কলকাতা

‘জীবনে নস্যি নেব না’, নেশা ছাড়ার কথা দিতেই মন গলল স্ত্রীর, মামলা তুলে স্বামীর ঘরেই ফিরলেন বৃদ্ধা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বৃদ্ধের নস্যির নেশায় তিতিবিরক্ত হয়ে উঠেছিলেন তাঁর স্ত্রী। পরিস্থিতি এমন জায়গায় গিয়ে পৌঁছয় যে জীবনের পড়ন্ত বেলায় এসে স্বামীকে ছেড়ে এক আত্মীয়ের বাড়ি চলে গিয়েছিলেন ৬১ বছরর তপতী সামন্ত। সেলাইয়ের টুকটাক কাজ করে কোনওরকমে পেট চালানোর ব্যবস্থা করেছিলেন। সেই সঙ্গে নস্যির নেশায় বুঁদ স্বামীর কাছে খোরপোশের আবেদন করে মামলা ঠুকেছিলেন তিনি। গত ফেব্রুয়ারি মাসে আলিপুর আদালতে তিনি মামলা দায়ের করেন। এর মধ্যে বৃদ্ধ তাঁর স্ত্রীকে বুঝিয়েসুঝিয়ে ফিরিয়ে আনেন ঘরে। বৃদ্ধ নস্যি ছাড়ার প্রতিশ্রুতি দিলে মন গলে বৃদ্ধার। কিন্তু আদালতে যে মামলা ঝুলছে! সেই মামলা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন প্রবীণ দম্পতি। অবশেষে আদালতে দীর্ঘ শুনানি শেষে ‘মধুরেণ সমাপয়েৎ’!  
গত প্রায় দু’বছর দক্ষিণ ২৪ পরগনার জীবনতলার কালুয়াখালি গ্রামে এক আত্মীয়ের বাড়িতে ছিলেন তপতীদেবী। স্ত্রী চলে যাওয়ায় ৭২ বছরের বৃদ্ধ  সমীর সামস্ত খুঁচিতলা গ্রামে নিজের বাড়িতে একাকিত্বে ভুগতে শুরু করেন। ঘরে ফিরে আসার জন্য তিনি আত্মীয়স্বজনের মাধ্যমে স্ত্রীকে বেশ কয়েকবার বার্তা পাঠিয়েও কোনও ফল হয়নি। উল্টে তপতীদেবী জানিয়ে দিয়েছিলেন, তাঁকে যেন এভাবে বিরক্ত না করা হয়। অগত্যা একদিন কাউকে কিছু না বলে স্ত্রী যে বাড়িতে থাকেন, সেখানে হাজির হন সমীরবাবু। সেখানে গিয়ে স্ত্রীকে বাড়ি ফিরে আসার জন্য অনেক বোঝান। শুরু হয় ঝগড়াঝাটি। শেষ পর্যন্ত সমীরবাবু স্ত্রীর হাত ধরে কথা দেন, যা হবার তা হয়ে গিয়েছে। এ জীবনে আর কোনও দিন তিনি নস্যি নেবেন না। আর বৃদ্ধকে ফেরাতে পারেননি তপতীদেবী। ফিরে আসেন। খোরপোশের মামলা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সম্প্রতি আলিপুর আদালতে অভিযোগকারীর তরফে খোরপোশের মামলা তুলে নেওয়ার আবেদন করা হয়। সওয়ালে বৃদ্ধার আইনজীবী বলেন, ‘রাগ-অভিমানের সাধারণ ঘটনা থেকে বিষয়টি এত দূর  গড়িয়েছে। আলাপ-আলোচনার মাধ্যমেই তা মিটেও গিয়েছে। আমার মক্বেলের স্বামী তাঁর ভুল বুঝতে পেরেছেন। তাই অহেতুক এই মামলা চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার কোন যৌক্তিকতা নেই। এতে অর্থ ও সময়, দুই-ই নষ্ট হচ্ছে।’ আদালত সূত্রে খবর, দীর্ঘ শুনানির শেষে আইনি গেরো কাটিয়ে বৃদ্ধা আদালতের ‘ছাড়পত্র’ নিয়ে ফিরে গিয়েছেন খুঁচিতলায় স্বামীর ঘরে। আদালতের প্রবীণ আইনজীবীদের কথায়, ‘জীবনে চলার পথে অনেক কিছুই ঘটে থাকে। তবে কথায় বলে, শেষ ভালো যার, সব ভালো তার। ওঁদের জীবনের বাকি ক’টা দিন আনন্দে কাটুক একসঙ্গে, এটাই কাম্য হওয়া উচিত।’
10Months ago
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

পড়ে গিয়ে দেহে আঘাত লাগতে পারে। নিকট আত্মীয়ের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি। আয় যোগ শুভ।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮২.৭২ টাকা৮৪.৪৬ টাকা
পাউন্ড১০৬.৬৭ টাকা১১০.১৯ টাকা
ইউরো৮৯.৪৯ টাকা৯২.৬৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা