বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
আমরা মেয়েরা
 

কম্যান্ডো ট্রেনার সীমা রাও

সীমা রাও। ভারতের ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’ বললেও তাঁকে কম বলা হয়। ভারতের প্রথম মহিলা কম্যান্ডো ট্রেনার তিনি। তাছাড়াও পেশাগতভাবে ডাক্তার। আরও আছে। ক্রাইসিস অ্যান্ড ট্রমা ম্যানেজমেন্টে এমবিএ করেছেন এই বিস্ময় নারী। এত কিছু করার ইচ্ছা হল কেন? এক সাক্ষাৎকারে সীমা বলেন, পেশাগতভাবে তিনি শুধু ডাক্তার ছিলেন। কিন্তু বিবাহসূত্রে মেজর দীপক রাওয়ের স্ত্রী হওয়ার পরেই জীবনটা বদলে যেতে থাকে। তিনি দেখলেন শুধুমাত্র ডাক্তারি করে তাঁর মন ভরছে না। নিজের প্রিয়জনকে প্রতিনিয়ত যুদ্ধক্ষেত্রে মৃত্যুর মুখোমুখি দাঁড়াতে দেখলে বোধহয় সকলেরই মানসিক একটা পরিবর্তন আসে। সীমারও তেমনই হয়েছিল। তিনিও মনে মনে সমরে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে পড়েন। তবে সরাসরি যুদ্ধক্ষেত্রে উপস্থিত হওয়া হয়তো সকলের বরাতে থাকে না। সীমা নিজেকে একটু অন্য পথে চালনা করলেন তাই। সেনাবাহিনীকে ট্রেনিং দেওয়ার প্রশিক্ষণ নিলেন নিজেই। তারপর সেনাদের যুদ্ধক্ষেত্রে যাওয়ার আগে প্রস্তুত করার কাজে নিযুক্ত হলেন তিনি। এখন মোটামুটি ১৫,০০০ সেনাকে যুদ্ধে যাওয়ার প্রস্তুতি পর্বের ট্রেনিং দেন সীমা। এছাড়া যুদ্ধক্ষেত্রে যে কোনও সমস্যার মোকাবিলা করার জন্যও ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্টে পেশাদারি প্রশিক্ষণও নিয়েছেন তিনি। যদি ভেবে থাকেন তাঁর কাজের প্রসার এখানেই শেষ, তাহলে ভুল করবেন। সীমার কর্মকাণ্ড অসীম। তিনি এক বিশেষ মার্শাল আর্টেও প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। ‘জিত কুনে দো’— মার্শাল আর্টের এই ধরনটি শুরু করেন ব্রুস লি। ভারতে মাত্র দশজন মহিলা এই ধরনের মার্শাল আর্ট জানেন। সীমা তাঁদের অন্যতম। মেয়েরা এখন আকাশ ছুঁয়েছেন। বাঁধা গতে চলে না তাঁদের জীবনগাথা। তবু তারও মধ্যে কিছু মহিলা এমনও আছেন যাঁরা সমগ্র নারীজাতির অনুপ্রেরণা। সীমা তেমনই একজন। প্রকৃত ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’।

13th     February,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
10th     April,   2021