বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

রাতে ভাত না রুটি?
কী খেলে কমে ওজন?

একটা বয়সের পর শরীর যখন দৈর্ঘ্য না বেড়ে, বাড়তে থাকে প্রস্থে  এবং অল্প পরিশ্রমেই শরীর হাঁসফাঁস করতে শুরু করে তখনই বাঙালির আসে সুমতি। শুরু হয় জগিং, ডায়েট কন্ট্রোল। চপ, বেগুনি, লুচি, পরোটা আর বিরিয়ানির সঙ্গে ক’দিন থাকে আড়ি। তাতেও সুবিধা না হলে তারপর অমোঘ যে প্রশ্নটি উঠে আসে তা হল—
রাতে কী খেলে কমে ওজন? ভাত না রুটি?
অনেকেই মনে করেন ওজন বৃদ্ধির পিছনে একটিই কালপ্রিট দায়ী, আর তা হল ভাত। বিশেষ করে রাতে ভাত খেলেই নাকি চক্রবৃদ্ধি হারে বাড়তে শুরু করে ভুঁড়ি। সেই তুলনায় নাকি রুটি খেলে ওজন সেভাবে বাড়ে না। এখানেই শেষ নয়। ওজন ঝরতেও শুরু করে! সত্যিই  কি তাই? রাতে ভাত খেলে কি সত্যিই ওজন বাড়ে? আর রুটি খেলে ওজন কমে?
এই ব্যাপারে পিয়ারলেস হাসপাতালের চিফ ডায়েটিশিয়ান সুদেষ্ণা মৈত্র নাগ জানালেন—
৩০ গ্রাম চাল থেকে এনার্জি মেলে— ১০২.১ ক্যালরি
৩০ গ্রাম আটার রুটিতে ক্যালরি— ৯৬.৪ ক্যালরি
বেশ। এবারে দেখা যাক, প্রোটিন, ফ্যাট ,ভিটামিন এবং খনিজের পরিমাণ ভাত ও রুটিতে কতখানি।
প্রতি ১০০ গ্রাম চালে মেলে—
৮ গ্রাম প্রোটিন, ০.৬ গ্রাম ফ্যাট, ৭৭ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ২০ মিলিগ্রাম ক্যালশিয়াম, ১৩৬ মিলিগ্রাম ফসফরাস, ০.৫ মিলিগ্রাম আয়রন, ফাইবার ২.২ গ্রাম।
প্রতি ১০০ আটায় মেলে—
১৩ গ্রাম প্রোটিন, ১.৩ গ্রাম ফ্যাট,  ৫৬ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট , ৩৪ মিলিগ্রাম ক্যালশিয়াম, ৩৫৭ মিলিগ্রাম ফসফরাস, ৩.৬০ মিলিগ্রাম আয়রন, ফাইবার ১০.৭ গ্রাম।
এবার আসা যাক ওজন বৃদ্ধি সংক্রান্ত বিতর্কে।
উপরিউক্ত পরিসংখ্যান অনুযায়ী সমপরিমাণ ভাত ও রুটির মধ্যে এনার্জিগত বা ক্যালরিগত তেমন কোনও তফাত নেই। তফাত নেই কার্বোহাইড্রেটের মাত্রাতেও। অতএব রাতে ভাতই খান বা রুটি— ওজন একইরকম বাড়বে। তবে হ্যাঁ রুটির গ্লাইসেমিক ইনডেক্স ভাতের তুলনায় কম। গমের রুটির গ্লাইসেমিক ইনডেক্স ৬২ (± ৩)। ভাতের গ্লাইসেমিক ইনডেক্স ৭৩ (± ৪)। অর্থাৎ ভাত খুব দ্রুত বিপাকক্রিয়ায় ভাঙে ও গ্লুকোজ শরীরে মুক্ত করে। রুটিতে ফাইবার থাকায় সুগার মুক্ত হতে বেশি সময় লাগে। ফাইবার থাকায় রুটি খেলে দীর্ঘসময় পেট ভর্তি থাকার অনুভূতি মেলে। দ্রুত খিদে পায় না। অতিরিক্ত খাদ্য খাওয়ারও প্রয়োজন পড়ে না। আর অতিরিক্ত গ্লুকোজ শরীরে ফ্যাট হিসেবে সঞ্চিত হয়, যেখানে ফাইবার ছিবড়ে হিসেবে বেরিয়ে যায়। এই কারণেই অনেকে ওজন কমানোর উপায় হিসেবে খাদ্যতালিকায় রুটি রাখতে চান। তবে প্রয়োজনের অতিরিক্ত রুটির গ্লুকোজ ও কিন্তু শরীরে ফ্যাট হিসেবে জমতে থাকে। তাই ভাত অথবা রুটি দুটি ই পরিমিত পরিমাণে খাওয়া উচিত।
লিখেছেন সুপ্রিয় নায়েক

16th     August,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021