বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

২০ বছর বয়সে মাঝারি পণ্যবাহী গাড়ি
চালানোর লাইসেন্স কীভাবে, উঠছে প্রশ্ন

সংবাদদাতা, রানাঘাট: মাঝারি পণ্যবাহী গাড়ির লাইসেন্সের জন্য চালকের ন্যূনতম বয়স ২১ বছর হওয়া বাধ্যতামূলক। তা না হলে ওই ধরনের গাড়ি চালানোর লাইসেন্সের জন্য আবেদন করা যায় না। অথচ হাঁসখালিতে ভয়াবহ দুর্ঘটনার শিকার শবযাত্রীবাহী গাড়ি চালক প্রসেনজিৎ দাসের বয়স ছিল ২০বছর। তাই তাঁর বৈধ লাইসেন্স ছিল কি না তা নিয়ে সংশয়ের সৃষ্টি হয়েছে। আর যদি লাইসেন্স থাকে তাহলে কীভাবে তা পেল, তা তদন্তকারীরা খতিয়ে দেখছেন। আজ, মঙ্গলবার দুর্ঘটনার তদন্তে ফুলবাড়ি আসছে ফরেনসিক টিম। দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে পুলিসের প্রাথমিক তদন্তে বেপরোয়া গাড়ি চালানোর তথ্যই উঠে এসেছে। প্রসঙ্গত, শনিবার রাতে বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানোয় ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। তার জেরে ১৭জনের মৃত্যু হয়েছে। রানাঘাট জেলা পুলিসের এক কর্তা বলেন, দুর্ঘটনার পর দু’টি গাড়ি আটক করা হয়েছে। তদন্তে প্রাথমিকভাবে দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে বেপরোয়া গাড়ি চালানো ও চালকের মদ্যপানের বিষয়টি উঠে এসেছে। তবে ২১ বছর বয়স না হলেও পণ্যবাহী গাড়ি চালানোর লাইসেন্স চালক পেয়েছিল কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আর পেলেও কীভাবে পেল, সেটাও তদন্ত সাপেক্ষ ব্যাপার। 
জেলা পরিবহণ দপ্তরের এক কর্তা বলেন, ২১ বছর বয়স না হলে কখনোই ওই লাইসেন্স পাওয়ার কথা নয়। তবে অনেক সময় ব্যক্তিগত গাড়ির লাইসেন্স সঙ্গে রেখেই পণ্যবাহী গাড়ি চালায় চালকরা। হাঁসখালিতে দুর্ঘটনাগ্রস্ত ওই গাড়ির চালকের লাইসেন্সের বিষয়ে পুলিসের তরফে এখনও কোনও রিপোর্ট আমাদের কাছে জানতে চাওয়া হয়নি। তবে দুর্ঘটনা এড়াতে গাড়ির মালিকদের আরও সতর্ক থাকা প্রয়োজন। চালকের হাতে গাড়ি তুলে দেওয়ার আগে অবশ্যই লাইসেন্স যাচাই করা দরকার।
প্রসঙ্গত, শনিবার গভীর রাতে দত্তপুলিয়া হয়ে বগুলা-কৃষ্ণনগর রাজ্য সড়ক ধরতেই শবযাত্রীদের গাড়িটি গতি বাড়তে থাকে। বারবার সতর্ক করা সত্ত্বেও চালক গাড়ির গতি কমায়নি। তার জেরে ফুলবাড়ির ফুটবল খেলার মাঠ লাগোয়া এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা পাথর বোঝাই লরিতে গিয়ে ধাক্কা মারে। তাতে ১৭জনের মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা পরও তদন্তে ফরেনসিক দল না আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ফুলবাড়ির বাসিন্দারা। স্থানীয় বাসিন্দা আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আগে এই ধরনের দুর্ঘটনায় তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহের জন্য ফরেনসিক টিমকে তৎপরতার সঙ্গে কাজ করতে দেখা যায়। কিন্তু একসঙ্গে ১৭জনের মৃত্যুর পর দেশের প্রধানমন্ত্রী, রাজ্যপাল, মুখ্যমন্ত্রী প্রত্যেকেই শোক প্রকাশ করেছেন। অথচ তদন্তের কাজ চলছে ঢিমেতালে। রবিবার বিকেলের মধ্যে দুর্ঘটনায় মৃতদের ময়নাতদন্ত হলেও মৃত ভাস্কর মণ্ডলের(২১) দেহ সোমবার পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, ওইদিন মৃত যুবকের পরিবারের তরফে কেউ দেহ নিতে আসেননি। সেকারণে দেরিতে তাঁর দেহ দেওয়া হয়েছে। যুবকের বাড়ি চাকদহের লালপুর এলাকায়। এছাড়া  বীরনগর পুরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের চণ্ডীতলার বাসিন্দা অশোকা রায়ের(৩৫) দেহ ওই দিন সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরতেই এলাকার শোকের ছায়া নামে। মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, অশোকাদেবী সৎকারের জন্য নিয়ে যাওয়া বৃদ্ধার নাতনি। ভাস্কর বৃদ্ধার আত্মীয়।

30th     November,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021