বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
সিনেমা
 

নিজের সিদ্ধান্তে ছবি পছন্দ করেন  অনন্যা

সম্প্রতি ‘ড্রিম গার্ল টু’-এ বলিউড অভিনেত্রী অনন্যা পান্ডের কাজ ভালো লেগেছে দর্শকের। ঠিক তার আগেই তাঁর ছবি ‘লাইগার’ বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছিল। বলিউডের নতুন প্রজন্মের অন্যতম মুখ অনন্যা। কেরিয়ার নিয়ে কী ভাবছেন তিনি? মুখোমুখি সাক্ষাৎকারে জানালেন নানা কথা। 

ড্রিম গার্ল টু
অনন্যা জানালেন, ‘ড্রিম গার্ল টু’ ছবিটি তাঁকে নানা দিক থেকে সমৃদ্ধ করেছে। ‘এই ছবিতে আমি একঝাঁক অভিজ্ঞ অভিনেতার সঙ্গে কাজের সুযোগ পেয়েছি। ওঁদের মধ্যে অনেকে আবার আমার বাবার (চাঙ্কি পান্ডে) সঙ্গে কাজ করেছেন। অনেক কিছু শিখেছি’, বললেন তিনি। ছবির নায়ক আয়ুষ্মান খুরানার সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন? হেসে নায়িকা বললেন, ‘আয়ুষ্মান কখনও কারও আবেগকে আহত করেন না। এই ছবিতে আয়ুষ্মানের ভূমিকা এতটাই সংবেদনশীল যে অন্যের অনুভূতিকে আঘাত করতে পারত, কিন্তু উনি অত্যন্ত সুন্দরভাবে চরিত্রটি তুলে ধরেছেন।’

আমার বাবা
অনন্যার বাবা চাঙ্কি পান্ডে বলিউডের এক সময়ের পরিচিত নাম। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই বাবার ছায়ার বাইরে নিজের আলাদা পরিচয় গড়ে তুলেছেন অনন্যা। তবে বাবার কিছু উপদেশ আজীবন তাঁর চলার পথের পাথেয়। ‘বাবা এই দুনিয়ার সবচেয়ে ভালো অভিনেতাদের মধ্যে একজন। সব সময় মন দিয়ে নিজের কাজ করতে বলেন। বাবা ভালো মানুষদের সঙ্গে কাজ করতে বলেন। কারণ ভালো মানুষরা যখন আমার জীবনের সঙ্গে জুড়ে যাবেন, তখন আমার সঙ্গে ভালো জিনিসই ঘটবে’, বললেন অনন্যা। 

হিট-ফ্লপ
কোন ছবিতে অভিনয় করবেন, সে সিদ্ধান্ত নিজেই নেন অনন্যা। নিজের ছবি চয়ন নিয়ে কতটা সন্তুষ্ট তিনি? স্পষ্ট জবাব দিলেন, ‘হিট-ফ্লপ তো আসতেই থাকবে। কিছু ছবি চলবে, আবার কিছু ছবি চলবে না। আমার কাছে যখন কোনও ছবির প্রস্তাব আসে, সেই সময়ের ভিত্তিতে আমি সিদ্ধান্ত নিই। যে কোনও ছবির মাধ্যমে নতুন কিছু শেখার চেষ্টা করি।’ তবে চিত্রনাট্য নিয়ে বাবা-মায়ের সঙ্গে আলোচনা করতে ভোলেন না অনন্যা। বললেন, ‘কোনও চিত্রনাট্য আমার কাছে এলে বাবা-মাকে পড়তে দিই। চিত্রনাট্য নিয়ে আলোচনা করি। তবে ওরা কখনও ওদের মতামত আমার উপরে চাপিয়ে দেয় না।’

বন্ধুত্ব
অভিনয় জগতে পা রাখতে চলেছেন অনন্যার দুই বিশেষ বন্ধু চলেছেন শাহরুখ খান কন্যা সুহানা খান এবং সঞ্জয় কাপুরের মেয়ে শানায়া কাপুর। বন্ধুদের অভিনয় জগতে অভিষেক নিয়ে অনন্যা বলেন, ‘আমরা তিনজনই অভিনয় করার স্বপ্ন দেখতাম। এবার তা বাস্তব হতে চলেছে। আমি সুহানার অভিনয় দেখেছি। এবার চাই সারা দুনিয়া দেখুক।  আমাদের মধ্যে নিশ্চয়ই স্বাস্থ্যকর  প্রতিযোগিতা হবে।’

ট্রোলিং
আড্ডার শেষে উঠে আসে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলিংয়ের প্রসঙ্গ। এ ঘটনা সামলাতে অভ্যস্ত অনন্যা বললেন, ‘যেদিন মানসিক ভাবে ভালো থাকি, তখন কে কী বলছে, অত খারাপ লাগে না। কিন্তু অনেক দিন মন খারপও থাকে। তখন কেউ কিছু বললে খুব কষ্ট হয়। তবে এখন এসব অনেকটা কাটিয়ে উঠেছি।’
দেবারতি ভট্টাচার্য, মুম্বই

29th     September,   2023
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ