বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

বাঙালি মাওবাদী নেত্রীর খোঁজে হন্যে
এনআইএ, ৫ লক্ষ টাকা পুরস্কার ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কোথাও তাঁর পরিচয় নির্মলা বিশ্বাস হিসেবে। আবার কোথাও সংগঠনে তাঁর নাম দেবী বিশ্বাস। এক-দুটি নয়, অন্তত ছ’টি এমন নাম রয়েছে তাঁর। নিজের পরিচয় গোপন রাখতেই এতগুলি নাম নিয়েছিলেন নির্মলা। আদতে নিষিদ্ধ মাওবাদী সংগঠনের মহিলা অপারেশনাল স্কোয়াডের বড় দায়িত্বে ছিলেন তিনি। অসম ও পশ্চিমবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় নাশকতার ছক কষেছেন জঙ্গলে বসে। সেই সঙ্গে গ্রামে গ্রামে মহিলাদের মগজ ধোলাই চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ। ডাকাবুকো এই মহিলা নেত্রীকে এখন হন্যে হয়ে খুঁজছেন জাতীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা।  পলাতক এই মাও নেত্রীর নামে পাঁচ লাখ টাকা পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছে। নির্মলার এক সহযোগী আমিরুদ্দিনের বিরুদ্ধেও একই টাকার পুরস্কার রয়েছে বলে খবর। মার্চ মাসে অসমের ধুবড়ি থেকে ধরা পড়েন মাওবাদীদের শীর্ষ নেতা অরুণকুমার ভট্টাচার্য ওরফে কাঞ্চনদা। পরে তাঁর বেশ কয়েকজন সহযোগী গ্রেপ্তার হয়। জানা যায়, অসমে বসে মাওবাদী কার্যকলাপ চালাচ্ছিলেন তাঁরা। সেখানে বৈঠক করতে যান পশ্চিমবঙ্গে মাও সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত নেতানেত্রীরাও। অসম ও  পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় মাওবাদী সংগঠন ছড়িয়ে দেওয়াই ছিল তাঁদের লক্ষ্য। পরে এই ঘটনার তদন্তভার যায় জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা বা এনআইএর হাতে।  কেন্দ্রীয় এই সংস্থা কাঞ্চনদাকে জেরা করে জানতে পারে, গ্রামে গ্রামে মহিলাদের মগজ ঝোলাই করে সংগঠন বাড়ানোর চেষ্টা হচ্ছিল। সেই সঙ্গে মহিলাদের নিয়ে অপারেশনাল স্কোয়াড তৈরি ছিল তাঁদের লক্ষ্য। যাতে মহিলাদের দিয়ে বড় ধরনের নাশকতা চালানো যায়। এর দায়িত্ব রয়েছেন চাকদহের কালিপুরের বাসিন্দা নির্মলা ওরফে দেবী। ঘটনাচক্রে তিনি জামিনে থাকা মাও নেতা গৌর চক্রবর্তীর শ্যালিকা বলে পরিচিত। এনআইএ জেনেছে, দীর্ঘ তেরো থেকে চোদ্দ বছর তিনি সংগঠনের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন এই নেত্রী। বাম জমানায় জঙ্গলমহলের বিভিন্ন জায়গায় যখন মাওবাদীদের দাপট তুঙ্গে, সেই সময় তিনি এখানে কাজ করেছেন। মূলত মহিলা স্কোয়াড দেখার দায়িত্ব ছিল তাঁর। সূত্রের খবর ছত্তিশগড়ে মাওবাদীদের ডেরায় তাঁর আগ্নেয়াস্ত্র চালানোর প্রশিক্ষণ হয়েছে। যে কোনও ধরনের আগ্নেয়াস্ত্র চালাতে তিনি অত্যন্ত দক্ষ।  কিষেণজির মৃত্যুর পর জঙ্গলমহলে মাওবাদীদের সংগঠন ভেঙে যায়। এই সময় ভিন রাজ্যে পালিয়ে যান নির্মলা। বিহার ও ঝাড়খণ্ডে সংগঠনের হয়ে কাজ করছিলেন। এখানে আসতেন কাঞ্চনদা। তিনি অসমে বসে মাওবাদীদের সংগঠন তৈরির কাজে হাত দেন। এরপর তাঁর সঙ্গে চলে আসেন নির্মলা। অসমের আদিবাসী এলাকায় কাজ শুরু করেন নির্মলা।

25th     May,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ