বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের
জেরেই জামালপুরে মহিলা খুন
স্বামীর সঙ্গে ১০ বছর ধরে কোনও সম্পর্ক ছিল না

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান: বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের জেরেই কি খুন হতে হল মেমারির আদিবাসী মহিলাকে? মৃতার পরিবারের লোকজন সেই প্রশ্নই তুলছেন। কারণ, বছর দশেক ধরে স্বামী সাধন মাণ্ডির সঙ্গে কোনও সম্পর্ক ছিল না সুখী মাণ্ডির (৪৭)। কখনও বোনের বাড়ি, কখনও ভাইয়ের বাড়িতে থাকতেন তিনি। কাজের সূত্রে ভিনরাজ্যেও যেতেন। তারজন্য ব্যাঙ্কের পাসবই, আধার কার্ড ও ভোটার কার্ড সবসময় সঙ্গে রাখতেন। গত শনিবার সন্ধ্যায় ওই কাগজপত্র নিয়েই ভাইয়ের বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান তিনি। তারপর রবিবার সকালে জামালপুরের জৌগ্রামের জলেশ্বরতলার একটি বাঁশবাগান থেকে তাঁর ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার হয়। মাথা থেঁতলে খুন করায় মৃতার পরিচয় জানতে বেগ পেতে হয়। মঙ্গলবার বিকেলে অবশেষে পুলিস মৃতার পরিচয় জানতে পারে। 
পরিবার সূত্রে খবর, মেমারির পলসা গ্রামের বাসিন্দা সাধন মাণ্ডির দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন সুখীদেবী। দশ বছর ধরেই স্বামীর সঙ্গে তাঁর দূরত্ব তৈরি হয়। তাঁর দুই ছেলে স্বামীর সঙ্গেই থাকেন। তিনি কখনও বোনের বাড়ি, কখনও ভাইয়ের বাড়িতে থাকতেন। সুখীদেবী নিজে কখনও খেতমজুর ও ঠিকা শ্রমিকের কাজ করতেন। দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় একজনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মাঝেমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় তাঁরা একসঙ্গে গিয়ে থাকতেন। মৃতার ভাই ও পাড়া প্রতিবেশী এই সম্পর্কের ব্যাপারে জানলেও কার সঙ্গে সম্পর্ক ছিল সেটা তাঁরা জানতে পারেননি। এই সম্পর্কের টানাপোড়েনেই খুনের ঘটনা বলে তাঁদের অনুমান।
মৃতার ভাই বাবু মাণ্ডি বলেন, শনিবার সন্ধ্যায় দিদি বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। মাঝেমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় কাজে যাচ্ছে বলে বেরিয়ে যেত। তারপর দু’-তিনদিন পরে ফিরে আসত। এবার আর সেটা হয়নি। রবিবার একটি দেহ জামালপুর থেকে পাওয়া গিয়েছিল। মঙ্গলবার পুলিস গিয়ে আমাদের খবর দেয়। দেহ এসে চিনতে পারি। দিদি একজনের সঙ্গে মেলামেশা করত। সেদিন সন্ধ্যায় তার সঙ্গে বেরিয়েছিল কি না জানি না। তবে এই সম্পর্কের জেরেই খুন হতে পারে। দোষীর যেন উপযুক্ত শাস্তি হয়। মৃতার প্রতিবেশী বাবু হেমব্রম বলেন, গ্রামে ওকে নিয়ে অনেক আলোচনা হয়। কোনও একজনের সঙ্গে দীর্ঘদিন মেলামেশা করত। বিভিন্ন জায়গায় নাকি তাদের দেখা যেত। কিন্তু আমাদের গ্রামে ওই লোকটি কখনও ঢুকত না। এদিন সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে বেরিয়ে তার সঙ্গেই গিয়েছিল বলে মনে হচ্ছে। তারপর কী হয়েছে সেটা জানি না। বুধবার দুপুরে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গ থেকে সুখীদেবীর দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেয় পুলিস। এসডিপিও(দক্ষিণ) আমিনুল ইসলাম খান বলেন, কী কারণে এই ঘটনা, তার তদন্ত শুরু হয়েছে। পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে। কার কার সঙ্গে মেলামেশা ছিল, তাও খতিয়ে দেখা হবে।

23rd     September,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021