বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
শিল্প -বাণিজ্য
 

আমদানি শুল্ক কিছুটা কমলেও খুব
বড় হেরফের হবে না সোনার দামে
হতাশ ক্রেতারা

বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী, কলকাতা : এবার বাজেটে সোনা ও রুপোর উপর আমদানি শুল্ক কমাতে হবে, এমনটাই দাবি ছিল। স্বর্ণশিল্পমহলের আশা ছিল, সেই দাবি মেনে নেবে কেন্দ্রীয় সরকার। অবশেষে মুখ তুলে চাইলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। সোনা ও রুপোর উপর আমদানি শুল্ক কিছুটা কমালেন ঠিকই। তাতে খুশিও হলেন স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। কিন্তু এর সঙ্গে যোগ হল কৃষি, পরিকাঠামো ও উন্নয়ন সেস। এই সব করের হিসেব করলে দেখা যাচ্ছে, সোনার দামে বিরাট কোনও হেরফের হচ্ছে না। তাই এত কিছুর পর  হতাশই হলেন সাধারণ ক্রেতারা। 
১০ গ্রাম সোনার দাম ৫৭ হাজার টাকায় পৌঁছেছিল গত কয়েক মাস আগে। এখন তা কিছুটা নীচে নেমে ৫০ হাজারের কাছাকাছি রয়েছে। শিল্পমহলের বক্তব্য ছিল, ১২.৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক চাপানোর কারণে সোনার দাম বাড়ছে। শুল্ক এড়াতে চোরাই পথে সোনা আসছে। তাই সৎভাবে ব্যবসা করতে সমস্যা হচ্ছে। সরকারকে অবৈধ কারবারের সেই রাস্তা বন্ধ করতে হবে। কমাতে হবে আমদানি শুল্ক। এদিন নির্মলা সীতারামন যে ঘোষণা করলেন, তাতে সোনার উপর আমদানি শুল্ক হবে ৭.৫ শতাংশ। এর সঙ্গে যোগ হবে ১০ শতাংশ সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সারচার্জ। তার উপর যোগ হবে ২.৫ শতাংশ কৃষি সেস। অর্থাৎ ১০.৭৫ শতাংশ কর মেটাতে হবে। অর্থাৎ যে ১২.৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক কমানোর আর্জি জানিয়েছিল শিল্পমহল, বাস্তবে তার কিছুটা মিলল। তাতে স্বভাবতই খুশির হাওয়া শিল্পের অন্দরে। 
ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিলের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সোমসুন্দরম পিআর বলেন, বাজেটে যা ঘোষণা হয়েছে, এই সময়ে দাঁড়িয়ে তার প্রয়োজন ছিল। সোনার বাজারে নিশ্চিতভাবে তা অক্সিজেন জোগাবে। পাশাপাশি জেম অ্যান্ড জুয়েলারি এক্সপোর্ট প্রমোশন কাউন্সিল দাবি করেছে, কেন্দ্রের এই পদক্ষেপে ভারত গয়না রপ্তানিতে বিশেষ সুবিধা পাবে। প্রতিযোগিতার বাজারে ব্যবসা করা অনেকটা সহজ হবে। 
কিন্তু ১২.৫ শতাংশ থেকে আমদানি শুল্ক কমিয়ে চার শতাংশ করার দাবি ছিল ব্যবসায়ীদের। সেই আশা পূরণ হল কি? সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডসের সিইও শুভঙ্কর সেন বলেন, সরকার এক ধাক্কায় অনেকটা কর কমাবে, এটা আশা করা যায় না। বরং অর্থমন্ত্রী যে আমাদের দাবি মেনে শুল্ক কমানোর পথে হাঁটলেন, এটাই বড় কথা। হয়তো এরপর ধাপে ধাপে তা কমানো হবে। কারণ সরকারকে রাজস্ব আদায়ের কথাও ভাবতে হবে। অঞ্জলি জুয়েলার্স প্রাইভেট লিমিটেডের ডিরেক্টর অনর্ঘ উত্তীয় চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী যে আত্মনির্ভরতার ডাক দিচ্ছেন, তাতে ইন্ধন দেবে আমদানি শুল্ক কমানোর এই সিদ্ধান্ত। সাধারণ মানুষও সোনায় বিনিয়োগ করার উৎসাহ পাবেন। 
তবে স্বর্ণ শিল্প বাঁচাও কমিটির কার্যনির্বাহী সভাপতি বাবলু দে বলেন, মনে রাখতে হবে, এই করের পাশাপাশি সোনায় তিন শতাংশ জিএসটি মেটাতে হয়। যেহেতু সোনা দামি জিনিস, তাই ৩ শতাংশ জিএসটিও কিন্তু অনেকটা। সরকার যেমন আমাদের একটা দাবিকে গুরুত্ব দিয়েছে, আমরা আশা করব সরকার জিএসটির হার কমানোতেও নজর দেবে। বঙ্গীয় স্বর্ণশিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক টগরচন্দ্র পোদ্দার বলেন, কেন্দ্রের আমদানি শুল্ক কমানোর সিদ্ধান্তে সাময়িক স্বস্তি মিলেছে। কিন্তু যদি সরকার আরও ২.৫ শতাংশ শুল্ক কমাত, তাহলে ক্রেতারা সোনা কিনতে আগ্রহী হতেন। কারণ তাঁদের জন্য তেমন বড় কোনও সুরাহা হল না। 

2nd     February,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
3rd     March,   2021