বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

একবছর আগে ভোটার তালিকার
কাজ করা ‘ডিও’-রা ভাতা পাননি, ক্ষোভ
ফের নতুন ভোটার তালিকার কাজ শুরু

সংবাদদাতা, পুরুলিয়া: একবছর আগে পুরুলিয়া জেলায় ভোটার তালিকায় নতুন নাম তোলা ও সংশোধনের কাজ করে এখনও প্রাপ্য ভাতা পাননি ‘ডিও’-রা। বিষয়টি তাঁরা মৌখিকভাবে ব্লক আধিকারিকদের জানিয়েছেন। চলতি বছরে ফের নতুন করে ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজ শুরু হলেও পুরনো টাকা না পাওয়ায় তাঁরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। জেলা নির্বাচন দপ্তর ও জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ১ নভেম্বর থেকে ভোটার তালিকায় নতুন নাম তোলা, সংশোধন এবং বিয়োজনের কাজ শুরু হয়েছে। এই কাজ চলবে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রতিটি বুথে ডিও এবং বুথ লেবেল অফিসার বা বিএলওরা এই কাজ করেন। প্রাথমিক শিক্ষকদের একটা বড় অংশ বিভিন্ন বুথে ডিওর কাজে যুক্ত হন। প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময়ের পাশাপাশি শনিবার ও রবিবার স্পেশাল ক্যাম্পেনেরও ব্যবস্থা করেছে নির্বাচন দপ্তর। 
জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, পুরুলিয়া জেলায় ন’টি বিধানসভা কেন্দ্র মিলিয়ে প্রায় ২৪৯০টি বুথ রয়েছে। অধিকাংশ জায়গায় প্রতিটি বুথে একজন করে ডিও দায়িত্বে থাকার কথা থাকলেও কিছু ক্ষেত্রে ডিওদের একাধিক বুথের দয়িত্বও দেওয়া হয়। প্রাথমিক শিক্ষকদের একাংশকে ‘ডিও’ হিসেবে নিযুক্ত করে নির্বাচন দপ্তর। একাধিক সময় প্রাথমিক শিক্ষকরা ওই দায়িত্ব থেকে অব্যাহতির দাবিতে আন্দোলনও করেছেন। এমনকী বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। গত বছরেও পুরুলিয়া জেলায় ভোটার তালিকায় নতুন নাম তোলা এবং সংশোধন-বিয়োজনের কাজ শুরুর সম঩য়েও আগের বারের কাজের টাকা তাঁদের মেটানো হয়নি বলে জেলাশাসকের দ্বারস্থ হয়েছিলেন প্রাথমিক শিক্ষকদের একাংশ। একইভাবে এবারও গত বছরের কাজের ভাতা দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।পুরুলিয়া শহর, মানবাজার, রঘুনাথপুরের প্রাথমিক শিক্ষকদের একাংশ জানান, ডিওর কাজের জন্য মাসে মাত্র ৭০০ টাকা ভাতা দেয় নির্বাচন দপ্তর। গত বছরের কাজের জন্য সেই সামান্য টাকাও এখনও পর্যন্ত দেওয়া হয়নি। কোনও অজানা কারণে ডিওদের টাকা দেওয়া হয়নি। এবিষয়ে ব্লক প্রশাসন থেকে শুরু করে নির্বাচন দপ্তরের আধিকারিকরা প্রত্যেকেই বারবার শুধু আশ্বাস দিয়েছেন। ফের কাজ শুরু করা হয়েছে। কবে প্রাপ্য ভাতাটুকু পাওয়া যাবে কেউ বলতে পারছেন না। তবে ফি বছর প্রাপ্য ভাতার জন্য কেন সরব হতে হবে তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন প্রাথমিক শিক্ষকদের একাংশ। এবিষয়ে মানবাজার ১ ব্লকের বিডিও মনোজকুমার পাহাড়ী বলেন, ডিওদের গত বছরের ভাতা বাকি আছে একথা ঠিক। তবে জেলা থেকে এখনও টাকা আসেনি। টাকা এলেই ডিওদের তা দিয়ে দেওয়া হবে। রঘুনাথপুর ২ ব্লকের বিডিও অনমিত্র সোম বলেন, টাকা জেলাতে থেকে না এলে আমাদের কিছু করার নেই। টাকা না আসায় আমরা টাকা দিতে পারিনি। পুরুলিয়া ১ ব্লকের বিডিও অনিরুদ্ধ ঘোষ বলেন, ডিওদের ভাতা নিয়ে সমস্যা কিছু নেই। ডিওদের ভাতা তো একবছর পরেই দেওয়া হয়। টাকা এলেই দিয়ে দেওয়া হবে। অন্যদিকে এবিষয়ে পুরুলিয়ার ওসি ইলেকশন দীপ ভাদুড়ি বলেন, গতবছরের টাকা দেওয়া হয়েছে কিনা তা বিডিওরা ভালো বলতে পারবেন। ডিওদের ভাতা দেওয়ার বিষয়টি বিডিওরা দেখাশুনা  করেন। তবে সম্ভবত এখনও গতবছরের টাকা দেওয়া হয়নি। দ্রুত ওই বকেয়া ভাতা ডিওদের দিয়ে দেওয়া হবে। 

30th     November,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ