বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

কৃষকদের ডাকা ভারত বন্঩ধে মিশ্র প্রভাব
জেলায় জেলায় মিছিল, অবরোধ

নিজস্ব প্রতিনিধি ও সংবাদদাতা: কৃষক সংগঠনের ডাকা ভারত বন্‌঩ধে মিশ্র প্রভাব পড়ল বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, নদীয়া ও আরামবাগে। কেন্দ্রীয় সরকারের তিনটি কালা কৃষি আইন এবং জনবিরোধী বিদ্যুৎ বিল বাতিলের দাবিতে বাম ও এসইউসির বিভিন্ন কৃষক সংগঠন বন্‌঩ধের ডাক দেয়। তা সফল করতে সোমবার রাস্তায় নামেন বাম কর্মীরা। যদিও বন্‌ধের প্রভাব পড়েনি বলে দাবি তৃণমূলের।বাঁকুড়ায় এদিন সরকারি বাস চললেও অধিকাংশ বেসরকারি বাস রাস্তায় নামেনি। তবে বাঁকুড়া শহরের বাজার ছিল স্বাভাবিক। বড়জোড়া, বেলিয়াতোড় প্রভৃতি এলাকায় রাস্তা অবরোধ করেন বামকর্মীরা। এছাড়া বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ, মিছিল করা হয়। বিভিন্ন ব্যাঙ্ক, প্রতিষ্ঠানের সামনে বিক্ষোভ দেখান কর্মীরা। পরে অবশ্য ব্যাঙ্কগুলি খুলে যায়। সিপিএমের বাঁকুড়া জেলা সম্পাদক অজিত পতি বলেন, এদিন বন্‌ধ সফল হয়েছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রের মানুষ সাড়া দিয়েছেন। বাস চলেনি। শ্রমিকরাও কাজে যোগ দেননি।তৃণমূলের বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি তথা বিধায়ক অলোক মুখোপাধ্যায় বলেন, এদিন শিল্পাঞ্চল স্বাভাবিক ছিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারে কোনও মানুষ বন্‌ধ সমর্থন করেন না।
এদিন পুরুলিয়া জেলাজুড়েও বন্‌ধ সফল করতে পিকেটিং ও মিছিল করা হয়। লালপুর মোড়ে এসইউসির কৃষক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা সকা঩লে মিছিল করেন। পরে দু’ঘন্টার বেশি সময় ধরে জাতীয় সড়ক কবরোধ করা হয়। রঘুনাথপুর শহরেও এলআইসি অফিস চত্বর থেকে মিছিল করে এসইউসি। সেই মিছিল ক্ষুদিরাম চক, সিনেমা হল মোড় হয়ে দলীয় অফিসে এসে শেষ হয়। পুরুলিয়া শহরেও বামেদের কৃষক সংগঠন মিছিল করে। এছাড়াও আড়ষা, বাঘমুণ্ডির সুইসা মার্কেট, ঝালদা শহর, কোটশিলা বাজার, সাঁতুড়ির মধুকুণ্ডা স্টেশন বাজারে মিছিল ও পিকেটিং হয়। এসইউসির জেলা সম্পাদক অসিত ভট্টাচার্য বলেন, কেন্দ্রের কালা কৃষি ও বিদ্যুৎ নীতির বিরুদ্ধে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার ডাকা ভারত বন্‌ধে সর্বত্র ভালো সাড়া পাওয়া গিয়েছে।নদীয়া জেলায় অবশ্য বন্‌ধের উল্লেখযোগ্য প্রভাব পড়েনি। সকাল থেকেই জেলাসদর কৃষ্ণনগর, রানাঘাট, শান্তিপুর, নবদ্বীপ, করিমপুর চাপড়া ইত্যাদি এলাকায় জনজীবন স্বাভাবিক ছিল। কৃষ্ণনগর-শিয়ালদহ রেল শাখায় ট্রেন চলাচল ছিল স্বাভাবিক। যদিও বন্‌঩ধের সমর্থনে সকালে বিভিন্ন শহরে মিছিল বের হয়। পলাশীতে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অল্প সময়ের জন্য অবরোধ করে বন্‌ধ সমর্থকরা। এদিন রাস্তায় সরকারি বাস চলাচল করলেও অধিকাংশ বেসরকারি বাসের দেখা মেলেনি। ফলে রানাঘাট-কালনা, কৃষ্ণনগর-নবদ্বীপ, রানাঘাট-কৃষ্ণনগর ইত্যাদি রুটে বেসরকারি বাস না পেয়ে সমস্যায় পড়েন যাত্রীরা।
বন্‌঩ধের কোনও প্রভাব পড়েনি আরামবাগ মহকুমায়। খোলা ছিল দোকানপাট। অফিস, আদালতও স্বাভাবিক ছিল। সব রুটের সরকারি ও বেসরকারি বাস চলাচল স্বাভাবিক ছিল। তবে আরামবাগ মহকুমার বিভিন্ন ব্লকে এদিন পথ অবরোধ ও মিছিল করেন বাম সংগঠনের সদস্যরা। সকালের দিকে  আরামবাগ শহরের বাসস্ট্যান্ড মোড়ে পথ অবরোধ ও মিছিলের জন্য বেশ কিছুক্ষণ বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল। একইভাবে গোঘাটের কামারপুকুর চটি, বেঙ্গাই মোড়, খানাকুলের ছত্রসাল, রাজহাটি ও পুরশুড়ার বাজার মোড়ে পথ অবরোধ করে বাম সংগঠনের সদস্যরা। সাময়িক যান চলাচল বিঘ্ন হলেও এদিনের বন্‌ধে কোনও প্রভাব পড়েনি।

28th     September,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021