বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
খেলা
 

সামনে লোকেশের লখনউ, সংকল্পবদ্ধ বিরাট

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কোনওমতে প্রিয় নায়কের দর্শন তো মিলল। কিন্তু মন ভরল না। ভক্তদের হাঁকডাকেও নিরুত্তাপ তিনি। লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিরুদ্ধে বুধবারের এলিমিনেটর ম্যাচ নিয়ে এতটাই মগ্ন বিরাট কোহলি!
ভরদুপুরে তাঁর টানেই সল্টলেকের যাদবপুর ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসের মূল ফটকের সামনে অপেক্ষায় ছিলেন একঝাঁক তরুণ-তরুণী। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর টিমবাস এসে দাঁড়াতেই শুরু হল ‘বিরাট, বিরাট’ চিৎকার। বাসের সামনের দিকের সিটে বসে থাকা কোহলিকে দেখে গর্জন আরও বাড়ল। কিন্তু তিনি যে একেবারেই নির্বিকার। বাস থেকে নামলেন আপন মনে। তারপর কোনওদিকে না তাকিয়েই কিটব্যাগ টানতে টানতে ঢুকে পড়লেন ভিতরে। মনে হল, ভক্তদের আকুতি তাঁর কানেই ঢোকেনি। যেন জেসন হোল্ডার, মহসিন খানদের সামলানোর প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন এখনই! যদিও নেটে বিরাটের ব্যাটিং অদেখাই থাকল ভক্তদের কাছে। জৈব সুরক্ষা বলয়ের কঠোর বিধিনিষেধই ভিলেন। সাদা-সবুজ কাপড়ে ঘেরা মাঠের চারদিক।
তবে বাস থেকে নামার সময় চোয়ালচাপা কোহলির অভিব্যক্তিতে ধরা পড়েছে বাড়তি তাগিদ। শেষ ম্যাচে পুরনো ফর্মের ঝলকানি দেখা গিয়েছে। ইডেনে লোকেশ রাহুলদের বিরুদ্ধেও সেই ছন্দ বজায় রাখতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ তিনি। ভিকে’র পাশাপাশি আরসিবি শিবিরকে স্বস্তি জোগাচ্ছে অধিনায়ক ফাফ ডু’প্লেসির দায়িত্বশীল ব্যাটিং। মিডল অর্ডারে আছেন বিস্ফোরক গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। চাপের মুখে ফিনিশার দীনেশ কার্তিকও সাফল্য পাচ্ছেন। জস হ্যাজেলউড, হার্শল প্যাটেল ও হাসারাঙ্গার মতো বোলাররা ধারালো করেছেন বোলিং আক্রমণকে। আস্থার মর্যাদা রাখছেন বাংলার অলরাউন্ডার শাহবাজ আহমেদও। সব মিলিয়ে তিনবার ফাইনালে উঠেও কাপ না পাওয়ার আপশোস মেটাতে এবার বদ্ধপরিকর ফাফের দলকে।
অবশ্য উল্টোদিকে থাকা লখনউয়ের সঙ্গেও রয়েছে কলকাতার সম্পর্ক। সুপার জায়ান্টসের মেন্টর গৌতম গম্ভীর যে নাইট রাইডার্সের হয়েই বার দুয়েক হাতে তুলেছেন ট্রফি। রাহুলের নেতৃত্বাধীন লখনউয়ের শক্তি বাড়িয়েছেন অলরাউন্ডাররা। ক্রুণাল পান্ডিয়া, জেসন হোল্ডার, মার্কাস স্টোইনিসরা প্রয়োজনের সময় জ্বলে উঠছেন। তবে ব্যাটিংয়ে রাহুল ও কুইন্টন ডি’ককের ওপেনিং জুটিই সবচেয়ে বড় নির্ভরতা। দু’জনে মিলে শেষ ম্যাচে কলকাতার বিরুদ্ধে ২১০ রান তুলে গড়েছেন রেকর্ড। মুশকিল হল, দীপক হুদা বাদে লখনউয়ের মিডল অর্ডার সেভাবে ভরসা জোগাতে পারেনি। আয়ুষ বাদোনি যেমন দুর্দান্ত শুরু করেও দল থেকে বাদ পড়েছেন। মণীশ পাণ্ডে তো একেবারেই ব্যর্থ। তবে এলএসজি’র বোলিংয়ে বাড়তি মাত্রা যোগ করেছেন মহসিন খান। বাঁহাতি এই পেসার কঠিন চ্যালেঞ্জে ফেলবেন কোহলিদের। ডেথ ওভারে আভেশ খানও ভরসা জোগাচ্ছেন ক্যাপ্টেন রাহুলকে। দু’দল এই মরশুমে মাত্র একবারই মুখোমুখি হয়েছে। সেই ম্যাচে অধিনায়ক ডু’প্লেসির দাপটে জিতেছিল আরসিবি, যা মনস্তাত্ত্বিক লড়াইয়ে কিছুটা সুবিধা তাদের।

25th     May,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ