বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

বৃন্দাবনের লীলা অনুযায়ী দুর্গাপুজো
হচ্ছে নবদ্বীপের বৈষ্ণবীয় আশ্রমে 

সমীর সাহা, নবদ্বীপ : নবদ্বীপের বৈষ্ণবীয় আশ্রমে বছরভর রাধাকৃষ্ণ, নিতাই- গৌরের সেবা পুজো করা হলেও দুর্গাপুজোর সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী ও দশমী এই চারদিন প্রথা মেনে দুর্গা মায়েরও আরাধনা করা হয়। দূরদূরান্ত থেকে ভিড় জমান ভক্তরা। তবে এবার করোনা পরিস্থিতিতে সবরকমভাবে সতর্ক থাকার বার্তা দিচ্ছে আশ্রম কর্তৃপক্ষ।  
প্রাচীন রীতি মেনে চিত্রপটে দুর্গাপুজো অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে নবদ্বীপের রাধারমণ বাগ বা সমাজবাড়ি আশ্রমে। প্রায় ১১৮ বছরের বেশি সময় ধরে এই আশ্রমে পুজো হচ্ছে। প্রাচীন এই চিত্রপটে দেবীর পুজো শুরু করেছিলেন রাধারমণ চরণদাস বাবাজি মহারাজ। সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী এবং দশমী এই চারদিন এখানে পুজো হয়। পুজোতে নৈবেদ্য, ফলমূল, খিচুড়ি, মিষ্টি প্রভৃতি ভোগ নিবেদন করা হয়। তবে দশমীতে দেবীর উদ্দেশে পাকাল ভোগ সহ নানা রকমের ভাজা, মিষ্টি ইত্যাদি নিবেদন করা হয়। আশ্রমের অধ্যক্ষ ঠাকুরকৃষ্ণ দাসবাবাজি মহারাজ বলেন, বৃন্দাবনের লীলা অনুযায়ী এই পুজো হয়ে আসছে। সমস্ত ভোগ নারায়ণ শিলাকে নিবেদন করার পর দেবীকে তা নিবেদন করা হয়। এছাড়া প্রথা মেনে দেবী দুর্গাকে পুজোর চারদিন পুরীর জগন্নাথদেবের মহাপ্রসাদ ভোগ দেওয়া হয়ে থাকে।
অন্যদিকে ঐতিহ্য মেনে হচ্ছে শতাব্দী প্রাচীন রাম গোবিন্দ রোডের ভট্টাচার্য বাড়ির রাজরাজেশ্বরী মাতার পুজো। সাবেকি মাটির চালযুক্ত একচালা প্রতিমা। দেবীর বাহন এখানে ঘোড়ামুখী সিংহ। প্রথা মেনে প্রতিদিন দেবীকে কোনওদিন অন্ন, কোনওদিন খিচুড়ি, কোনও দিন পুষ্পান্ন ভোগ দেওয়া হচ্ছে। তবে প্রতিদিনই সন্ধ্যায় লুচি, সুজি, মিষ্টি ভোগ নিবেদন করা হয়। পরিবারের বর্তমান সদস্য অতনু ভট্টাচার্য বলেন, দেবীকে ১৫টি পরাতে ভোগ নিবেদন করা হয়। অর্থাৎ ১৫টি থালায় ভোগ দেওয়া রীতি আছে। দেবীর দশমী পুজোর পর ঐতিহ্য মেনে অপরাজিতা পুজো হয়ে আসছে। বেহারা কাঁধে চেপে আগে দশমীর দিন দেবীকে বিসর্জন দেওয়া হতো। এখন গাড়িতে করে ভাগীরথী নদীতে বিসর্জন দেওয়া হয়। তবে কোভিড সতর্কতার কারণে এবছরও পুজোর প্রসাদ বিতরণ বন্ধ রাখা হয়েছে।
বড়ালঘাটের কংসবণিকদের বাড়ির পুজো শুরু হয়েছিল প্রায় তিনশো বছর আগে বাংলাদেশের ফরিদপুরে। পরবর্তীতে এই পুজো শরিকি ভাগ হয়ে নবদ্বীপে চলে আসে। সাবেকি একচালার বাংলা প্রতিমা। এখানে মূর্তির একটা বিশেষত্ব আছে। অন্য সব প্রতিমায় লক্ষ্মীর সঙ্গে গণেশ, সরস্বতীর পাশে কার্তিকের অবস্থান থাকলেও এই বাড়িতে লক্ষ্মী-সরস্বতী গণেশ ও কার্তিকের অবস্থান একটু ভিন্ন, অর্থাৎ বিপরীতমুখী। সরস্বতী সঙ্গে গণেশ, লক্ষ্মীর পাশে কার্তিকের অবস্থান। পরিবারের এক সদস্য গণেশ কংসবণিক বলেন, এখানে ৭৩ বছর ধরে পুজো হয়ে আসছে। আমাদের প্রতিমার ভোগ হিসাবে কেবল মাত্র নৈবেদ্য, ফলমূল, মিষ্টি ইত্যাদি নিবেদন করা হয়। 

12th     October,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021