বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
খেলা
 

মোতেরা মাতিয়ে সেঞ্চুরি ঋষভের

ইংল্যান্ড ২০৫, ভারত ২৯৪/৭

আমেদাবাদ: বল হাতে উল্টো দিক থেকে যিনি দৌড়ে আসছেন, তাঁর ঝুলিতে ছশোর বেশি টেস্ট উইকেট। বিশ্বের সর্বকালের অনত্যম সেরা পেসারও বটে। তাতে কী হয়েছে! কোনও তোয়াক্কাই করলেন না ঋষভ পন্থ। শরীরটা হেলিয়ে দর্শনীয় রিভার্স স্যুইপে বল সোজা পাঠিয়ে দিলেন বাউন্ডারির বাইরে। যা দেখে স্থম্ভিত মোতেরা। বিব্রত বোলার জিমি অ্যান্ডারসনও। 
স্পিনারদের বিরুদ্ধে প্রায়শই রিভার্স স্যুইপ দেখা যায়। কিন্তু অ্যান্ডারসনের মতো তারকা পেসারের বিরুদ্ধে এই ঝুঁকিপূর্ণ শট খেলার সাহস ক’জন দেখাতে পারেন! ঋষভ তাই সত্যিই ব্যতিক্রমী। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পর থেকেই তাঁকে ঘিরে স্বপ্ন দেখা শুরু। কিন্তু প্রত্যাশার বিপুল চাপ নিতে পারেননি ঋষভ। কার্যত হাল ছেড়ে দিয়েছিলেন নির্বাচকরাও। কিন্তু খাদের কিনারা থেকে পন্থের দুরন্ত কামব্যাক হার মানাবে রূপকথাকেও। তারকাদের উত্থান এরকমই হয়। অ্যাডিলেডে গোলাপি টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতের হার এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৬ রানে অল-আউট ঋষভের পুনর্জন্মের মঞ্চ প্রস্তুত করে দিয়েছিল। আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁকে। ডনের দেশে ভারতের ঐতিহাসিক টেস্ট সিরিজ জয়ের অন্যতম কাণ্ডারী ছিলেন তিনি। ব্রিসবেনে দ্বিতীয় ইনিংসে ঋষভের ম্যাচ জেতানো অপরাজিত ৮৯ রানের ইনিংস ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। সিডনিতে ৯৭ কিংবা চিপকে ৯১ রানে থামতে হয়েছিল ভারতীয় উইকেটরক্ষকটিকে। অবশেষে সেই আপসোস দূর হল দেশের মাটিতে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চতুর্থ টেস্টের দ্বিতীয় দিনে জো রুটের বলে ছক্কা হাঁকিয়ে ঋষভ সেঞ্চুরি পূর্ণ করতেই শান্ত সবরমতীতেও আনন্দের ঢেউ ওঠে। ড্রেসিং-রুম থেকে বেরিয়ে করতালিতে সতীর্থকে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি ভারত অধিনায়কও। যে পিচে চেতেশ্বর পূজারা, বিরাট কোহলি, অজিঙ্কা রাহানের মতো তারকারা ব্যর্থ, সেখানেই ইংল্যান্ডের বোলারদের রীতিমতো তুলোধনা করলেন ঋষভ পন্থ। ১১৮ বলে ১০১ রানের ইনিংসে ১৩টি বাউন্ডারি ও ২টি ওভার বাউন্ডারিও রয়েছে ভারতের উইকেটরক্ষকটির। হাফ-সেঞ্চুরি করতে ঋষভের লেগেছিল ৮২ বল। কিন্তু বাকি পঞ্চাশ রান তিনি যোগ করেন মাত্র ৩৩ বলে। এমন এক দুর্দান্ত ইনিংস খেলার পরেও বলতেই হচ্ছে, আরও ধৈর্যশীল হতে হবে ঋষভকে। কারণ, এই বিস্ফোরক ব্যাটিং ১০১ রানে থামার কথা নয়। ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীরা বলতেই পারেন, ‘ইয়ে দিল মাঙ্গে মোর’।
ঋষভ পন্থের উইকেটকিপিং নিয়ে অনেকে প্রশ্ন তোলেন। কিন্তু উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান হিসেবে সব ফরম্যাটে এই মুহূর্তে তিনিই যে বিশ্বসেরা, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। অনেকে অ্যাডাম গিলক্রিস্টের ছায়া দেখতে পাচ্ছেন তাঁর মধ্যে। কে বলতে পারে একদিন গিলিকেও ছাপিয়ে যাবেন না তিনি?
ঋষভ যখন ব্যাট করতে নামেন তখন ভারতের স্কোর ৪ উইকেটে ৮০। ইংল্যান্ড এগিয়ে ১২৫ রানে। আর যখন তিনি মাঠ ছাড়লেন, ভারতের লিড ৫৪ রান। অস্ট্রেলিয়া সফর থেকে ভারতীয় ব্যাটিংয়ের একই ট্রেন্ড অব্যাহত। ব্যর্থ টপ অর্ডার। লোয়ার মিডল অর্ডারের সাফল্যে সুরভিত টিম ইন্ডিয়া। সপ্তম উইকেটে সুন্দরের সঙ্গে ১১৩ রান যোগ করেন ঋষভ। প্রথম ইনিংসে ভারত আপাতত এগিয়ে ৮৯ রানে। এক্ষেত্রে ঋষভের সঙ্গে প্রশংসা করতে হবে সুন্দরেরও। ৬০ রানে ক্রিজে আছেন তিনি। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত করছেন অক্ষর প্যাটেল (অপরাজিত ১১)। রোহিত শর্মা ৪৯ রানে আউট হন। ভারতের স্কোর ৭ উইকেটে ২৯৪। একশোর বেশি রানের লিড নিতে পারলে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ওঠার সম্ভাবনা আরও উজ্জ্বল হবে কোহলিদের।
তবে ভারতের শুরুটা এদিন ভালো হয়নি। লাঞ্চের আগেই একে একে ড্রেসিং-রুমে ফিরে যান চেতেশ্বর পূজারা (১৭), বিরাট কোহলি (০), ও অজিঙ্কা রাহানে (২৭)। স্টোকসের বলে কোহলি কিংবা অ্যান্ডারসনের বিরুদ্ধে রাহানে যেভাবে উইকেট উপহার দিয়েছেন, তা বড়ই বেমানান। এই রোগ সারাতে না পারলে টিম ইন্ডিয়াকে ভবিষ্যতে বড় বিপদে পড়তে হবে।

দ্বিতীয় দিনের স্কোর
প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড -২০৫। 
ভারত (১ উইকেটে ২৪ থেকে) রোহিত এলবিডব্লু বো স্টোকস ৪৯, পূজারা এলবিডব্লু বো লিচ ১৭, কোহলি ক ফোকস বো স্টোকস ০, রাহানে ক স্টোকস বো অ্যান্ডারসন ২৭, ঋষভ ক রুট বো অ্যান্ডারসন ১০১, অশ্বিন ক পোপ বো লিচ ১৩, সুন্দর ব্যাটিং ৬০, অক্ষর ব্যাটিং ১১, অতিরিক্ত ১৬, মোট ৯৪ ওভারে ৭ উইকেটে ২৯৪। উইকেট পতন: ৪০-২, ৪১-৩, ৮০-৪, ১২১-৫, ১৪৬-৬, ২৫৯-৭। বোলিং: অ্যান্ডারসন ২০-১১-৪০-৩, স্টোকস ২২-৬-৭৩-২, লিচ ২৩-৫-৬৬-২, বেস ১৫-১-৫৬-০, রুট ১৪-১-৪৬-০। 

6th     March,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
কিংবদন্তী গৌতম
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
13th     April,   2021