বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
খেলা
 

বেয়ারস্টোর লড়াকু সেঞ্চুরি, ফের ব্যর্থ শুভমান-হনুমা
ইংল্যান্ডের উপর জাঁকিয়ে
বসেছে টিম ইন্ডিয়া

বার্মিংহাম: চালকের আসনে টিম ইন্ডিয়া। এজবাস্টনে ম্যাচের তৃতীয় দিনে ইংল্যান্ডের ইনিংসকে তিনশোর কমে থামিয়ে দিয়ে ১৩২ রানের লিড নিয়েছিল যশপ্রীত বুমরাহের দল। দিনের শেষে সেটাই দাঁড়িয়েছে ২৫৭ রানে। যার ফলে টেস্টে জাঁকিয়ে বসেছে ভারত। 
ঘরের মাঠে ইংরেজ বাহিনীর ২৮৪ রানে গুটিয়ে যাওয়া মনোবল এক ঝটকায় অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছিল। দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটা ভালো না হলেও ধীরে ধীরে বড় রানের দিকে এগচ্ছে ভারত। টেস্টের তৃতীয় দিনের শেষে ভারতের স্কোর ৩ উইকেটে ১২৫। ক্রিজে রয়েছেন চেতেশ্বর পূজারা (৫০) ও ঋষভ পন্থ (৩০) । শুভমান গিল (৪), হনুমা বিহারি (১১) ও বিরাট কোহলি (২০) ফিরলেও নির্ভরতা দিচ্ছেন পূজারা। স্বভাবসিদ্ধ মেজাজে খেলছেন তিনি। উল্টোদিকে পন্থ যথারীতি আগ্রাসনের পতাকা তুলে ধরছেন। অবিচ্ছন্ন চতুর্থ উইকেটের জুটিতে দু’জনে ৫০ রান যোগ করেও ফেলেছেন। ম্যাচের বাকি আরও দু’দিন। কোচ রাহুল দ্রাবিড় চাইছেন সোমবারও যতক্ষণ সম্ভব ব্যাট করে বেন স্টোকসের দলের উপর রানের পাহাড় চাপাতে। গত বছর চার টেস্টের পর সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল ভারত। এই ম্যাচ জিতলে ব্যবধান আরও বাড়বে।
বেশ কিছুদিন ধরেই টেস্ট ওপেনার হিসেবে শুভমান গিলকে তুলে ধরার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। কিন্তু আস্থার মর্যাদা রাখতে পারছেন না তিনি। প্রথম ইনিংসের ভুল দ্বিতীয় ইনিংসেও করলেন শুভমান। এদিন জেমস অ্যান্ডারসনের ডেলিভারিতে তাঁর খোঁচা জমা পড়ে স্লিপে। একইভাবে মঞ্চ হাতছাড়া করলেন হনুমা বিহারিও। স্টুয়ার্ট ব্রডের বলে তিনি ক্যাচ দিলেন তৃতীয় স্লিপে। বিরাট কোহলিকে দেখাচ্ছিল পুরনো ছন্দে। তৃতীয় বলেই অনবদ্য কভার ড্রাইভে শুরু করেছিলেন। মনে হচ্ছিল, বড় রান স্রেফ সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু, স্টোকসের অসাধারণ ডেলিভারিতে ফিরতে হল তাঁকে। 
তৃতীয় দিনের সকালে ধুঁকতে থাকা ইংল্যান্ডকে অক্সিজেন জুগিয়েছিলেন জনি বেয়ারস্টো। ৮৪ রানে পাঁচ উইকেট নিয়ে শুরু করেছিল হোমটিম। বেয়ারস্টোর নামের পাশে ছিল মাত্র ১২ রান। সেখান থেকে দ্রুত পৌঁছে যান টেস্টে টানা তৃতীয় শতরানে। তাঁর ১০৬ রানের সৌজন্যে ফলো-অনের ভ্রুকুটি এড়ায় ইংল্যান্ড। পৌঁছয় ২৮৪ রানের ভদ্রস্থ স্কোরে। অবশ্য বেশ কয়েকটি ক্যাচ না ফেললে ১৩২ রানের চেয়েও বড় লিড পেতে পারত ভারত। লাঞ্চের আগে ইংল্যান্ড অধিনায়ক বেন স্টোকসের (২৫) ক্যাচ পর পর ফেলেন শার্দূল ঠাকুর ও বুমরাহ। তবে শেষ পর্যন্ত বুমরাহই শরীর ছুড়ে দুরন্ত ক্যাচ নেন স্টোকসের। বোলার ছিলেন শার্দূল। স্টোকস ফেরার পর স্যাম বিলিংসের সঙ্গে ৯২ রানের জুটি গড়েন বেয়ারস্টো। তাঁর কেরিয়ারের ১১তম টেস্ট শতরান আসে ১১৯ বলে, যা চলতি বছরের পঞ্চম। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের শেষ দুই টেস্টেও শতরান করেছিলেন তিনি। সেই ফর্ম দেখা গেল ভারতের বিরুদ্ধেও। তবে কোহলির সঙ্গে ঝামেলার আগে যেখানে তাঁর স্ট্রাইক রেট ছিল ২১, সেখানে স্লেজিংয়ের পর তা দাঁড়ায় ১৫০। বিরাটের সঙ্গে তরজা উদ্দীপ্ত করে তোলে তাঁকে। বেয়ারস্টো মারেন ১৪টি বাউন্ডারি ও দু’টি ছক্কা।
তবে মহম্মদ সামির আউট সুইঙ্গারে খোঁচা দিয়ে তিনি ফেরার পরই তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ইংল্যান্ডের ইনিংস। মহম্মদ সিরাজ ছেঁটে ফেলেন টেলএন্ডারদের। পরপর নেন স্টুয়ার্ট ব্রড, স্যাম বিলিংস ও ম্যাথু পটসের উইকেট। তিনিই ভারতীয় বোলারদের মধ্যে সফলতম। ৬৬ রানের বিনিময়ে ঝুলিতে ভরেন চার উইকেট। বুমরাহ অবশ্য এদিন উইকেট পাননি। তিন উইকেটেই থেমে থাকেন অধিনায়ক। সামিকে সন্তুষ্ট থাকতে হয় দুই উইকেটে। শার্দূল একটি উইকেট পেলেও আক্রমণের জন্য তাঁকেই বেছে নিয়েছিলেন বেয়ারস্টোরা। আর রবীন্দ্র জাদেজা দু’ওভারের বেশি বল করেননি।

তৃতীয় দিনের স্কোর
ভারত প্রথম ইনিংস: ৪১৬।
ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংস (৮৪-৫ থেকে): বেয়ারস্টো ক কোহলি ব সামি ১০৬, স্টোকস ক বুমরাহ ব শার্দূল ২৫, বিলিংস বো সিরাজ ৩৬, ব্রড ক পন্থ ব সিরাজ ১, পটস ক শ্রেয়স ব সিরাজ ১৯, অ্যান্ডারসন অপরাজিত ৬, অতিরিক্ত ৩৫, মোট (৬১.৩ ওভারে) ২৮৪। বোলিং: বুমরাহ ১৯-৩-৬৮-৩, সামি ২২-৪-৭৮-২, সিরাজ ১১.৩-২-৬৬-৪, শার্দূল ৭-০-৪৮-১, জাদেজা ২-০-৩-০।
ভারত দ্বিতীয় ইনিংস: শুভমান ক ক্রলি ব অ্যান্ডারসন ৪, পূজারা ব্যাটিং ৫০, হনুমা ক বেয়ারস্টো ব ব্রড ১১, কোহলি ক রুট ব স্টোকস ২০, পন্থ ব্যাটিং ৩০, অতিরিক্ত ১০, মোট (৪৫ ওভারে, ৩ উইকেটে) ১২৫। উইকেট পতন: ১-৪, ২-৪৩, ৩-৭৫। বোলিং: অ্যান্ডারসন ১৪-৫-২৬-১, ব্রড ১২-১-৩৮-০, পটস ৮-২-২০-০, লিচ ১-০-৫-০, স্টোকস ৭-০-২২-১, রুট ৩-১-৭-০।

4th     July,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ