কলকাতা

চড়িয়াল সড়ক সেতুর ফুটপাত হকারদের দখলে, দুর্ঘটনার কবলে পথচারীরা

সংবাদদাতা, বজবজ: চড়িয়াল সড়ক সেতুর দু’দিকেই পথচারীদের পায়ে হাঁটার জন্য আলাদা পথ তৈরি করা হয়েছে। কারণ, ওই সড়কে সব সময় বিভিন্ন যান চলাচল করে। যাতে দুর্ঘটনা না ঘটে, তাই সেতুতে পথচারীদের জন্য ফুটপাত তৈরির উপর বিশেষ জোর দিয়েছিলেন সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বলা যায়, তাঁর কথায় গুরুত্ব দিয়ে পূর্তদপ্তরের কর্তারা সেতুতে পথচারীদের জন্য ফুটপাত তৈরিও করেন। উদ্বোধনের পর কয়েকমাস সেই পথ ধরে পথচারীরা দিব্যি যাতায়াতও করেছেন। কিন্তু কিছুদিন হল সেতুর উভয়দিকের সেই পায়ে হাঁটার জায়গাও দখল করে হকাররা বসে গিয়েছেন। ফলে এখন পথচারীদের যাতায়াত করা অসুবিধাজনক হয়ে গিয়েছে। অনেকে রাস্তার উপর দিয়ে পারপার করার সময় দুর্ঘটনার মুখে পড়ছেন। ট্রাফিক পুলিসের এক আধিকারিকের কথায়, এমনিতে এই জায়গা দুর্ঘটনা প্রবণ বলে চিহ্নিত। তার ভিতর এখন ফুটপাত বেদখল হয়ে যাওয়াতে রাস্তার উপর দিয়ে পারাপার বেড়ে গিয়েছে। তাতে যানজট হচ্ছে। পায়ে চলার পথ দখলমুক্ত থাকলে এমন পরিস্থিতি হতো না। ডায়মন্ডহারবার পুলিস জেলার এক আধিকারিক বলেন, এ ব্যাপারে বজবজ পুরসভা ও পূর্তদপ্তর এবং নাগরিকদের নিয়ে একটি কমিটি করে লাগাতার নজরদারি করা দরকার। না হলে এমন চলতে থাকবে।
বজবজ পুরসভার চেয়ারম্যান গৌতম দাশগুপ্ত বলেন, এত সুন্দর সড়ক সেতু হয়েছে। তা যাতে সুন্দর থাকে, সেটা দেখার দায়িত্ব নাগরিকদেরও। তাঁদেরও এগিয়ে আসতে হবে। মনে রাখতে হবে যাঁরা দোকান করছেন, তাঁরাও নাগরিক। তবে এই জায়গার মালিক হল পূর্তদপ্তর। এ ব্যাপারে তাদেরও উদ্যোগ নিতে হবে। বিষয়টি নিয়ে পূর্তদপ্তর সদর্থক ভূমিকা পালন করবে বলে আশা করি। আলিপুর মহকুমা শাসক তমোঘ্ন কর বলেন, বিষয়টি নিয়ে অবশ্যই পূর্তদপ্তরের সঙ্গে কথা বলব। আর পূর্তদপ্তরের এক বাস্তুকার জানান, বিষয়টি তাদের নজরে এসেছে। সকলকে নিয়ে বসে একটা পদক্ষেপ নেওয়া হবে। - নিজস্ব চিত্র
28d ago
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

বিকল্প উপার্জনের নতুন পথের সন্ধান লাভ। কর্মে উন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। মনে অস্থিরতা।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
21st     July,   2024
দিন পঞ্জিকা