বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

উৎসবের মরশুমে সুগার রোগীরা
ইচ্ছেমতো মাংস-মিষ্টি খাবেন?  

দুর্গাপুজো, লক্ষ্মীপুজো, ভাইফোঁটা, কালীপুজো— উৎসবের শেষ নেই। উৎসব মানেই বিভিন্ন মুখরোচক খাওয়া দাওয়া! তবেই না আনন্দ! তবে যাঁদের ডায়াবেটিস আছে তাঁদের অনেকে এই সময় একটু দোনামনায় ভোগেন। কী খাব, কতটা খাব ঠিক বুঝে উঠতে পারেন না। আসলে ‘ডায়াবেটিক ডায়েট’ শব্দবন্ধ আজকাল আর ব্যবহার করা হয় না। বরং এখন বলা হয় যে ডায়াবেটিস থাক আর না থাক, সবারই উচিত পরিমিত এবং সুষম খাবার খাওয়া যাতে সঠিক ওজন বজায় থাকে আর প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদানের জোগান সঠিকভাবে হয়।
ভাজাভুজি, মিষ্টি তো পুজোর সময় খেতে ইচ্ছে হতেই পারে। তবে একটা বিষয় খেয়াল রাখতে হবে, যে কোনও খাবার খেতে ইচ্ছে হলেই যে বেশি খেতে হবে তার কোনও মানে নেই। পরিমিতি বোধটা এক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়— যেদিন একটা সন্দেশ খাবেন, সেদিন ভাত বা রুটি একটু কম খান। বেশি পরিমাণে কোল্ড ড্রিংকস খেলে সুগার অনেকটা বেড়ে যেতে পারে। তাই না খাওয়াই ভালো। আর হ্যাঁ, যাঁদের ডায়াবেটিস আছে, তাঁদের ক্ষেত্রে বেশি মাত্রায় অ্যালকোহল কিন্তু মারাত্মক হাইপোগ্লাইসিমিয়া (রক্তে সুগারের মাত্রা কমে যাওয়া) করতে পারে। যাঁদের টাইপ ১ ডায়াবেটিস আছে তাঁরা মিষ্টি একটু বেশি খেলে তার আগে ইনসুলিন-এর ডোজ ডাক্তারবাবুর পরামর্শ অনুযায়ী একটু বাড়িয়ে নিতে পারেন।
যাঁদের ডায়াবেটিসজনিত জটিলতা, বিশেষত হার্ট বা কিডনির সমস্যা আছে, তাঁদের কিন্তু খাওয়াদাওয়ার ব্যাপারে একটু বেশি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। এই ব্যাপারে আপনার ডাক্তারবাবুর সঙ্গে পরামর্শ করে নেবেন।
যাঁরা একটু ঘোরাঘুরির প্ল্যান করছেন, তাদের অবশ্যই উচিত হাইপোগ্লাইসেমিয়া সম্পর্কে সচেতন থাকা। দীর্ঘসময় খালি পেটে থাকবেন না। সঙ্গে সবসময় ৪০ থেকে ৫০ গ্রাম গ্লুকোজ বা চিনি রাখুন। আর রাখুন গ্লুকোমিটার। যদি হঠাৎ করে মাথা ঘোরে, ঘাম দেয়, অথবা বুক ধড়ফড় করে, সঙ্গে গ্লুকোমিটার থাকলে সঙ্গে সঙ্গে সুগার পরীক্ষা করে দেখুন সুগার ফল (ব্লাডসুগার ৭০ মিলিগ্রাম-এর কম) করেছে কি না। যদি গ্লুকোমিটার সঙ্গে না থাকে, ১৫ থেকে ২০ গ্রাম গ্লুকোজ বা চিনি অনুমানের ভিত্তিতে খেয়ে নিন। তারপর ভাত, রুটি, মুড়ি বা কয়েকটি বিস্কুট খেয়ে নিন।
আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা না বললেই নয়। করোনা কিন্তু একেবারে চলে যায়নি। আপনারা এটাও জানেন যাঁদের ডায়াবেটিস আছে তাঁদের করোনার জটিলতা হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে। সুতরাং পুজোর আবহে আনন্দ করুন করোনা বিধি মেনে। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।
* পরামর্শে এসএসকেএম হাসপাতালের এন্ডোক্রিনোলজি বিভাগের অ্যাসিস্টেন্ট প্রফেসর ডাঃ রাণা ভট্টাচার্য।
সম্পাদনা: সুপ্রিয় নায়েক

16th     October,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021