বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

বয়স্করা পুজোয় গান-বাজনা,
হই হুল্লোড় করবেন?

করোনা কিন্তু এখনও তার অস্তিত্ব জানান দিচ্ছে প্রতিদিন। হয়তো প্রকোপ কিছুটা কম। তবে সাবধানের মার নেই। তাই সবমিলিয়ে ভীষণ ভাবে আলাদা সতর্কতা অবলম্বন জরুরি প্রবীণদের জন্য।
পুজোয় কোন কোন দিকে খেয়াল রাখা ও সতর্কতা দরকার— 
ঘরে থেকেই পুজো উপভোগ করুন
• খারাপ লাগলেও একজন চিকিৎসক হিসেবে আমার পরামর্শ হবে প্রবীণরা এবারে দয়া করে পুজোয় বাইরে বেরবেন না। বরং বাড়িতে থেকেই যতটা সম্ভব বাড়ির সবাইকে নিয়ে পুজোর আনন্দ উপভোগ করুন। যাঁদের সেই সুবিধা নেই তাঁদের জন্য সেই দায়িত্ব নিতে হবে আত্মীয় স্বজন বা পাড়ার প্রতিবেশীদের।
• খাবার কেমন?
চেষ্টা করবেন সহজপাচ্য, কম মশলাযুক্ত বাড়ির তৈরি খাবার খেতে। দুপুরে কোনও বিশেষ পদ খেলে রাত্রে সেদিন একদম হালকা খাবার খাবেন। দু’বেলা ভারী খাবার খাবেন না।
পেট ভরে কখনই খাবেন না। গুরুপাক খাবার খেলে সেদিন পিপিআই জাতীয় ওষুধ এবং হজমের জন্য এনজাইম জাতীয় ওষুধ (যদি প্রাত্যহিক না খেয়ে থাকেন) খেয়ে নিলে ভালো হয়।
• কোষ্ঠকাঠিন্য দূরে রাখুন
প্রতিদিন চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলে ফল ও সব্জি খান। ফল এবং শাক-সব্জি কোষ্ঠকাঠিন্য দূরে রাখে।
• শরীরে ফ্লুইডের জোগান
পুজোর হুল্লোড়ে জল পানের কথা মনে থাকে না। তবে প্রতিদিন নিয়ম মেনে আড়াই থেকে তিন লিটার জল পান করুন (কোনও বিধিনিষেধ না থাকলে)। না হলে কোষ্ঠকাঠিন্য এবং ডিহাইড্রেশনের আশঙ্কা বেড়ে যাবে।
• পোশাক
দুপুরে অপ্রয়োজনে শীতের পোশাক পরবেন না। ঘাম হয়ে ঠান্ডা লাগতে পারে। তাই আরামদায়ক পোশাক পরা দরকার। তবে এখন গ্রামেগঞ্জে রাতের দিকে বা খুব ভোরে কুয়াশা হচ্ছে। মাথায় যাতে কুয়াশা না লাগে তাই মাফলার জাতীয় কিছু পরা ভীষণ জরুরি।
• স্নান
হয়তো একটু ঠান্ডা পড়তে শুরু করবে, তাই বলে স্নান করা থেকে কিন্তু বিরত থাকবেন না কোনও ভাবেই। দিনে একবার একটু বেলার দিকে  হালকা উষ্ণ জলে স্নান করলে ভালো।
• ত্বকের যত্ন শুষ্কতা ও তেল
পুজোর সময় থেকেই আবহাওয়ার বদলের কারণে ত্বক শুষ্ক হতে শুরু করে। তাই ত্বকে নিয়মিত নারকেল তেল বা ময়েশ্চারাইজার রাখুন। স্নানের পর ও রাতে শোওয়ার আগে ল্যাকটো ক্যালামাইন এবং অ্যালোভেরার লোশন লাগানো যেতে পারে।
• ওষুধ খান
এই সময় বিভিন্ন কারণে ব্লাড প্রেশার, সুগার প্রভৃতি অনেক প্যারামিটারের পরিবর্তন হতে পারে তাই নিয়মিত রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, থাইরয়েড প্রভৃতি দেখা ও নিয়ন্ত্রণে রাখুন। নিয়ম মেনে ওষুধ খান।
• ভাইটাল কিট হাতের কাছে রাখুন 
প্রয়োজনীয় প্যারামিটারগুলো যাতে নিজেরা দেখে নিতে পারেন তার জন্য ডিজিটাল ব্লাড প্রেশার মেশিন, পালস অক্সিমিটার, থার্মোমিটার, গ্লুকোমিটার এগুলো নিজেদের কাছে রাখা ভালো। কোনও অস্বাভাবিক রিডিং এলে নিজে বিভ্রান্ত না হয়ে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।
• ভ্যাকসিন নিয়েছেন? 
যাঁরা নেননি তাঁরা অবশ্যই নিউমোকক্কাল ভ্যাকসিন নিয়ে নিন। আর প্রতি বছরের ইনফ্লুয়েঞ্জা ভ্যাকসিন নেওয়ার এটাই আদর্শ সময়। যাঁরা করোনার ভ্যাকসিন এখনও নেননি তাঁরা এখনই ভ্যাকসিন নিয়ে নিন।
• সিওপিডি ও হাঁপানি রোগীর সতর্কতা
সিওপিডি এবং হাঁপানি রোগীরা এই সময় বিশেষ সতর্ক থাকবেন, কারণ এই সময় শ্বাসকষ্টের প্রবণতা বাড়ে। এমনকী বুকে সংক্রমণের আশঙ্কাও বাড়ে। শ্বাসকষ্টের রোগীরা নিয়মিত ইনহেলার ব্যবহার করুন চিকিৎসকের পরামর্শমতো।
• হালকা ব্যায়াম ও ফিজিওথেরাপি
এই সময় হাঁটা-চলা কম হওয়ার কারণে অস্থিসন্ধির জড়তা বা ব্যথা বাড়তে পারে। তাই সকালে উঠে হালকা ব্যায়াম করা খুব ভালো। বিশেষ ক্ষেত্রে পেশাদার ফিজিওথেরাপিস্টের অধীনে ফিজিওথেরাপিও করাতে পারেন। 
• মানসিকভাবে ভালো থাকুন
এবারের পুজোতেও হয়তো আত্মীয়স্বজন, তাঁদের সন্তানের সঙ্গে দেখা সাক্ষাৎ হওয়ার সম্ভাবনা কম। ফলে বয়স্কদের একাকিত্ব এমনকী অবসাদ বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কাও বেশি। এমতাবস্থায় বাড়ির লোকেদের, আত্মীয় স্বজনের বয়স্কদের সঙ্গে বারবার করে কথা তাঁদের একাকিত্ব দূর করার ব্যবস্থা করতে হবে।
• সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ?
পুজোয় নিজেদের আনন্দে রাখতে বাড়িতেই প্রতি সন্ধ্যায় গান-বাজনা কবিতার আসর বসানো যেতে পারে। কমপ্লেক্সগুলোতে বাড়তি কিছু সতর্কতা নিয়ে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যেতে পারে এমনকি ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা যায়। স্ত্রী পুরুষ নির্বিশেষে বাড়িতে আলাদা পদ বানান আর নতুন নতুন রেসিপি তৈরি করুন। দেখবেন মন ভালো থাকতে বাধ্য।
• অন্য প্রবীণদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখুন
নিজেদের আর অন্যদের ভালো রাখতে পুজোর দিনগুলোতে ও পরে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আত্মীয়স্বজন ও বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে কথা বলুন।
• হাতের কাছে আপৎকালীন যোগাযোগ— 
পুজোর সময় বিপদে পড়লে চট করে ডাক্তার, আ্যম্বুলেন্স ইত্যাদি পাওয়া মুশকিল হয়ে যায়। তাই হাতের কাছে হাসপাতাল, অ্যাম্বুলেন্সের প্রয়োজনীয় নম্বর রেখে দেওয়া অত্যন্ত জরুরি বিষয়।
* পরামর্শে বিশিষ্ট বার্ধক্য রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ ধীরেশ চৌধুরী।
সম্পাদনা: সুপ্রিয় নায়েক

12th     October,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021