঠি গিয়েছে। স্বাক্ষরকারী আমি সহ সাতজন। আমাদের দাবি, সাতদিনের মধ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা, মন্তব্য প্রত্যাহার এবং প্রত্যেক স্বাক্ষরকারীকে ৫০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ। একটি শর্তও মানা না-হলে হাইকোর্টে দেওয়ানি মামলা হবে। আর রাজ্যের বিভিন্ন জেলা আদালতে আচার্যের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করব আমরা।’ রাজভবনের তরফে এই চিঠির প্রেক্ষিতে কোনও মন্তব্য করা হয়নি।
সেপ্টেম্বরে একই চিঠি পাঠানো হয়েছিল। ফের কেন এই চিঠি গেল রাজভবনে? এর ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে ওমপ্রকাশবাবু বলেন, ‘তখন আমরা ভেবেছিলাম, উপাচার্য নিয়োগ মামলার গতি ত্বরান্বিত হবে। সেটাই অগ্রাধিকার ছিল। সবার সঙ্গে সমন্বয়সাধন করতেও সময় লাগছিল। তবে, এটা কোনও ফাঁকা আওয়াজ নয়। আচার্য দাবি না-মানলে মামলা হবেই।’
প্রসঙ্গত, রাজ্যপাল নিজের নিয়োগ করা উপাচার্যদেরই অপসারণ করেছিলেন। তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে সেপ্টেম্বরে একটি ভিডিও বার্তায় উপাচার্যদের বিরুদ্ধে ছাত্রী-হেনস্তা, ক্যাম্পাসে রাজনীতিকরণ, আর্থিক অস্বচ্ছতা প্রভৃতি অভিযোগ আনেন তিনি। বক্তব্যটি চ্যালেঞ্জ করে আইনি চিঠি পাঠানো হয়েছিল সেপ্টেম্বরেই। তবে, তার পরে বিষয়টি আর এগোয়নি। ওমপ্রকাশবাবুর ব্যাখ্যা, আইন অনুযায়ী রাজ্যপালের আইনি রক্ষাকবচ রয়েছে। তবে, আচার্যের ক্ষেত্রে তা নেই। তাছাড়া, এই মামলা তাঁর রাজ্যপাল পদ চলে যাওয়ার পরেও চলবে। তখন কিন্তু তাঁর আইনি রক্ষাকবচও থাকবে না। ব্যক্তিগত খরচেই মামলা লড়তে হবে তাঁকে।
উপাচার্য অপসারণ পর্বের পরে শিক্ষামন্ত্রীর তরফে রাজ্যপালের সমালোচনা করে বার বার বার্তা দেওয়া হচ্ছিল। তবে, কোনও সমাধান সূত্র মিলছিল না। ‘বর্তমান’-এ প্রথম লেখা হয়, এই সমাধান সূত্র মিলতে পারে একমাত্র আইনি পথেই। সোমবার সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পরে সেই সূত্র মিলেছে। শুধুমাত্র বাংলা নয়, পাঞ্জাব, কেরল, তেলেঙ্গানা, তামিলনাড়ু প্রভৃতি রাজ্যে যেখানে এই নিয়ে আইনি জটিলতা রয়েছে, এতে তারাও উপকৃত হবে বলে মনে করছে ফোরাম। রাজ্যপালের পদক্ষেপের বিরুদ্ধে মামলা করেন রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক সনৎকুমার ঘোষ। এদিন ফোরামের তরফে তাঁকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। 
ফোরামের অন্যতম সদস্য, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মনোজিৎ মণ্ডল বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের ফলে মুখ্যমন্ত্রীর বাছাই করে দেওয়া অধ্যাপকদেরই উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ করতে বাধ্য হবেন আচার্য। তিনি সেটা না-মানলে তা কারণ এবং প্রমাণসহ ব্যাখ্যা করতে হবে। রাজ্যপাল আর ইচ্ছামতো আইপিএস, আইএস বা শিক্ষাজগতের বাইরের লোকজনকে উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ করতে পারবেন না।’
13d ago
কলকাতা
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

চল্লিশের ঊর্ধ্ব বয়সিরা সতর্ক হন, রোগ বৃদ্ধি হতে পারে। অর্থ ও কর্ম যোগ শুভ। পরিশ্রম...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.১৭ টাকা৮৪.২৬ টাকা
পাউন্ড১০৬.৯৩ টাকা১০৯.৬০ টাকা
ইউরো৯০.০০ টাকা৯২.৪৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা