বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

বন সংরক্ষণ কমিটিতে নাম
তোলার দাবি, বিষ্ণুপুরে ধর্না

সংবাদদাতা, বিষ্ণুপুর: বন পাহারা দিলেও সংরক্ষণ কমিটিতে নাম তোলা হয়নি। তাই বনদপ্তরের দেওয়া ৬৮ লক্ষ টাকা শেয়ার মানির ভাগ থেকে বঞ্চিত হবেন। এই আশঙ্কায় সোমবার বিষ্ণুপুরের বাসুদেবপুর ২নম্বর ক্যাম্প এলাকার বাসিন্দারা ডিএফও অফিসে ধর্নায় বসেন। এছাড়াও একই ইস্যুতে এদিন তাঁরা বিষ্ণুপুরের বিডিও ও মহকুমা শাসকের কাছে লিখিত দাবিপত্র জমা দেন। বনদপ্তরের বিষ্ণুপুর পাঞ্চেত ডিভিশনের আধিকারিক সত্যজিৎ রায় বলেন, বাসুদেবপুর ২নম্বর ক্যাম্প এলাকার বাসিন্দারা এদিন বন সংরক্ষণ কমিটিতে নাম নথিভুক্তিকরণের দাবিতে এসেছিলেন। কোভিডের কারণে বর্তমানে সংরক্ষণ কমিটির বার্ষিক সভা বন্ধ রয়েছে। আগামী দিনে সভায় তা নিয়ে আলোচনার পর পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। দপ্তর থেকে প্রাপ্ত শেয়ারমানির টাকা আপাতত বিলি করতে নিষেধ করা হয়েছে। 
স্থানীয় খড়িকাশুলি গ্রামের বাসিন্দা মইদুল ইসলাম মল্লিক বলেন, প্রায় ১৪বছর ধরে বনপাহারা দিলেও আমাদের নাম তোলা হচ্ছে না। বনদপ্তরের আধিকারিকদের বারবার বলার পরেও কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।  বর্তমানে বনদপ্তরের পক্ষ থেকে যে শেয়ারমানি দেওয়া হয়েছে, তা যাতে আমরা পাই সেই দাবিতে এদিন আমরা প্রায় ১৫০ জন ধর্না দিয়েছি। 
ওই বন সুরক্ষা কমিটির সম্পাদক সুনীল হালদার বলেন, বন সুরক্ষা কমিটি প্রথম গঠনের সময় প্রত্যেকের পরিবারের প্রধানের নাম নথিভুক্ত করা হয়। তাতে বর্তমানে মোট ১৯৬জন সদস্য রয়েছেন। পরবর্তীকালে বহু পরিবার ভাগ হয়েছে। এখন তাঁরা নতুন করে কমিটিতে ঢোকার জন্য আবেদন জানিয়েছেন।  চলতি বছরের জুন মাস থেকে তাঁরা বনপাহারাও দিচ্ছেন। কিন্তু, কমিটিতে নাম নথিভুক্ত করার জন্য নির্দিষ্ট নিয়ম রয়েছে। তা রেজ্যুলিউশন করে বনদপ্তরে পাঠাতে হয়। সেখান থেকে অনুমতি পেলে তবেই তা গ্রাহ্য হয়। সেই প্রক্রিয়া চলছে। তা এখনও সম্পূর্ণ হয়নি।  
স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০০৮ সালে খড়িকাশুলি, বেনাচাপড়া, ২নম্বর বাসুদেবপুর ক্যাম্প, শিয়ালকোন্দা ও  ঘোলারডাঙা গ্রাম নিয়ে একটি বনসুরক্ষা কমিটি গঠন করা হয়। তাতে মোট ১৯৬জন সদস্য রয়েছেন। তাঁরা বন পাহারা দেন। বিনিময়ে জঙ্গলের গাছ বিক্রির লভ্যাংশ তাঁরা পান। বাম আমলে কমিটির শেয়ার ছিল ২৫শতাংশ। পরবর্তীকালে মা মাটি মানুষের সরকার প্রতিষ্ঠার পর জঙ্গলের উপর স্থানীয়দের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে লভ্যাংশ বাড়িয়ে ৪০শতাংশ করা হয়। তাই এলাকায় গাছ বিক্রি হলে বাসিন্দারা মোটা টাকা হাতে পান। তাতে বনসুরক্ষায় তাঁদের উৎসাহ বাড়ে। সম্প্রতি ২নম্বর বাসুদেবপুর বনসুরক্ষা কমিটি ৬৮লক্ষ টাকা লভ্যাংশ বনদপ্তরের কাছ থেকে পায়। কিন্তু, তালিকায় নাম না থাকায় শেয়ারমানি থেকে বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কায় এলাকার বিভিন্ন গ্রামের শতাধিক বাসিন্দা একজোট হয়ে এদিন ডিএফও অফিসে ধর্না দেন। তাঁরা অবিলম্বে নাম নথিভুক্ত করার দাবি জানিয়েছেন।

18th     January,   2022
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ