বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে কড়া নিরাপত্তা পুলিসের
টানা কয়েকদিনের ছুটিতে মুর্শিদাবাদের
অধিকাংশ হোটেলেই ‘ঠাঁই নাই’ অবস্থা

 

সংবাদদাতা, লালবাগ: স্বাধীনতা দিবস ও টানা কয়েকদিনের ছুটি থাকায় মুর্শিদাবাদে পর্যটকদের ঢল নামবে। ইতিমধ্যেই পর্যটকরা হোটেল ও লজ বুকিং করেছেন। বিগত কয়েক বছরের সব রেকর্ড ভেঙে এবার ব্যাপক পর্যটক সমাগমের আশায় বুক বেঁধেছেন পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন মহল। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে নবাবের শহরে ছুটি কাটানোর জন্য সপ্তাহখানেক আগে থেকে হোটেলের ঘর বুকিং শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে বড় হোটেলগুলির ঘর বুকিং প্রায় শেষ পর্যায়ে। মাঝারি ও ছোট হোটেলগুলিতে ঘর বুকিং চলছে। আগামী দু’-একদিনের মধ্যে কোনও হোটেলেই ঘর ফাঁকা থাকবে না বলে দাবি হোটেল মালিকদের। ইতিমধ্যেই শহরে নজরদারি, দর্শনীয় স্থান ও গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় পুলিস মোতায়েন করা হয়েছে। হোটেলগুলির রেজিস্টার নিয়মিত পরীক্ষা করা হচ্ছে। বৈধ কাগজপত্র ছাড়া হোটেলে ঘর দেওয়া যাবে না বলে হোটেল কর্তৃপক্ষকে পুলিস প্রশাসন জানিয়ে দিয়েছে। 
জেলার অতিরিক্ত পুলিস সুপার(লালবাগ) তন্ময় সরকার বলেন, স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বহু পর্যটক মুর্শিদাবাদে আসবেন। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে কয়েকদিন আগে থেকেই শহরের বিভিন্ন প্রান্তে নজরদারি চলছে। হোটেলগুলিতে রেজিস্টার ঠিকমতো মানা হচ্ছে কিনা সেদিকে নজর রাখা হচ্ছে। স্বাধীনতা দিবসে দর্শনীয় স্থানগুলির পাশাপাশি শহরজুড়ে ট্রাফিক পুলিসের পেট্রলিং চলবে। হাজারদুয়ারির মূল গেটের সামনে মেটাল ডিটেক্টরে চেকিং চলবে। 
করোনা মহামারীর জেরে গত দু’বছর ধরে মুর্শিদাবাদের পর্যটন শিল্প ধুঁকছে। পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন পেশার মানুষজন কোনওরকমে তাঁদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে পেরেছেন। দু’বছর করোনার ধাক্কা সামলে গতবছর ২৫ ডিসেম্বর, বড়দিন থেকে পর্যটক সমাগম হতে শুরু করে। কিন্তু করোনার প্রকোপ বাড়তেই হাজারদুয়ারি প্যালেস মিউজিয়াম সহ দর্শনীয় স্থানগুলি পর্যটকশূন্য হয়ে পড়ে। পরবর্তীতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় অল্প সংখ্যায় পর্যটক আসতে শুরু করেন। 
ইদুলফিতর ও ইদুজ্জোহা উপলক্ষে দিনকয়েক মুর্শিদাবাদে পর্যটকদের ভিড় হয়। অবশেষে পুজোর মরশুমের আগে মহরম ও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গত কয়েকদিন ধরে পর্যটক সমাগম হচ্ছে। স্বাধীনতা দিবসের আগে শনি, রবিবার পড়ায় টানা তিনদিনের ছুটি রয়েছে। আর তাতেই চাঙ্গা হতে শুরু করেছে নবাবের জেলার পর্যটন শিল্প। 
এক হোটেল মালিক বলেন, করোনার জন্য এখানকার হোটেল ব্যবসা প্রায় বন্ধ হতে বসেছিল। গত কয়েকদিনে ভালো ভিড় হচ্ছে। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ইতিমধ্যেই সব ঘর বুক হয়ে গিয়েছে। শহরের এক ব্যবসায়ী বলেন, এখানকার ব্যবসা মূলত পর্যটক নির্ভর। মহরমের দিন থেকে প্রচুর পর্যটক আসছেন। মুর্শিদাবাদ সিটি ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক স্বপন ভট্টাচার্য বলেন, প্রতিদিন প্রচুর পর্যটক আসছেন। পুজোর আগে পর্যটক সমাগমে ব্যবসায়ী সহ বিভিন্ন পেশার মানুষ কিছুটা হলেও অক্সিজেন পেলেন।

12th     August,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ