বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
খেলা
 

শাশুড়ি অসুস্থ, সানির
শ্বশুরবাড়িতে বিষণ্ণতা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কানপুর: গ্রিন পার্ক স্টেডিয়াম থেকে মোটর বাইকে মেরেকেটে মিনিট পাঁচেকের পথ। পার্বতী বাগলা রোড ও সারসাইয়া ঘাট রোড পেরিয়ে এক নির্জন গলিতে সেই প্রাসাদোপম বাড়ি। ফলকে লেখা ‘গ্রিন হাউস।’ সুনীল গাভাসকরের শ্বশুরবাড়ি। বাড়ির রূপকার বিএল মেরহোত্রা অর্থাৎ গাভাসকরের শ্বশুরমশাই বছর কুড়ি আগেই পাড়ি দিয়েছেন না ফেরার দেশে। শাশুড়ি পুষ্পারানি শয্যাশায়ী। বয়স নব্বইয়ের ঘরে। তাঁর বার্ধক্যজনিত অসুস্থতার জেরে বিষণ্ণতার চাদর জড়িয়ে রয়েছে বাড়িতে। শহরে সেলেব্রিটি জামাইয়ের উপস্থিতিতেও মেঘ চিরে রোদ উঠছে না। কলিং বেল বাজানোর বেশ খানিকক্ষণ বাদে সামনে হাজির হলেন এক দারোয়ান। বাড়ির কোনও সদস্যকে ডেকে দেওয়ার অনুরোধ জানাতেই তিনি ফের ভিতরে ঢুকলেন। মিনিট পনেরো বাদে ফের খুলল গেট। দারোয়ানের পিছনে বছর কুড়ি-বাইশের ঝকঝকে এক তরুণ। এসেই জানিয়ে দিলেন মিস্টার গাভাসকরকে নিয়ে কথা বলার অধিকার তাঁর নেই। কিন্তু, তিনি কে? উত্তর এল ‘কাজিন’। কার কাজিন, কী নাম, কোনও প্রশ্নেরই জবাব নেই। 
প্রতিবেশীদের কাছে শোনা গেল জামাই গাভাসকরের গল্প। তারকাসুলভ ভাবমূর্তি গেটের বাইরে রেখেই তিনি প্রবেশ করেন ভিতরে। মেশেন আর পাঁচজন জামাইয়ের মতোই। অথচ, এই শ্বশুরবাড়ির শহরেই ব্যাটসম্যান গাভাসকর হয়েছিলেন চরম অপমানিত। ১৯৮৩ সালে ম্যালকম মার্শালের বলে হাত থেকে পড়ে গিয়েছিল ব্যাট। শুনতে হয়েছিল বিদ্রুপ, ‘তেরে পিছে মার্শাল আ রহা হ্যায়।’ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মেরহোত্রা পরিবারের এক শুভানুধ্যায়ী বললেন, ‘ব্যাট ছিটকে যাওয়ার ঘটনায় দুঃখ পেয়েছিলেন জিজাজি। শ্বশুরকে প্রবল আক্ষেপের সঙ্গে সে কথা বলেওছিলেন। আমি সেদিন মাঠে ছিলাম। সবাই গাভাসকরের ব্যাটে বড় রান দেখতে চেয়েছিল। তা পূর্ণ হয়নি।’ গ্রিন পার্কে অবশ্য সুখস্মৃতিও কম নেই সানির। তবু মার্শাল-বিদ্ধ হওয়ার আক্ষেপ আজও ভুলতে পারেননি। চার মেয়ের মধ্যে বড় গাভাসকরের স্ত্রী মার্শেনীল। তিনিও খুব দুঃখ পেয়েছিলেন বাপের বাড়ির শহরে স্বামীর অপমানে। সে তো গেল একটা ব্যতিক্রমী দিক। তার বাইরে কানপুর ও  শ্বশুরবাড়ি সম্পর্কে গাভাসকরের আলাদা আবেগ রয়েছে। তাঁর আগমনে উৎসবের চেহারা নিত এলাকা। কখনও কখনও সানির সঙ্গে আসতেন ভারতীয় দলের অন্য ক্রিকেটাররাও। বেঙ্গসরকার থেকে শাস্ত্রী, কে আসেননি! শ্বশুরবাড়িতে এখনও সাজানো রয়েছে কিংবদন্তির অজস্র ছবি। ধরা রয়েছে কত শত মুহূর্ত। শুধু সময়ের সঙ্গে কিছুটা ধূসর হয়েছে এই বাড়ির চেহারা ও পরিবেশ।
 

29th     November,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021