বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
উত্তরবঙ্গ
 

পাওয়ারগ্রিড প্রকল্পে জমি দিয়ে মেলেনি ক্ষতিপূরণ, অনশনে শতাধিক বাসিন্দা

সংবাদদাতা, মাথাভাঙা: মাথাভাঙা-১ ব্লকের বালাসিতে পাওয়ারগ্রিড প্রকল্পে জমি দেওয়ার পরও অর্থ না পেয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা অনির্দিষ্টকালের জন্য অনশনে বসেছেন। বাসিন্দাদের দাবি, তিনদিন ধরে অনশন চললেও এ ব্যাপারে প্রশাসনের আধিকারিকরা কোনও পদক্ষেপ নিচ্ছেন না। দাবি আদায় না হলে আগামিদিনে পাওয়ারগ্রিডের গেটে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হবে। মাথাভাঙা মহকুমা প্রশাসন জানিয়েছে, আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচন করে বিষয়টি মিটিয়ে নেওয়া হবে। 
স্থানীয় বাসিন্দা ভজন মণ্ডল বলেন, আমরা এলাকার বাসিন্দা। দীর্ঘদিন ধরে মানসাই নদীর চর এলাকার জমিতে চাষাবাদ করে সংসার চালাচ্ছিলাম। জমির পাট্টাও ছিল। পাওয়ারগ্রিড প্রকল্পে জমি নেওয়ার পর আমরা ক্ষতিপূরণ পাব এই প্রতিশ্রুতি পেয়েছিলাম। প্রকল্প হয়ে যাওয়ার পর প্রায় আড়াইশো লোককে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়। কিন্তু, যাঁরা ক্ষতিপূরণ পেলেন তাঁদের অধিকাংশই এলাকার বাসিন্দা নন। এ নিয়ে একাধিকবার মহকুমা ও জেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছি। কেউ দাবি শোনেননি। বাধ্য হয়ে মঙ্গলবার থেকে অনশন শুরু করি। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত অনশন চলবে। প্রয়োজনে পাওয়ারগ্রিডের গেটে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে আমরা অমরণ অনশনে বসব। 
মাথাভাঙার মহকুমা শাসক অচিন্ত্যকুমার হাজরা বলেন, পাওয়ারগ্রিডের জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কী সমস্যা আছে তা জানা নেই। এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে দেখব। প্রয়োজনে বাসিন্দাদের সঙ্গে আলোচন করে সমস্যার সমাধান করা হবে। 
বছর পাঁচেক আগে হাজরাহাট-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের বালাসিতে মানসাই নদীর চরে পাওয়ারগ্রিডের আর্থিং প্রকল্প করা হয়। এ জন্য ৫২০ বিঘা জমি অধিগ্রহণ করে পাওয়াগ্রিড। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, অধিগৃহীত জমির মধ্যে ১১০ জন বাসিন্দার পাট্টা ছিল। একই সঙ্গে চর এলাকা দখল করে আরও ১০০ পরিবার চাষবাদ করত। যাঁদের জমির দলিল ছিল তাঁদের মধ্যে ওই সময়ে মাত্র ২২ জন ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন। 
বাকিরা যেমন ওই সময়ে পায়নি তেমনি চাষবাদ করে যাঁদের জীবনজীবিকা চলত তাঁরাও কোনও ক্ষতিপূরণ পাননি। বাসিন্দাদের দাবি, পরবর্তীতে মহকুমা শাসকের মধ্যস্থতায় প্রায় আড়াইশো ব্যক্তি লক্ষাধিক টাকা করে ক্ষতিপূরণ পান। কিন্তু, যাঁরা পেয়েছেন তাঁদের অধিকাংশই ওই এলাকার বাসিন্দা ছিলেন না। পাঁচবছর ধরে প্রকৃত জমির মালিক এবং চাষাবাদ করা প্রায় ১০০ গ্রামবাসী বারবার বিভিন্ন সরকারি দপ্তর সহ প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করেছেন। তাঁদের দাবির বিষয়টিও জানিয়েছেন। তারপরও কোনও সুরাহা হয়নি। বাধ্য হয়ে পাওয়ারগ্রিড প্রকল্পের গেটের পাশে তাঁরা মঞ্চ বেঁধে অনশন শুরু করেছেন। 

3rd     December,   2021
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
 
হরিপদ
 
31st     May,   2021
30th     May,   2021