বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
সিনেমা
 

মারণ অসুখ পেরিয়ে জীবনে ফেরার ছবি
ইন্ডিয়া লকডাউন

অদিতি বসুরায়: ২০২০ সালের শুরুতে যে মহামারী দুনিয়া স্তব্ধ করে দিয়েছিল, তার জের চলেছিল পরের দু’বছর। এখনও পুরোপুরি মুক্তি মেলেনি সেই অসুখ থেকে। সেই সব পৃথিবী বন্ধ করে দেওয়া দিন আমাদের শিখিয়েছে অনেক কিছুই। জানিয়ে দিয়েছে এই নশ্বর জীবনযাপনের অন্ধকারতম দিকগুলো। অসুখের মাঝে মৃত্যুভয় যেমন কাবু করে ফেলেছিল, তেমনই দেখা গিয়েছিল মানবিকতা-বোধের উত্থান। মুদ্রার দু’টি পিঠই সমানভাবে সামনে এনে দেয় করোনা নামের রোগটি। 
এই প্রেক্ষাপটকে কেন্দ্র করে আগে বেশ কয়েকটি ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ছবি করেছে। সম্প্রতি পরিচালক মধুর ভাণ্ডারকর এই বিষয় নিয়ে ‘ইন্ডিয়া লকডাউন’ নামে  একটি ছবি নির্মাণ করেছেন। মূলত মুম্বই শহরের করোনাকালীন অবস্থাই এই ছবির প্লট। তবে সেই সঙ্গে ধরা পড়েছে বাণিজ্যনগরী সংলগ্ন এলাকাগুলোর কথাও।  লকডাউনের ঠিক আগে ও পরের অবস্থা পর্দায় তুলে ধরা হয়েছে। সঙ্গত কারণেই সেই সময়ের কামতাপুরী থেকে বিলাসবহুল বহুতলের বাসিন্দা, ঠেলাওয়ালা থেকে কামওয়ালি বাই —সবার অবস্থানই উঠে এসেছে ছবিতে। নিষ্ঠুরতার পাশাপাশি সহযোগিতার গল্প শুনিয়েছেন মধুর। 
পরিযায়ী শ্রমিকদের দীর্ঘ রাস্তা পায়ে হেঁটে পাড়ি দেওয়া, খাবারের অভাবে অসুস্থ হয়ে পড়া, ঘরে আটকে থাকা কলেজ-পড়ুয়া,  নিজের পেশাকে মিস করা পাইলট ইত্যাদি সমাজের প্রায় সমস্ত শ্রেণির মানুষের করোনাকালীন অসহায়তা, উদ্বেগ, ভয় পরিচালক অত্যন্ত বাস্তবোচিত উপায়ে রুপোলি পর্দায় এনেছেন। মুম্বই থেকে যে অমানুষিক পরিশ্রমে হায়দরাবাদ, বিহার, ওড়িশা থেকে যাওয়া শ্রমিক বাড়ি ফেরার পথ হেঁটে যেতে পেরেছিল বা যারা শেষ পর্যন্ত পেরে না উঠে পথেই অন্তিম শ্বাস ফেলেছে, তাদের হাল চোখের সামনে দেখে এখনও হৃদয় মুচড়ে ওঠে। পরিচালক মুনশিয়ানার সঙ্গে এই চিত্রগুলোকে নিয়ে গল্প বুনেছেন। কামতাপুরীর কাজ-হারানো যৌনকর্মীর হতাশা, অন্তঃসত্ত্বা কন্যার কাছে পৌঁছনোর জন্য পিতার আকুলতা, ক্ষুধার্ত সন্তানের অক্ষম মা, পরিবারের মুখোমুখি না দাঁড়াতে পারা বাবার অসহায়তা – পরিচালকের গল্প বলার গুণে দর্শকের মন স্পর্শ করতেও বাধ্য। ছবির থিমকে আত্তীকরণ করে নিজেদের সেরা কাজটি করেছেন প্রায় সব অভিনেতা। প্রতীক বব্বর, শ্বেতা বসুপ্রসাদ, সাই তামহঙ্কার, প্রকাশ বেলাওয়াড়ি, অহনা কুমরা প্রমুখ । 
তবে যে কথাটি না জানিয়ে উপায় নেই, তা হল ছবির প্রায় কোনও চরিত্রই কিন্তু এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয় না। তারা সবাই সুস্থ, এটা একটু চোখে লাগে। ‘ইন্ডিয়া লকডাউন’ আদতে আশাবাদের ছবি। অসুখকে পেরিয়ে জীবনে ফেরার ছবি। তারপরেও, লকডাউনের দিন গত হয়েছে। জীবন যাপনে সুস্থতা ফিরেছে অনেকখানি। উৎসব, উদযাপন আবার আগের মহিমায় উপস্থিত হয়েছে আমাদের সামনে। আর সমস্ত কোলাহলের পেছনে টিমটিমে করে জ্বলা মাটির প্রদীপের মতো জেগে আছে অকালে চলে যাওয়া মানুষদের স্মৃতি। সেই প্রদীপের শিখার কথা ছবিটি আরও একবার মনে করিয়ে দেয়। 

2nd     December,   2022
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ