কলকাতা

মারধরের পর তরুণীকে অ্যাসিড দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাড়ির লোকজন চেয়েছিল তাঁর বিয়ে দিতে। কিন্তু এখনই বিয়ের পিঁড়িতে না বসে উচ্চশিক্ষা এগিয়ে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন তিনি। তার জন্য যে এমন ভয়ানক মাশুল দিতে হবে, তা দুঃস্বপ্নেও ভাবেননি আইনের ছাত্রী ওই তরুণী। বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় তাঁকে বেধড়ক মারধর এবং পরপর ছুরির কোপে দু’হাত ক্ষতবিক্ষত করে দেয় তার তুতো দাদারা। এখানেই শেষ নয়! না বলার পরও কলেজে যেতে চাইলে তাঁর গোটা শরীর অ্যাসিড দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় তারা। পুলিসে অভিযোগ জানানোর পরও কোনও সাহায্য না মেলায় হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন ওই তরুণী। 
হুগলির চণ্ডীতলা এলাকার বাসিন্দা, সাবিনা ইয়াসমিন (নাম পরিবর্তিত) হাজরা ল কলেজের ছাত্রী। পড়াশোনার জন্য তিনি তাঁর বোনের সঙ্গে পার্ক সার্কাস এলাকায় একটি মেস ভাড়া নিয়ে থাকেন। ভোটের সময় তিনি বাড়ি গেলে তাঁর উপর এসব অত্যাচারের ঘটনা ঘটে। মামলার বয়ান সূত্রে জানা গিয়েছে, বাড়িতে যাওয়ার পর তাঁকে বিয়ের জন্য চাপ দেয় তুতো দাদারা। তাঁকে বলা হয় ‘আর পড়াশোনার দরকার নেই। আমাদের এই এলাকায় মেয়েরা এত পড়াশোনা করে না। বিয়ে করতে হবে। কলেজে যাওয়ার চেষ্টা করলে ভাল হবে না।’ এই হুমকির পরও ভেঙে পড়েননি তরুণী। তিনি তাদের স্পষ্ট জানিয়ে দেন, পড়াশোনা চালিয়ে যাবেন। এরপর গত ১৬ মে স্থানীয় বাজারে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই কার্যত গোটা পরিবার নিয়ে তাঁর উপর চড়াও হয় তুতো ভাইয়েরা। বাজারের মধ্যেই চলে বেধড়ক মারধর। এমনকী, ছুরি দিয়ে তরুণীর দুই হাতে কোপানো হয়। গুরুতর জখম অবস্থায় তাঁকে সেখান থেকে হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রা। 
অভিযোগ, এই ঘটনার পরের দিন ওই তরুণী চণ্ডীতলা থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে তাঁকে বসিয়ে রাখা হয়। পরের দিন অভিযোগ জানানোর চেষ্টা করে তিনি ব্যর্থ হন। এদিকে তুতো ভাইয়েরা এসে এবার অ্যাসিড দিয়ে তাঁকে জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে যায়। কোনও উপায় না পেয়ে তিনি ই-মেইল মারফত থানা ও জেলা পুলিস সুপারের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। তারপরও এফআইআর রুজু করেনি পুলিস। শেষ পর্যন্ত তিনি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার পর, ১৩ জুন এফআইআর দায়ের করে পুলিস। 
এই বৃত্তান্ত শুনে রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিচারপতি অমৃতা সিনহা। কেন এফআইআর দায়ের করতে এত দেরি হল, তা নিয়ে পুলিস সুপারের কাছে রিপোর্ট তলব করেছেন তিনি। চন্দননগরের ডিসিপি অলকানন্দা ভাওয়ালকে এই ঘটনার তদন্তের দায়িত্বভার দিয়েছেন বিচারপতি সিনহা। সেই সঙ্গে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন, স্থানীয় পঞ্চায়েত সহ অন্য কেউ যাতে এই ঘটনায় হস্তক্ষেপ না করে, তা নিশ্চিত করতে হবে ওই পুলিস আধিকারিককে। 
1Month ago
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

বিকল্প উপার্জনের নতুন পথের সন্ধান লাভ। কর্মে উন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। মনে অস্থিরতা।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
21st     July,   2024
দিন পঞ্জিকা