বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
অমৃতকথা
 

কর্মের রহস্য

মানুষ শরীর বাক্য ও মন দ্বারা যাহা কিছু করে তাহাই কর্ম। জীবমাত্রই সকল অবস্থায় সর্বদা কোন-না-কোন কর্ম করে। ‘‘কর্মহীন হইলে শরীরযাত্রাও নির্বাহিত হয় না।’’ শারীরিক ও মানসিক ক্রিয়াই জীবনের লক্ষণ। ‘‘কর্ম না করিয়া কেহ ক্ষণকালও থাকিতে পারে না।’’ যখন মানুষ গভীর নিদ্রায় নিদ্রিত থাকে, তখনও তাহার ভুক্তদ্রব্য-পরিপাক, রক্তসঞ্চালন এবং নিঃশ্বাস-প্রশ্বাস প্রভৃতি দৈহিক ক্রিয়া চলিতে থাকে। ‘‘নিঃশেষে সকল কর্ম ত্যাগ করা কোন জীবের পক্ষেও সম্ভব নয়।’’ জীবনধারণ করিতে হইলে বিরুদ্ধ শক্তির সঙ্গে সর্বদা সংগ্রাম প্রাণিগণের পক্ষে অপরিহার্য। জীব-জগতে জীবনের সঙ্গে মৃত্যুর অবিরত সংগ্রাম চলিতেছে। এই সংগ্রামের অর্থই কর্ম। জীবমাত্রেরই শারীরিক ও মানসিক কার্যাবলীর উদ্দেশ্য বিশ্লেষণ করিলে জানা যায় যে, কোন জীবই কেবলমাত্র জীবনরক্ষার জন্যই সকল কর্ম করে না। অধিকন্তু সে কর্মসহায়ে জ্ঞাত বা অজ্ঞাতসারে চেষ্টা করে তাহার সীমাবদ্ধ অপূর্ণ জীবনের গণ্ডি অতিক্রম করিয়া এক অসীম ও পরিপূর্ণ জীবন লাভ করিতে—সকল অজ্ঞান অভাব ও দুঃখ হইতে মুক্ত হইয়া সকল চাওয়া ও সকল পাওয়ার অবসান ঘটাইতে, —শরীর মন ইন্দ্রিয় ও প্রকৃতির দাসত্ব ত্যাগ করিয়া সম্পূর্ণ স্বাধীন হইতে—সকল বন্ধন দূরে সরাইয়া মুক্তিলাভ করিতে। অতি ক্ষুদ্র পরমাণু-পরিমিত জীব হইতে মানুষ পর্যন্ত সকল জীবই মুক্তিলাভের জন্য সর্বদা কর্ম করিতেছে। মুক্তির অব্যক্ত প্রেরণায় সাধু সৎ কার্য করেন এবং অসাধু অসৎ কার্য করে। সর্ববন্ধনবিমুক্তিই সকল জীবের সকল কর্মের একমাত্র লক্ষ্য। কর্মযোগ মানুষকে কর্মদ্বারা এই লক্ষ্যে উপনীত হইবার পথ দেখায়। কর্মযোগ শিক্ষা দেয়—কর্ম ব্যতীত যখন কাহারও জীবন ধারণের উপায় নাই, তখন এরূপ ভাবে সকলেরই কর্ম করা কর্তব্য যাহাতে সকল বন্ধন হইতে মুক্তিলাভ করা যায়। আত্মজ্ঞান লাভের অনুকূল কর্ম ভিন্ন সকল কর্মই সংস্কার উৎপাদন করিয়া বন্ধনের হেতু হয়। কর্মযোগের রহস্য জানা থাকিলে এই বন্ধন ঘটিতে পারে না। এই কর্ম-কৌশল শিক্ষা প্রদানই কর্মযোগের আদর্শ। ‘‘কর্মের কৌশলই যোগ।’’ কর্মের এই কৌশল জানিতে হইলে সর্বাগ্রে কার্য-কারণ-সম্বন্ধের রহস্য বুঝা আবশ্যক। বিজ্ঞান ও দর্শন শাস্ত্রসমূহ সমস্বরে ঘোষণা করে যে, চেতন-অচেতন এবং স্থূল-সূক্ষ্ম-কারণ জগতের সব-কিছু কার্য-কারণের অচ্ছেদ্য নীতিদ্বারা নিয়ন্ত্রিত। শারীরিক ও মানসিক নির্বিশেষে বিশ্বপ্রকৃতির সকল ক্রিয়া এই অলংঘনীয় নীতি অনুসারে পরিচালিত। এই জগতে কারণ ভিন্ন কোন কার্য হয় না। এক কারণ—সঞ্জাত কার্য আবার অপর কার্যের কারণ হইয়া থাকে। এই কার্য-কারণ-শৃংখল অন্তহীন। এই শিকল হইতে একটি কড়াও অনাবশ্যক বোধে পৃথক করিবার উপায় নাই।
স্বামী সুন্দরানন্দের ‘যোগচতুষ্টয়’ থেকে

4th     September,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021