বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
বিনোদন
 

প্রান্তিক মানুষের নিজস্ব ছবি
জয় ভীম

সোহম কর: আজ থেকে বছর তিরিশ আগে তামিলনাড়ুতে ঠিক এই ঘটনাই ঘটেছিল। ঠিক এভাবেই চুরির অভিযোগে ইরুলা জনজাতির রাজাকান্নু নামক এক ব্যক্তিকে পুলিস গ্রেপ্তার করে। ঠিক এভাবেই জেলের ভিতরে সেই ব্যক্তির উপর অত্যাচার করা হয়। রাজাকান্নু মারা যান। আর তাঁর অসহায় স্ত্রীর হয়ে আদালতে লড়াই করেন আইনজীবী চন্দ্রু। পুরো ঘটনা পর্দায় তুলে ধরেছেন পরিচালক জ্ঞানভেল। ছবির নাম ‘জয় ভীম’। ওটিটি প্ল্যাটফর্মে এই তামিল ছবিটি দেখা যাচ্ছে। তিরিশ বছর আগের একটি ঘটনা, এই সময় আরও একবার মনে করিয়ে দেওয়া কতখানি দরকার তা ছবি না দেখলে বোঝা যাবে না। 
গোটা ছবি সমাজের নিপীড়িত মানুষের কথা বলা। খেটে খাওয়া, প্রান্তিক মানুষের কথা বলে। সেই মানুষের কথা বলে, যাঁরা স্ত্রীকে কথা দেয়, মৃত্যুর আগে আমি তোমার জন্য পাকা বাড়ি করে দিয়ে যাব। সেই মেহনতি মানুষের কথা বলে, যাঁরা নির্লোভ। উঁচু জাতের মানুষজন এই খেটে খাওয়া মানুষদের রক্ত চুষে নিজেদের ভাণ্ডার পরিপূর্ণ করে। তাদের বিরুদ্ধে কথা বলে এই ছবি। এই কঠিন সময়ে দাঁড়িয়ে যখন প্রতিনিয়ত দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দলিতদের উপর অত্যাচারের ঘটনা ভেসে আসে, সেই সময় শিল্পের ব্যবহার করে কীভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলা যায়, তা করে দেখিয়েছে তামিল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। 
গোটা দেশ যখন সরকার নির্ধারিত দেশপ্রেমের গল্প শোনাতে কিংবা বিনোদনের নামে দর্শককে বাণিজ্যিক আবর্জনা গেলাতে ব্যস্ত, তখন এমন একটা ছবি উপহার দিলেন জ্ঞানভেল। তিনি দেখিয়েছেন, দলিতদের অধিকার রক্ষার লড়াইয়ে যে আইনজীবী বিনা পারিশ্রমিকে আদালতে লড়াই করে, সে কার্ল মার্কসের অনুরাগী। এহেন আপাদমস্তক রাজনৈতিক আদর্শগত ছবি তৈরি করতে গেলে বিরাট বাজেটের দরকার হয় না, দরকার হয় না সুপারস্টারের। ছবির মতো বাস্তবেও আইনজীবী চন্দ্রুর মতো একটা মনের দরকার হয়। 
ছবিতে কোথাও উচ্চকিত সংলাপ নেই। চন্দ্রুর চরিত্রে অভিনয় করা সূর্যকে লার্জার-দ্যান-লাইফ দেখানোরও অভিপ্রায় নেই। ছবি দেখতে দেখতে মনে হচ্ছিল, পরিচালক খুব ভেবে চিন্তে যত্ন নিয়ে প্রতিটা দৃশ্য সাজিয়েছেন। তিনি বোঝাবার চেষ্টা করেছেন, দর্শক যেন কোনওভাবে ছবির মূল রাজনীতি থেকে সরে না আসেন। কেউ যেন পর্দায় সূর্যকে দেখে উচ্ছ্বসিত হয়ে না পড়েন। অবশ্য, দর্শক দু’হাত প্রসারিত করে এই ছবিকে নিজেদের অন্তরে জায়গা দিয়েছে। ইন্টারনেটের রেটিং সেই কথা বলছে। 
 চমত্কারভাবে কোর্টরুম ড্রামা দেখানো হয়েছে। আদালত, জজ সাহেবদের নিরপেক্ষতা মানুষের সামনে তুলে ধরেছেন পরিচালক। তিনি বার্তা দিয়েছেন, বাবাসাহেব আম্বেদকরের তৈরি করা আইনের উপর যেন দেশবাসী আস্থা না হারিয়ে ফেলে। ‘জয় ভীম’-এর মতো বলিষ্ঠ একটি স্লোগানকে ছবির নাম হিসেবে বেছে নিয়েছেন তিনি। সূর্য ও তাঁর স্ত্রী জ্যোতিকা ছবিটি প্রযোজনা করেছেন। সূর্য ছাড়াও রাজাকান্নুর চরিত্রে মণিকন্দন, তার স্ত্রীয়ের চরিত্রে লিজোমল জোস ও আইজির চরিত্রে প্রকাশ রাজ নজর কেড়েছেন। 
নানা জায়গায় প্রান্তিক মানুষজন প্রতিনিয়ত নিপীড়নের শিকার হচ্ছেন। কখনও জাতপাতের দোহাই দিয়ে, কখনও ধর্মের দোহাই দিয়ে। যতদিন পৃথিবী থাকবে, এটাই বোধহয় নিয়ম হয়ে থাকবে। কিন্তু তার মাঝখানে ‘জয় ভীম’ খেটে খাওয়া, প্রান্তিক মানুষদের নিজস্ব ছবি হয়ে দাঁড়িয়ে থাকবে।

29th     November,   2021
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021